×
South Asian Languages:
সৌদি আরব, সেপ্টেম্বর 2013

সোমবারে কায়রো শহরের জরুরী বিষয় সংক্রান্ত আদালত রায় দিয়েছে “মুসলমান ভাইদের” সংগঠনকে মিশরে নিষিদ্ধ বলে ঘোষণা করার. আদালতের রায় অনুযায়ী এই দলের সমস্ত আর্থিক তহবিল ও সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার দরকার রয়েছে.

এই ভাবেই আদালত দেশের বামপন্থী ধর্ম নিরপেক্ষ “তাগাম্মু” দলের পক্ষ থেকে “মুসলমান ভাইদের” দলের বিরুদ্ধে করা মামলার রায় দিয়েছে. এই মামলাতে অভিযোগ করা হয়েছিল যে, “ভাইদের” কাজকর্ম থেকে ইজিপ্টের রাষ্ট্রের ক্ষতি করা হচ্ছে ও দেশের জনগনেরও ক্ষতি হচ্ছে, আর তা দেশের আইনের বিরোধী.

রাসায়নিক অস্ত্র নিষিদ্ধ করণ সংস্থার কার্যকরী পরিষদ নিজেদের সিরিয়ার রাসায়নিক অস্ত্র সংক্রান্ত সমস্যা নিয়ে প্রথম বৈঠক ২২শে সেপ্টেম্বর করতে চলেছে. এই বিষয়ে জানিয়েছে গাগ শহরে এই সংস্থার তথ্য দপ্তর. সিরিয়া সবচেয়ে কম সময়ে নিজেদের রাসায়নিক অস্ত্রের ও তা তৈরীর যন্ত্রপাতি নিয়ে সম্পূর্ণ রকমের হিসাব দিতে বাধ্য ও এই তথ্য সংস্থার কাছেই দিতে বাধ্য. ২৩শে সেপ্টেম্বর সোমবার এই সংস্থার বৈঠকের পরিণাম সংস্থার বৈঠকেই জানানো হতে চলেছে.

ইরাকের পার্লামেন্ট এক চিঠি তৈরী করছে নিজেদের দেশের পররাষ্ট্র দপ্তরের নামে, যাতে এই দপ্তরকে আহ্বান করা হয়েছে রাষ্ট্রসঙ্ঘের কাছে সৌদী আরবের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞা জারী করার দাবী জানানোর. এই বিষয়ে ইরাকের পার্লামেন্টের ক্ষমতাসীন জোটের প্রতিনিধি কাজীম আশ-শামরি জানিয়েছেন.

সকলে একই মাপ মতো বাঁচতে না পারলেও রুশ-মার্কিন আলোচনাকে ভরসাযোগ্য করে তোলাই জরুরী কাজ –  ভ্লাদিমির পুতিন

রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন মনে করেন যে, রাশিয়াও আমেরিকার মধ্যে পারস্পরিক ভাবে বিশ্বাসের সম্পর্ক তৈরী করা উচিত্. “আমাদের দরকার একত্রে আমেরিকার ও ইউরোপের লোকদের সঙ্গে ভরসাযোগ্য আলোচনার সম্পর্ক তৈরী করার, যাতে আমরা একে অপরকে শুনতে পারি ও যুক্তি বুঝতে পারি”, - বলেছেন রাশিয়ার নেতা আজ “ভালদাই” ক্লাবের আন্তর্জাতিক রাজনৈতিক আলোচনা চক্রে যোগ দিতে এসে.

সিরিয়াতে বাশার আসাদের প্রশাসনের বিরোধী কোন ধর্ম নিরপেক্ষ দল আর বাস্তবে নেই এবং সেখানে এখন সমস্ত রকমের কট্টরপন্থী গোষ্ঠীরাই আসরে নেমে পড়েছে. তাদের মধ্যে সর্ব বৃহত্ গোষ্ঠী “আল- কায়দা” দলের সঙ্গে জড়িত. এই ধরনের সিদ্ধান্তে পৌঁছেছেন একটি সবচেয়ে প্রভাবশালী আন্তর্জাতিক সামরিক কারবার ও নিরাপত্তা সংক্রান্ত সমস্যা নিয়ে গবেষণা কেন্দ্র – ব্রিটেনের Jane’s. এই কেন্দ্র সিরিয়ার পরিস্থিতি নিয়ে বিশ্লেষণ করে এক রিপোর্ট তৈরী করেছে, যা এই সপ্তাহের শেষেই প্রকাশিত হতে চলেছে. তার কিছু সিদ্ধান্ত এখনই গ্রেট ব্রিটেনের খবরের কাগজগুলোতে বেরিয়ে পড়েছে.

খুবই সময়মতো হয়েছে সিরিয়াকে রাসায়নিক অস্ত্র আন্তর্জাতিক সমাজের নিয়ন্ত্রণে দেওয়া নিয়ে মস্কোর আহ্বান, তা যেমন ওয়াশিংটনের জন্য, তেমনই দামাস্কাসের জন্যও, এই রকম মনে করেছেন রাশিয়ার বিশেষজ্ঞরা. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতি বারাক ওবামা বিশেষ জাতির প্রতি ভাষণে ঘোষণা করেছেন যে, তিনি সিরিয়ার উপরে সামরিক আক্রমণ মুলতুবি রাখতে তৈরী আছেন ও রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে সিরিয়ার প্রশ্নে রাজনৈতিক সমাধানের জন্য আলোচনা করার জন্য.

