×
South Asian Languages:
উজবেকিস্তান, 2012
বিশকেকে গত ৫ই ডিসেম্বর শাংহাই সহযোগিতা সংস্থার শীর্ষবৈঠকে সংস্থার কর্মকান্ডের আর্থিক বুনিয়াদ গড়া হয়েছে. সংস্থাটির উন্নয়ন তহবিল ও বিকাশ ব্যাঙ্ক সম্পর্কিত দলিল স্বাক্ষর করেছেন সদস্য দেশগুলির প্রধানমন্ত্রীরা. বিশেষজ্ঞেরা বিশেষ করে উল্লেখ করছেনঃ সদস্য রাষ্ট্রগুলির এশীয়-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে পারস্পরিক সহযোগিতা মজবুত করতে চাওয়া কাকতালীয় নয়. বিশ্বব্যাপী আর্থিক সংকটের প্রেক্ষাপটে এশীয়-প্রশান্ত মহাসাগরীয় এলাকায় নতুন অর্থনৈতিক সম্ভাবনা তৈরি হচ্ছে.
গাজা সেক্টর ও সিরিয়া – সবচেয়ে টাটকা উদাহরণ, যেখানে নিয়মিত বাহিনীকে প্রতিরোধ করছে কালো বাজারে অস্ত্র যোগাড় করতে পারা গোষ্ঠীরা, এই ধরনের আঞ্চলিক যুদ্ধ বন্ধ করা অথবা অন্তত তা উদ্ভব হওয়া কিছুটা কম করতে পারা অংশতঃ বোধহয় সম্ভব হত, যদি আন্তর্জাতিক ভাবে অস্ত্র ব্যবসায় সংক্রান্ত একটা চুক্তি করতে পারা যেত.
রাশিয়া তাজিকিস্থান ও কিরগিজিয়াতে প্রায় দেড়শো কোটি ডলার পর্যন্ত সামরিক প্রযুক্তি সংক্রান্ত সহায়তা করার বিষয়ে প্রস্তুত বলে ঘোষণা করেছে. আশা করা হয়েছে যে, এই সাহায্য করা হবে প্রধানত রাশিয়া থেকে নতুন সমরাস্ত্র সরবরাহ করার মাধ্যমেই.
“বিশ্বকে সেলাম জানাও!” (“Say Salam to the World!”) প্রতিযোগিতার শেষে এই স্লোগানকেই সেরা মনে করেছেন বিশ্ব জোড়া মুসলিম সামাজিক সাইট “সালাম বিশ্বের” (“Salam World”) রুশ ও স্বাধীন রাষ্ট্র সমূহের এলাকার কর্তৃত্ব. বিজয়ী স্লোগানের লেখক – আবদরাসিল আবেলদিনভ কাজাখস্থানের লোক. রাশিয়ার কাজানের লোক ইলশাত সায়েতভ পেয়েছেন দ্বিতীয় স্থান.
রাশিয়ার বিমান নির্মাতারা নতুন ইল- ৪৭৬ বিমান প্রকল্পের উপরে কাজ শেষ করেছেন. এই বিষয়ে রাষ্ট্রপতিকে জানিয়েছেন শিল্পও বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের প্রধান দেনিস মান্তুরভ. বিশেষজ্ঞরা বিশ্বাস করেন যে, এই বিমানের ভবিষ্যত খুবই উজ্জ্বল. বাস্তবে ইল- ৪৭৬ – এটা খুবই ভাল করে সারা পৃথিবীতে জানা সামরিক পরিবহনের উপযুক্ত ইল- ৭৬ বিমানেরই খুব গভীর রকমের আধুনিকীকরণের ফল. নতুন বিমান ইতিমধ্যেই একাধিকবার আকাশে উঠেছে.
এই সপ্তাহে বিশ্ব সমাজ স্মরণ করেছে ২০০১ সালের ১১ই সেপ্টেম্বরের ট্র্যাজেডির ঘটনায় নিহতদের. ঠিক ১১ বছর আগে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে আল- কায়দা দলের সন্ত্রাসবাদী অন্তর্ঘাত হয়েছিল.
কয়েকদিন আগে কাজাখস্থানের এক বৃহত্তম শহর আলমা- আতায় (প্রাক্তন রাজধানী) এক বিশেষজ্ঞ পর্যায়ের আলোচনার আয়োজন করেছিল বুদ্ধিজীবীদের ক্লাব “আলাতাউ”, তারা আলোচনার ফলাফল নিয়ে এক রিপোর্ট “মধ্য এশিয়া – ২০২০: ভিতরের থেকে দেখা” নামে প্রকাশ করেছেন, সেখানে বলা হয়েছে মধ্য এশিয়াতে ঐস্লামিক রাষ্ট্র খলিফার শাসনতন্ত্র দিয়ে প্রতিষ্ঠার সম্ভাবনা.
