×
South Asian Languages:
ইসলাম, সেপ্টেম্বর 2012
রাশিয়ার প্রাচ্য বিশারদদের অষ্টম সম্মেলন কাজান শহরে শেষ হয়েছে. তাতারস্থানের রাজধানীতে প্রায় চারশো বিশেষজ্ঞ অংশ নিয়েছেন. নিকটপ্রাচ্যের পরিস্থিতি, এখানের বিরোধে সাংস্কৃতিক ও ধর্মীয় অঙ্গ, যা নিয়ে আজ আরব দেশ গুলি ব্যতিব্যস্ত ইত্যাদি নিয়ে আলোচনা হয়েছে.
সিরিয়ার শহর গুলিতে সন্ত্রাসবাদী হানার আয়োজন বেশীর ভাগ ক্ষেত্রেই সশস্ত্র জঙ্গীরা করছে, যারা বিদেশ থেকে এই দেশে ঢুকে পড়েছে. সিরিয়ার আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা মন্ত্রক থেকে এই খবর দেওয়া হয়েছে. সিরিয়ার সেনা বাহিনীও নিজেদের পক্ষ থেকে সমর্থন জানিয়ে বলেছে যে, আলেপ্পো শহরে বেশীর ভাগ যুদ্ধে নিহত ও বন্দী লোকেরা এসেছে বিদেশ থেকেই.
বারাক ওবামা মনে করেন যে, মুসলমানরা নির্দোষ সিনেমা শুধু ঐস্লামিক রাষ্ট্র গুলির জন্যই নয়, বরং আমেরিকার জন্য অপমানজনক. তা স্বত্ত্বেও রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারন সভার সামনে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতি ঘোষণা করেছেন: আমেরিকার লোকদের জন্য সংবিধানে ঘোষিত বাক্ স্বাধীনতা বেশী গুরুত্বপূর্ণ, এই ট্রেলার দেখানোর সম্ভাব্য পরিণতির চেয়ে. সুতরাং আমেরিকার ইন্টারনেট নেটওয়ার্ক থেকে এই ট্রেলার আমেরিকার নেট প্রভাইডার কোম্পানী গুলি করবে না.
২০১৪ সালের পরে আফগানিস্তানে ন্যাটো জোটের সামরিক বাহিনীর ভবিষ্যত নিয়ে স্পষ্ট করে জানতে মস্কো থেকে স্থির করা হয়েছে. এই জোটের নেতৃত্ব একাধিকবার ঘোষণা করেছে যে, এই সময়ের মধ্যেই এই দেশ থেকে সৈন্য প্রত্যাহার করার কাজ শেষ হয়ে যাবে. কিন্তু বর্তমানে পাওয়া খবর থেকে দেখা যাচ্ছে যে, আফগানিস্তানে বিদেশী ঘাঁটি তাও থেকেই যাবে.
ইচ্ছা করে ধর্ম বিশ্বাসী লোকদের অনুভূতিকে আঘাত যারা করবে, তাদের তিন থেকে পাঁচ বছরের জন্য কারাদণ্ড দেওয়া হতে পারে আসন্ন ভবিষ্যতেই. রাশিয়ার লোকসভাতে ফৌজদারী মামলা সংক্রান্ত নিয়মাবলীতে সংশোধন আনার জন্য এই আইন নেওয়া হচ্ছে.
আরব লীগ ও রাষ্ট্রসঙ্ঘের বিশেষ সিরিয়া সঙ্কট সংক্রান্ত প্রতিনিধি লাখদার ব্রাহিমি মস্কো ও বেজিং সফরে আসছেন. এই প্রসঙ্গে তিনি রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকের পরে সদর দপ্তরে জানিয়েছেন. এই প্রসঙ্গে তিনি স্বীকার করেছেন যে, সিরিয়াতে পরিস্থিতি আরও ঘোরালো হয়ে উঠেছে ও এই সঙ্কট নিয়ন্ত্রণের জন্য আন্তর্জাতিক শক্তি প্রয়োগ এখন কানা গলিতে গিয়ে আটকেছে. সমর্থনের জন্যই লাখদার ব্রাহিমি মস্কো ও বেজিং আসছেন.
বিগত সপ্তাহের শেষে সারা ভারত জুড়ে হওয়া প্রতিবাদের ঢেউ প্রতিবেশী পাকিস্তান বা ঐস্লামিক বিশ্বের মতো রাগী ও হিংসাশ্রয়ী না হলেও আর কোন রকমের মানবিক ক্ষতি না করালেও, বেশ জোরদারই হয়েছে. প্রসঙ্গতঃ, বৃহত্ রাজনীতির জন্য এই প্রতিবাদের প্রভাব কিন্তু কিছু কম সংজ্ঞাবহ না হতেও পারে, যেমন স্ক্যান্ডাল সৃষ্টি করা সিনেমার কারণে মুসলমান দেশ গুলিতে ক্ষোভের ঢেউ তৈরী করেছে.
