×
South Asian Languages:
ইন্টারনেট, ডিসেম্বর 2012
আমেরিকার রাষ্ট্রপতি বারাক ওবামা রবিবারে একটি আইন স্বাক্ষর করেছেন, যার সুবাদে মার্কিনী গোয়েন্দা দপ্তরগুলিকে বিদেশীদের টেলিফোনে কথাবার্তা আড়ি পেতে শোনার ও তাদের ইলেকট্রনিক মেল চেক করার অনুমতি দেওয়া হয়েছে.
মালি রাষ্ট্রের প্রধানমন্ত্রী দিয়াঙ্গো সিসোকো প্রতিবেশী আফ্রিকার দেশ গুলিকে ও রাষ্ট্রসঙ্ঘের কাছে তাঁর দেশে শান্তি রক্ষী বাহিনীর প্রবেশের প্রক্রিয়াকে দ্রুত করতে আহ্বান করেছেন. ১০ দিন আগে রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদ সিদ্ধান্ত নিয়েছে মালিতে আন্তর্জাতিক বাহিনী পাঠানোর, কিন্তু তার জন্য নির্দিষ্ট কোন দিন এখনও ঠিক করা হয় নি.
চীনা কমিউনিস্ট পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারন সম্পাদক সি জিনপিন দেশে ইন্টারনেটের প্রসারের ওপর, বিশেষ করে নেটে উচ্চপদস্থ আমলাদের সম্পর্কে কটুমন্তব্য করার ওপর নিয়ন্ত্রণ কঠোরতর করার প্রস্তাব দিয়েছেন. ‘এ্যাসোশিয়েটেড প্রেস’ সংবাদসংস্থা জানিয়েছে, যে চীনের আইনপ্রনয়ণকারী কক্ষগুলি এই সপ্তাহে উপোরক্ত প্রশ্নে কি কি ব্যবস্থা গ্রহণীয়, তাই নিয়ে আলোচনা করেছে.
ভ্লাদিমির পুতিনের বড় প্রেস কনফারেনস শুধু রাশিয়াতেই নয়, তার সীমানার বাইরেও বহু অনুরণন তুলেছে. সারা বিশ্বের বিশেষজ্ঞরাই খুব মনোযোগ দিয়ে রাশিয়ার নেতার বক্তব্য শুনেছেন. নিজেদের মনোভাব তাঁরা “রেডিও রাশিয়ার” সঙ্গে ভাগ করে নিয়েছেন. ভ্লাদিমির পুতিনের বড় সাংবাদিক সম্মেলন – একটা বিশ্ব রাজনীতির বিরল ঘটনা.
রাশিয়া, জনপ্রিয় বিষয়, আমাদের সহযোগিতা, আফগানিস্থান, সের্গেই লাভরভ, নৌবাহিনী, পুতিন, আরব, রাশিয়া-সন্ত্রাস, আদমসুমারি- রাশিয়া, ইন্টারনেট, রাশিয়া- সংস্কৃতি, অর্থনৈতিক উন্নয়ন, বিমান, মেদভেদেভ, সন্ত্রাস, রুশ- মার্কিন, পারমানবিক, কোরিয়া, মহাকাশ, ককেশাস, মাদক, ইউরোপীয় সংঘ, ধর্ম, রাষ্ট্রসংঘ, যৌথ নিরাপত্তা, ইরাক, আধুনিকীকরণ, বিজ্ঞান, সম্মেলন, তুরস্ক, স্বাধীন রাষ্ট্র সমূহ, দুর্নীতি, বিতর্কিত অঞ্চল, ন্যাটো জোট, আফ্রিকা, জাপান, দক্ষিণ পূর্ব এশিয়া, নিকট প্রাচ্য, চিন, ব্রিকস, সামরিক, লিবিয়া, সিরিয়া, ইজরায়েল, রাশিয়ার নির্বাচন, ফ্রান্স, জার্মানী, বড় কুড়ি, নিষেধাজ্ঞা, উত্সব, রকেটবিরোধী প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা, সৌদি আরব, সাংহাই সহযোগিতা সংস্থা, গাজা অঞ্চল, রাশিয়া, কুরিল দ্বীপপুঞ্জ, ইসলাম, ইউরো-অঞ্চল, জর্জিয়া
সেন্সরের ভয় দেখিয়ে ইন্টারনেটের উপরে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র রাশিয়া ও চিনকে নিজেদের একচেটিয়া অধিকার খর্ব করতে দেয় নি. আন্তর্জাতিক বৈদ্যুতিন যোগাযোগ জোটের দুবাই শহরের সম্মেলনে বিশ্ব জোড়া ইন্টারনেট জালের উপরে এই জোট সদস্যদের অধিকারের প্রশ্নে চুক্তি করাই শেষ অবধি সম্ভব হয় নি.
