×
South Asian Languages:
রকেটবিরোধী প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা, 2012
ভ্লাদিমির পুতিনের ভারত সফরের সময়ে ও পরে যে সমস্ত মন্তব্য করা হয়েছে, তাতে প্রধান মনোযোগ দেওয়া হয়েছে সামরিক প্রযুক্তি সংক্রান্ত সহযোগিতার ক্ষেত্রে. এই নিয়ে বলার কিছু নেই – এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ ক্ষেত্র, কিন্তু শুধু সামরিক প্রশ্নেই সহযোগিতা শেষ হয়ে যাচ্ছে না.
রাশিয়া ও ভারতঃ একবিংশ শতকে কৌশলগত অংশীদারিত্ব সম্পর্কে নতুন দিগন্ত ভারতের অন্যতম প্রভাবশালী দৈনিক ' দ্যা হিন্দু ' পত্রিকার পাঠকদের দৃষ্টি আকর্ষন করার সুযোগ পেয়ে আমি আনন্দিত. নয়া দিল্লিতে আসন্ন সরকারি সফরের পূর্বে আমি আগামীর রুশ-ভারত কৌশলগত দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক নিয়ে বলতে চেয়েছিলাম. এবছর আমাদের দুটি দেশের মধ্যে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনের ৬৫ বছর পূর্ণ হয়েছে.
ভ্লাদিমির পুতিনের বড় প্রেস কনফারেনস শুধু রাশিয়াতেই নয়, তার সীমানার বাইরেও বহু অনুরণন তুলেছে. সারা বিশ্বের বিশেষজ্ঞরাই খুব মনোযোগ দিয়ে রাশিয়ার নেতার বক্তব্য শুনেছেন. নিজেদের মনোভাব তাঁরা “রেডিও রাশিয়ার” সঙ্গে ভাগ করে নিয়েছেন. ভ্লাদিমির পুতিনের বড় সাংবাদিক সম্মেলন – একটা বিশ্ব রাজনীতির বিরল ঘটনা.
রাশিয়া, জনপ্রিয় বিষয়, আমাদের সহযোগিতা, আফগানিস্থান, সের্গেই লাভরভ, নৌবাহিনী, পুতিন, আরব, রাশিয়া-সন্ত্রাস, আদমসুমারি- রাশিয়া, ইন্টারনেট, রাশিয়া- সংস্কৃতি, অর্থনৈতিক উন্নয়ন, বিমান, মেদভেদেভ, সন্ত্রাস, রুশ- মার্কিন, পারমানবিক, কোরিয়া, মহাকাশ, ককেশাস, মাদক, ইউরোপীয় সংঘ, ধর্ম, রাষ্ট্রসংঘ, যৌথ নিরাপত্তা, ইরাক, আধুনিকীকরণ, বিজ্ঞান, সম্মেলন, তুরস্ক, স্বাধীন রাষ্ট্র সমূহ, দুর্নীতি, বিতর্কিত অঞ্চল, ন্যাটো জোট, আফ্রিকা, জাপান, দক্ষিণ পূর্ব এশিয়া, নিকট প্রাচ্য, চিন, ব্রিকস, সামরিক, লিবিয়া, সিরিয়া, ইজরায়েল, রাশিয়ার নির্বাচন, ফ্রান্স, জার্মানী, বড় কুড়ি, নিষেধাজ্ঞা, উত্সব, রকেটবিরোধী প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা, সৌদি আরব, সাংহাই সহযোগিতা সংস্থা, গাজা অঞ্চল, রাশিয়া, কুরিল দ্বীপপুঞ্জ, ইসলাম, ইউরো-অঞ্চল, জর্জিয়া
রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন যে, রাশিয়া – মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের শত্রু নয় এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে রাশিয়ার শত্রু বলে মনে করে না.
