×
South Asian Languages:
বৃহত্ অষ্টদেশ, জুন 2013
আমেরিকার বিশেষ পরিষেবার কর্মী হিসাবে এডওয়ার্ড স্নোডেন এমন কিছু খবর রাখতো, যা গণ প্রজাতান্ত্রিক চীনের জাতীয় নিরাপত্তার মুখ্য প্রশ্নগুলিকে স্পর্শ করে. তার হংকংয়ে পালিয়ে যাওয়ার পরে প্রকাশ করে দেওয়া তথ্য হয়েছে বাস্তবিক ভাবেই চাঞ্চল্যকর.
মস্কোতে মনে করা হয়েছে যে, পারমানবিক ক্ষমতা কম করা শুধু মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার কাজই নয়, অন্যান্য দেশ যাদের এই অস্ত্র রয়েছে, তারাও এটা করতে বাধ্য. এই নিয়ে বুধবারে রাশিয়ার রাষ্ট্রপতির সহকারী ইউরি উশাকভ মন্তব্য করেছেন, তিনি বারাক ওবামার পক্ষ থেকে রাশিয়া ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে পারমানবিক অস্ত্র কমানো নিয়ে কথা বলছিলেন.
সিরিয়ার পরিস্থিতিকে আলোচ্যের কেন্দ্রীয় বিষয়ে রেখে উত্তর আয়ারল্যান্ডে “বৃহত্ অষ্টদেশের” শীর্ষ সম্মেলনকে সফল বলা যেতে পারে. অন্তত পক্ষে মস্কোর মতে, বিশ্বের নেতৃস্থানীয় রাষ্ট্র গুলির এই দেশের সঙ্কট অবসান নিয়ে দৃষ্টিকোণ এবারে অনেকটাই কাছাকাছি হয়েছে.
রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন লখ-এর্ন শীর্ষ সম্মেলনের পরে বলেছেন যে, রাশিয়ার পররাষ্ট্র দপ্তরের প্রধান সের্গেই লাভরভ ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র সচিব জন কেরি সিরিয়াতে পরিস্থিতি শান্তিপূর্ণ ভাবে সমাধানের নীতি সংক্রান্ত প্রধান কাজ নিজেদের দায়িত্বে করবেন.
নির্বাচিত হওয়ার পরে নিজের প্রথম রাষ্ট্রপতি হিসাবে সাংবাদিক সম্মেলনে ইরানে হাসান রোহানি ঐস্লামিক প্রজাতন্ত্রের পারমানবিক পরিকল্পনা সম্পর্কে বেশী খোলাখুলি হওয়া সম্বন্ধে নিজে প্রস্তুত বলে ঘোষণা করেছেন. তিনি, অংশতঃ, ঘোষণা করেছেন: “আমাদের পারমানবিক পরিকল্পনা সম্পূর্ণ ভাবেই স্বচ্ছ.
উত্তর আয়ারল্যান্ডের লখ-এর্ন শহরে সোমবার থেকে বৃহত্ অষ্টদেশের শীর্ষ সম্মেলন শুরু হয়েছে. রেডিও রাশিয়ার সাংবাদিকের দেওয়া খবর অনুযায়ী এই দুই দিন ব্যাপী আলোচনা শুরু হয়েছে বিশ্ব অর্থনীতির প্রশ্নাবলী নিয়ে ও আলোচনা দুই দিনই হবে.
রাশিয়ার পক্ষ থেকে সুমেরু এলাকায় সক্রিয়তা বৃদ্ধি – এটা পশ্চিমের দেশ গুলির কাজকর্মের প্রত্যুত্তর. মস্কো বাধ্য হয়েছে এই ধরনের ব্যবস্থা নিতে, যাতে নিজেদের ভূ-রাজনৈতিক স্বার্থ সুরক্ষিত হয়.
রুশ রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন গ্রেট ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী উত্তর আয়ারল্যান্ডে অনুষ্ঠিতব্য আগামী বৃহত্ অষ্ট দেশের শীর্ষ সম্মেলনের প্রাক্কালে লন্ডন শহরে হওয়া এক বৈঠকে সিরিয়ার বিরোধ নিয়ে মুখ্যতঃ আলোচনা করেছেন. সিরিয়ার বিষয়ে উভয় নেতাই একমত যে, অনেক গুলি মতবিরোধ অতিক্রমের প্রয়োজন রয়েছে, কিন্তু রাশিয়া ও ব্রিটেনের লক্ষ্য একটিই – রক্তক্ষয় বন্ধ করা.
“আমরা আমাদের মতবিরোধ পার হতে পারি, যদি স্বীকার করি, যে পরিণামে ঐক্যবদ্ধ সমাধানের দিকেই যেতে চাই: বিরোধের অবসান ঘটানো, সিরিয়াকে টুকরো হয়ে যেতে না দেওয়া, সিরিয়ার মানুষের হাতেই সিদ্ধান্তের ভার ছেড়ে দেওয়া, তাদের কে শাসন করবে. আমরা রাষ্ট্রপতি পুতিনের সঙ্গে আলোচনা করেছি, কি করে বৃহত্ অষ্টদেশের ব্যবস্থাকে এই সমস্ত সমাধান করার জন্য ব্যবহার করা যেতে পারে”, বলেছেন ক্যামেরন.
“খুবই আশা করছি যে, জি৮ এর মঞ্চে আলোচনা ইতিবাচক ভূমিকা নেবে”, বলেছেন গ্রেট ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরনের সঙ্গে আলোচনার পরে সাংবাদিক সম্মেলনে পুতিন. ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে ডেভিড ক্যামেরনের আলোচনার সময়েই শুধু সিরিয়া প্রধান বিষয় হয় নি, তা আগামী জি৮ শীর্ষ বৈঠকেরও প্রধান আলোচ্য হবে ও রুশ প্রজাতন্ত্র এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতিদের আলোচনার সময়েও হতে চলেছে.
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সিরিয়ার যোদ্ধাদের অস্ত্র সরবরাহ শুরু করছে. রাষ্ট্রপতির জাতীয় নিরাপত্তা সংক্রান্ত সহকারীর ডেপুটি বেন রোডস যেমন ঘোষণা করেছেন যে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতি বারাক ওবামা এই ধরনের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বাশার আসাদের প্রশাসনের পক্ষ থেকে বিরোধীদের উপরে রাসায়নিক অস্ত্র প্রয়োগ করার উত্তরে. আসাদের সামরিক বাহিনী এই বছরের মার্চ মাসে জারিন গ্যাস ব্যবহার করেছেন, তার প্রমাণ নাকি সিআইএ সংস্থার প্রতিনিধিরা পেশ করেছে.
রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন স্বাধীন রাষ্ট্রবর্গের দেশগুলির সাথে শরিকানা বৃদ্ধি, শুল্ক সঙ্ঘের ও একক অর্থনৈতিক এলাকার কাঠামোতে ইউরেশীয় অঙ্গীভূতীর গভীরতা সাধন, ২০১৫ সাল নাগাদ ইউরোপীয় অর্থনৈতিক সঙ্ঘ গঠনকে দেশের পররাষ্ট্র নীতির অতি গুরুত্বপূর্ণ প্রাধান্য বলে অভিহিত করেন.
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30
জুন 2013
ঘটনার সূচী
জুন 2013
1
2
3
4
5
6
7
8
9
11
12
13
15
21
22
23
25
26
27
28
29
30