×
South Asian Languages:
জ্বালানী, মার্চ 2013
‘ব্রিটিশ পেট্রোলিয়াম’ কোম্পানীর এশীয় বিভাগের অর্থনীতিবিদদের সূত্র ধরে চীনের সংবাদ মাধ্যমগুলি জানাচ্ছে, যে ২০১৭ সাল নাগাদ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে টপকে চীন পৃথিবীর বৃহত্তম খনিজতেল আমদানীকারকে পরিণত হবে. চীনের অর্থনৈতিক উন্নয়নের উঁচুহারের সুবাদে ২০০০ সাল থেকে ২০১১ সালে জ্বালানীর চাহিদা ১৫৯ শতাংশ বেড়েছে. বর্তমান অগ্রগতির হার বজায় থাকলে, চীন ২০২৫ সালে বিশ্বের সর্ববৃহত পেট্রোল ব্যবহারকারী দেশে পরিণত হবে.
দক্ষিণ আফ্রিকার ডারবান শহরে ব্রিকস গোষ্ঠীর শীর্ষ সাক্ষাতের ফলাফলের ভিত্তিতে একসারি গুরুত্বপূর্ণ দলিল স্বাক্ষরিত হয়েছে. ব্রাজিল, রাশিয়া, ভারত, চীন ও দক্ষিণ আফ্রিকা প্রজাতন্ত্রের নেতারা, বিশেষ করে, পাঁচ দেশের কারবারী পরিষদ এবং বিশেষজ্ঞ কেন্দ্র গঠন সম্বন্ধে সমঝোতায় এসেছেন. আর্থিক-অর্থনৈতিক প্রশ্নাবলি ছাড়া তথ্য নিরাপত্তা, নার্কোটিক বিপদের বিরুদ্ধে সংগ্রাম, যুব সম্প্রদায় ও শিক্ষা বিষয়ক বিনিময়ের মতো ক্ষেত্রে সমঝোতা অর্জিত হয়েছে.
শনিবার চীনের চেয়ারম্যান শি জিনপিনের রাষ্ট্রীয় সফরের দ্বিতীয় দিন অতিবাহিত হবে মস্কোয়. গতকাল রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিনের সাথে ফলপ্রসূ বৈঠকের পরে আজ সি জিনপিন সাক্ষাত্ করবেন প্রধানমন্ত্রী দমিত্রি মেদভেদেভের সঙ্গে, সংসদের উভয় কক্ষের স্পীকারদের সাথে, চীনাতত্ত্ববিদ বিজ্ঞানীদের সঙ্গে ও মস্কোর আন্তর্জাতিক সম্পর্ক তত্ত্ব ইনস্টিটিউটের শিক্ষার্থীদের সাথে. চীনের চেয়ারম্যানের রাশিয়া সফরের আওতায় পক্ষদ্বয় গতকাল একসারি গুরুত্বপূর্ণ চুক্তি স্বাক্ষর করেছে.
গণ প্রজাতন্ত্রী চিনের সভাপতি শী জিনপিনের সঙ্গে ক্রেমলিনে আলোচনার শেষে রাশিয়া রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন উল্লেখ করেছেন যে, রাশিয়া ও চিনের মধ্যে বহুমাত্রিক সহযোগিতা দুই রাষ্ট্রের জনসাধারণের মূল স্বার্থের দিকেই লক্ষ্য করে করা হয়েছে.
রাশিয়ার “গাজপ্রোম” কর্পোরেশনের ডিরেক্টর পরিষদের সভাপতি ভিক্তর জুবকোভের স্থিরবিশ্বাস যে, রাশিয়ার পক্ষ গ্যাস সরবরাহ সম্বন্ধে চীনের সাথে সমঝোতায় আসবে, যদিও মূল্য সংক্রান্ত আলাপ-আলোচনা খুবই জটিল. সাংবাদিকদের সাথে আলাপে জুবকোভ বলেন যে, সরবরাহের পরিমাণ সম্বন্ধে “গাজপ্রোম” চীনা পক্ষের সাথে সমঝোতায় এসেছে. চীনের জন্য রাশিয়ার গ্যাসের মূল্যের সূত্র নিয়ে গাজপ্রোম আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে.
ওয়াশিংটন ও ইসলামাবাদের এমনিতেই জটিল সম্পর্ক আবার নতুন পরীক্ষার সামনে পড়েছে. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অসন্তোষ স্বত্ত্বেও তাদের স্ট্র্যাটেজিক জোটের দেশ এবারে ইরান থেকে পাকিস্তান পর্যন্ত গ্যাস পাইপ লাইনের পাকিস্তানের অংশ তৈরীর কাজ শুরু করেছে. এই পাইপ লাইন কাজ করতে শুরু করার কথা ২০১৪ সালের শেষে.
