×
South Asian Languages:
টিউনিশিয়া

২০১০ সালের ২৪শে ডিসেম্বর টিউনিশিয়ার সিদি-বুজিদে প্রথম বেন আলির প্রশাসনের বিরুদ্ধে গণ অভ্যুত্থান ঘটেছিল, যা “আরব বসন্তের” শুরু করেছিল. হাতে গোনা কয়েক সপ্তাহের মধ্যে উত্তর আফ্রিকায় দুটি প্রশাসনকে জনতার ঝড় ধুয়ে দিয়েছিল, যে দুটিই বহুদিন ধরে পশ্চিমের খুবই ভরসার জোটসঙ্গী হয়ে ছিল.

তারপরে ঘটনাচক্র দিক পরিবর্তন করেছে, আর ছড়িয়ে পড়েছে সেই সমস্ত দেশের উপরে, যাদের বেন আলির টিউনিশিয়া বা হোসনি মুবারকের ইজিপ্টের সঙ্গে খুব কমই অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক দিক থেকে মিল ছিল. “আরব বসন্ত” তারপরে ১৮০ ডিগ্রী দিক পরিবর্তন করেছে.

২০১১ সালের গোড়ায় সিরিয়ায় সঙ্কট দেখা দেওয়ার সময় থেকে পৃথিবীর প্রায় ৭০টি দেশ থেকে ১১ হাজারেরও বেশি জঙ্গী সিরিয়ায় পৌঁছেছে সরকারী বাহিনীর বিরুদ্ধে সামরিক ক্রিয়াকলাপে অংশগ্রহণের জন্য.

টিউনিশিয়ায় ক্ষমতাসীন ইস্লামিক পার্টি – “আন-নাহদা” পার্টির প্রতিনিধি নেজিব ম্রাদ দেশের জাতীয় সাংবিধানিক পরিষদের কার্যকলাপ স্থগিত রাখা-কে “আভ্যন্তরীন কুদেতা” বলে অভিহিত করেছেন.

টিউনিশিয়ার সেনাবাহিনীর অন্ততপক্ষে আটজন সৈনিক নিহত হয়েছে আলজিরিয়ার সাথে সীমানার কাছে পাহাড়ী এলাকায় টহলদারী সৈনিকদের উপর জঙ্গীদের হানার ফলে. এ সম্বন্ধে গত রাতে জানিয়েছে “অ্যাসোশিয়েটেড প্রেস” সংবাদ এজেন্সি. সৈনিকরা পাহাড়ী এলাকায় জঙ্গীদের খুঁজছিল আর জঙ্গীরা ওত্ পেতে ছিল. টহলদারী গোটা সৈনিক-দল ধ্বংস হয়েছে.

