×
South Asian Languages:
অর্থনৈতিক উন্নয়ন, 21 জানুয়ারী 2011
রাশিয়া আফগানিস্তানে ফিরে আসছে. কিন্তু সামরিক শক্তি নিয়ে নয়, অর্থনীতি নিয়ে. আফগান নেতা হামিদ কারজাই ও রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি দিমিত্রি মেদভেদেভের মস্কো বৈঠকের এটাই প্রধান ফল.     মস্কোতে সরকারি সফর কারজাই এই প্রথমবার এসেছেন. উচ্চ পর্যায়ের এই সাক্ষাত্কার রুশ – আফগান সম্পর্কের এক নতুন অধ্যায়ের সূচনা করল.
রাশিয়া ও আফগানিস্তানের আর্থ বাণিজ্যিক সম্পর্ক আরও ঘনিষ্ঠ হওয়া দরকার – এই বিষয়ে ঘোষণা করেছেন মস্কোতে রাশিয়া সফর রত আফগান রাষ্ট্রপতি হামিদ কারজাই এর সঙ্গে আলোচনা শেষ হওয়ার পরে রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি দিমিত্রি মেদভেদেভ. তিনি উল্লেখ করেছেন যে, আলোচনার মধ্যে দুই দেশের ঐতিহাসিক সম্পর্ককে পুনরুজ্জীবিত করার কথা হয়েছে.
আন্তর্জাতিক জ্বালানী সংস্থা নিজেদের মূল্যায়ণ অনুযায়ী ঘোষণা করেছে যে, আগামী আড়াইশো বছরের মত প্রাকৃতিক গ্যাস বিশ্বে রয়েছে. এই রিপোর্টে বলা হয়েছে বর্তমানে মাটির গভীর থেকে প্রাকৃতিক খোসার মধ্য থেকে গ্যাস উত্পাদনের আধুনিক প্রযুক্তি গ্যাস সংক্রান্ত শিল্পের সম্ভাবনা কে বাড়িয়ে দিয়েছে.
আফগানিস্তান রাশিয়াকে দেখে এক গুরুত্বপূর্ণ সহযোগী দেশ হিসাবে এবং বিগত কয়েক বছরে সম্পর্কের যথেষ্ট উন্নতি হয়েছে. আফগানিস্তানের রাষ্ট্রপতি মস্কোতে রাশিয়ার কূটনৈতিক একাডেমীর ছাত্রদের সামনে বক্তৃতা দিতে গিয়ে এই ঘোষণা করেছেন. তাঁর কথামতো, রাশিয়া আফগানিস্তানের সঙ্গে শুধু ঐতিহাসিক বা ভৌগলিক ভাবেই কাছের দেশ নয়, এমনকি অর্থনৈতিক ভাবেও.
রাশিয়া আফগানিস্তানের পুনর্নির্মাণের কাজে অংশ নিতে চেয়েছে, এই দেশের সঙ্গে অর্থনৈতিক সম্পর্কের উন্নতি করতে চায়. এই পরিকল্পনা গুলি দুই দেশের প্রশাসনের মধ্যে সহযোগিতার চুক্তিতে রয়েছে, যা আজ মস্কোতে দুই দেষের রাষ্ট্রপতি দিমিত্রি মেদভেদেভ ও হামিদ কারজাই এর আলোচনার পরে স্বাক্ষরিত হতে চলেছে.
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30 31
জানুয়ারী 2011
ঘটনার সূচী
জানুয়ারী 2011
6
8
9
11
15
16
22
23
25
26
27
29
30