×
South Asian Languages:
আরব, 23 জানুয়ারী 2013
রাশিয়া বহু মেরু বিশিষ্ট বিশ্ব পরিস্থিতিতে নিজেদের অবস্থানকে এক প্রধান প্রভাব ও শক্তি কেন্দ্র হিসাবে মজবুত করার কাজ চালিয়ে যাচ্ছে. রাশিয়ার রাজনীতির এক গুরুত্বপূর্ণতম দিক হয়েছে প্রাক্তন সোভিয়েত দেশ এলাকার রাষ্ট্র সমূহের মধ্যে সমাকলনের কাজ আরও গভীরে করা. এই বিষয়ে রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বাত্সরিক কাজকর্মের ফলাফল নিয়ে আয়োজিত এক বড় সাংবাদিক সম্মেলনে ঘোষণা করেছেন রুশ পররাষ্ট্র প্রধান সের্গেই লাভরভ.
জর্ডানের প্রজারা বুধবার প্রাকমেয়াদী সংসদ নির্বাচনে ভোট দেবে. নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দিতা করছে ৬১টি পার্টি. নির্বাচন প্রক্রিয়ার দিকে নজর রাখছে বিশেষ নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন. আগে জর্ডানে নির্বাচন প্রক্রিয়ার দিকে নজরদারীর কাজ পালন করতো দেশের স্বরাষ্ট্রদপ্তর. আগেকার সরকার ভেঙে দেওয়া হয়েছিল ২০১২ সালের অক্টোবর মাসে গণতান্ত্রিক পরিবর্তনের দাবী জানিয়ে অসংখ্য জনতার আন্দোলনের পরে.
লাভরোভ মনে করেন, যে সিরিয়ার বিরোধীদের আসাদকে উচ্ছেদ করার নীতি কলুষিত. তিনি জোর দিয়ে বলেছেন, যে যতদিন ঐ নীতি অবলম্বন করা হতে থাকবে, ততদিনই রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ চলবে, লোকজন মারা যেতে থাকবে. লাভরোভ এই নিয়ে আক্ষেপ প্রকাশ করেছেন, যে একসারি পশ্চিমী দেশ ও সেইসাথে কিছু নিকট প্রাচ্যের রাষ্ট্র বিরোধী পক্ষকে বাহবা দিচ্ছে আসাদের সাথে আলোচনায় না বসার জন্য.
রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইসলামি দেশগুলির কাছে সংহতি প্রদর্শন করার ও বিশ্বের অন্যতম বৃহত ধর্মের ভেতরেই বচসা না বাধানোর আহ্বান জানিয়েছেন. গত রাজনৈতিক বছরের হিসাবজ্ঞাপক সাংবাদিক সম্মেলনে লাভরোভ বলেছেন – “রাশিয়াকে রীতিমতো দুঃশ্চিন্তাগ্রস্ত করছে ইসলামের বিভিন্ন ধারার মধ্যে উদ্ভূত পরিস্থিতি.
রাশিয়ার জরুরী পরিস্থিতি দপ্তরের বিমানযোগে মস্কোয় এসে পৌঁছানো লোকেদের সিরিয়া ছাড়তে বাধ্য করেছে অস্থির পরিস্থিতি ও বিরোধীপক্ষের হামলাবাজি. দামাস্কাস বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন অধ্যাপক সাংবাদিকদের বলেছেন - নিরীহ বাসিন্দারা সশস্ত্র বিরোধীদের হামলার শিকার হচ্ছে. বিভিন্নরকমের লুটপাট ইত্যাদি, নগরীর কেন্দ্রস্থল সহ বিভিন্ন বাড়ায় বোমাবাজি – এই সবকিছু পত্নী ও কন্য সহ তাদের সিরিয়া ছাড়তে বাধ্য করলো বলে অধ্যাপক বলেছেন.
রাশিয়া ও ইরানের পুলিশ বাহিনীর প্রধানরা সহযোগিতা চুক্তি স্বাক্ষর করেছেন বলে জানানো হয়েছে রাশিয়ার স্বরাষ্ট্র দপ্তরের তথ্য কেন্দ্র থেকে. এই সহযোগিতা চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে ইরানে রাশিয়ার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী ভ্লাদিমির কলোকল্তসেভের সফরের সময়ে. এটি প্রথম চুক্তি, যেখানে দুই দেশের পুলিশ বাহিনীর মধ্যে অপরাধের মোকাবিলা নিয়ে কাঠামো ও পদ্ধতি সংক্রান্ত সহযোগিতার রূপরেখা নির্ণিত হয়েছে, বলে জানানো হয়েছে তথ্য কেন্দ্র থেকে.
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30 31
জানুয়ারী 2013
ঘটনার সূচী
জানুয়ারী 2013
2
25