×
South Asian Languages:
নৌবাহিনী, ডিসেম্বর 2013

২০১৩ সালের শেষ বঙ্গোপসাগরে ভারতের একসারি সামরিক কাজকর্ম দিয়ে চিহ্নিত করা হয়েছে. “অগ্নি-৩” রকেটের উড়ান আর জাপান – ভারত সম্মিলিত সামুদ্রিক মহড়া – শুধু এই সবেরই কয়েকটা উদাহরণ হতে পারে. এটা কোন দ্ব্যর্থ না রেখেই বলা যেতে পারে যে, ভারত শুধু এখন সমুদ্র তীরে কোন রকমের আক্রমণ প্রতিহত করতেই সক্ষম নয়, বরং অনেক উচ্চাকাঙ্ক্ষাও পোষণ করেছে, যা তাদের সমুদ্র সীমা থেকে অনেক দূরের এলাকায় বর্তমানে তৈরী হয়েছে. বাস্তবে ভারতের সামরিক –সামুদ্রিক ক্ষমতা বৃদ্ধি করা বহু রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের সেই তত্ত্বকেই প্রমাণ করে দেয় যে, ভারত ও প্রশান্ত মহাসাগর ইতিমধ্যেই একটি সম্পূর্ণ মহাসাগরে পরিণত হতে চলেছে – যাকে বলা যেতে পারে ভারত- প্রশান্ত মহাসাগরীয় এলাকা.

ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় ইস্রাইলের কাছ থেকে "বারাক ১" মার্কা আকাশ প্রতিরক্ষার রকেট সমাহারের জন্য ২৬২টি রকেট কেনা অনুমোদন করেছে.

মার্কিনী নৌবাহিনীর পারমাণবিক বিমানবাহী জাহাজ “হ্যারি ট্রুম্যান”, যা আরব সাগরের উত্তরাংশে সামরিক ডিউটি দিচ্ছিল, পারস্য উপসাগরে প্রবেশ করেছে এবং বাহরেনের মনামা বন্দরে নোঙর ফেলেছে.

রাশিয়ার প্রশান্ত মহাসাগরীয় নৌবাহিনীর একসারি জাহাজ আজ সোমবার জাপানের হনস্যু দ্বীপের উপকূলে নৌবাহিনীর মাইজুরু ঘাঁটিতে পৌঁছোচ্ছে যৌথ মহড়া চালানোর উদ্দেশ্যে. 

ভারত আশা করে ফেব্রুয়ারী-মার্চ মাসে নিজের তৈরী “অরিহন্ত” নামে পারমাণবিক সাবমেরিনের খোলা সমুদ্রে প্রথম সমুদ্রযাত্রার পরীক্ষা করবে. 

1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30 31
ডিসেম্বর 2013
ঘটনার সূচী
ডিসেম্বর 2013
1
2
3
5
6
7
8
9
10
11
12
13
14
15
17
18
19
20
21
22
26
27
28
29
30
31