×
South Asian Languages:
রাশিয়া, ডিসেম্বর 2013

নতুন বছর এগিয়ে আসছে – ভবিষ্যত উজ্জ্বল আশার এক অপরূপ উত্সব. ১লা জানুয়ারী শুরু হওয়ার আগে রূপকথার রাতে ৩১শে ডিসেম্বর আমরা সকলে, আমাদের জাতীয় পরিচয়, সামাজিক অবস্থান ও রাজনৈতিক পছন্দ ভুলে ঐক্যবদ্ধ এক স্বপ্ন নিয়েই বাঁচি – শুরু হওয়া বছরে আর একটু বেশী আনন্দিত হতে পারার জন্যই.

রাশিয়াতে নতুন বছরের উত্সব পনেরোশ শতকের শেষে পালন করা শুরু হয়েছিল, কিন্তু তা করা হত ১লা জানুয়ারী নয়, ১লা সেপ্টেম্বর. এই দিনটিকে স্থির করেছিলেন মস্কোর তখনকার মহান রাজা তৃতীয় ইভান. তারপর থেকে হেমন্তের প্রথম দিনে মস্কো ক্রেমলিনের প্রধান চত্বরে জনগন জমা হ’তেন, সম্রাট ও তাঁর পারিষদরা উত্সবের পোষাকে প্রাসাদ থেকে বের হ’তেন. অর্থোডক্স গির্জার প্রধান প্যাট্রিয়ার্ক ধর্মীয় প্যারেডের নেতৃত্ব দিতেন আর সেই প্যারেডে থাকত ক্রুশ কাঠ, ধর্মীয় পতাকা ও আইকন. সম্রাটের কাছে পৌঁছে তিনি সম্রাটের সাফল্য কামনা করতেন ও তাঁর স্বাস্থ্য কামনা করতেন. তারপরে শুরু হত উত্সবের উপাসনা, সেই উপাসনা শেষ হলে সম্রাট ও প্যাট্রিয়ার্ক উপস্থিত ধর্মীয় নেতা ও রাজন্য বর্গের কাছ থেকে সম্বর্ধনা পেতেন.

বাহক-রকেট “রোকোত” রাশিয়ার সামরিক উদ্দেশ্যের তিনটি স্পুতনিক-কে কক্ষপথে স্থাপন করেছে, জানানো হয়েছে রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ে.

মস্কো ও কায়রো-র সম্পর্ক, আর তাছাড়া “জেনেভা-২” সম্মেলনের প্রস্তুতির বিষয় রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরোভ আলোচনা করেছেন মিশরের পররাষ্ট্রমন্ত্রী নাবিল ফাহমি-র সাথে.

সিরিয়া সঙ্কট সমাধানের জন্য “জেনেভা – ২” আন্তর্জাতিক সম্মেলনের শুরু হতে আর এক মাসের কম সময় রয়েছে. কিন্তু এখনও কারা অংশগ্রহণ করবে তা ঠিক হয় নি. বিরোধী পক্ষ ঠিক করে উঠতে পারছে না সুইজারল্যান্ডে কি নিজেদের প্রতিনিধি দল পাঠানো হবে, আর তা যদি হয়, তবে ঠিক কাকে. আর ইরানের যোগদান নিয়ে রাশিয়া ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এখনও সমঝোতায় পৌঁছতে পারছে না.

রাশিয়া ও কাজাখস্তান দু দেশের রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন এবং নুরসুলতান নজরবায়েভের আলাপ-আলোচনার ফলাফলের ভিত্তিতে সামরিক-প্রযুক্তিগত সহযোগিতা সম্পর্কে চুক্তি স্বাক্ষর করেছে.

রাশিয়ার “প্লেসেতস্ক” কসমোড্রোম থেকে মঙ্গলবার নতুন আন্তর্মহাদেশীয় ব্যালিস্টিক রকেটের সফলভাবে পরীক্ষামূলক ক্ষেপণ করা হয়েছে, মঙ্গলবার জানানো হয়েছে রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ে. 

