×
South Asian Languages:
ঘটনা প্রসঙ্গ, 7 আগষ্ট 2010
মস্কোর গোটা একসারি অভিযোগ আছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ব্যাপক নরহত্যার অস্ত্র প্রসার নিরোধ এবং অস্ত্রসজ্জার নিয়ন্ত্রণ সম্পর্কে নিজের বাধ্যবাধকতা কিভাবে পালন করছে সে বিষয়ে.আজ প্রকাশিত বিশেষ দলিলে রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় মার্কিনী পক্ষের দ্বারা একসারি চুক্তি লঙ্ঘনের ঘটনা উল্লেখ করেছে.
রাশিয়ার রেলপথ কোম্পানি আজ থেকে রপ্তানির জন্য শস্য বোঝাই বন্ধ করেছে. রপ্তানির নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে গম, বার্লি, রাই, ভুট্টা এবং তাছাড়া গম অথবা গম-রাইয়ের ময়দার ক্ষেত্রে. এ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে সাময়িকভাবে বিদেশে শস্য বিক্রি স্থগিত রাখা সম্পর্কে সরকারের নীতির কাঠামোতে.ভীষণ অনাবৃষ্টির জন্য ফসল কম হওয়ার আশা এবং আভ্যন্তরীন বাজার রক্ষার প্রয়োজনে তা করা হয়েছে.
ইয়েমানে ঘাঁটি গেড়ে থাকা “ আল-কাইদা ” সন্ত্রাসবাদী জালের শাখা হর্মুজ প্রণালীতে তৈলবাহী ট্যাঙ্কারে নতুন আক্রমণের ভয় দেখাচ্ছে.ইস্লামপন্থীদের সাইট, যার উদ্ধৃতি দিচ্ছে স্পুতনিক টেলিচ্যানেল, শাখার বিবৃতি প্রকাশ করেছে, এ খবরের পরে যে সংয়ুক্ত আরব এমীরতন্ত্রের এল-ফুজেইরা থেকে জাপানের এম স্টার ট্যাঙ্কার রওনা হয়েছে, যার সামান্য ক্ষতি হয়েছিল ২৮শে জুলাই হাতবোমা ফাটানোর ফলে.
ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শ্রী পি. চিদাম্বরম জম্মু ও কাশ্মীর রাজ্যে বিশৃঙ্খলা আয়োজনে পাকিস্তানের ভূমিকা বাদ দেন না. এ সম্বন্ধে আজ তিনি বলেছেন প্রজাতন্ত্রের পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষে নিজের বক্তৃতায়. তিনি জোর দিয়ে বলেন, “ মনে হচ্ছে, পাকিস্তান জম্মু ও কাশ্মীর রাজ্যের ঘটনাবলিতে হস্তক্ষেপ না করার নীতি থেকে সরে এসেছে.
ফরাসী বিশেষজ্ঞরা আজ রাশিয়ায় আসছেন আগুনের বিরুদ্ধে সংগ্রামে সাহায্যের পরিমাণ নির্ধারণের জন্য. এমন সাহায্য দানের অভিপ্রায়ের খথা ঘোষণা করেছেন রাষ্ট্রপতি নিকোল্যা সার্কোজি. আজই রাশিয়ায় রওনা হচ্ছে পোল্যান্ডের উদ্ধারকর্মীদের দল. এই বিশে, ব্যাটালিয়নে রয়েছে ১৬০ জন, সেই সঙ্গে দমকল-কর্মীরা, জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ইয়েঝি মিল্লার. অকুস্থলে পোল্যান্ডের সহকর্মীদের কাজের সঙ্গতি সাধন করবে রাশিয়ার বিপর্যয় নিরসন বিভাগের কর্মীরা.
রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি দমিত্রি মেদভেদেভ ভারতের নেতৃবৃন্দকে সমবেদনা জ্ঞাপন করেছেন দেশের উত্তরাঞ্চলে ভীষণ বন্যার জন্য, যার ফলে বহু লোক মারা গিয়েছে. ভারতের রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী শ্রীমতী প্রতিভা পাতিল এবং শ্রী মনমোহন সিংয়ের কাছে তারবার্তায় তিনি নিহতদের পরিবারগুলিকে সমবেদনা ও সমর্থন জানানোর অনুরোধ করেন. ভীষণ বৃষ্টির জন্য দেখা দেওয়া বন্যায় মারা গেছে ৫৯ জন, ৩০০ জনেরও বেশি আহত হয়েছে.
রাশিয়ায় দাবানলের ফলে নিহতদের সংখ্যা বেড়েছে, সরকারী তথ্য অনুযায়ী, ৫২ জন পর্যন্ত. দেশের ইউরোপীয় অংশে আগুনে ধ্বংস হয়েছে প্রায় ২ হাজার বাড়ি, গৃহহারা হয়েছে সাড়ে ৩ হাজার লোক. বিশেষ করে জটিল পরিস্থিতি গড়ে উঠেছে বেলগোরদ, ভরোনেঝ. ইভানোভো, লিপেত্স্ক, মস্কো, নিঝেগোরদ, রিয়াজান ও তম্বোভ প্রদেশে এবং মর্দোভিয়া প্রজাতন্ত্রে. বিপর্যয় নিরসন মন্ত্রণালয় আগুন নেভানোর কাজে স্বেচ্ছাসেবকদের আহ্বান জানিয়েছে.
আগষ্ট 2010
ঘটনার সূচী
আগষ্ট 2010