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের তুরস্ক দেশের বিমান বন্দর ইনঝিরলিক পৌঁছেছে প্রথম প্যাট্রিয়ট রকেট ব্যবস্থা, এই বিমানবন্দর সিরিয়ার সীমান্ত থেকে ১০০ কিলোমিটার দূরে আদানা শহরের কাছে. এই সম্বন্ধে খবর দিয়েছে স্থানীয় টেলিভিশন. এই ব্যবস্থার সঙ্গে তা পরিষেবার জন্য বিদেশী সেনা বাহিনীও চলে এসেছে. ন্যাটোর সাধারন সম্পাদক আন্দ্রেস ফগ রাসমুসেন ঘোষণা করেছেন যে, প্যাট্রিয়ট ব্যবস্থা তুরস্কে প্রয়োজনের চেয়ে বেশী সময় ধরে থাকবে না.
উত্তর কোরিয়া কিম চেন ইরের স্মৃতিতে তিন মিনিট মৌন্যতা পালন করেছে. তিনি নিজের দেশে আরও একটি পর্যবেক্ষণ সফরের সময়ে ২০১১ সালের ১৭ই ডিসেম্বর দেহত্যাগ করেছিলেন. তাঁর স্মৃতির উদ্দেশ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানে যোগ দিতে রাশিয়া, চিন, জাপান, অস্ট্রেলিয়া, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা ও নিউজিল্যান্ড থেকে কোরিয়ার লোকদের প্রতিনিধি দল পিয়ংইয়ং শহরে এসেছেন.
স্ট্র্যাটেজিক প্রয়োজনের রকেট বাহিনী আজ আরও একটি জন্মদিন পালন করছে – ১৭ই ডিসেম্বর ২০১২ সালে এই বাহিনীর ৫৩ বছর হল. রাশিয়ার অন্যান্য সামরিক বাহিনীর মধ্যে তারা নিজেদের প্রয়োজনের কারণেই আলাদা রকমের: কখনোই যুদ্ধে না লিপ্ত হওয়া, যদিও এমতবস্থায় সদা সর্বদা যুদ্ধের জন্যই প্রস্তুত থাকতে হয়.
রাশিয়ার সংবাদ মাধ্যমের এক্তিয়ারে “রাশিয়ার বৈদেশিক নীতি সংক্রান্ত ধারণা” নামে একটি প্রকল্প এসেছে, যা প্রস্তুত করা হয়েছে রাষ্ট্রপতি পুতিনের নির্দেশে. বাস্তবে এই দলিল – দেশের বৈদেশিক রাজনীতির একটি সোপান, যার উপরে নির্ভর করে ২০১৮ সালের আগামী রাষ্ট্রপতি নির্বাচন পর্যন্ত দেশে কাজকর্ম করা হবে.
বিশ্বব্যাপী রকেটবিরোধী প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার গঠন অস্ত্র প্রতিযোগিতা প্ররোচনা করতে এবং পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণ থামাতে পারে. এ সম্বন্ধে শুক্রবার সাংবাদিকদের সঙ্গে বলেছেন রাশিয়ার স্ট্র্যাটেজিক রকেট বাহিনীর অধিনায়ক কর্নেল-জেনারেল সের্গেই কারাকায়েভ. তিনি সতর্ক করে দেন যে, যদি তা ঘটে, তাহলে পৃথিবীতে কোনো স্ট্র্যাটেজিক স্থিতিশীলতার কথা উঠতেও পারে না.
আগামী বছর গুলি রাশিয়া ও সারা বিশ্বের জন্যই আমূল পরিবর্তনের সময় হতে চলেছে – ভ্লাদিমির পুতিন ঘোষণা করেছেন, তিনি জাতীয় সভার উদ্দেশ্যে নিজের বক্তৃতা দিয়েছেন. রাশিয়ার রাষ্ট্রপতির কথামতো, বিশ্ব এখন এমন একটা দ্রুত পরিবর্তনের যুগের সামনে উপস্থিত হতে চলেছে, যখন এমনকি অভিঘাত হওয়াও সম্ভব. এই প্রসঙ্গে রাষ্ট্র গুলির মধ্যেও প্রতিযোগিতা অনিবার্য.