আজ জীবনের পঁচানব্বইতম বছরে পরলোকে গিয়েছেন গুলি করার অস্ত্র নির্মাণের এক বিশ্ববিখ্যাত ব্যক্তিত্ব মিখাইল তিমোফিয়েভিচ কালাশনিকভ, বিশ্বের সবচেয়ে অধিক প্রচলিত স্বয়ংক্রিয় বন্দুকের স্রষ্টা. বিশ্বের একশটিরও বেশী দেশের সামরিক বাহিনীতে তাঁর নির্মিত “একে-৪৭” মডেলের কালাশনিকভ অস্ত্র আজ ব্যবহার করা হচ্ছে.

আজ কালাশনিকভের নাম বিশ্বের সর্বত্র পরিচিত. তিনি এক কিংবদন্তী পুরুষ, রাশিয়া, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও চিনের মতো বহু রাষ্ট্রের বিজ্ঞান একাডেমী ও বিশ্ববিদ্যালয়ে তাঁকে সম্মানিত সদস্য পদ দেওয়া হয়েছিল. বিংশ শতকের সবচেয়ে বিখ্যাত আবিষ্কারের মধ্যে তাঁর সৃষ্ট স্বয়ংক্রিয় বন্দুক রয়েছে.

 

অটোম্যাটিক রাইফেল নির্মাণের জন্য বিশ্বের সবচেয়ে পরিচিত ব্যাক্তিত্ব মিখাইল কালাশনিকভ প্রয়াত.

লমনোসভ নামাঙ্কিত মস্কো রাষ্ট্রীয় বিশ্ববিদ্যালয় ব্রিকস রাষ্ট্রগুলির মধ্যে সেরা ১০০টি উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের রেটিংয়ে তৃতীয় স্থান পেয়েছে. প্রথম একশটির মধ্যে রাশিয়া থেকে প্রায় কুড়িটি উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠান রয়েছে. ব্রাজিল, রাশিয়া, ভারত, চিন ও দক্ষিণ আফ্রিকার বিশ্ববিদ্যালয়গুলিকে নিয়ে এই তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে, আর তার মূল্যায়ণ করা হয়েছে, সেই পদ্ধতি অনুসারে, যা বিশ্বের সমস্ত উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলিকে মূল্যায়ণ করার জন্য QS রেটিংয়ে ব্যবহার করা হয়ে থাকে.

তাজিকিস্তানের সত্তর ভাগের বেশী নাগরিক প্রজাতন্ত্রের পক্ষ থেকে প্রথমে শুল্ক সঙ্ঘে ও পরে ইউরো-এশিয়া সঙ্ঘে যোগ দিতে চেয়েছেন. এই ধরনের তথ্য প্রকাশ করেছেন সমাজতত্ত্ববিদরা. কিন্তু দুশানবের প্রাক্তন সোভিয়েত দেশের পুরনো সহকর্মীদের সঙ্গে সংযুক্ত হওয়ার প্রক্রিয়া এখন বহু বছরের জন্যই পিছিয়ে যেতে পারে. এই ধরনের একটা সিদ্ধান্তে পৌঁছেছেন সমস্ত বিশেষজ্ঞরাই, যারা যোগ দিয়েছিলেন “রাশিয়া ও মধ্য এশিয়ার রাষ্ট্রগুলি: ইউরো-এশিয়া সমাকলনের অর্থনৈতিক ও মানবিক বিষয় সমূহ” নামের এক আলোচনা চক্রে.

