×
South Asian Languages:
সের্গেই লাভরভ

মস্কো ও কায়রো-র সম্পর্ক, আর তাছাড়া “জেনেভা-২” সম্মেলনের প্রস্তুতির বিষয় রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরোভ আলোচনা করেছেন মিশরের পররাষ্ট্রমন্ত্রী নাবিল ফাহমি-র সাথে.

সিরিয়া সঙ্কট সমাধানের জন্য “জেনেভা – ২” আন্তর্জাতিক সম্মেলনের শুরু হতে আর এক মাসের কম সময় রয়েছে. কিন্তু এখনও কারা অংশগ্রহণ করবে তা ঠিক হয় নি. বিরোধী পক্ষ ঠিক করে উঠতে পারছে না সুইজারল্যান্ডে কি নিজেদের প্রতিনিধি দল পাঠানো হবে, আর তা যদি হয়, তবে ঠিক কাকে. আর ইরানের যোগদান নিয়ে রাশিয়া ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এখনও সমঝোতায় পৌঁছতে পারছে না.

পশ্চিমে বর্তমানে একটা ধারণা তৈরী হয়েছে যে, বাশার আসাদের শক্তি জয়ী হওয়া – সিরিয়াতে সম্ভাব্য সমস্ত ঘটনা পরম্পরার মধ্যে সবচেয়ে ভাল. ইউরোপীয় ও আমেরিকার সরকারি নেতারা আপাততঃ সরাসরি এই বিষয়ে কথা বলছেন না, কিন্তু সিরিয়ার বিদ্রোহীদের দিকে সহায়তা ক্রমশ কমিয়ে দিচ্ছে. তারই মধ্যে দামাস্কাস পরিকল্পিত ভাবেই নিজেদের রাসায়নিক অস্ত্রের ভাণ্ডার ধ্বংস করার কাজ করে চলেছে. এই প্রক্রিয়া নিরাপদে করার কাজে সাহায্যের আশ্বাস তাদের দিয়েছে রাশিয়া.

সিরিয়াতে বিশেষ ভাবে রাসায়নিক অস্ত্র বহনের উপযুক্ত রুশ মালবাহী গাড়ীর প্রথম দফায় পাঠানো দল পৌঁছে গিয়েছে. এই দেশের এলাকায় থাকা বিষাক্ত পদার্থের ভাণ্ডার থেকে এবারে লাতাকিয়া বন্দরে পাঠানোর কাজ শুরু হতে চলেছে, সেখানে এই বিষাক্ত পদার্থ জাহাজে চড়ানো হবে.

প্রথমে ধরে নেওয়া হয়েছিল যে, সবচেয়ে বিপজ্জনক রাসায়নিক অস্ত্র সিরিয়া থেকে ৩১শে ডিসেম্বরের আগেই নিয়ে যাওয়া হবে. এই প্রসঙ্গে সেগুলো বন্দরে নিয়ে যাওয়ার দায়িত্ব থাকবে সিরিয়ার সামরিক বাহিনীর. কিন্তু দামাস্কাসের কাছে এই ধরনের দায়িত্বপূর্ণ কাজ করার মতো প্রয়োজনীয় গাড়ী নেই. কারণ বিষাক্ত বস্তু বিপজ্জনক ও তা সাধারণ মালবাহী গাড়ীতে চড়ানোর উপায় নেই. তার ওপরে এই ধরনের পদার্থের পরিমাণ প্রায় ১৩০০ টন. এই ধরনের কাজের অভিজ্ঞতা না থাকলে ও বিশেষ রকমের যন্ত্রপাতি না থাকলে তা করা অসম্ভব, এই রকম মনে করেই রিসি নামক প্রতিরক্ষা গবেষণা সংক্রান্ত কেন্দ্রের প্রধান গিওর্গি তিশ্যেঙ্কো বলেছেন:

