×
South Asian Languages:
আলজিরিয়া

ইরানের বিরুদ্ধে অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের সম্ভাবনা বিশেষজ্ঞদের খনিজ তেলের বাজারে একেবারেই নানা রকমের ভবিষ্যত সম্ভাবনা ব্যক্ত করতে আগ্রহী করেছে. বিশ্বের বাজারে বৃহত্ পরিমানে ইরানের খনিজ জেল উপস্থিত হলে তা এই কালো সোনার দামের ক্ষেত্রে অনেকটাই প্রভাব ফেলতে পারে.

২০১২ সাল পর্যন্ত তেহরান ওপেক সংস্থার সদস্য দেশগুলোর মধ্যে উত্পাদনের বিষয়ে দ্বিতীয় স্থানে ছিল. প্রতিদিনে তারা ৩৫ লক্ষ ব্যারেল খনিজ তেল উত্পাদন করত, যা ২৩টি দেশে সরবরাহ করত. পশ্চিমের দেশগুলো থেকে নিষেধাজ্ঞা বহালের পরে বিশ্বের বাজারে তেহরানের জায়গা ভাগ করে নিয়েছিল ওপেক সংস্থার অন্যান্য অংশীদার দেশরা, প্রাথমিক ভাবে ইরাক. বিগত সময়ে ইরান দিনে মাত্র সাত লক্ষ ব্যারেল তেল উত্পাদন করত, যা চিনে যেত, আর তারই সঙ্গে তাইওয়ান, ভারত, দক্ষিণ কোরিয়া, জাপান ও তুরস্কে যেত.

খনিজ তেলের সবচেয়ে বড় সঞ্চয় বিগত কুড়ি বছরের মধ্যে এই প্রথম আলজিরিয়াতে পাওয়া গিয়েছে. এই সঞ্চয়ের পরিমাণ মূল্যায়ণ করে দেখা হয়েছে প্রায় একশ কোটি ব্যারেলের বেশী. এই খবর উদয় হয়েছে প্রায় একই সঙ্গে, যখন ওপেক সংস্থার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যে, ২০২০ সালে বিশ্বে জ্বালানীর চাহিদা বর্তমানের প্রায় দ্বিগুণ হতে চলেছে. এই ধরনের পরিস্থিতিতে আলজিরিয়ার খনিজ গ্যাস ও তেলের সঞ্চয় একটা খুবই লোভনীয় খণ্ড হতে চলেছে. তাহলে এই দেশে কি এখন “রঙীণ বিপ্লবের” আশা করা যেতে পারে কি, যা বিশ্বের “গণতান্ত্রিকীকরণের” ধ্বজাধারীরা সমর্থন করবেন?

রাষ্ট্রসঙ্ঘ ও আরব রাষ্ট্রদের লীগের বিশেষ প্রতিনিধি লাখদার ব্রাহিমি দামাস্কাসে এসেছেন সিরিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রী ও দেশের আভ্যন্তরীণ বিরোধী পক্ষের প্রতিনিধিদের সঙ্গে সাক্ষাত্কার করতে. আলজিরিয়ার এই কূটনীতিবিদের জন্য এখন খুবই কঠিন এক মিশন সামনে রয়েছে: তাঁকে বিরোধী পক্ষকে রাজী করাতে হবে, তাঁরই নিজের কথামতো একটি “সলিড ডেলিগেশন” অথবা মর্যাদা ও ক্ষমতা সম্পন্ন প্রতিনিধিদল তৈরী করে জেনেভা শহরে শান্তি সম্মেলনে পাঠানোর জন্য. তা হওয়ার কথা ২৩শে নভেম্বর, কিন্তু আবারও সেটা প্রশ্নের সম্মুখীণ হয়েছে.