টিউনিশিয়ার জাতীয় বিমান কোম্পানি “টিউনিসএয়ার” সাধারণ ধর্মঘট উপলক্ষে শুক্রবার পরিকল্পিত সমস্ত আন্তর্জাতিক বিমান-যাত্রা বাতিল করেছে. দেশের প্রধান ট্রেড-ইউনিয়ন শুক্রবার এ ধর্মঘট ঘোষণা করেছে. সাধারণ ধর্মঘট আয়োজিত হয়েছে টিউনিশিয়ার ধর্ম-নিরপেক্ষ বিরোধী পার্টির অন্যতম নেতা এবং দেশের সংবিধান সভার সদস্য মুহাম্মেদ ব্রাহিমি-কে হত্যার প্রতিবাদ স্বরূপ. অজানা ব্যক্তিরা বৃহস্পতিবার দেশের রাজধানীতে তাঁর বাড়ির কাছে তাঁকে ১১ বার গুলি করে.
তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী তৈপ এরদোগান প্রজাতন্ত্রের স্থপতি আতাতুর্কের নামাঙ্কিত সংস্কৃতি কেন্দ্র তাক্সিম স্কোয়ার থেকে ভেঙে তুলে দেওয়ার বিষয়ে জোর দিচ্ছেন, যে কেন্দ্র ও সংলগ্ন গেজি পার্ক রক্ষার জন্য আজ দশ দিন ধরে দেশের সমস্ত বড় শহরে মিছিল চলছে.
টিউনিশিয়ার সরকার সেই সব গোষ্ঠীদের খুঁজছে, যারা টিউনিশিয়ার যুবকদের ভাড়াকরে সিরিয়ায় যুদ্ধ করতে পাঠাচ্ছে, বলে সন্দেহ করা হচ্ছে. স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমগুলির তথ্য অনুযায়ী, টিউনিশিয়ার হাজার হাজার যুবক অধিবাসীকে ভাড়া করা হচ্ছে, তারপরে সিরিয়ার সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে লড়াি করার জন্য সেখানে পাঠানো হচ্ছে.
টিউনিশিয়ার প্রধানমন্ত্রী হামাদি আল-জিবালি পদত্যাগ করার কথা ঘোষণা করেছেন. এ সম্বন্ধে তিনি বলেছেন মঙ্গলবার জাতীয় টেলিভিশনের সম্প্রচারে. ফেব্রুয়ারী মাসের গোড়ায় প্রধানমন্ত্রী টেকনোক্র্যাট-দের নিয়ে “অ-পার্টিভিত্তিক” মন্ত্রীপরিষদ গঠনের অভিপ্রায়ের কথা বলেছিলেন, যাতে টিউনিশিয়ার বিরোধীপক্ষের অন্যতম লীডার শুক্র বেলইদ-এর হত্যার পরে দেশে গড়ে ওঠা উত্তেজনাপূর্ণ আভ্যন্তরীন পরিস্থিতি মীমাংসা করা যায়.বিফলতার ক্ষেত্রে জিবালি অবিলম্বে পদত্যাগ করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন.
তিউনেশিয়ায় সরকার বিরোধীজোটের শীর্ষ নেতা চোকরি বেলায়েদকে গুলি করে হত্যা করাকে কেন্দ্র করে বিক্ষোভকারী ও পুলিশের মধ্যে চলা সংঘর্ষে ১ পুলিশ কর্মী নিহত ও আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর আরো ৫৯ জন আহত হয়েছে. দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রনালয় জানিয়েছে যে, পুলিশ ৩৭৫ জনকে আটক করছে. শুক্রবার বিক্ষোভকারীরা পুলিশের ওপর হামলা করলে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে.
টিউনিশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মুলতঃ ইসলামীদের নিয়ে গড়া মন্ত্রীসভা ভেঙে দেওয়ার কথা ঘোষনা করেছেন এবং ভোটের আগে পর্যন্ত নতুন কার্যনির্বাহী সরকার গঠন করা হবে বলে জানিয়েছেন. টিউনিশিয়ায় প্রখ্যাত রাজনীতিবিদ ও বিরোধী জাতীয় ফ্রন্টের নেতা শুক্রি বালাইদ খুন হওয়ার পরে পরিস্থিতি অত্যন্ত জটিল হয়ে পড়ার প্রেক্ষাপটেই প্রধানমন্ত্রী এই ঘোষনা করেছেন. বালাইদকে তার বাসভবনের সামনে বুধবার অজ্ঞাতকুলশীল কয়েকজন আততায়ী খুন করেছে.
টিউনিশিয়ার সামরিক নেতৃত্ব ঠিক করেছে আলজিরিয়ার সঙ্গে সীমান্ত এলাকার খনিজ গ্যাস ও তেল উত্পাদন ক্ষেত্রে বাড়তি শক্তি প্রয়োগ করে নিরাপত্তা বৃদ্ধির, এই খবর দিয়েছে টিউনিশিয়ার সংবাদ সংস্থা. সংস্থার পক্ষ থেকে প্রতিনিধি যেমন উল্লেখ করেছেন যে, এই ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে যে কোন রকমের সন্ত্রাসবাদী কাজ রুখতে, যা টিউনিশিয়ার খনিজ তেল ও গ্যাস ক্ষেত্রের বিরুদ্ধে করা হতে পারে.
মালি রাষ্ট্রের প্রধানমন্ত্রী দিয়াঙ্গো সিসোকো প্রতিবেশী আফ্রিকার দেশ গুলিকে ও রাষ্ট্রসঙ্ঘের কাছে তাঁর দেশে শান্তি রক্ষী বাহিনীর প্রবেশের প্রক্রিয়াকে দ্রুত করতে আহ্বান করেছেন. ১০ দিন আগে রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদ সিদ্ধান্ত নিয়েছে মালিতে আন্তর্জাতিক বাহিনী পাঠানোর, কিন্তু তার জন্য নির্দিষ্ট কোন দিন এখনও ঠিক করা হয় নি.
