×
South Asian Languages:
ঘটনা প্রসঙ্গ, 24 সেপ্টেম্বর 2012
বিগত সপ্তাহের শেষে সারা ভারত জুড়ে হওয়া প্রতিবাদের ঢেউ প্রতিবেশী পাকিস্তান বা ঐস্লামিক বিশ্বের মতো রাগী ও হিংসাশ্রয়ী না হলেও আর কোন রকমের মানবিক ক্ষতি না করালেও, বেশ জোরদারই হয়েছে. প্রসঙ্গতঃ, বৃহত্ রাজনীতির জন্য এই প্রতিবাদের প্রভাব কিন্তু কিছু কম সংজ্ঞাবহ না হতেও পারে, যেমন স্ক্যান্ডাল সৃষ্টি করা সিনেমার কারণে মুসলমান দেশ গুলিতে ক্ষোভের ঢেউ তৈরী করেছে.
ভারতের উত্তর-পুবে ভীষণ বন্যার জন্য দশ লক্ষেরও বেশি লোক নিজেদের বাড়ি-ঘর ছেড়ে গেছে, সোমবার জানানো হয়েছে দেশের জরুরী পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ এজেন্সিতে. বর্তমানে আসাম রাজ্যের ২৭টি জেলার মধ্যে ১৮টি প্লাবিত. গত সপ্তাহে ১১জন জলে ডুবে মারা গেছে. বিপর্যয়ের এলাকায় মহামারীর বিপদ সম্বন্ধে ঘোষণা করা হয়েছে, জানানো হয়েছে রাজ্যের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে.
ভারত নিজের বিমান বাহিনীর বিকাশ এবং তাকে নতুন সামরিক প্রযুক্তিতে সজ্জিত করার জন্য ২০২২ সাল পর্যন্ত ৩৫০০ কোটি ডলার খরচ করতে চায়. ভারতের বিমানবাহিনীর সদর দপ্তরের উপ-অধিকর্তার উদ্ধৃতি দিয়ে এ সম্বন্ধে জানিয়েছে “টাইমস অফ ইন্ডিয়া” পত্রিকা.
মুসলমানদের আমেরিকা বিরোধী ও ফরাসী বিরোধী প্রতিবাদ আন্দোলন শক্তিশালী হয়ে উঠছে. ইন্টারনেটে দেওয়া “মুসলমানরা নির্দোষ” নামে সিনেমার ট্রেলার যে বিরোধের ঝড় তুলেছে, তা ফ্রান্সের “শার্লি এডবো” জার্নালে হজরত মহম্মদের ন্যক্কার জনক ব্যঙ্গচিত্র আরও জোরালো করে দিয়েছে. ফলে বিভিন্ন দেশে বিশ্বাসী মানুষের অনুভূতি রক্ষার জন্য করা প্রতিবাদের মিছিলে নিহতদের সংখ্যা বর্তমানে দশক ছাড়িয়েছে.
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ন্যাটো জোটের কাছে রাশিয়ার বহু প্রশ্ন আছে আফগানিস্তান থেকে ব্যাপক সৈন্য অপসারণের কথা ঘোষণার পরে সেখানে তাদের সামরিক ঘাঁটি বজায় রাখার পরিকল্পনা সম্পর্কে. এ সম্বন্ধে “ইন্টারফাক্স” সংবাদ এজেন্সিকে প্রদত্ত ইন্টারভিউতে বলেছেন আফগানিস্তান সম্পর্কে রাশিয়ার রাষ্ট্রপতির বিশেষ প্রতিনিধি জামির কাবুলোভ.
দামাস্কাসে বিরোধী পক্ষ “সিরিয়ার ত্রাণের জন্য” এক সম্মেলনের আয়োজন করেছিল. এর আয়োজক ছিল ন্যাশনাল কোঅর্ডিনেশন কমিটি, যেখানে অনেক গুলি মধ্যপন্থী বিরোধী সংস্থাও যোগ দিয়েছিল. এই বৈঠকের অংশগ্রহণকারীরা নিজেদের লক্ষ্য পূরণের জন্য কোন রকম হিংসার প্রয়োগ না করার সমর্থনে ঘোষণা করেছে. তাদের লক্ষ্য হল বর্তমানের প্রশাসনের বদলে গণতান্ত্রিক ও সংবিধান সম্মত রাষ্ট্র গঠন.
তুরস্কের সৈন্যবাহিনী গত ছুটির দিনগুলিতে সিরিয়ার সাথে সীমানায় আর্টিলারী সরঞ্জাম এবং আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা মোতায়েন করেছে, লিখেছে লেবাননের “ডেইলি স্টার” পত্রিকা. এ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে সিরিয়া-তুরস্ক সীমানায় সিরিয়ার সেনাবাহিনী ও সিরিয়ার সশস্ত্র বিরোধীদের মাঝে প্রখর সঙ্ঘর্ষের প্রত্যুত্তরে.