মুসলমানদের আমেরিকা বিরোধী ও ফরাসী বিরোধী প্রতিবাদ আন্দোলন শক্তিশালী হয়ে উঠছে. ইন্টারনেটে দেওয়া “মুসলমানরা নির্দোষ” নামে সিনেমার ট্রেলার যে বিরোধের ঝড় তুলেছে, তা ফ্রান্সের “শার্লি এডবো” জার্নালে হজরত মহম্মদের ন্যক্কার জনক ব্যঙ্গচিত্র আরও জোরালো করে দিয়েছে. ফলে বিভিন্ন দেশে বিশ্বাসী মানুষের অনুভূতি রক্ষার জন্য করা প্রতিবাদের মিছিলে নিহতদের সংখ্যা বর্তমানে দশক ছাড়িয়েছে.
চিন আফগানিস্তানে নিজেদের প্রভাব বৃদ্ধির জন্য খুবই সংজ্ঞাবহ এক কাজ করেছে. বিগত সপ্তাহান্তের দিন গুলিতে কাবুল শহরে, এক আগে থেকে না জানানো সফরে এসেছিলেন চিনের কমিউনিস্ট পার্টির কেন্দ্রীয় পরিষদের নেতা চ্ঝোউ ইউনকান. এটি ১৯৬৬ সালের পর থেকে চিনের এত উচ্চ পর্যায়ের কোনও নেতৃস্থানীয় ব্যক্তির আফগানিস্তানে প্রথম সফর.
ইসলামবিরোধী মার্কিন চলচিত্র 'মুসলমানদের নির্দোষিতা'র বিরুদ্ধে রোববার বাংলাদেশে বিক্ষোভ দিবস হিসেবে পালিত হচ্ছে. দেশের অধিকাংশ স্কুল, দোকানপাট ও অফিস-আদালাত বন্ধ রয়েছে. বিরোধী দলগুলো এ বিক্ষোভের আহবান করেছে. রাজধানী ঢাকার রাস্তায় কয়েক হাজার দাঙ্গা পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে এবং বিদেশী কূটনৈতিক মিশনগুলোতে বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে. এদিকে ইসলামবিরোধী মার্কিন চলচিত্রের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ প্রদর্শনকালে পুলিশের সাথে দফায় দফায় সংঘর্ষ বাঁধে.
সারা পৃথিবীজুড়ে স্বল্পমাত্রার আমেরিকান ফিল্ম ‘ইনোসেন্স অফ মুসলিম’ নিয়ে বিশৃঙ্খলা সমানে চলেছে. পাকিস্তানে পুলিশকে অস্ত্রপ্রয়োগ করতে হয়েছে আর সব বড় শহরে মোবাইল কনট্যাক্ট অফ করে দেওয়া হয়েছে. ইন্দোনেশিয়ায় মার্কিনী রাষ্ট্রদূতাবাস জাকার্তায় ও অন্যান্য শহরে সব কনসাল দপ্তর বন্ধ করা হয়েছে. আর টিউনিশিয়ার শাসক কর্তৃপক্ষ শুক্রবার কোনোরকম মিছিলের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারী করেছিল.
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে আইন সংরক্ষণ সংক্রান্ত সমস্যা হল – সামাজিক অধিকার কেড়ে নেওয়া, রাজনৈতিক ক্ষেত্রে দুর্নীতি ও আইন রক্ষী বাহিনীর অপব্যবহার. এই ধরনের তথ্য রাশিয়ার গণতন্ত্র ও সহযোগিতা ইনস্টিটিউট থেকে তৈরী করা রিপোর্টে বলা হয়েছে. তাদের গবেষণা অনুযায়ী এই ধরনের আইন ভাঙা হচ্ছে নিয়মিত ভাবেই ও তাদের তীক্ষ্ণতা কম হচ্ছে না.
তেল- আভিভকে আমেরিকার সরকারি কর্মীরা সাবধান করে দিয়ে বলেছে যে, ইজিপ্ট ও জর্ডন ইজরায়েলের সঙ্গে শান্তি চুক্তি খণ্ডন করতে পারে, যদি তারা ইরানের উপরে আঘাত হানে. এই বিষয়ে জানিয়েছে বৃহস্পতিবারে ইজরায়েলের সংবাদপত্র “এদিয়ত আখ্রোনত” সংবাদপত্র.