রাশিয়া, চিন ও আরও ছয়টি দেশ রাষ্ট্রসঙ্ঘের আন্তর্জাতিক বৈদ্যুতিন যোগাযোগ জোটে এক প্রস্তাব এনেছে, যেখানে ইন্টারনেটের উপরে জাতীয় নিয়ন্ত্রণ বৃদ্ধির কথা বলা হয়েছে. এই বিষয়ে খবর দিয়েছে ব্লুমবর্গ সংস্থা দুবাই শহরে এই জোটের আন্তর্জাতিক সম্মেলনের খবর সম্বন্ধে জানাতে গিয়ে এই খবর দিয়েছে.
২০২০ সালে উরালের শহর ইকাতেরিনবুর্গের পরিকাঠামো অনেকটাই বাল করে ফেলা হবে, কারণ এখানে বিশ্ব প্রদর্শনী এক্সপো আয়োজনের জন্য দাবী করা হয়েছে. আগামী বছর গুলিতে পরিকল্পনা রয়েছে এখানে নতুন রাস্তা তৈরী করার জন্য প্রসারিত ভাবে প্রকল্প নেওয়ারও তারই সঙ্গে পরিবহনের পরিকাঠামো তৈরী করার, ঐতিহাসিক ভবন গুলিকে সংস্কার করার ও নতুন হোটেল তৈরীর. এক্সপো – এক বিশাল মাপের ঘটনা.
সারা বিশ্ব জুড়েই ২০১৩ সালে সাইবার অ্যাটাকের সংখ্যা অনেক বেড়ে যাবে, প্রসঙ্গতঃ এটা হবে লক্ষ্য স্থির করেই করা অ্যাটাক ও সরকারি সব কাঠামোর থেকে পাওয়া বায়না থেকেই. এই ধরনের একটা সিদ্ধান্ত অ্যান্টি ভাইরাস তৈরী করা কোম্পানী কাস্পেরস্কি ল্যাবরেটরীর পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে. আর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের গুপ্তচর বিভাগ পূর্বাভাস দিয়েছে যে, বিশ্ব আগামী ২০ বছরে সাইবার ক্ষেত্রে বিশ্ব যুদ্ধের সম্মুখীণ হতে চলেছে.
চীন ও রাশিয়া সহ ৮টি দেশ আন্তর্জাতিক ইলেকট্রনিক ইউনিয়নের কাছ থেকে নিজের নিজের দেশে রেজিস্ট্রিকৃত ইন্টারনেট-রিসোর্সগুলির ওপর রা্ষ্ট্রীয় খবরদারি জোরদার করার নাছোড়বাঁধা দাবী জানাচ্ছে. দুবাইয়ে চলতি আন্তর্জাতিক ইলেকট্রনিক যোগাযোগ বিষয়ক বিশ্ব সম্মেলনে উল্লিখিত বক্তব্যের সূত্র ধরে ব্লুমবার্গ সংবাদসংস্থা এই তথ্য যুগিয়েছে.
নয়াদিল্লীতে রুশী বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি কেন্দ্রে ‘রেডিও রাশিয়া-২০১২’ ক্যুইজ প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের পুরস্কার প্রদান করা হয়েছে. ঐ ক্যুইজ ছিল ইন্দো-রুশী সহযোগিতার ওপরে. ৮ই-৯ই ডিসেম্বর দুইদিন ব্যাপী ‘রেডিও রাশিয়া’র ভারতীয় শ্রোতাদের ক্লাবগুলির সম্মেলনের আওতায় আয়োজিত হয়েছিল ঐ পুরস্কার প্রদানের অনুষ্ঠান.
ইরান মেহর নামক সাইট চালু করেছে, যেখানে ব্যবহারকারীরা ভিডিও অন-লোড করার ও দেখার সুযোগ পাচ্ছে, যা তারা নিজেরাই তুলেছে. তাছাড়া তারা আইরিব নামক জাতীয় সম্প্রচারন চ্যানেলে রেকর্ড করা সবকিছুও দেখতে পারে. “সঠিক” রিসোর্স চালু করা হয়েছে YouTube-এর বিকল্প হিসাবে, যাকে ইরানে সেই ২০০৯ সালেই “নোংরা” বলে অভিহিত করা হয়েছিল. ইরানে বহু কষ্টেসৃষ্টে ইন্টারনেটের প্রসার ঘটছে.
ইজিপ্টে বহু লোকের মিছিল ও সমাবেশে উপস্থিত লোকের সঙ্গে পুলিশের সঙ্ঘর্ষ আবারও নিত্য নৈমিত্তিক বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে, যেমন ছিল এক বছরের কিছু আগে. এই কয়েকদিন আগেও মনে হয়েছিল যে, ইজিপ্টের জন্য পরীক্ষার সময় বুঝি বাস্তবে পিছনেই রয়ে গিয়েছে, কিন্তু এখন এমন একটা ধারণা হচ্ছে যে, দেশ আবার এক বিপজ্জনক গণ্ডীর কাছে পৌঁছচ্ছে. পিরামিডের দেশে কি হচ্ছে?
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30 31
ডিসেম্বর 2012
ঘটনার সূচী
ডিসেম্বর 2012
1
2
4
5
6
7
8
9
10
15
16
17
18
19
20
22
23
24
25
26
27
30