আলজেরিয়ার রাষ্ট্রবিজ্ঞানী ইয়াসেন জেনাতি বলেছেন, সিরিয়ার পরিস্থিতি এক অর্থে ইরাকি চিত্রপটে রুপ নিচ্ছে। সিরিয়ায় এখন উগ্রবাদী জঙ্গীদের উত্থান ক্রমশই বেড়ে যাচ্ছে। এর পিছনে প্রধান কারণ হিসেবে পশ্চিমা মিত্রদেশগুলোকেই দায়ী করেছেন জেনাতি।

টিউনিশিয়ার সেনাবাহিনীর অন্ততপক্ষে আটজন সৈনিক নিহত হয়েছে আলজিরিয়ার সাথে সীমানার কাছে পাহাড়ী এলাকায় টহলদারী সৈনিকদের উপর জঙ্গীদের হানার ফলে. এ সম্বন্ধে গত রাতে জানিয়েছে “অ্যাসোশিয়েটেড প্রেস” সংবাদ এজেন্সি. সৈনিকরা পাহাড়ী এলাকায় জঙ্গীদের খুঁজছিল আর জঙ্গীরা ওত্ পেতে ছিল. টহলদারী গোটা সৈনিক-দল ধ্বংস হয়েছে.

ধর্মীয় কট্টর পন্থার ঢেউ ঐস্লামিক বিশ্বে একটা নির্দিষ্ট সময় পরপরই উঠে থাকে – আর তার পরেই তা আবার কমে যায়. এখন স্পষ্টই দেখতে পাওয়া যাচ্ছে আরও একটি উত্থানের সময়, যাকে ব্যাখ্যা করা যেতে পারে যেমন বাস্তব দিয়ে তেমনই তুলনা মূলক সমস্ত কারণ দিয়েও. কিন্তু এর পরেই আশা করা যেতে পারে একটা পতনের সময়.
বিশ্বের সমরাস্ত্রের বাজারে রাশিয়ার অবস্থান সবচেয়ে ও বেশী করেই শক্তিশালী সামরিক বিমানের ক্ষেত্রে. সু- ৩০, মিগ – ২৯, ধরনের বিমানগুলি বিশ্বের বাজারে বিভিন্ন এলাকায় খুবই পরিচিত, বিশেষ করে এশিয়ার দেশ গুলিতে. রাশিয়াতে তৈরী বিমানের চাহিদা থেকেই যাচ্ছে, কারণ সেই ধরনের নতুন বায়নাদার, যেমন আলজিরিয়া, ভেনেজুয়েলা, মালয়েশিয়া, ভিয়েতনাম, ইন্দোনেশিয়া, চিন ও উগান্ডা এই সব দেশের কাছ থেকে চাহিদার উদয় হয়েছে.
রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ সম্পাদক বান কি মুন আন্তর্জাতিক জনসমাজকে আবার আহ্বান জানিয়েছেন সিরিয়ার সম্পূর্ণ ধ্বংস নিবারণ করতে এবং এ দেশে হিংসা বন্ধ করার. তাঁর মতে, তা অর্জনের একমাত্র পথ হল কূটনীতি. তিনি মনে করিয়ে দেন যে, দু বছরের এ সঙ্ঘর্ষে সিরিয়ায় নিহত হয়েছে ৭০ হাজারেরও বেশি লোক.
লিবিয়াতে সঙ্কট এক সারি আফ্রিকার দেশের জন্যে আরও বেশী বিপজ্জনক হুমকির পূর্বাভাস হয়েছে. তার প্রথম ক্ষতিগ্রস্তের তালিকায় নাম লেখা হয়েছে মালি রাষ্ট্রের. এই নিয়ে রাশিয়ার পক্ষ থেকে রাষ্ট্রসঙ্ঘের স্থায়ী প্রতিনিধি ভিতালি চুরকিন ঘোষণা করেছেন.
