×
South Asian Languages:
রাশিয়া- সংস্কৃতি

নতুন বছর এগিয়ে আসছে – ভবিষ্যত উজ্জ্বল আশার এক অপরূপ উত্সব. ১লা জানুয়ারী শুরু হওয়ার আগে রূপকথার রাতে ৩১শে ডিসেম্বর আমরা সকলে, আমাদের জাতীয় পরিচয়, সামাজিক অবস্থান ও রাজনৈতিক পছন্দ ভুলে ঐক্যবদ্ধ এক স্বপ্ন নিয়েই বাঁচি – শুরু হওয়া বছরে আর একটু বেশী আনন্দিত হতে পারার জন্যই.

রাশিয়াতে নতুন বছরের উত্সব পনেরোশ শতকের শেষে পালন করা শুরু হয়েছিল, কিন্তু তা করা হত ১লা জানুয়ারী নয়, ১লা সেপ্টেম্বর. এই দিনটিকে স্থির করেছিলেন মস্কোর তখনকার মহান রাজা তৃতীয় ইভান. তারপর থেকে হেমন্তের প্রথম দিনে মস্কো ক্রেমলিনের প্রধান চত্বরে জনগন জমা হ’তেন, সম্রাট ও তাঁর পারিষদরা উত্সবের পোষাকে প্রাসাদ থেকে বের হ’তেন. অর্থোডক্স গির্জার প্রধান প্যাট্রিয়ার্ক ধর্মীয় প্যারেডের নেতৃত্ব দিতেন আর সেই প্যারেডে থাকত ক্রুশ কাঠ, ধর্মীয় পতাকা ও আইকন. সম্রাটের কাছে পৌঁছে তিনি সম্রাটের সাফল্য কামনা করতেন ও তাঁর স্বাস্থ্য কামনা করতেন. তারপরে শুরু হত উত্সবের উপাসনা, সেই উপাসনা শেষ হলে সম্রাট ও প্যাট্রিয়ার্ক উপস্থিত ধর্মীয় নেতা ও রাজন্য বর্গের কাছ থেকে সম্বর্ধনা পেতেন.

লমনোসভ নামাঙ্কিত মস্কো রাষ্ট্রীয় বিশ্ববিদ্যালয় ব্রিকস রাষ্ট্রগুলির মধ্যে সেরা ১০০টি উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের রেটিংয়ে তৃতীয় স্থান পেয়েছে. প্রথম একশটির মধ্যে রাশিয়া থেকে প্রায় কুড়িটি উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠান রয়েছে. ব্রাজিল, রাশিয়া, ভারত, চিন ও দক্ষিণ আফ্রিকার বিশ্ববিদ্যালয়গুলিকে নিয়ে এই তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে, আর তার মূল্যায়ণ করা হয়েছে, সেই পদ্ধতি অনুসারে, যা বিশ্বের সমস্ত উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলিকে মূল্যায়ণ করার জন্য QS রেটিংয়ে ব্যবহার করা হয়ে থাকে.

রাশিয়ার সঙ্গে মৈত্রী ও সহযোগিতার ক্ষেত্রে বিশাল অবদান রাখার জন্য ও বিজ্ঞান, সংস্কৃতি ও সক্রিয় ভাবে সমাজসেবা করার জন্য তিন প্রখ্যাত ভারতীয় নাগরিককে মৈত্রী পদক দিয়ে সম্মানিত করেছে রাশিয়া. এই সংক্রান্ত নির্দেশ রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন ৬ই ডিসেম্বর স্বাক্ষর করেছেন. মৈত্রী পদক প্রাপ্ত ব্যক্তিরা হলেন ভারতীয় লোকসভার সদস্য মুরলী মনোহর যোশী, যৌথ রুশ-ভারত সংস্থা ব্রামোস এয়ারো স্পেসের কর্তা এ. এস. পিল্লাই ও পুশকিন পদক দিয়ে সম্মানিত করা হয়েছে আন্তর্জাতিক ভারতীয় সংস্কৃতি কেন্দ্রের ডিরেক্টর লোকেশ চন্দ্রকে.

রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন আরও একবার রাশিয়ার জনগনের নির্বাচনে বছরের সেরা ব্যক্তি হয়েছেন, তিনি ১৯৯৯ সাল থেকেই জনপ্রিয়তার শিখরে রয়েছেন বলে জানিয়েছে সামাজিক মতামত তহবিল.