সিরিয়া ও আফগানিস্তানে পরিস্থিতি, ইরানের পারমাণবিক পরিকল্পনা নিয়ে সমস্যার সমাধান রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মনোযোগের কেন্দ্রেই রয়েছে. এই বিষয়ে বুধবারে ঘোষণা করেছেন রাশিয়ার রাজ্যসভার সদস্যদের সামনে উপস্থিত হয়ে এক ভাষণ দেওয়ার সময়ে রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরভ. তিনি উল্লেখ করেছেন যে, সিরিয়ার রাসায়নিক অস্ত্র নষ্ট করার প্রক্রিয়া, যা মস্কো ও ওয়াশিংটনের পক্ষ থেকে সম্মিলিত শক্তি প্রয়োগে শুরু করা হয়েছে, তা সম্পূর্ণ গতিতেই চলছে. লাভরভ তারই সঙ্গে বলেছেন যে, সিরিয়া ও নিকটপ্রাচ্যে সন্ত্রাসবাদী হুমকির মোকাবিলা হবে সিরিয়া নিয়ে “জেনেভা-২” সম্মেলনে আলোচনার এক মুখ্য বিষয়. সন্ত্রাসবাদী “আন্তর্জাতিক গোষ্ঠী”, যারা আজ সিরিয়াতে ঘাঁটি গেড়ে বসেছে, তারা সমস্ত নিকটপ্রাচ্যের জন্যই একটা চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে.

ইরানের পারমাণবিক সমস্যা, সিরিয়া সম্পর্কে সম্মেলন আয়োজনের পরিপ্রেক্ষিত, এবং তাছাড়া ইউক্রেনের পরিস্থিতি. এ বিষয়গুলি ছিল “রস্সিয়া-২৪” টেলি-চ্যানেলকে প্রদত্ত রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরোভের ইন্টারভিউর মুখ্য বিষয়.

রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রী বলেছেন যে, রাশিয়া এই কারণে উদ্বিগ্ন ও ইউরোপীয় সঙ্ঘের তরফ থেকে এই ধরনের কাজের জন্য ইরানের সঙ্গে আলোচনা জানুয়ারী মাস অবধি পিছিয়ে যেতে পারে. রাশিয়া-২৪ টেলিভিশন চ্যানেলকে দেওয়া সাক্ষাত্কারে তিনি এই কথা বলেছেন.

“জেনেভা-২” সম্মেলনে সমস্ত সিরিয়ার বিরোধীদের উপস্থিত করার জন্য সিরিয়ার বৈপ্লবিক শক্তি ও বিরোধীদের জাতীয় জোট এবারে ভেঙে পড়তে শুরু করেছে. এই বিষয়ে “রাশিয়া-২৪” টেলিভিশন চ্যানেলের এক সাক্ষাত্কারে বলেছেন রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রী সের্গেই লাভরভ, যা শনিবারে মস্কোতে প্রচার করা হয়েছে. মন্ত্রীর কথামতো, খবর পাওয়া গিয়েছে যে, সিরিয়াতে যুদ্ধে রত “সিরিয়ার স্বাধীন বাহিনী” নামে জঙ্গীদের জোট এখন বেশীর ভাগ ক্ষেত্রেই এই বাইরে থাকা জোটের কথা শুনছে না. তাছাড়া ২০টি বাহিনী এবারে একসাথে “ঐস্লামিক ফ্রন্ট” তৈরী করেছে, যারা নিজেদের লক্ষ্য স্থির করেছে সিরিয়াতে ও প্রতিবেশী দেশগুলোতে খলিফা তন্ত্র প্রতিষ্ঠা করার.

রাশিয়ার পররাষ্ট্র দপ্তরের প্রধান ইরান সফরে গিয়েছিলেন, যেখানে তিনি তাঁর সহকর্মী জাভাদ জারিফের সঙ্গে আলোচনা করেছেন আর তাঁর সঙ্গে ঐস্লামিক প্রজাতন্ত্র ইরানের রাষ্ট্রপতি হাসান রোহানি দেখা করেছেন.

যদিও এই সফরকে আনুষ্ঠানিক ভাবে কার্যকরী বলা হয়েছে, তবুও তার সংজ্ঞা সাধারণ দ্বিপাক্ষিক অনুষ্ঠানের বাইরেই হয়েছে. এই প্রসঙ্গে আমাদের সমীক্ষক ভ্লাদিমির সাঝিন মন্তব্য করেছেন.

রাশিয়া দুর্নীতির বিরুদ্ধে রাজনীতির কাঠামোর বাইরে আন্তর্জাতিক সহযোগিতা করতে চেয়েছে ও সেই কাজকে বাস্তব ফলে পরিণত করতে চায়. এই বিষয়ে রবিবারে রাশিয়ার পররাষ্ট্র দপ্তর থেকে রুশ প্রজাতন্ত্রের রাষ্ট্রপতির সন্ত্রাসবাদ ও আন্তর্জাতিক অপরাধ সম্পর্কে বিশেষ প্রতিনিধি আলেকজান্ডার জ্মেয়েভস্কির কথা উদ্ধৃত করে বলা হয়েছে.

