×
South Asian Languages:
ইজরায়েল- প্যালেস্তাইন, নভেম্বর 2012
রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারন সভার সংখ্যা গরিষ্ঠ সদস্য দেশ প্যালেস্টাইনের স্বয়ং শাসিত এলাকাকে পর্যবেক্ষক দেশের মর্যাদা দিতে স্বীকৃতি দিয়েছে. এই সিদ্ধান্তের পক্ষে সায় দিয়েছে রাষ্ট্রসঙ্ঘের ১৯৩টি সদস্য দেশের মধ্যে ১৩৮টি দেশ, বিরুদ্ধে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ইজরায়েল সহ নয়টি দেশ এবং ভোট দিতে চায় নি ৪১টি দেশ, ৫টি দেশ ছিল অনুপস্থিত.
বৃহস্পতিবারে হামাস, ঐস্লামিক জেহাদ সহ আরও অনেক প্যালেস্টাইনের সংগঠন গাজা এলাকায় সম্মিলিত ভাবে মিছিল করবে প্যালেস্টাইন লিবারেশন অর্গানাইজেশনের নেতা ও প্যালেস্টাইন ন্যাশনাল অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের প্রধান মাখমুদ আব্বাসের সমর্থনে. এই বিষয়ে বুধবারে আন্তর্আরবীয় টেলিভিশন চ্যানেল আল- জাজিরা জানিয়েছে.
বৃহস্পতিবারে রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারন সভায় প্যালেস্টাইনকে পর্যবেক্ষক রাষ্ট্রের মর্যাদা দেওয়া নিয়ে ভোট গ্রহণের ফলে সেই দেশ এই মর্যাদা পেতেই পারে. প্যালেস্টাইনের এই নতুন মর্যাদা পাওয়ার জন্য রাষ্ট্রসঙ্ঘের বেশীর ভাগ সদস্য দেশের সমর্থন পাওয়ার দরকার হবে. আর এটা হওয়ার সম্ভাবনা খুব বেশী রকমই রয়েছে.
মঙ্গলবারে জর্ডন নদীর পশ্চিম পারে রামাল্লা শহরে প্যালেস্টাইনের প্রাক্তন নেতা ইয়াসার আরাফাতের মরদেহ কবর খুঁড়ে তোলা হচ্ছে. এই প্রক্রিয়া করতে হচ্ছে, কারণ যাতে আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞরা, তার মধ্যে রাশিয়ার বিজ্ঞানীরাও রয়েছেন, তারা দেহ থেকে মাংসের নমুনা সংগ্রহ করতে পারেন.
মুসলিম নববর্ষ উপলক্ষে মস্কো শহরে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রী সের্গেই লাভরভ সোমবারে এই কথা ঘোষণা করেছেন. তিনি বর্তমানের আন্তর্জাতিক অধিকার সংক্রান্ত আইনের ভিত্তিতে সামগ্রিক ভাবে আরব – ইজরায়েল শান্তি ব্যবস্থা প্রণয়নের পক্ষে. “এর ফলে সমস্ত ঐস্লামিক সহযোগিতা সংস্থার দেশ গুলির পক্ষ থেকে নেওয়া শান্তি প্রয়াসকেও এই আলোচনার মধ্যে নেওয়া সম্ভব হবে” বলে মন্ত্রী আরও যোগ করেছেন.
এই সম্বন্ধে হামাস গোষ্ঠীর পক্ষ থেকে গাজা এলাকায় করা এক ঘোষণায় বলা হয়েছে যে, দলের নেতা খালেদ মাশাল প্যালেস্টাইনের রাষ্ট্রপতি মাহমুদ আব্বাসের সঙ্গে টেলিফোন আলোচনার সময়ে সমর্থনের কথা বলেছেন. এই দলিল প্রকাশ করা হয়েছে আগামী ২৯শে নভেম্বর বৃহস্পতিবারে প্যালেস্তিনীয় নেতা মাহমুদ আব্বাস রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারন সভায় পর্যবেক্ষক রাষ্ট্রের মর্যাদা পাওয়ার জন্য যে আবেদন পেশ করতে যাচ্ছেন, তার তিন দিন আগে.