ফরাসী বিমানবাহিনী মালি-তে সত্যিই “ইস্লামিক মাগ্রিবে আল-কাইদা” দলের পাণ্ডা আবু জাইদ-কে ধ্বংস করেছে. এ সম্বন্ধে শুক্রবার লিখেছে “ফিগারো” পত্রিকা “আজাওয়াদ মুক্তির জাতীয় আন্দোলন” দলের তুয়ারেগদের তথ্যের উদ্ধৃতি দিয়ে. গোড়ায় সন্ত্রাসবাদীদের এ পাণ্ডার মৃত্যুর খবর বৃহস্পতিবার জানিয়েছিল আলজিরিয়ার টেলিভিশন.
মালি রাষ্ট্রে যুদ্ধ এবারে শহর ছেড়ে নির্জন পাহাড়ী এলাকায় চলে এসেছে. আজ এক সপ্তাহ হল যখন ফ্রান্সের নেতৃত্বে জোটের সেনারা ইফোগাস নামের পাহাড়ী এলাকায় ঐস্লামিকদের ঘাঁটি ধ্বংস করছে. এই প্যান্থার বা চিতাবাঘ নামের অপারেশনে ফ্রান্সের যুদ্ধবিমান ও আঘাত হানার হেলিকপ্টার কাজে লাগানো হচ্ছে.
আন্তর্জাতিক আইন ভঙ্গের এক দীর্ঘ নথি ওয়াশিংটনের নামে রয়েছে, এই ধরনের পরিস্থিতি খুবই অস্বাভাবিক, এই কথাই সোমবারে ঘোষণা করেছেন রাশিয়ার পররাষ্ট্র দপ্তরের প্রধান সের্গেই লাভরভ. তাঁর কথামতো, এই নিয়ে মঙ্গলবারে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র সচিব জন কেরির সঙ্গে অবশ্যই কথা হবে. রাষ্ট্রসঙ্ঘের সনদের বিনা শর্তে পালন করাই আজ নীতিগত ভাবে গুরুত্বপূর্ণ.
প্রতিবাদী সভামিছিলের মাধ্যমে গৃহযুদ্ধের সূচনার দ্বিতীয়বার্ষিকী জয়ন্তী পালন করছে লিবিয়ার অধিবাসীরা. অধিকাংশ লিবিয়াবাসী মনে করে, যে মুয়াম্মার গদ্দাফিকে উচ্ছেদ করার পরে নতুন শাসকরা আর তাদের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করে উঠতে পারেনি. লিবিয়ায় অভ্যুত্থান শুরু হয়েছিল ২০১১ সালের ১৭ই ফেব্রুয়ারী. কিন্তু শাসকরা ‘বিপ্লবের’ জয়ন্তী পালন করতে শুরু করে দিয়েছে ১৫ তারিখ থেকেই. এদিকে দেশের পরিস্থিতি অস্থির.
রাশিয়াতে প্রশিক্ষণের জন্য তৈরী যুদ্ধবিমান ইয়াক – ১৩০ এর যুদ্ধের কাজে আরও উপযুক্ত করে তোলার চেষ্টা করা হচ্ছে. ভবিষ্যতে এই বেশী করে উপযুক্ত করে তোলা যন্ত্র প্রাথমিক ভাবে রাশিয়া সহ বহু দেশের বিমান বাহিনীর সম্ভবনা ও প্রশিক্ষণের গুণমান বৃদ্ধি করতে পারবে.
মার্কিন কংগ্রেসের সেনেটে সিআইএ সংস্থার নতুন ডিরেক্টরের পদে জন ব্রেন্নানের নিয়োগ নিয়ে শুনানি শুরু হয়েছে. গোয়েন্দা দফতরের এই ২৫ বছরের অভিজ্ঞতা সম্পন্ন কর্মী, সেই গদিতে বসতে চলেছেন, যেখানে আগে বসতেন জেনারেল পেত্রেউস. বিশেষজ্ঞরা সামরিক কর্মীর জায়গায় অসামরিক লোকের নিয়োগের মধ্যে ওয়াশিংটনের সন্ত্রাস বিরোধী সংগ্রামে অগ্রাধিকার কোন দিকে তা দেখতে পেয়েছেন.