হোয়াইট হাউজ ঘোষণা করেছে যে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ইউরোপে রকেটবিরোধী প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা গঠনের পরিকল্পনা গুটিয়ে নেবে না, ইরানের পারমাণবিক কর্মসূচি সংক্রান্ত সমস্যা মীমাংসার পরিপ্রেক্ষিত সত্ত্বেও.

রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরোভ আগামী সপ্তাহে ইরান সফরের পরিকল্পনা করছেন.

রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরোভ রাশিয়া-ন্যাটো পরিষদে অংশগ্রহণের জন্য বুধবার ব্রাসেলসে পৌঁছেছেন.

সন্ত্রাসবাদীরা সিরিয়াতে নানা ঐস্লামিক ও খ্রীষ্টান ধর্মীয় পবিত্র স্থান ও সেখানকার মানুষদের উপরে অত্যাচার করছে আর তা অবিলম্বে বন্ধ হওয়া দরকার. এই ঘোষণা করা হয়েছে রুশ পররাষ্ট্র দপ্তর থেকে.

আফগানিস্তানের পরিস্থিতি, রাশিয়ার সাথে ন্যাটো জোটের শরিকানা বিকাশ, আর তাছাড়া জোটের আসন্ন শীর্ষ সাক্ষাতের জন্য প্রস্তুতি মঙ্গলবার ন্যাটো জোটের সদর দপ্তরে পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের পর্যায়ে সম্মেলনে প্রধান আলোচ্য বিষয় হবে.

রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরোভ ৪ঠা ডিসেম্বর ব্রাসেলসে পররাষ্ট্র মন্ত্রীদের পর্যায়ে রাশিয়া-ন্যাটো পরিষদের পরবর্তী বৈঠকে অংশগ্রহণ করবেন, শুক্রবার জানানো হয়েছে রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে. 

সিরিয়াতে বিরোধের সময়ে এগারো হাজারের বেশী শিশুর অকাল মৃত্যু হয়েছে. এই ধরনের তথ্য প্রকাশ করেছে বেসরকারি সংস্থা অক্সফোর্ড রিসার্চ গ্রুপ. বেশীর ভাগ শিশুর মৃত্যু হয়েছে গোলা ও বোমা বিস্ফোরণে. প্রায় হাজার খানের বাচ্চাকে গুলি করে মেরেছে স্নাইপার জঙ্গীরা, আর প্রায় একশ জন অল্প বয়সী অত্যাচার সহ্য করে উঠতে পারে নি. আপাততঃ সিরিয়াতে চলছে এক সশস্ত্র যুদ্ধ, সেখানে বাচ্চাদের ও নিরীহ মানুষদের নিহত হওয়া থেকে রক্ষা করা সম্ভব হয়ে উঠছে না.

রাশিয়াতে ইতিবাচক মনে করা হয়েছে যে, সিরিয়ার বিরোধী পক্ষদের জাতীয় জোটের তরফ থেকে মস্কো শহরে পরামর্শের জন্য আসা. এই বিষয়ে ঘোষণা করেছেন রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রী সের্গেই লাভরভ. তিনি এর আগে এই জোটের কাছে যোগ্য আমন্ত্রণ পাঠিয়েছিলেন.

লাভরভ উল্লেখ করেছেন যে, “আমরা এই আমন্ত্রণের প্রতিক্রিয়া জানতে পেরেছি, যার অর্থ এই যে, জোট আমাদের আমন্ত্রণ গ্রহণ করেছে”.

সিরিয়ার রাসায়নিক অস্ত্র দেশের সীমানার বাইরে ধ্বংস করার বিভিন্ন ধরণ আন্তর্জাতিক জনসমাজ বিবেচনা করছে এ প্রক্রিয়ায় আলবানিয়া অংশগ্রহণ করতে অস্বীকার করার পর. 

আগের
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30
সেপ্টেম্বর 2017
ঘটনার সূচী
সেপ্টেম্বর 2017
1
2
3
4
5
6
7
8
9
10
11
12
13
14
15
16
17
18
19
20
21
22
23
24
25
26
27
28
29
30