×
South Asian Languages:
ঘটনা প্রসঙ্গ, 6 ডিসেম্বর 2012
গাজা অঞ্চল নিয়ন্ত্রণকারী “হামাস” আন্দোলন প্রথম প্যালেস্টাইনী প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় গঠনের পরিকল্পনা করছে. এ সম্বন্ধে বলেছেন “হামাস” সরকারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ফাথি হামাদ. তাঁর কথায়, এ পদক্ষেপের হওয়া উচিত্ ইস্রাইলের “ধূম্র স্তম্ভ” অভিযানের উত্তর, যে অভিযানের ফলে ১৪০ জনেরও বেশি প্যালেস্টাইনী প্রাণ হারিয়েছে.
তুরস্ক-সিরিয়ার সীমান্তে ‘প্যাট্রিয়ট’ রকেট কমপ্লেক্সগুলি বসানোর উদ্দেশ্য পুরোপুরি রক্ষণাত্মক. আজ বৃহস্পতিবার বার্লিনে সংবাদ-সম্মেলনে এই কথা বলেছেন জার্মানীর প্রতিরক্ষামন্ত্রী টমাস দ্য মেজিয়ের. তিনি আরও যোগ করেছেন, যে সিরিয়ায় অস্ত্রশস্ত্র স্থানান্তরিত করার প্রক্রিয়ার উপর নজরদারী করার কোনো অভিপ্রায়ও ন্যাটো জোটের নেই. তিনি জানিয়েছেন, যে জার্মানী থেকে বড়জোর ৪০০ সৈনিক ঐ মিশনে অংশ নেবে.
মস্কো, একটা অনেক ফ্ল্যাট ওয়ালা বাড়ীর এক প্রবেশ পথ. ঢোকার দরজার সামনে একটা পোস্টার: “পৃথিবী ধ্বংসের দিনটি এগিয়ে
মার্কিনী নৌবাহিনীর আঘাত হানার বহু লক্ষ্য সম্বলিত পারমাণবিক বিমানবাহী জাহাজ “ডোয়াইট আইজেনহাওয়ার” নৌ-স্ট্র্যাটেজিক জাহাজ দলের নেতৃত্বে ভূমধ্যসাগরের পূর্ব অংশে পৌঁছেছে. তা রয়েছে সিরিয়ার উপকূলের একেবারে কাছে. এ জাহাজে রয়েছে ৭০টি ফাইটার-বোমারু বিমান, আর নাবিক, বৈমানিক ও নৌ-সৈনিকদের মোট সংখ্যা ৮ হাজার.
রাশিয়া “সিরিয়ার মিত্র গোষ্ঠীর” আরও একটি বৈঠকে অংশ নিতে যাচ্ছে না, যা হতে চলেছে ১২ই ডিসেম্বর মরক্কোর রাজধানী মারাকেশ শহরে.
আজ বৃহস্পতিবার আমেরিকার পাইলটবিহীন ড্রোন পাকিস্তানের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে তালিবানের সাথে যুক্ত সন্দেহে ৩ জন জঙ্গীকে খতম করেছে. স্থানীয় নিরাপত্তা সার্ভিসের এক প্রতিনিধি এই তথ্য দিয়েছেন. উত্তর ওয়াজিরস্তান, যে এলাকাকে তালিবান ও আল-কায়িদার মজবুত ঘাঁটি বলে ধরা হয়, সেখানে অবস্থিত মুবারক গ্রামে একটি বাড়ি ড্রোন থেকে রকেট নিক্ষেপ করে ধ্বংস করা হয়েছে.
“জবরদখল করা প্যালেস্টিনীয় ভুখন্ডে ইস্রায়েল নতুন জনবসতি গড়লে, সেটা হবে শান্তি প্রক্রিয়ায় ইতি টানা – বলেছেন প্যালেস্টিনীয় জাতীয় স্বায়ত্তশাসিত পরিষদের অন্যতম নেতা সঈদ আরিকাত. তিনি আরও যোগ করেছেন, যে সেক্ষেত্রে দুই রাষ্ট্রের সহাবস্থানকে ভিত্তি করে সমস্যার শান্তিপূর্ণ মিটমাট কোনোমতেই সম্ভব হবে না.
লন্ডনের নিউহ্যাম পাড়ার প্রশাসকেরা নগরীতে সেন্ট পল ক্যাথেড্রালের থেকে চতুর্গুণ বড় মসজিদ নির্মানের বিপক্ষে ভোট দিয়েছে. বি.বি.সি. এই সংবাদ পরিবেশন করেছে. প্রশাসকেরা এই যুক্তি দিয়েছেন, যে আবেদনপত্র মাফিক ১০ হাজার প্রার্থনাকারীদের একইসময়ে ঠাঁই দেওয়ার জন্য উপযুক্ত পরিবহন পরিকাঠামো এলাকায় নেই এবং যথেষ্ট পরিমানে কর্মনিয়োগের সুযোগও সেখানে অনুপস্থিত.