মালি রাষ্ট্রের সঙ্কট এখনও অতিক্রান্ত নয়, আলজিরিয়ার সঙ্গে সীমান্ত অঞ্চলে জঙ্গীরা বর্তমানে জোটবদ্ধ হয়ে আছে. এই দেশে সামরিক অপারেশন সময় মতোই করা হয়েছে. কিন্তু এখনও সামনে রয়েছে অনেক জটিল অধ্যায় – স্থিতিশীলতা অর্জন করার. এই বিষয়ে রেডিও রাশিয়াকে বলেছেন রুশ প্রজাতন্ত্রের তরফ থেকে মালির রাষ্ট্রদূত আলেক্সেই দুলিয়ান.
টিউনিশিয়ার সামরিক নেতৃত্ব ঠিক করেছে আলজিরিয়ার সঙ্গে সীমান্ত এলাকার খনিজ গ্যাস ও তেল উত্পাদন ক্ষেত্রে বাড়তি শক্তি প্রয়োগ করে নিরাপত্তা বৃদ্ধির, এই খবর দিয়েছে টিউনিশিয়ার সংবাদ সংস্থা. সংস্থার পক্ষ থেকে প্রতিনিধি যেমন উল্লেখ করেছেন যে, এই ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে যে কোন রকমের সন্ত্রাসবাদী কাজ রুখতে, যা টিউনিশিয়ার খনিজ তেল ও গ্যাস ক্ষেত্রের বিরুদ্ধে করা হতে পারে.
মালির সামরিক বাহিনী ও ফ্রান্স ঐস্লামিক অধিকৃত ও তাদের ঘাঁটি হওয়া একটি প্রধান শহর টিমবুক্টু বিমান বন্দরের উপরে অধিকার বিস্তার করতে সক্ষম হয়েছে. এই বিষয়ে ফরাসী প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিরা খবর দিয়েছে. কোন রকমের বাধাই কেউ দেয় নি, - ফ্রান্স প্রেস সংস্থা স্থানীয় সামরিক উত্স থেকে পাওয়া খবর বলে জানিয়েছে. এই ভাবেই, বাস্তবে ঐস্লামিকদের একটি ঘাঁটির উপরে নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হয়েছে.
সিরিয়া সঙ্কটের প্রধান বাধা হয়েছে বিরোধী পক্ষদেরই শান্তির স্বপক্ষে অনীহা, এই কথা ঘোষণা করেছেন রাশিয়ার পররাষ্ট্র দপ্তরের প্রধান সের্গেই লাভরভ তাঁর সিরিয়া সঙ্কট নিয়ন্ত্রণের জন্য রাষ্ট্রসঙ্ঘ ও আরব লীগের বিশেষ প্রতিনিধি লাখদার ব্রাহিমির সঙ্গে মস্কো শহরে আলোচনার পরিনাম নিয়ে মন্তব্য করতে গিয়ে.
আলজিরিয়াতে, আফগানিস্তানে, নাইজিরিয়াতে গত কয়েকদিন ধরে নতুন সব সন্ত্রাসবাদী হানা হয়েছে. সিরিয়াতে তা হচ্ছে রোজই. এতদিন ধরেই শান্ত থাকা আরব আমীরশাহীতে ঘোষণা করা হয়েছে যে, সৌদী আরবের থেকে আসা চরমপন্থী দলের সদস্যরা গ্রেপ্তার হয়েছে, যারা দুটি প্রতিবেশী দেশেই সন্ত্রাসের পরিকল্পনা করছিল. সন্ত্রাসবাদ আগের মতই অগ্রসর হচ্ছে, আর তার ভৌগোলিক প্রসার শুধু বেড়েই চলেছে.
আগের
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30
নভেম্বর 2017
ঘটনার সূচী
নভেম্বর 2017
1
2
3
4
5
6
7
8
9
10
11
12
13
14
15
16
17
18
19
20
21
22
23
24
25
26
27
28
29
30