ইরান ইস্রাইলের উপর প্রতিষেধমূলক আঘাত হানতে পারে, যদি বিশ্বস্ত হয় যে, ইহুদী রাষ্ট্র ইস্লামিক প্রজাতন্ত্রের উপর আক্রমণের পরিকল্পনা করছে. এ সম্বন্ধে আল-আল্যাম টেলি-চ্যানেলকে প্রদত্ত ইন্টারভিউতে বলেছেন ইস্লামিক বিপ্লব রক্ষী বাহিনীর এক অধিনায়ক জেনারেল আমীর আলি হাজিজাদে.
চিন আফগানিস্তানে নিজেদের প্রভাব বৃদ্ধির জন্য খুবই সংজ্ঞাবহ এক কাজ করেছে. বিগত সপ্তাহান্তের দিন গুলিতে কাবুল শহরে, এক আগে থেকে না জানানো সফরে এসেছিলেন চিনের কমিউনিস্ট পার্টির কেন্দ্রীয় পরিষদের নেতা চ্ঝোউ ইউনকান. এটি ১৯৬৬ সালের পর থেকে চিনের এত উচ্চ পর্যায়ের কোনও নেতৃস্থানীয় ব্যক্তির আফগানিস্তানে প্রথম সফর.
দামাস্কাসে অনুষ্ঠিত বিরোধী শক্তিগুলির সম্মেলনের অংশগ্রহণকারীরা সিরিয়া সম্পর্কে রাষ্ট্রসঙ্ঘের বিশেষ প্রতিনিধি ব্রাহিমি-কে আহ্বান জানিয়েছে “আগ্রহী সমস্ত পক্ষের অংশগ্রহণে সিরিয়া সম্পর্কে আন্তর্জাতিক সম্মেলন” আয়োজনের. দামাস্কাস সাক্ষাতের শেষ বিবৃতিতে বলা হয়েছে, এমন সম্মেলনের উদ্দেশ্য – সিরিয়ার গণতান্ত্রিক ও বহুমুখী নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থায় উত্তরণের পথ তৈরি করা.
চীনের যুদ্ধজাহাজের দ্বারা জাপানের সীমানা লঙ্ঘন উপলক্ষে জাপান সোমবার বেজিংয়ের কাছে প্রতিবাদ জানিয়েছে. সংবাদ এজেন্সি রয়টার জানিয়েছে যে, চীনের তিনটি জাহাজ সোমবার বিতর্কিত সেনকাকু (দিয়াওইউইদাও) দ্বীপপুঞ্জের কাছে জল-এলাকায় প্রবেশ করে, যা জাপান নিজের ভূভাগীয় জল-এলাকা বলে বিবেচনা করে. জাপান সরকারের প্রদান সচিব ওসামু ফুজিমুরা সাংবাদিকদের জানান যে, জাপানী পক্ষ এ সীমানা লঙ্ঘন উপলক্ষে চূড়ান্ত প্রতিবাদ জানিয়েছে কূটনৈতিক চ্যানেলের মাধ্যমে.
তুরস্ক মনে করে যে, সিরিয়ার বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক জনসমাজের যেকোনো সিদ্ধান্ত রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের অনুমোদন ক্রমে গ্রহণ করা উচিত্. সেইজন্য সিরিয়া সঙ্কটের মীমাংসা বহু মাত্রায় নির্ভর করছে রাশিয়া ও চীনের ভবিষ্যত্ স্থিতির উপর, যারা নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্য. এ সম্বন্ধে “ওয়াশিংটন পোস্ট” পত্রিকাকে প্রদত্ত ইন্টারভিউতে বলেছেন তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী রেজেপ তাইইপ এর্দোগান.
রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ সম্পাদক বান কি মুন ইরানকে আহ্বান জানিয়েছেন “প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে, যাতে তার পারমাণবিক কর্মসূচির নিছক শান্তিপূর্ণ চরিত্র সম্বন্ধে বিশ্ব জনসমাজকে বিশ্বস্ত করা যায়”. এ সম্বন্ধে তিনি বলেন রবিবার নিউ-ইয়র্কে ইরানের রাষ্ট্রপতি মাহমুদ আহমাদিনেজাদের সাথে সাক্ষাতে, জানিয়েছে রাষ্ট্রসঙ্ঘের প্রেস-সার্ভিস.
সেপ্টেম্বর 2012
ঘটনার সূচী
সেপ্টেম্বর 2012