লেবাননের উত্তরাঞ্চলে ত্রিপোলি সহরের রাস্তায়, যেখানে আন্তঃধর্মীয় সঙ্ঘর্ষ চলছে, সৈন্যবাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে. কর্তৃপক্ষ আবার সশস্ত্র সুন্নী মিলিশিয়া এবং আলাউইটদের কাছে অগ্নি-সংবরণের দাবি করেছে. সংবাদ এজেন্সি ল্যুবনান আল-এন জানিয়েছে যে, আন্তঃসাম্প্রদায়িক দাঙ্গার ফলে এক দিনে মারা গেছে ছয়জন এবং ৫০ জনের উপর আহত হয়েছে. প্রতিবেশী সিরিয়ার ঘটনাবলি ক্রমাগত লেবাননের উত্তরাঞ্চলে সঙ্ঘর্ষমূলক পরিস্থিতিকে উস্কানি দিচ্ছে.
নিকট-প্রাচ্য মীমাংসার প্রক্রিয়ায় মধ্যস্থ "চতুষ্টয়ের" (রাশিয়া, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপীয় সঙ্ঘ)সাক্ষাত্ আগামী সপ্তাহে আয়োজন করার পরিকল্পনা আছে. এ সম্বন্ধে জানিয়েছেন মার্কিনী পররাষ্ট্র দপ্তরের সরকারী প্রতিনিধি মার্ক টোনার. তিনি সঠিক করে বলেন নি, কোথায় এ আলাপ-আলোচনা হবে. শনিবার রাশিয়ার উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী মিখাইল বগদানোভ “রুসিয়া আল-ইয়ায়ুম” টেলি-চ্যানেলকে প্রদত্ত ইন্টারভিউতে বলেন যে, মস্কো তাড়াতাড়ি এ সাক্ষাত্ আয়োজনের আহ্বান জানাচ্ছে.
ইরানে ভূমিকম্পের ফলে নিহতদের সংখ্যা ৮ জনে পৌঁছেছে. ১২ জনের উপর আহত হয়েছে, জানিয়েছে “রয়টার” সংবাদ এজেন্সি. ভূকম্পন নথিভুক্ত করা হয় বুধবার সন্ধ্যায় দক্ষিণ হোরসান প্রদেশের প্রশাসনিক কেন্দ্র বিরজেন্ড শহর থেকে ৮০ কিলোমিটার দূরে. ভূমিকম্পের কেন্দ্রবিন্দু ছিল ৫.৪ কিলোমিটার গভীরতায়.কয়েকটি গ্রামীণ বাড়ি ধ্বংস হয়েছে, বিদ্যুত্ সরবরাহের লাইন ছিঁড়ে গেছে.
সিরিয়ার খালেব (আলেপ্পো) শহরে মরক্কোর সম্মানিত কনস্যুল মোহাম্মেদ আল্যা আদ-দিন কিয়ালি-কে সশস্ত্র ব্যক্তিরা হত্যা করেছে. অপরাধীরা কূটনীতিজ্ঞকে গুলি করে, যখন তিনি বন্ধুদের সাথে হোটেল থেকে বের হচ্ছিলেন. এই হানার ফলে আরও একজন নিহত হয়েছেন, যিনি আদ-দিন কিয়ালি-র পাশে ছিলেন.
কায়রোয় রাষ্ট্রপতি মহম্মদ মুর্শির সমর্থক ও বিরোধীদের মধ্যে সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৫-এ গিয়ে দাঁড়িয়েছে. মিশরের স্বাস্থ্যরক্ষা মন্ত্রক প্রদত্ত তথ্য অনুযায়ী চারশোরও বেশি মানুষ রাষ্ট্রপতি ভবনের আশেপাশে আহত হয়েছে. সংবিধানে আনা নতুন সংশোধনী, যা মুর্শিকে অতিরিক্ত আইনগত ক্ষমতা দেবে, তার বিরূদ্ধে বিরোধীরা আন্দোলনে নেমেছে.
২৮টি সদস্য দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের পর্যায়ে ন্যাটো জোটের পরিষদ উত্তর কোরিয়ার দ্বারা পরিকল্পিত রকেট ক্ষেপণ উপলক্ষে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে. মন্ত্রীদের মতে, এটি হবে উত্তর কোরিয়ার দ্বারা গৃহীত আন্তর্জাতিক বাধ্যবাধকতার লঙ্ঘন এবং তাছাড়া তা এ অঞ্চলে শান্তি ও স্থিতিশীলতা বিপন্ন করবে.
ডিসেম্বর 2012
ঘটনার সূচী
ডিসেম্বর 2012