×
South Asian Languages:
রাশিয়া- সংস্কৃতি, ডিসেম্বর 2010
ভারত শিল্প কলার প্রতি আগ্রহ জাগায়. এ সম্বন্ধে অনেক শিল্পীই বলেছেন, সঙ্গীতকার, অভিনেতা সকলেই. রাশিয়ার জাতীয় শিল্পী ও মস্কোর রোয়েরিখ নামাঙ্কিত শিল্প ক্লাবের প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির আনিসিমভ এখন প্রচুর রঙ ও ছবি আঁকার কাগজ কিনছেন. জানুয়ারী মাসে তিনি তাঁর বন্ধুদের সঙ্গে ভারতে যাওয়ার পরিকল্পনা করেছেন. এই দেশে তাঁর কত বারের এটা সফর হতে চলেছে, তা বলা দুষ্কর.
বাঘের বছর শেষ হতে চলল. পৃথিবীতে এই বছর মানব সমাজ ডোরাকাটা হিংস্র জন্তু টির জন্য কম কিছু করে নি. ইতিহাসে প্রথমবার আন্তর্জাতিক ব্যাঘ্র সম্মেলন হয়েছে. এই সম্মেলন যে সমস্ত দেশে বাঘ এখনও স্বাভাবিক বন্য পরিবেশে রয়েছে, তাদের প্রশাসনের সমবেত কাজকর্মের সুরের একটা ঐক্যতান হয়েছে.
খারাপ নয়. শেষ হতে চলা বছরে রাশিয়ার অর্থনৈতিক উন্নতি সম্বন্ধে যে রকম মূল্যায়ণ করেছেন রাষ্ট্রপতি     দিমিত্রি মেদভেদেভ, তাকে এক কথায় এই রকমই বলা যেতে পারে. মূল বিষয় হল যে, সঙ্কটের পরিণতি অতিক্রম করা সম্ভব হয়েছে ও ভাল সম্ভাবনার দিকে বের হওয়া গিয়েছে, ২০১০ সালের অর্থনৈতিক উন্নতির বিষয় নিয়ে আয়োজিত অধিবেশনে রাষ্ট্রপতি এই ঘোষণা করেছেন.
রাশিয়ার ত্রাণ কর্মীদের জন্য ২০১০ সাল ছিল বিশেষ বছর. ২৭ শে ডিসেম্বর সবচেয়ে পুরুষত্ব প্রমাণ যোগ্য ও ঝুঁকি জড়িত পেশার লোকেরা বিপর্যয় নিরসন মন্ত্রণালয় গঠনের ২০ বছর পালন করছেন. কুড়ি বছরের ত্রাণ ও উদ্ধারের কাজে এই মন্ত্রণালয়ের কর্মীরা মনে করেন দশ লক্ষেরও বেশী প্রাণ, যা তাঁরা বাঁচাতে পেরেছেন, সেটাই প্রধান সাফল্য.
পশ্চিমের গ্রিগোরিয়ান ক্যালেণ্ডার অনুযায়ী বিশ্বের প্রায় এক হাজার কোটিরও বেশী লোক আজ বড়দিন পালন করছেন. ল্যুথেরান, প্রোটেস্টান্ট ও কিছু অর্থোডক্স গির্জার লোকেরাও এই উত্সবে সামিল হয়েছেন. রুশ, সের্বিয়া, জেরুজালেম ও জর্জিয়ার খ্রীষ্ট ধর্মাবলম্বী লোকেদের অবশ্য এই উত্সব হবে ৭ই জানুয়ারি, জুলিয়ান বা বাইজানটেনিয়ান ক্যালেণ্ডার অনুযায়ী. ক্যাথলিক দুনিয়ার প্রধান উত্সবের কেন্দ্র রোমের ভ্যাটিকান.
রাশিয়ার ভেলিকি উস্তুগ নামের জায়গায় নিজের বাড়ী থেকে এসে রাজধানী মস্কোয় দেশের প্রধান ফার গাছে তুষার দাদু আজ উত্সবের আলো জ্বালাবেন তাঁর যাদু দণ্ডের ছোঁয়া দিয়ে. শীতের এই রূপকথার চরিত্রের দুটি প্রধান কাজ, এক মস্কোর ছোট্ট বাচ্চাদের সঙ্গে দেখা করা আর ফার গাছে আলো জ্বালানো.
১. রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি দিমিত্রি মেদভেদেভ সরকারি সফরে ভারত গিয়েছিলেন. প্রথম যাঁর সঙ্গে তিনি দেখা করেছিলেন, তিনি ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রী এস. এম. কৃষ্ণ. ২. দিমিত্রি মেদভেদেভের ভারত সফরের সময়ে দিল্লীতে প্রায় তিরিশটি রাশিয়া ভারত দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক নিয়ে দলিল স্বাক্ষরিত হয়েছে, যার মধ্যে খনিজ তেল ও গ্যাস, পারমানবিক শক্তি বিষয়ে সহযোগিতা ও অন্য বহু বিষয়ে. ৩.