আলজিরিয়াতে, আফগানিস্তানে, নাইজিরিয়াতে গত কয়েকদিন ধরে নতুন সব সন্ত্রাসবাদী হানা হয়েছে. সিরিয়াতে তা হচ্ছে রোজই. এতদিন ধরেই শান্ত থাকা আরব আমীরশাহীতে ঘোষণা করা হয়েছে যে, সৌদী আরবের থেকে আসা চরমপন্থী দলের সদস্যরা গ্রেপ্তার হয়েছে, যারা দুটি প্রতিবেশী দেশেই সন্ত্রাসের পরিকল্পনা করছিল. সন্ত্রাসবাদ আগের মতই অগ্রসর হচ্ছে, আর তার ভৌগোলিক প্রসার শুধু বেড়েই চলেছে.
ইজিপ্টে বহু লোকের মিছিল ও সমাবেশে উপস্থিত লোকের সঙ্গে পুলিশের সঙ্ঘর্ষ আবারও নিত্য নৈমিত্তিক বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে, যেমন ছিল এক বছরের কিছু আগে. এই কয়েকদিন আগেও মনে হয়েছিল যে, ইজিপ্টের জন্য পরীক্ষার সময় বুঝি বাস্তবে পিছনেই রয়ে গিয়েছে, কিন্তু এখন এমন একটা ধারণা হচ্ছে যে, দেশ আবার এক বিপজ্জনক গণ্ডীর কাছে পৌঁছচ্ছে. পিরামিডের দেশে কি হচ্ছে?
ইজরায়েল ও প্যালেস্টাইনের হামাস গোষ্ঠীর লোকরা এখনও শান্তি স্থাপন নিয়ে কোনও চুক্তিতে আসতে পারছে না. আরও বেশী করেই তারা বাইরের খেলোয়াড় দলে টানছে. প্যালেস্টাইনের লোকদের স্বার্থ দেখছে ইজরায়েল ও টিউনিশিয়া. আর কাতারের আমীর ঘোষণা করেছে যে, আরব বসন্তের পরে জোট বদ্ধ মুসলিম বিশ্বের উচিত্ এবারে ইজরায়েলকে কড়া জবাব দেওয়া. কিন্তু গাজা সেক্টরে বিরোধের থেকে প্রধানতঃ লাভবান হতে চলেছে ইরান.
তিউনেশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী রাফিক আবদুল সালাম শনিবার এক সংক্ষিপ্ত সফরে গাজা আসেন. ইসরাইলি হামলায় ক্ষতিগ্রস্থ গাজাবাসীদের প্রতি সহানুভূতি জানানোর জন্যই তিনি গাজা আসেন. সেখানে দেওয়া এক বক্তৃতায় আবদুল সালাম ইসরাইলি আগ্রাসনের তীব্র নিন্দা জানান এবং এ ঘটনাকে তিনি মানবাধিকার লংঘন বলে উল্লেখ করেন. উল্লেখ্য, মিশরের প্রধানমন্ত্রী হিশাম কান্দিলের গাজা সফরের পরের দিনই তিউনেশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী গাজায় আসেন.
মিশরের দৃষ্টান্ত অনুযায়ী টিউনিশিয়াও গাজা অঞ্চলে উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধিদল পাঠাবে. আগে জানানো হয়েছিল যে মিশরের প্রধানমন্ত্রী হিশাম কান্ডিল সেখানে যাবেন সরেজমিনে পরিচিত হতে চান পরিস্থিতির সাথে. মিশরে ও টিউনিশিয়ায়, যেখানে জয়লাভ করেছে “আরব্য বসন্ত”, ক্ষমতায় এসেছে ইস্লামিক মহলের লোকেরা, যাদের মতাদর্শ “হামাসের” কাছাকাছি. উভয় দেশই ইস্রাইলী অভিযানের শুরু থেকেই প্যালেস্টাইনীদের পক্ষে ছিল.
সমস্ত রকমের সম্ভাব্য সামরিক গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষ, রক্তপাত ও নাগরিকদের হত্যা, যুদ্ধের নিয়মও ভঙ্গ করা ও আন্তর্জাতিক মানবাধিকার লঙ্ঘণ – এই সবই গত দেড় বছর ধরে লিবিয়াতে চলছে. গণতন্ত্রের প্রতীক, যেটির জন্য মুহম্মর গাদ্দাফিকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছিল, বর্তমানে তা হয়েছে মুখে দাড়ি ও হাতে স্বয়ংক্রিয় অস্ত্র সমেত লোক, যে যথেচ্ছ চারদিকে গুলি বর্ষণ করছে.
আবু জিহাদ ইজরায়েলের হাতেই নিহত হয়েছে, বলে জানিয়েছে ইজরায়েলের সংবাদ মাধ্যম. বহুদিন ধরেই ইজরায়েলকে এই হত্যাকাণ্ডের জন্য সন্দেহ করা হচ্ছিল কিন্তু সামরিক সেন্সর শুধু এই বৃহস্পতিবারেই ১৯৮৮ সালে টিউনিশিয়া দেশে করা এক গুপ্ত অন্তর্ঘাতের তথ্যের উপর থেকে “গোপনীয়তার বন্ধন” তুলে নিয়েছে.
টিউনিশিয়ার রাষ্ট্রপতি মনসেফ আল-মারজুকি দেশে প্রায় দু বছর ধরে বলবত্ জরুরী পরিস্থিতির ব্যবস্থা ২০১৩ সালের জানুয়ারী পর্যন্ত প্রলম্বন করেছেন. এ সম্বন্ধে জানিয়েছে রাষ্ট্রীয় তথ্য এজেন্সি “টি.এ.পি” এ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয় প্রধানমন্ত্রী ও জাতীয় সাংবিধানিক অ্যাসেম্বলির অধিকর্তার সাথে পরামর্শের পর, দেশে বিদ্যমান অস্থিতিশীল পরিস্থিতি উপলক্ষে.
আগের
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30 31
অক্টোবর 2017
ঘটনার সূচী
অক্টোবর 2017
1
2
3
4
5
6
7
8
9
10
11
12
13
14
15
16
17
18
19
20
21
22
23
24
25
26
27
28
29
30
31