×
South Asian Languages:
কানাডা, নভেম্বর 2012
“বৃহত্ অষ্টদেশের” (জি-৮) পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের সাক্ষাত্ অনুষ্ঠিত হবে ১০-১১ই এপ্রিল লন্ডনে, তাতে প্রধান মনোযোগ দেওয়া হবে সঙ্ঘর্ষ নিবারণের প্রশ্নের প্রতি. এ সম্বন্ধে বলা হয়েছে গ্রেট-বৃটেনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের খবরে. ২০১৩ সালে গ্রেট-বৃটেন “বৃহত্ অষ্টদেশের” সভাপতি-দেশের পদ গ্রহণ করবে. এটি পৃথিবীর দেশগুলির একটি ক্লাব স্বরূপ, যাতে অন্তর্ভুক্ত আছে গ্রেট-বৃটেন, ফ্রান্স, জার্মানি, ইতালি, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, জাপান এবং রাশিয়া.
আমাদের জগতের সঙ্গে আজ থেকে একশ বছর পরে কি হতে চলেছে, অথবা হয়তো তারও আগে? বৈজ্ঞানিক ও সাধারন মানুষরা এই প্রশ্নই আজ বেশী করে করতে শুরু করেছেন. সমগ্র দেশ ও মহাদেশের জন্যই আজ বন্যা, ঘূর্ণিঝড়, খরা সত্যিকারের যমদূত হয়ে দাঁড়িয়েছে.
২০০৯ সালের মে মাসে সাড়ে তিন বছর ধরে চলা ও প্রায় এক লক্ষ লোকের প্রাণহানির কারণ হয়ে শ্রীলঙ্কার গৃহযুদ্ধ শেষ হয়েছিল. জাতীয় শান্তি প্রক্রিয়া চলছে জটিল ভাবে ও তা সমস্যা মুক্ত হয় নি. কিন্তু মনে হচ্ছে, প্রশাসনের পক্ষ এই দেশে থেকে স্বাভাবিক জীবন চালু করার চেষ্টা মোটেও সকলের পছন্দ হচ্ছে না – আর তা শুধু শ্রীলঙ্কাতেই নয়, বরং তার বাইরেও.
কানাডার কোম্পানী গুলি ভারতকে পারমানবিক রিয়্যাক্টর ও ইউরেনিয়াম দেবে. এই ধরনের চুক্তি ভারতে কানাডার প্রধানমন্ত্রী স্টিভেন হার্পারের সফরের সময়ে স্বাক্ষরিত হয়েছে. বিষয় নিয়ে বিশদ করে লিখেছেন আমাদের সমীক্ষক গিওর্গি ভানেত্সভ. ১৯৭৪ সালে যখন ভারত তার প্রথম পারমানবিক বোমার পরীক্ষা করেছিল, তারপর থেকে ভারত ও কানাডার মধ্যে পারমানবিক ক্ষেত্রে সহযোগিতা বহু বছরের জন্যই বন্ধ হয়ে গিয়েছিল.
ন্যাটো জোটের সামরিক অপারেশনের পরিনাম এই জন্যই উল্লেখ যোগ্য যে, লিবিয়ার ১৫ হাজার কোটি ডলার, যা বিদেশী ব্যাঙ্ক গুলিতে আটক রাখা হয়েছিল, তা হারিয়ে গিয়েছে. ন্যাটো জোটের বোমা বর্ষণের ফলে এই দেশের যা ক্ষতি হয়েছে, তা দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়ে হিটলারের বিমান বাহিনী বোমা ফেলায় যত ক্ষতি হয়েছিল তার থেকে সাত গুণ বেশী হয়েছে.
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30
নভেম্বর 2012
ঘটনার সূচী
নভেম্বর 2012
2
3
4
5
6
7
9
10
11
12
13
14
15
17
18
19
20
23
24
25
26
27
28
29
30