মুম্বাই শহরে সফরে এসে রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি দিমিত্রি মেদভেদেভ ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ টেকনলজির ছাত্রছাত্রী ও শিক্ষকদের সঙ্গে দেখা করেছেন. রাশিয়ার দেশ নেতা অংশতঃ উল্লেখ করেছেন যে, "ন্যাটো জোটের উচিত মস্কোর সঙ্গে রকেট প্রতিরোধ ব্যবস্থা সংক্রান্ত সমস্ত প্রশ্নে সহমত হওয়া.
রাশিয়া ও ভারতের সম্পর্ক বর্তমানে সুবিধাজনক স্ট্র্যাটেজিক সহযোগিতার স্তরে উন্নীত হতে পেরেছে বলে রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি দিমিত্রি মেদভেদেভ ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংহ নয়া দিল্লী শহরে দ্বিপাক্ষিক আলোচনা শেষ হওয়ার পরে এক যৌথ ঘোষণাতে সাংবাদিক সম্মেলনে বলেছেন. রাশিয়া ও ভারতের মধ্যে সহযোগিতার বিষয়ে নূতন সম্ভাবনাময় দিক প্রতি বছরের সাথেই আরও উদ্ভূত হচ্ছে.
রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি দিমিত্রি মেদভেদেভ সোমবার রাত্রে নয়া দিল্লীতে সরকারি সফরে এসে পৌঁছেছেন. মঙ্গলবার থেকেই রুশ দেশের প্রধান নয়া দিল্লী, আগ্রা, মুম্বাই ইত্যাদি জায়গায় সফর করবেন, যেখানে তিনি শুধু আলোচনাই নয়, বরং বিশ্বের একটি অন্যতম আশ্চর্য “তাজমহল” ও “ফিল্ম স্টুডিও বলিউড” দেখতেও যাবেন.
বিশ্বের বহু দেশেই বেশ কয়েক শ বহু দূর প্রসারিত অনুষ্ঠান – এই ছিল বিদায়ী বছরে "রুশ পৃথিবী" তহবিলের কাজের ফল. রাশিয়ার এই সামাজিক সংস্থা, বিদেশে রুশ ভাষা ও সংস্কৃতির প্রসারের জন্য তৈরী করা হয়েছে. সংস্থার উদ্ভব হওয়ার পরে গত তিন বছরে প্রচুর আন্তর্জাতিক স্বীকৃতিও মিলেছে.
রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি দিমিত্রি মেদভেদেভ ভারতে তিন দিনের সফরে চলেছেন. সূচীতে রয়েছে ভারতের রাষ্ট্রপতি শ্রীমতী প্রতিভা পাতিলের সঙ্গে আলোচনা ও সাক্ষাত্কার, প্রধানমন্ত্রী ও এমনকি বিরোধী পক্ষের নেতার সঙ্গেও সাক্ষাত্কার. এছাড়া রাশিয়ার দেশ নেতা আগ্রা শহরে একাধারে কবর স্থান ও মসজিদ "তাজ মহল" দেখবেন, মুম্বাই শহরে তাঁর কথা রয়েছে সেখানকার ছাত্রদের সঙ্গে দেখা করার ও ভারতের বিখ্যাত সিনেমা স্টুডিও এলাকা "বলিউড" যাওয়ার.
ভারতস্থ রুশ রাজদূত আলেকজান্ডার কাদাকিন রুশ ভারত সম্পর্ককে বিশেষ সুবিধা সহ সম্পর্ক বলে নাম দিয়েছেন. আমাদের সাংবাদিক নাতালিয়া বেন্যুখ কে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে তিনি এই কথা বলেছেন. নাতালিয়া দিল্লী গিয়েছিলেন রেডিও রাশিয়ার সারা ভারত শ্রোতা ক্লাবের সম্মেলনে অংশ নিতে. তাঁদের কথাবার্তার বিষয় হয়েছিল রুশ রাষ্ট্রপতি দিমিত্রি মেদভেদেভের আসন্ন ভারত সফর.
ভ্লাদিমির পুতিনের উদ্দেশ্য কুড়ি লক্ষেরও বেশী প্রশ্ন পৌঁছেছিল. এই বৃহস্পতিবারে প্রধানমন্ত্রী নবম বার সরাসরি সম্প্রচারের সময়ে রুশ লোকেদের সঙ্গে কথা বলেছেন. চার ঘন্টা ২৫ মিনিট সময়ে প্রধানমন্ত্রী জনগনের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ৮৮ টি প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন. ভ্লাদিমির পুতিন মনে করেন যে, রাশিয়ার অর্থনীতি সঙ্কট পূর্ব অবস্থায় পৌঁছবে ২০১২ সালের প্রথম অর্ধের আগেই.
রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে সরাসরি কথাবার্তা আজ পুরো বারোটার সময়ে শুরু হয়ে চার ঘন্টা ২৫ মিনিট ধরে চলেছে. এই সময়ের মধ্যে দেশের সরকার প্রদান ৮৮টি প্রশ্নের উত্তর দিতে পেরেছেন.     বেশীর ভাগ প্রশ্ন ছিল সামাজিক বিষয় নিয়ে, যেমন, পেনশন ও ভাতা বৃদ্ধি, জীবনযাত্রার মান, সামাজিক ও চিকিত্সা ব্যবস্থার পরিষেবা. ব্যক্তিগত প্রশ্নও কিছু কম ছিল না.
বৈজ্ঞানিকেরা বিপদের সঙ্কেত দিয়েছেন বিশ্বের গড় তাপমাত্রা ক্রমাগত বৃদ্ধি পাচ্ছে. গত একশ বছরে এই বৃদ্ধি হয়েছে ০, ৪৬ ডিগ্রী. বিশ্বের তাপমাত্রা যদি ২ ডিগ্রী বাড়ে – বিশ্বে প্রত্যাবর্তনের অযোগ্য পরিবর্তন ঘটতে চলেছে. যাতে এই চরম পরিণতির চিত্রনাট্য বাস্তবায়িত না হতে পারে, একবিংশ শতাব্দীর মধ্য ভাগে সর্বমোট পরিবেশ দূষণের পরিমানকে কমিয়ে ১৯৯০ সালের তুলনায় অর্ধেক করতেই হবে.
রাশিয়াতে অনেক গুলি মহিলাদের দাতব্য স্বাস্থ্য কেন্দ্র তৈরী করা হবে. প্রথমটি আগামী বছরই সেন্ট পিটার্সবার্গে কাজ করতে শুরু করবে এবং সেখানে মহিলাদের ক্যান্সার রোগের বিস্তার পূর্ব নির্ধারণ এবং সাবধান সঙ্কেত দেওয়া হবে. এই সম্বন্ধে বিশ্বের বিখ্যাত ক্যান্সার বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে সাক্ষাত্কারের সময়ে বলেছেন সামাজিক – সাংস্কৃতিক উদ্যোগ তহবিলের প্রেসিডেন্ট ও রাশিয়ার রাষ্ট্রপতির সহধর্মিনী স্ভেতলানা মেদভেদেভা.
দিমিত্রি মেদভেদেভ ও ভ্লাদিমির পুতিনের জোড় কতদিন টিকবে? আজকের দিনের রাশিয়াতে প্রশাসন কি সফল? এই প্রশ্ন গুলির উত্তর দিয়েছেন রাশিয়ার জনসাধারন, যাঁরা সারা রাশিয়া সামাজিক মত অনুসন্ধান কেন্দ্র আয়োজিত সামাজিক পরিসংখ্যানে অংশ নিয়েছিলেন.
মোবাইল ফোনের বিষয় নিয়ে বিশ্ব বিখ্যাত WSA-Mobile-2010 এ তিনটি বিভাগে রাশিয়ার প্রকল্প পুরস্কার পেয়েছে. আবু দাবি শহরে ৬ই ডিসেম্বর বিজয়ীদের পুরস্কার দেওয়া হয়েছে এক অনুষ্ঠানে. রাশিয়ার প্রকল্প গুলির মধ্যে রিয়া নোভস্তি সংস্থার জনগনের সঙ্গে সক্রিয় যোগাযোগের প্রকল্প – তুমি সাংবাদিক, এম তে এস মোবাইল যোগাযোগ ব্যবস্থা সংস্থার ওমলেট.
১০ই ডিসেম্বর আন্তর্জাতিক ফুটবল দিবস. আজ এটা বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলা. আন্তর্জাতিক ফুটবল ফেডারেশন - ফিফা প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী ফুটবল বর্তমানে খেলে ২৫ কোটি লোক. বিশ্বে নথিভুক্ত রয়েছে ১৫ লক্ষ দল. ফুটবল যে একটা বিশ্বব্যাপী ঘটনা, তা প্রমাণ করে একটা বাস্তব তথ্য যে, ফিফা সংস্থার সদস্য দেশের সংখ্যা রাষ্ট্রসংঘের সদস্য দেশের সংখ্যার চেয়েও বেশী.
আগের
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30 31
ডিসেম্বর 2010
ঘটনার সূচী
ডিসেম্বর 2010
4
5
6
8
11
12
13
14
18
19
24
26
28
30