ফিলিস্তিনের গাজা সেক্টর ও ইসরাইলের দক্ষিণাঞ্চলে ধীরে ধীরে স্বাভাবিক জীবনযাত্রা ফিরে আসছে। সংঘাতে জড়ানো উভয় পক্ষই যুদ্ধবিরতিতে সম্মতি হয়েছে।
রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদে সিরিয়ার প্রতিনিধি এই দেশে নিহত হওয়া ১৪৩ জন বিদেশীর তালিকা দিয়েছে, যারা বিরোধী পক্ষের হয়ে লড়াই করছিল. তালিকায় রয়েছে – কাতার, সৌদি আরব, লিবিয়া, আফগানিস্তান, তুরস্ক ও অন্যান্য রাষ্ট্রের নাগরিক. গত মাসে সিরিয়া নিরাপত্তা পরিষদকে ১০৮ জন নিহত হওয়া ভাড়াটে সেনার তালিকা দিয়েছিল, যারা বিরোধী পক্ষের হয়ে যুদ্ধ করছিল.
“ঐস্লামিক জেহাদ” হুমকি দিয়েছে, বৃহস্পতিবারে এই কথা লেখা হয়েছে ইজরায়েলের “গারেত্স” সংবাদপত্রে, উত্স অনামী এক সূত্র. “ঐস্লামিক জেহাদ” গোষ্ঠীর প্রতিনিধি দাবী করেছে যে, তারা ১৪ ই নভেম্বর থেকে গত কাল পর্যন্ত ইজরায়েল লক্ষ্য করে গাজা সেক্টর থেকে কম করে হলেও ৬০০ রকেট ছুঁড়েছে.
গাজা সেক্টর ও সিরিয়া – সবচেয়ে টাটকা উদাহরণ, যেখানে নিয়মিত বাহিনীকে প্রতিরোধ করছে কালো বাজারে অস্ত্র যোগাড় করতে পারা গোষ্ঠীরা, এই ধরনের আঞ্চলিক যুদ্ধ বন্ধ করা অথবা অন্তত তা উদ্ভব হওয়া কিছুটা কম করতে পারা অংশতঃ বোধহয় সম্ভব হত, যদি আন্তর্জাতিক ভাবে অস্ত্র ব্যবসায় সংক্রান্ত একটা চুক্তি করতে পারা যেত.
ইজরায়েল ও প্যালেস্টাইনের হামাস আন্দোলনের মধ্যে এক ভঙ্গুর আপাতঃ শান্তি প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে. তা দিয়ে ইজরায়েলের “ধূম স্তম্ভ” অপারেশন, যা ১৪ই নভেম্বর থেকে ইজরায়েলের এলাকায় গাজা সেক্টরের ছোঁড়া রকেটের উত্তরে শুরু হয়েছিল, তা থামিয়েছে. বুধবার সন্ধ্যাবেলায় এই শান্তির বিষয়ে ইজিপ্ট ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যস্থতার ফলে সমঝোতা হয়েছে.
প্যালেস্টাইনী “হামাস” আন্দোলনের নেতা খালেদ মাশাল ইস্রাইলের সাথে বুধবার অর্জিত সাময়িক অগ্নি সংবরণের চুক্তিকে প্যালেস্টাইনের মুক্তির দিকে গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ বলে অভিহিত করেছেন. আপোষের শর্ত দেখিয়েছে যে, “প্রতিরোধ ছিল সঠিক নির্বাচন”, বলেন তিনি কায়রো-তে এক সাংবাদিক সম্মেলনে, মাশাল বলেন, “এটা গাজা অঞ্চলের অবরোধ দূর করার ব্যাপক সূচনা.
প্যালেস্টাইনীরা ইস্রাইলের সাথে অগ্নি সংবরণের চুক্তি লঙ্ঘন করেছে. অগ্নি সংবরণের চুক্তি বলবত্ হওয়ার পরে জঙ্গীরা গাজা অঞ্চল থেকে ইস্রাইলের ভূভাগে পাঁচটি রকেট বর্ষণ করেছে. এ সম্বন্ধে জানিয়েছে ইস্রাইলী সামরিক কর্মীরা. আর ইস্রাইলী পুলিশের প্রেস-সার্ভিস ১২টি রকেট বর্ষণের কথা ঘোষণা করেছে.