রাশিয়ার তেরঙ্গা পতাকা ১১ই ডিসেম্বর পুনর্জন্মের পরে বিংশতিতম জয়ন্তী পালন করছে. সব মিলিয়ে রাশিয়ার তেরঙ্গা জাতীয় প্রতীকের ইতিহাস শুরু হয়েছিল সেই সপ্তদশ শতকের শেষ থেকে.

রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় পতাকা সংক্রান্ত ধারা ১১ই ডিসেম্বর ১৯৯৩ সালে স্বাক্ষর করেছিলেন রাষ্ট্রপতি বরিস ইয়েলতসিন. সেই নির্দেশ অনুযায়ী দেশের সরকারি প্রতীক হয়েছিল সাদা-নীল-লাল রঙের পতাকা. তা বদলে দিয়েছিল সেই লাল পতাকা, যা সামনে নিয়ে তার আগের সত্তর বছর ধরে সোভিয়েত সমাজবাদী প্রজাতন্ত্রগুলির সংঘ বিশ্বে পরিচিত হয়েছিল. সেই জটিল সময়ে তেরঙ্গা পতাকা গ্রহণ করা একেবারেই হঠাত্ করে করা হয় নি, এই রকম বিশ্বাস নিয়ে ঐতিহাসিক সম্ভাবনা তহবিলের বিশেষজ্ঞ পাভেল স্ভিয়াতেনকভ বলেছেন:

মস্কোতে প্রায় শ’খানেক মুসলমান ধর্মীয় নেতা রাশিয়া বিভিন্ন এলাকা, স্বাধীন রাষ্ট্রসমূহ এবং বিভিন্ন দূরের দেশ থেকে এসেছিলেন, যাতে মুসলমানদের জন্য বাস্তব প্রশ্নগুলি নিয়ে আলোচনা করা সম্ভব হয়. তার মধ্যে চরমপন্থা ও কট্টরপন্থী মতবাদের বিরুদ্ধে মোকাবিলা করার প্রশ্নও ছিল. আর ছিল সোভিয়েত দেশ পরবর্তী এলাকায় ঐস্লামিক জ্ঞানের প্রসার, যুব সমাজের বিবেক সঙ্গত শিক্ষা, রাশিয়ার ধর্মীয় মাদ্রাসাগুলোর উন্নয়নের প্রসঙ্গ.

জিনের মধ্যে থাকা উচ্চ স্তরের বিবেক সংক্রান্ত মূল্যবোধ রুশ জনগনের বীরত্বের ভিত্তি – এই কথা বলেছেন রুশ রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন ক্রেমলিনে দেশের বীর দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে.

“আমরা সেই সমস্ত লোকদের আজ সম্বর্ধনা দিচ্ছি, যাঁরা সামরিক কাজকর্মে বিশেষ করে পার্থক্য দেখাতে পেরেছেন, যারা রাশিয়ার নিরাপত্তা রক্ষার জন্য খুবই বড় রকমের অবদান রেখেছেন, পুরুষোচিত কর্মের মাধ্যমে”, - বলেছেন পুতিন. এই অনুষ্ঠানে যাঁরা ছিলেন, তাঁদের প্রতি পুতিন বিশেষ করে উল্লেখ করেছেন যে, তাঁদের জন্য সবচেয়ে বড় পুরস্কার হল লড়াই করতে পারা, সৃষ্টি করতে পারা ও রাশিয়ার জন্যেই কাজ করতে পারা.

১২ই ডিসেম্বর রাশিয়ার সংবিধান দিবসে রুশ রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন রাষ্ট্রীয় সভার প্রতি তাঁর বাণী নিয়ে ভাষণ দেবেন. ত্রয়োদশ বাত্সরিক রাষ্ট্রপ্রধানের ভাষণ, দেশের সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য রাজনৈতিক ও সামাজিক নেতৃ বৃন্দের প্রতি উদ্দেশ্য করে দেওয়া হল, প্রকাশ্যে চলে যাওয়া বছরের একটি খতিয়ান দেওয়া ও তারই সঙ্গে আসন্ন বছরের জন্য কর্মসূচী স্থির করা. কিন্তু এবারে রাষ্ট্রপতি সাবধান করে দিয়েছেন যে, উপস্থিত ব্যক্তিদের সামনে আরও দীর্ঘ সময়ের উপযুক্ত কর্মসূচী প্রকাশ করবেন.