জাপানের পারমানবিক বিদ্যুত উত্পাদন কেন্দ্র ফুকুসিমা দূর্ঘটনার দ্বিতীয় বর্ষ দিবসে ভারতের পারমানবিক বিদ্যুত বিরোধী লোকরা নতুন করে রাশিয়ার সাহায্যে নির্মিত কুদানকুলাম পারমানবিক বিদ্যুত কেন্দ্র চালু করার বিরুদ্ধে মিছিল করেছে. প্রায় ৪০০টি ছোট নৌকা ও বোট নিয়ে তারা এই কেন্দ্রের কাছের সমুদ্রে নেমেছিল ও সমস্ত দোকানই সোমবারে প্রতিবাদ পালনের নামে বন্ধ রাখা হয়েছিল.
মঙ্গোলিয়ার রাজধানী উলান-বাটোরে সোমবার মিছিলকারীরা দেশের ভূভাগে ইউরেনিয়াম নিষ্কাশন এবং ব্যবহৃত পারমাণবিক জ্বালানীর অবশেষ সংরক্ষণের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়েছে. এ সম্বন্ধে “ইন্টারফাক্স” সংবাদ এজেন্সি জানিয়েছে মঙ্গোলিয়ার “আইস্ত-মঙ্গোলিয়া” টেলি-চ্যানেলের উদ্ধৃতি দিয়ে. এ মিছিল আয়োজিত হয়েছিল জাপানের “ফুকুসিমা-১” পারমাণবিক বিদ্যুত্ কেন্দ্রে ২০১১ সালের ১১ই মার্চ ঘটা বিপর্যয়ের দ্বিতীয় বার্ষিকী উপলক্ষে.
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র পাকিস্তানের বিরুদ্ধে অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা প্রবর্তন করতে পারে, যদি পাকিস্তান যৌথভাবে ইরানের সাথে গ্যাস পাইপলাইন নির্মাণ করতে অস্বীকার না করে. এ সম্বন্ধে বলেছেন মার্কিনী পররাষ্ট্র বিভাগের প্রতিনিধি ভিক্টোরিয়া ন্যুল্যান্ড. তিনি ইরানের সীমান্তবর্তী গাব্দ বসতিকেন্দ্রে গ্যাস পাইপলাইনের নির্মাণ শুরু হওয়ার খবর সম্বন্ধে মন্তব্য করে এ কথা বলেন.
গত সপ্তাহের শেষে রয়টার সংস্থা ভারতের একটি বৃহত্তম খনিজ তেল পরিশোধন কোম্পানী ম্যাঙ্গালোর রিফাইনারি অ্যান্ড পেট্রো কেমিক্যালস লিমিটেডের কার্যকরী অধ্যক্ষ পি. পি. উপাধ্যায়ের কাছ থেকে পাওয়া খবর হিসাবে জানিয়েছে যে, ভারত আসন্ন ভবিষ্যতে ইরান থেকে খনিজ তেল আমদানী করা বন্ধ করতে পারে.
দুই বছর আগে – ২০১১ সালের ১১ই মার্চ – বিধ্বংসী ভূমিকম্প ও তার পরে জলোচ্ছ্বাসের প্লাবনে জাপানের পারমানবিক বিদ্যুত কেন্দ্র “ফুকুসিমা – ১” খুবই গুরুতর ভাবে বিপর্যয়ের মুখে পড়েছিল. তেজস্ক্রিয় রশ্মির বিকীরণের ভয়ে, নিজেদের বাড়ীঘর ছেড়ে পালিয়ে গিয়েছিলেন দেড় লক্ষের বেশী লোক.
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র আবারও পাকিস্তানের সঙ্গে কথা বলে উঠেছে – তাদেরই দক্ষিণ এশিয়ার সহযোগীর সাথে – এবারেও চরম হুঁশিয়ারি দিয়ে. ওয়াশিংটন ইসলামাবাদকে তেহরানের সঙ্গে যে কোন রকমের কারবারে যেতে নিষেধ করেছে, বলেছে কড়া আর্থিক নিষেধাজ্ঞা নেবে. এই ঘোষণায় কন্ঠস্বর দিয়েছেন পররাষ্ট্র দপ্তরের তথ্য সচিব প্যাট্রিক ভেনট্রেল্ল, পাকিস্তানের রাষ্ট্রপতির সফল ইরান সফরের অব্যবহিত পরেই.
বহু বছর আগে থেকে পরিকল্পনা থাকা স্বত্বেও মাত্র কিছুদিন আগে বাস্তবায়িত হওয়া চিনের নিয়ন্ত্রক কোম্পানীর হাতে পাকিস্তানের গোয়াদার বন্দরের হস্তান্তর ভারতীয় বিশেষজ্ঞদের থেকে এক সার নেতিবাচক মন্তব্যের উদ্রেক করেছে.
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30 31
মার্চ 2013
ঘটনার সূচী
মার্চ 2013
1
2
3
5
7
8
9
10
15
16
17
18
20
24
25
26
27
30
31