সিরিয়ার সঙ্কট ও ইরানের পারমানবিক পরিকল্পনার সমস্যা ইত্যাদি বিষয় এই শীর্ষ সম্মেলনে আলোচ্য বিষয় হয়েছে. এই বিষয়ে বলা হয়েছে ইউরোপীয় সঙ্ঘ ও গণ প্রজাতন্ত্রী চিনের মধ্যে পনেরোতম শীর্ষ সম্মেলনের ফলাফল নিয়ে প্রকাশিত এক বিজ্ঞপ্তিতে. একই সঙ্গে আলোচিত হয়েছে কোরিয়া উপদ্বীপ এলাকার পারমানবিক সমস্যা নিয়েও, প্রসঙ্গ উঠেছে আফগানিস্তান মায়ানমার ও সুদান সংক্রান্ত বিষয়ে.
পাকিস্তানের মন্ত্রীসভা ২১শে সেপ্টেম্বর শুক্রবারকে হজরত মহম্মদের প্রতি আনুগত্যের দিবস পালন করা হবে বলে ঘোষণা করেছে. এই জন্য আবার মন্ত্রীসভার তরফ থেকে বিশেষ অধিবেশন ডাকা হয়েছিল, যেখানে আলোচনার কথা ছিল ১৪টি প্রশ্নে, কিন্তু সব গুলিকেই মুলতুবি রেখে দেওয়া হয়েছিল শুধু একটিরই জন্য – এতটাই তীক্ষ্ণ হয়ে দাঁড়িয়েছে পশ্চিমের সঙ্গে ঐস্লামিক বিশ্বের সম্পর্কের সমস্যা.
কাবুলে আবার সন্ত্রাসবাদী হামলা হয়েছে. আত্মঘাতী এক নারী কেচ্ছামুলক ফিল্ম, যেখানে হজরত মহম্মদকে অপমান করা হয়েছে, তার বিরূদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়ে নিজেকে বিস্ফোরণ করেছে. ফলশ্রুতিতে দক্ষিন আফ্রিকার একটা বেসরকারী ফার্মের ১২ জন কর্মচারী নিহত হয়েছে. অন্যান্য দেশেও প্রতিবাদী আন্দোলনের ঢেউ স্থিমিত হচ্ছে না. ভারত, বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের পাশাপাশি নিকট প্রাচ্যের, উত্তর আফ্রিকার ও এশিয়ার বহু দেশে জনতা প্রতিবাদ করে চলেছে.
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে নির্মিত মুসলমানদের দোষ নেই নামের সিনেমা, যাতে হজরত মহম্মদকে খুবই ন্যক্কার জনক অবস্থায় দেখানো হয়েছে, তার বিরুদ্ধে প্রবল প্রতিবাদ প্রথমে নিকটপ্রাচ্যের ও আফ্রিকার দেশ গুলিকে নাড়া দিয়ে, তার পরে সম্পূর্ণ শক্তিতে ছড়িয়ে পড়েছে হিন্দুস্থানের দেশ গুলির মুসলমান সমাজেও.
কুবান বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকশ শিক্ষার্থীরা আজ রোববার ইসলাম বিরোধী বিতর্কিত চলচ্চিত্র ‘ইনোসেন্স ইন মুসলিম’ এর জন্য বিক্ষোভ করেছে. ছাত্র-ছাত্রীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান প্রবেশ পথ অবরোধ করে. স্থানীয় অনলাইন পত্রিকা খামা প্রেস এ খবর জানিয়েছে. খবরে বলা হয়, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রবেশ পথ ছাড়াও আশেপাশের বেশ কয়েকটি সড়ক পথের যান চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়. তবে এর বিস্তারিত কিছু সংবাদে জানানো হয় নি.
এই সপ্তাহে বিশ্ব সমাজ স্মরণ করেছে ২০০১ সালের ১১ই সেপ্টেম্বরের ট্র্যাজেডির ঘটনায় নিহতদের. ঠিক ১১ বছর আগে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে আল- কায়দা দলের সন্ত্রাসবাদী অন্তর্ঘাত হয়েছিল.
লিবিয়ার বেনগাজী শহরে আমেরিকার রাষ্ট্রদূত ক্রিস স্টিভেন্সের হত্যার পরিকল্পনা আগে থেকেই করা হয়েছিল. তা স্রেফ নজর এড়ানোর জন্যেই করা হয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কনস্যুলেটে জনতার আক্রমণের সময়ে, আর তা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে সন্ত্রাসবাদী হানার বর্ষ পূর্তির সময়ে যে হয়েছে, সেটা নিতান্তই কাকতালীয় ব্যাপার.
আগের
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30
সেপ্টেম্বর 2012
ঘটনার সূচী
সেপ্টেম্বর 2012
6
8
9
12
15
19
29
30