দিল্লী শহরে শনিবারে "রেডিও রাশিয়ার" অনুষ্ঠিত সম্মেলনে দক্ষিণ এশিয়ার পাকিস্তান ও ভারতীয় বিভাগের প্রধান ইরিনা ম্যাক্সিমেঙ্কো বলেছেন যে, “আমরা ভারতীয় শ্রোতাদের জন্য লেভ তলস্তয়ের যুদ্ধ ও শান্তি অনুসরণে অনুষ্ঠান তৈরী করছি, যাঁর কীর্তির সঙ্গে ভারতীয়রা পরিচিত”. এই অনুষ্ঠান করা হবে লেভ নিকোলায়েভিচ তলস্তয়ের ১৮৫তম জয়ন্তী উপলক্ষে.

শুরু করছি রুশী কথ্য ভাষায় আমাদের পরবর্তী পাঠ.

প্রিয় বন্ধুরা, আমাদের রুশী ভাষা শিক্ষার সপ্তদশ ক্লাসে আমরা আপনাদের সাদর আমন্ত্রণ জানাচ্ছি.

ЗДРАВСТВУЙТЕ! ПРИВЕТ,ДРУЗЬЯ!

Здравствуйте!

ইন্টারনেট ক্ষেত্রের উপরে নিয়ন্ত্রণ, উচ্চ গুণমান সম্পন্ন ডিজিট্যাল টেলিভিশন. মূল্যের বিনিময়ে বৈদ্যুতিন সংবাদ মাধ্যম, প্ল্যানশেট কম্পিউটারে টেলিভিশনের সিরিয়াল – একই রকমই হতে চলেছে নতুন মিডিয়া বাস্তব. এই রকমের একটা সিদ্ধান্তে পৌঁছেছেন জাতীয় টেলিভিশন ও রেডিও সম্প্রচারের সপ্তদশ সম্মেলনে রাশিয়ার নেতৃস্থানীয় সংবাদ মাধ্যমগুলির প্রধানরা.

রাশিয়ার প্রাচ্য অনুসন্ধান বিষয়ের বৈজ্ঞানিক কেন্দ্রগুলি সারা বিশ্বেই উচ্চ পর্যায়ের মর্যাদা পেয়ে এসেছে – তার মধ্যে প্রাচ্যের দেশগুলিতেও. এই মর্যাদার ভিত্তি স্থাপিত হয়েছে রাশিয়ার বিজ্ঞানীদেরই বহু শতকের শ্রমসাধ্য কাজের ফলে.

তাঁদের অনেকেরই উত্তরাধিকার এখনও বৈজ্ঞানিক মহলে সমাদৃত হয়ে রয়েছে. উদাহরণ হতে পারে আন্তর্জাতিক সম্মেলন, যা কাজানে আয়োজন করা হয়েছে, যেখানে ইউরোপ, এশিয়া ও উত্তর আমেরিকা থেকে ঐতিহাসিকদের জড় করতে পেরেছে. তাঁরা এসেছেন এক বিজ্ঞানীর স্মৃতি রক্ষার্থে আয়োজিত সম্মেলনে যোগ দিতে, যাঁকে বলা হয়ে থাকে রুশ প্রাচ্য বিদ্যার স্থপতি বলেই.

শীত অলিম্পিকের ইতিহাসে সোচীর সমুদ্রতীরের খেলোয়াড়দের বসতি – সবচেয়ে সুবিধাজনক জায়গা. এই বিষয়ে আয়োজকরা জোর গলায় বলতে পারছেন, এই ঘোষণা আবার বিভিন্ন জাতীয় দলের প্রতিনিধিরাও সমর্থন করছেন. অলিম্পিকের পার্ক থেকে এই গ্রাম মাত্র কয়েক মিনিট পায়ে হাঁটা পথের দূরত্বে. সুতরাং খেলোয়াড়দের এখানে দ্রুত ট্রেনিং অথবা কোন প্রতিযোগিতায় পৌঁছবার জন্য কোন রকমের সমস্যাই হবে না, আর তার পরেই নিজের ঘরে গিয়ে বিশ্রাম নেওয়ার জন্য.

রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন মনে করেন যে, দেশের উন্নতির জন্য রাশিয়ার কোন একটি এলাকাকেও আলাদা হয়ে যেতে দেওয়া যেতে পারে না. এই বিষয়ে তিনি দেশের উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলির শিক্ষকদের সঙ্গে এক সাক্ষাত্কারের সময়ে ঘোষণা করেছেন.