প্রথম থেকে শেষ অবধিই অসম্ভব ঠেকেছে নিউইয়র্ক শহরে ভারতের ডেপুটি কনসাল জেনারেল দেবযানী খোবরাগাদে আচমকা গ্রেপ্তার হওয়া আর তারপরে জেলবন্দী থাকার ঘটনা. উচ্চপদস্থ এই কূটনীতিবিদকে অপমানজনক ভাবে খানাতল্লাশী করা হয়েছে ও তারপরে নানারকমের অপরাধী ও মাদকাসক্তদের সাথে একত্রে কারাবাসে বাধ্য করা হয়েছে. এই কাজ দিয়েই খুব নোংরা ভাবে বিদেশে রাষ্ট্রের প্রতিনিধি সংক্রান্ত ১৯৬৩ সালের ভিয়েনা কনভেনশন ভঙ্গ করা হয়েছে, যে দলিলে স্পষ্ট করেই লেখা রয়েছে কূটনীতিবিদদের অনাক্রম্যতা নিয়ে.

পশ্চিমে বর্তমানে একটা ধারণা তৈরী হয়েছে যে, বাশার আসাদের শক্তি জয়ী হওয়া – সিরিয়াতে সম্ভাব্য সমস্ত ঘটনা পরম্পরার মধ্যে সবচেয়ে ভাল. ইউরোপীয় ও আমেরিকার সরকারি নেতারা আপাততঃ সরাসরি এই বিষয়ে কথা বলছেন না, কিন্তু সিরিয়ার বিদ্রোহীদের দিকে সহায়তা ক্রমশ কমিয়ে দিচ্ছে. তারই মধ্যে দামাস্কাস পরিকল্পিত ভাবেই নিজেদের রাসায়নিক অস্ত্রের ভাণ্ডার ধ্বংস করার কাজ করে চলেছে. এই প্রক্রিয়া নিরাপদে করার কাজে সাহায্যের আশ্বাস তাদের দিয়েছে রাশিয়া.

এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় এলাকায় পরিস্থিতি তীক্ষ্ণ হওয়ার কথাই মনে রয়ে যাবে চলে যাওয়ার বছরের সঙ্গে. উত্তর কোরিয়া থেকে রকেট উড়ান ও পারমাণবিক পরীক্ষা, বিতর্কিত দ্বীপপূঞ্জের এলাকায় শক্তি প্রদর্শন – জলসীমা পার করে ও আকাশ সীমা লঙ্ঘণ করেই পতাকা ও বিমানের “ডানা” দিয়ে করা হয়েছে – এই সবই বাধ্য করেছে এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় এলাকাতে ফলপ্রসূ নিরাপত্তা ব্যবস্থা তৈরী করার জন্য.

রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন বৃহস্পতিবারে বাত্সরিক “বৃহত্” সাংবাদিক সম্মেলন শুরু করেছিলেন রাশিয়ার অর্থনীতির অবস্থার বর্ণনা দিয়ে. রাষ্ট্রপতির কথামতো, ২০১৩ সালে দেশের গড় বাত্সরিক উত্পাদনের বৃদ্ধি হবে ১, ৪ থেকে ১, ৫ শতাংশ, আর মূল্যবৃদ্ধি বাত্সরিক হিসাবে শতকরা ৬, ১ শতাংশ হতে চলেছে. একই সঙ্গে রুশী জনগনের বেতন বৃদ্ধি হয়েছে গড়ে শতকরা ৫, ৫ শতাংশ. রাশিয়ার অর্থনৈতিক উন্নয়নে মন্দার মূল কারণ আভ্যন্তরীণ, বাইরের বিশ্বের জন্য নয়, যদিও অর্থনীতি নিজের উপরে বিশ্ব অর্থনীতিতে সামগ্রিক মন্দার প্রভাব অনুভব করতে পেরেছে.

