×
South Asian Languages:
লেবানন, ডিসেম্বর 2012
মালি রাষ্ট্রের প্রধানমন্ত্রী দিয়াঙ্গো সিসোকো প্রতিবেশী আফ্রিকার দেশ গুলিকে ও রাষ্ট্রসঙ্ঘের কাছে তাঁর দেশে শান্তি রক্ষী বাহিনীর প্রবেশের প্রক্রিয়াকে দ্রুত করতে আহ্বান করেছেন. ১০ দিন আগে রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদ সিদ্ধান্ত নিয়েছে মালিতে আন্তর্জাতিক বাহিনী পাঠানোর, কিন্তু তার জন্য নির্দিষ্ট কোন দিন এখনও ঠিক করা হয় নি.
রাশিয়ার স্থিতি সত্যিকার ভারসাম্যপূর্ণ, যা কঠোর রাজনৈতিক সঙ্কট থেকে সিরিয়াকে বার করে আনার জন্য নির্দেশিত. এ সম্বন্ধে রেডিও রাশিয়াকে প্রদত্ত ইন্টারভিউতে বলেছেন লেবাননের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আদনান মানসুর. তাঁর কথায়, বহু দেশ, বিশেষ করে পশ্চিমী দেশগুলি সিরিয়ার ব্যাপারে হস্তক্ষেপের চেষ্টা করছে. মানসুরের স্থিরবিশ্বাস যে, ভবিষ্যতেও যদি এমন চলতে থাকে, তাহলে সিরিয়ার সঙ্কট প্রলম্বিত হবে.
রোমের পোপ ষোড়শ বেনেডিক্ট বড়দিনের প্রার্থনাসভায় নিকট প্রাচ্যে শান্তির জন্য প্রার্থনা করার আহ্বান জানিয়েছেন ও মৌলবাদের প্রসারজনিত বিপদ সম্পর্কে সতর্ক করে দিয়েছেন. ধর্মবিশ্বাসীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেছেন – যেখানে ঈশ্বরের দিক থেকে মুখ ফেরানো হয়েছে বা তাঁর কথা লোকে ভুলে গেছে, সেখানেই আর শান্তি নেই.
লেবাননের ত্রিপোলি শহরের রাস্তায় গত দশ দিন ধরে চলা সঙ্ঘর্ষে ১৭ জন শান্তিপূর্ণ নাগরিক নিহত হয়েছে, প্রায় ১৫০ জন আহত হয়েছে. সোমবার আন্তঃধর্মীয় সঙ্ঘর্ষ থামানো সম্ভব হয়েছে শহরে আনা লেবাননের সৈন্যবাহিনীর শ্রেষ্ঠ দলের সাহায্যে. শহরে জীবন স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসছে. বিশৃঙ্খলার কারণ ছিল প্রতিবেশী সিরিয়ার ঘটনাবলি. ব্যারিকেডের একদিকে ছিল আলাভিতরা, যারা সমর্থন করছে সরকারী দামাস্কাসকে.
লেবানন সিরিয়া সঙ্ঘর্ষে সামরিক হস্তক্ষেপের বিরুদ্ধে. এ সম্বন্ধে বলেছেন লেবাননের রাষ্ট্রপতি মিশেল সুলেইমান. গ্রীসে নিজের সরকারী সফরের সময় তিনি
মস্কোয় উদ্বেগ প্রকাশিত হচ্ছে লেবাননে পরিস্থিতি আবার তীব্র হয়ে ওঠা উপলক্ষে এবং সামরিক হস্তক্ষেপ ছাড়া সংলাপের মাধ্যমে পরিস্থিতি মীমাংসায় নেতৃবৃন্দের প্রচেষ্টা সমর্থন করা হচ্ছে. এ সম্বন্ধে বলা হয়েছে ত্রিপোলির ঘটনাবলি উপলক্ষে রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মন্তব্যে. সেখানে আন্তঃধর্মীয় ভিত্তিতে সশস্ত্র সঙ্ঘর্ষ চলছে, যা গত ছুটির দিনগুলিতে শুরু হয়েছিল. এ সঙ্ঘর্ষে হতাহত আছে.
লেবাননের উত্তরাঞ্চলে ত্রিপোলি সহরের রাস্তায়, যেখানে আন্তঃধর্মীয় সঙ্ঘর্ষ চলছে, সৈন্যবাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে. কর্তৃপক্ষ আবার সশস্ত্র সুন্নী মিলিশিয়া এবং আলাউইটদের কাছে অগ্নি-সংবরণের দাবি করেছে. সংবাদ এজেন্সি ল্যুবনান আল-এন জানিয়েছে যে, আন্তঃসাম্প্রদায়িক দাঙ্গার ফলে এক দিনে মারা গেছে ছয়জন এবং ৫০ জনের উপর আহত হয়েছে. প্রতিবেশী সিরিয়ার ঘটনাবলি ক্রমাগত লেবাননের উত্তরাঞ্চলে সঙ্ঘর্ষমূলক পরিস্থিতিকে উস্কানি দিচ্ছে.
ইজিপ্টে বহু লোকের মিছিল ও সমাবেশে উপস্থিত লোকের সঙ্গে পুলিশের সঙ্ঘর্ষ আবারও নিত্য নৈমিত্তিক বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে, যেমন ছিল এক বছরের কিছু আগে. এই কয়েকদিন আগেও মনে হয়েছিল যে, ইজিপ্টের জন্য পরীক্ষার সময় বুঝি বাস্তবে পিছনেই রয়ে গিয়েছে, কিন্তু এখন এমন একটা ধারণা হচ্ছে যে, দেশ আবার এক বিপজ্জনক গণ্ডীর কাছে পৌঁছচ্ছে. পিরামিডের দেশে কি হচ্ছে?
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30 31
ডিসেম্বর 2012
ঘটনার সূচী
ডিসেম্বর 2012
1
2
4
5
8
9
10
12
13
14
15
16
17
18
19
20
21
22
23
24
26
27
28
30
31