প্রতিবছর ৪ঠা নভেম্বর রাশিয়ায় পালিত হয় গণ ঐক্য দিবস। ১৬১২ সালে পোলিশ হস্তক্ষেপকারীদের হাত থেকে মস্কোকে উদ্ধারর করার ঘটনাকে স্মরীয় করে রাখতে এ দিবসটি পালন করা হয়। নিঝনিনভোগোরদের বণিক কুজমা মিনিন ও রাজকুমার দিমিত্রি পোজারস্কি ওই জয়ের নেত্বৃত্ব দিয়েছিলেন।

রাশিয়ায় আজ ৪ঠা নভেম্বর ব্যাপক উৎসাহ আর উদ্দীপনের মধ্য দিয়ে পালিত হচ্ছে গণ ঐক্য দিবস।

রবিবারে সেন্ট পিটার্সবার্গে শুরু হওয়া সপ্তম “রুস্কি মির” তহবিলের সম্মেলন উদ্বোধনে ভাষণ দিতে গিয়ে “রসসত্রুদনিচিয়েস্তভো” বা রুশ সহযোগিতা সংস্থার প্রধান কনস্তানতিন কোসাচেভ বলেছেন যে, ২০১৪ সালে এই রকমের প্রথম সম্মেলন হবে কিরগিজিয়ার ইস্সীক-কুল হ্রদে. সেই সম্মেলন উত্সর্গ করা হবে বিশ্ব বিখ্যাত রুশী ও কিরগিজিয়ার লেখক চিঙ্গিজ আইতমাতভের নামে.

রাষ্ট্রদূত আলেকজান্ডার কাদাকিন: রোয়েরিখদের ঐতিহ্য সংরক্ষণে রাশিয়া ও ভারত নিজেদের সহযোগিতার স্তর বৃদ্ধি করতে চেয়েছে.

“রেডিও রাশিয়াকে” দেওয়া এক একান্ত সাক্ষাত্কারে ভারতে স্থিত রুশ রাষ্ট্রদূত আলেকজান্ডার কাদাকিন ঘোষণা করেছেন যে, “রাশিয়া ও ভারত চেয়েছে অনেকটাই দ্বিপাক্ষিক স্তরে সহযোগিতাকে বৃদ্ধি করতে, যাতে রোয়েরিখদের ঐতিহ্যকে সম্যক ভাবে সংরক্ষণ করা সম্ভব হয়. এখানে নীতিগত ভাবে গুরুত্বপূর্ণ হল যে, দুই পক্ষই সবচেয়ে উচ্চ স্তরে স্বীকার করেছে পারস্পরিক ভাবে এই লক্ষ্যে কাজ করার. এই ধরনের বোঝাপড়া আগামী ২০১৪ সালে দুটি স্মৃতি বিজড়িত ঘটনার প্রস্তুতি নেওয়ার জন্য ভাল পরিবেশ সৃষ্টি করেছে – নিকোলাই রোয়েরিখের ১৪০তম ও স্ভিয়াতোস্লাভ রোয়েরিখের ১১০তম জন্ম দিবস পালন” – উল্লেখ করেছেন রাষ্ট্রদূত.

বিশ্বের একটি বৃহত্তম রেডিও সম্প্রচার কোম্পানী “রেডিও রাশিয়ার” আজ জন্মদিন. ১৯২৯ সালের ২৯শে অক্টোবর বিদেশের শ্রোতারা প্রথমবার শুনতে পেয়েছিলেন মস্কো থেকে প্রচারিত রেডিওর আহ্বান সঙ্গীত. এই ভাবেই বিশ্বে শুরু হয়েছিল প্রথম আন্তর্জাতিক রেডিও সম্প্রচারের. তার কাজ ছিল বিদেশীদের সোভিয়েত দেশ সম্বন্ধে জানানো. প্রথম প্রচার করা হয়েছিল জার্মান ভাষায়. আর ঠিক তার পরেই বিদেশে ফরাসী ও ইংরাজী ভাষায় মস্কো থেকে প্রচারিত অনুষ্ঠান শুনতে পাওয়া গিয়েছিল.

কি করে ভোটারদের নির্বাচনের সময়ে আকৃষ্ট করা যেতে পারে? আর কম সংখ্যক ভোটারদের নির্বাচনে অংশগ্রহণ কি নির্বাচনকেই কম আইন সম্মত হয়েছে বলে স্বীকার করা দরকার? এই সব প্রশ্নগুলো নিয়েই এখন রাশিয়াতে রাজনীতিবিদ, বিশ্লেষক ও সামাজিক নেতা-কর্মীরা খুবই সক্রিয়ভাবে আলোচনা করছেন.

আগের
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30
সেপ্টেম্বর 2017
ঘটনার সূচী
সেপ্টেম্বর 2017
1
2
3
4
5
6
7
8
9
10
11
12
13
14
15
16
17
18
19
20
21
22
23
24
25
26
27
28
29
30