একশ দিন কেটে গিয়েছে সেই মুহূর্ত থেকে, যখন ভ্লাদিমির পুতিন রাশিয়ার রাষ্ট্রপতির পদ গ্রহণ করেছেন. নিজের রাষ্ট্রপতিত্বের শুরুতেই পুতিন অনেক মনোযোগ দিয়েছেন পররাষ্ট্র নীতি নিয়ে. রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি পদে থাকার প্রথম একশ দিনের মধ্যে তিনি সরকারি ভাবে বিশ্বের এগারোটি দেশে গিয়েছেন, তার মধ্যে চিন, জার্মানী, ফ্রান্স, গ্রেট ব্রিটেন, মেক্সিকো, ইজরায়েল, জর্ডন ও প্যালেস্টাইনের এলাকা রয়েছে.
বিশ্ব সমাজ বর্তমানে মাদকের সঙ্গে পৃথিবী জোড়া যুদ্ধে আপাততঃ হারছে: বিশ্বে ২ লক্ষের বেশী লোক প্রতি বছরে মারা যাচ্ছে হেরোইন ও কোকেইন সংক্রান্ত অসুখ থেকে. বিশ্বের নেতৃস্থানীয় দেশ গুলির উচিত সম্মিলিত ভাবে মাদক বিরোধী লড়াই শুরু করার, এই রকম বিশ্বাস নিয়ে রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় মাদক নিয়ন্ত্রণ পরিষেবার প্রধান ভিক্টর ইভানভ ঘোষণা করেছেন.
সাংহাই সহযোগিতা সংস্থার শীর্ষবৈঠকে, যা কয়েকদিন আগে বেজিং শহরে হয়েছে, সেখানে ভারতের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করতে এসেছিলেন পররাষ্ট্র মন্ত্রী সোমানাহল্লি কৃষ্ণ, প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংহ নয়. এটা বোঝাই গিয়েছিল আপাততঃ যখন ভারতের অবস্থান এই সংস্থায় পর্যবেক্ষকের থেকে সদস্য করা হয় নি, তখন ভারত থেকে তো মনে হয় না শীর্ষবৈঠকে সর্বোচ্চ পর্যায়ের কাউকে পাঠানো হবে.
 বেজিংয়ে সাংহাই সহযোগিতা সংস্থার শীর্ষবৈঠক কাজাখস্থান, চিন, কিরগিজিয়া, রাশিয়া, তাজিকিস্থান ও উজবেকিস্তানের দেশ নেতাদের উপস্থিতিতে এক গুচ্ছ দলিল গ্রহণ করে বৃহস্পতিবারে শেষ হয়েছে, এই দলিল গুলিতে সংস্থার স্ট্র্যাটেজি ও তার প্রসারের প্রবণতা নিয়ে বলা হয়েছে.
 বেজিংয়ে সাংহাই সহযোগিতা সংস্থার শীর্ষবৈঠক কাজাখস্থান, চিন, কিরগিজিয়া, রাশিয়া, তাজিকিস্থান ও উজবেকিস্তানের দেশ নেতাদের উপস্থিতিতে এক গুচ্ছ দলিল গ্রহণ করে বৃহস্পতিবারে শেষ হয়েছে, এই দলিল গুলিতে সংস্থার স্ট্র্যাটেজি ও তার প্রসারের প্রবণতা নিয়ে বলা হয়েছে.  এই শীর্ষবৈঠকে আঞ্চলিক ভাবে বহু দিনের জন্য শান্তি ও সমৃদ্ধি বর্ধনের ঘোষণা স্বাক্ষরিত হয়েছে.
রাশিয়া ও উজবেকিস্তান আফগানিস্তান থেকে ন্যাটো বাহিনীর আগামী অপসারণ উপলক্ষ্যে সহযোগিতার পরিপ্রেক্ষিত আলোচনা করছে. এ সম্বন্ধে রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন তাশখন্দ সফরের শেষে, যেখানে তিনি সাক্ষাত্ করেন উজবেকিস্তানের রাষ্ট্রপতি ইস্লাম কারিমভের সাথে. তিনি যোগ করে বলেন যে, মস্কো ও তাশখন্দ একসারি আন্তর্জাতিক ও আঞ্চলিক সংস্থায় সহযোগিতা করছে.
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30 31
জানুয়ারী 2012
ঘটনার সূচী
জানুয়ারী 2012
1
2
3
4
5
6
7
8
9
10
11
12
13
14
15
16
17
18
19
20
21
22
23
24
25
26
27
28
29
30
31