গাজা অঞ্চলে ক্ষমতাসীন “হামাস” আন্দোলন তেল-আভিভে বিস্ফোরণ সমর্থন করেছে, এবং তাকে গাজা অঞ্চলে ইস্রাইলী অভিযানের “একমাত্র উত্তর” বলে অভিহিত করেছে. এ আন্দোলনের প্রেস-সেক্রেটারি সামি আবু জুখরি “রিয়া নোভস্তি” সংবাদ এজেন্সিকে প্রদত্ত ইন্টারভিউতে বলেছেন যে, তেল-আভিভে যাত্রীবাহী বাসে বিস্ফোরণের পেছনে কে আছে তা তাঁর জানা নেই.
রয়টার সংবাদ সংস্থা গাজা অঞ্চলের প্রশাসক হামাস আন্দোলনের কায়রো শহের উপস্থিত আইমান তাহু নামক এক আলোচনা প্রতিনিধির কাছ থেকে পাওয়া খবর হিসাবে জানিয়েছে যে, ইজরায়েলের সামরিক বাহিনী ও প্যালেস্তিনীয় গোষ্ঠী গুলির মধ্যে মঙ্গলবার মস্কো সময় রাত এগারোটার (ভারতীয় সময় রাত সাড়ে বারোটা) সময়ে শান্তি চুক্তির বিষয়ে ঘোষণা করা হবে, সেই চুক্তি কার্যকরী হবে এই ঘোষণার তিন ঘন্টা পর থেকে.
ইজরায়েল ও প্যালেস্টাইনের হামাস গোষ্ঠীর লোকরা এখনও শান্তি স্থাপন নিয়ে কোনও চুক্তিতে আসতে পারছে না. আরও বেশী করেই তারা বাইরের খেলোয়াড় দলে টানছে. প্যালেস্টাইনের লোকদের স্বার্থ দেখছে ইজরায়েল ও টিউনিশিয়া. আর কাতারের আমীর ঘোষণা করেছে যে, আরব বসন্তের পরে জোট বদ্ধ মুসলিম বিশ্বের উচিত্ এবারে ইজরায়েলকে কড়া জবাব দেওয়া. কিন্তু গাজা সেক্টরে বিরোধের থেকে প্রধানতঃ লাভবান হতে চলেছে ইরান.
প্রায় পাঁচশো বিদেশী সাংবাদিক ইজরায়েল এসেছেন গাজা সেক্টরে প্যালেস্তিনীয় যোদ্ধাদের বিরুদ্ধে ইজরায়েলের সেনা বাহিনীর লড়াই দেকে তার সম্বন্ধে খবর পাঠানোর জন্য. ইজরায়েলে ইতিমধ্যেই সংবাদ সংস্থা গুলির তরফ থেকে স্থায়ী দেড় হাজার বিদেশী সাংবাদিকদের সঙ্গে বাড়তি হিসাবে এই লোকদের আগমন হয়েছে. এই বিষয়ে মঙ্গলবারে খবর দিয়েছেন ইজরায়েলের তথ্য মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি নিত্সান হেন.
আল- আরাবিয়া সংবাদ সংস্থা এই খবর দিয়েছে, নিজেদের উত্স থেকে পাওয়া খবর হিসাবে. কিন্তু তাদের তথ্য অনুযায়ী সময় সীমা ও কি ভাবে এই অগ্নি সম্বরণ ধাপেধাপে করা হবে তা নিয়ে এখনও মতবিভেদ রয়েছে.
গাজা সেক্টরে ইজরায়েলের সেনা বাহিনী প্রবেশ করতে তৈরী রয়েছে, এই কথা ইজরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেথানিয়াখুর সাঙ্গোপাঙ্গোদের উত্স থেকে জানতে পারা গিয়েছে.
ইজরায়েল ও প্যালেস্টাইনের হামাস গোষ্ঠীর লোকরা এখনও শান্তি স্থাপন নিয়ে কোনও চুক্তিতে আসতে পারছে না. ইজিপ্টের কায়রো শহরে ইজিপ্টের মধ্যস্থতার মাধ্যমে বকলমে যে আলোচনা করা হচ্ছে, তা চলছে গাজা সেক্টরে বোমা বর্ষণ ও ইজরায়েলের এলাকায় রকেট ছোঁড়ার মধ্যেই.
আগের
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30
নভেম্বর 2012
ঘটনার সূচী
নভেম্বর 2012
1
3
4
6
8
10
12
24
26