২০১৪ সালের পরে, যখন সেই দেশ থেকে পশ্চিমের জোট শক্তির মূল অংশ বেরিয়ে চলে যাবে, তখন আফগানিস্তানের পরিস্থিতি কি রকমের হতে চলেছে, তা নিয়ে রাশিয়া ও ন্যাটো জোটের প্রতিনিধিরা ভবিষ্যদ্বাণীর ক্ষেত্রে পার্থক্য দেখতে পেয়েছেন. মস্কোতে আলোচনা শুরু হয়েছে ন্যাটো জোটের প্রতিনিধি কার্যালয় ও রাশিয়ার রাজনৈতিক গবেষণা কেন্দ্রের যৌথ উদ্যোগে. এই সব বিতর্কের কারণে সম্মেলনের একটি মুখ্য প্রশ্ন যে, কিভাবে আফগানিস্তানের বিষয়ে সহযোগিতা করা দরকার রয়েছে, তা উত্তর বিহীণ রয়ে গিয়েছে.

রাশিয়া নিজেদের সামরিক বাহিনীর প্রয়োজনে ইউক্রেনের সামরিক প্রতিরক্ষা শক্তি ব্যবহার করতে পারত. এই সম্বন্ধে মঙ্গলবারে ঘোষণা করেছেন রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন, তিনি রুশ-ইউক্রেন আন্তর্প্রশাসনিক পরিষদের অধিবেশনে বক্তৃতা দিতে গিয়ে এই কথা বলেছেন. রাষ্ট্রপতি উল্লেখ করেছেন যে, রাশিয়া তৈরী রয়েছে সেই ধরনের সম্ভাবনাকে বিচার করে দেখতে, যাতে ইউক্রেনের অর্থনীতির প্রতিরক্ষা শক্তি রাশিয়ার সামরিক বাহিনীর জন্য ব্যবহার করা সম্ভব হতে পারে.

রাশিয়ার সঙ্গে মৈত্রী ও সহযোগিতার ক্ষেত্রে বিশাল অবদান রাখার জন্য ও বিজ্ঞান, সংস্কৃতি ও সক্রিয় ভাবে সমাজসেবা করার জন্য তিন প্রখ্যাত ভারতীয় নাগরিককে মৈত্রী পদক দিয়ে সম্মানিত করেছে রাশিয়া. এই সংক্রান্ত নির্দেশ রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন ৬ই ডিসেম্বর স্বাক্ষর করেছেন. মৈত্রী পদক প্রাপ্ত ব্যক্তিরা হলেন ভারতীয় লোকসভার সদস্য মুরলী মনোহর যোশী, যৌথ রুশ-ভারত সংস্থা ব্রামোস এয়ারো স্পেসের কর্তা এ. এস. পিল্লাই ও পুশকিন পদক দিয়ে সম্মানিত করা হয়েছে আন্তর্জাতিক ভারতীয় সংস্কৃতি কেন্দ্রের ডিরেক্টর লোকেশ চন্দ্রকে.

রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন আরও একবার রাশিয়ার জনগনের নির্বাচনে বছরের সেরা ব্যক্তি হয়েছেন, তিনি ১৯৯৯ সাল থেকেই জনপ্রিয়তার শিখরে রয়েছেন বলে জানিয়েছে সামাজিক মতামত তহবিল.

ইরাক ৪৩০ কোটি ডলারের চুক্তি অনুযায়ী ২০১৪ সালের গোড়ায় রাশিয়ার অস্ত্রের দ্বিতীয় ক্ষেপ পৌঁছোনোর অপেক্ষা করছে.

ইরানের পারমাণবিক সমস্যা, সিরিয়া সম্পর্কে সম্মেলন আয়োজনের পরিপ্রেক্ষিত, এবং তাছাড়া ইউক্রেনের পরিস্থিতি. এ বিষয়গুলি ছিল “রস্সিয়া-২৪” টেলি-চ্যানেলকে প্রদত্ত রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরোভের ইন্টারভিউর মুখ্য বিষয়.

আগের
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30 31
ডিসেম্বর 2013
ঘটনার সূচী
ডিসেম্বর 2013
21
26
27
28
29
30
31