সিরিয়ার সঙ্কটে সম্ভবতঃ একটা মোড় ঘোরার লক্ষণ দেখতে পাওয়া যাচ্ছে. দামাস্কাসের প্রশাসনের করায়ত্ত্বে থাকা রাসায়নিক অস্ত্রের উপরে আন্তর্জাতিক নিয়ন্ত্রণ স্থাপন করা নিয়ে মস্কোর উদ্যোগ ওয়াশিংটনকে হয়ত সিরিয়ার উপরে আঘাত হানা থেকে স্থগিত হতে অথবা হয়তো একেবারেই নিরস্ত হতে বাধ্য করতে পারে. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতি বারাক ওবামার জন্য এটা পরিস্থিতি থেকে বের হওয়ার জন্য সবচেয়ে গ্রহণযোগ্য পথ হতে পারে, এই সম্বন্ধে রাজনীতিবিদ ও বিশেষজ্ঞরা সকলেই একমত হতে পেরেছেন.

আমেরিকার টেলিভিশন চ্যানেল সিএনবিসিকে দেওয়া সাক্ষাত্কারে বাশার আসাদ বলেছেন যে, তিনি আশা করেন যে, যারা সিরিয়ার বিরুদ্ধে সামরিক অপারেশন করবে, তাদের শাস্তি হবে. একই সঙ্গে তিনি বলেছেন যে, সিরিয়ার বিরুদ্ধে আক্রমণের ক্ষেত্রে “এমনকি বলতেও চান না যে, কি ধরনের প্রত্যুত্তর দেওয়া হবে”. সিরিয়ার রাষ্টর্পতি বলেছেন যে, এটা কোন ভাবেই সিরিয়াতে রাসায়নিক অস্ত্র প্রয়োগের সঙ্গে জড়িত নয়, কিন্তু “তিনি স্বীকার করেছেন যে, নিজেই কিছু মাত্রায় এই কাণ্ডের জন্য দায়ী”.

পুরো সপ্তাহজুড়ে সিরিয়ায় মার্কিন সামরিক হামলার প্রস্তুতি নিয়ে তর্ক-বিতর্কের সংবাদ আমরা শুনেছি। সিরিয়ায় রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহার করায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা দামাস্কাসের ওপর সামরিক হামলা নিয়ে নিজের সিদ্ধান্ত গত ৩১ আগষ্টই জানিয়েছিলেন। এখন কংগ্রেস থেকে সিদ্ধান্ত পাওয়ার অপেক্ষা করছেন বারাক ওবামা। আশাকরা হচ্ছে ১১ সেপ্টেম্বর এই প্রশ্ন নিয়ে ভোটাভুটি করবেন সেনেটররা। সামরিক হামলার সমর্থন আপাতত মাত্র ৩০ জন সেনাটর দিয়েছেন। বিরুদ্ধে অবস্থান করছেন ১৯৭ জন। আরো ২০৮ জন কোন মতামত যানায়নি।

রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন রুশ পার্লামেন্টের উচ্চ কক্ষ বা জাতীয় সভার সিরিয়া নিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সেনেট সদস্যদের সঙ্গে আলোচনা করার প্রস্তাবকে সমর্থন করেছেন. তাঁর মস্কো শহরের বাইরের বাসভবনে আজ তিনি জাতীয় সভার স্পীকার ভালেন্তিনা মাতভিয়েঙ্কো ও লোকসভার স্পীকার সের্গেই নারিশকিনের সঙ্গে এক সাক্ষাত্কার করেছেন. বিষয় ছিল – সিরিয়াকে ঘিরে তীক্ষ্ণ হয়ে ওঠা পরিস্থিতি.

নতুন পড়াশোনার বছরে প্রথম দিনে রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রী সের্গেই লাভরভ কূটনৈতিক অ্যাকাডেমী ও মস্কোর আন্তর্জাতিক সম্পর্ক সংক্রান্ত রাষ্ট্রীয় ইনস্টিটিউটের ছাত্রদের সঙ্গে দেখা করেছেন. তাদের করা প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে, মন্ত্রী বাস্তবে প্রায় সমস্ত কটি আন্তর্জাতিক আলোচ্য তালিকার প্রশ্নগুলোকেই স্পর্শ করে গিয়েছেন. কিন্তু সবচেয়ে বেশী মনোযোগ তিনি দিয়েছেন সিরিয়াকে ঘিরে তৈরী হওয়া প্রশ্ন নিয়ে.

পশ্চিম সিরিয়ার প্রশাসনকে রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহারের জন্য দোষ দিচ্ছে. আবার দোষ দিচ্ছে স্পষ্টই কপটতা করে – কারণ খুব সম্ভবতঃ, এই অস্ত্রব্যবহার করেছে জঙ্গীরাই. কিন্তু যে কোন ক্ষেত্রেই এটা বাশার আসাদের প্রশাসনের প্রতি অভিযোগের স্রেফ মোড়ক. পশ্চিমের তরফ থেকে সিরিয়ার প্রতি প্রথম অভিযোগ – সেই বিষয়ে যে, সেখানে নাকি স্বৈরতান্ত্রিক প্রশাসন আর গণতন্ত্র নেই.

1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30
সেপ্টেম্বর 2013
ঘটনার সূচী
সেপ্টেম্বর 2013
1
3
4
5
6
7
12
13
14
15
16
17
21
22
23
25
26
27
28
29
30