কয়েকদিন আগে ভারতের হিন্দু সংবাদপত্র এক বড় প্রবন্ধ প্রকাশ করেছে পারমানবিক অস্ত্র বিষয়ে এর বড় ভারতীয় গবেষক ও প্রাক্তন পররাষ্ট্র সচিব শ্যাম শরণ লিখিত, তার নামও খুব ভয়ঙ্কর, “পাকিস্তানের যুদ্ধ সীমানায় অস্থিরতা নিয়ে প্রতিক্রিয়া করা”. এই প্রবন্ধে এক বিশদ বিশ্লেষণ দেওয়া হয়েছে পাকিস্তানের পারমানবিক পরিকল্পনার বিকাশের আধুনিক প্রবণতা নিয়ে, প্রাথমিক ভাবে তার সামরিক অংশ নিয়েই.
উত্তর কোরিয়ার রাজধানী পিয়ংইয়ংয়ে অবস্থিত সে দেশের নেতা কিম জং উনের বাসভবন ও রাষ্ট্রীয় ভবনের সামনে অন্তত ১০০টি ভারী ট্যাংক ও সাঁজোয়া যান মোতায়েন করা হয়েছে. কোরিয়ার নেতা অস্ত্রধারীদের হামলা অথবা জনসাধারণের আন্দোলনের আশংকা করছেন. পিয়ংইয়ংয়ের নির্ভরযোগ্য সূত্রের বরাত দিয়ে দক্ষিণ কোরিয়ান পত্রিকা ‘চোসোন ইলবো’ এ সংবাদ জানিয়েছে.
রাশিয়াতে প্রায় দুই বছর ধরে এক ভবিষ্যত সম্ভাবনাময় ভারী পারমানবিক শক্তি চালিত বিমানবাহী যুদ্ধ জাহাজের প্রকল্প নির্মাণ করা হচ্ছে, যা জাতীয় নিরাপত্তার একটি প্রধান মৌল হওয়ার জন্যই করা হচ্ছে. এই বিষয়ে সোমবারে সাংবাদিকদের রাশিয়ার মন্ত্রী সভায় “সামরিক শিল্প পরিষদের” উত্স থেকে জানানো হয়েছে.
ভারত দেশেই তৈরী রকেট ধাওয়া করে ধরতে যাওয়ার রকেট “এএডি” পরীক্ষা করে দেখেছে. বঙ্গোপসাগরের উপরে ১৫ কিলোমিটার উচ্চতায় ওড়া একটি লক্ষ্য রকেট ধ্বংস করা সম্ভব হয়েছে বলে খবর দিয়েছে ভারতেরই সংবাদপত্র “হিন্দু”. বিষয় নিয়ে বিশদ করে লিখেছেন আমাদের সমীক্ষক গিওর্গি ভানেত্সভ ভারত আজ প্রথম বছর জাতীয় রকেট প্রতিরোধ ব্যবস্থা সৃষ্টি করা নিয়ে কাজ করছে না.
ক্লিন্টন ও লাভরভ কম্বোডিয়াতে আসিয়ান সংস্থার শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিতে এসে একে অপরকে রকেট বিরোধী ব্যবস্থা নিয়ে সমঝোতায় আসার কথা বলেছেন. লাভরভ একই সঙ্গে জানিয়েছেন যে, মার্কিন রাষ্ট্রপতি বারাক ওবামার আগামী বছরে রাশিয়া সফর মস্কোর পক্ষ থেকে সমর্থন করা হয়েছে.
শুক্রবারে এই উপলক্ষে এক অনুষ্ঠান হয়েছে রাশিয়ার পশ্চিমের বাল্টিক সমুদ্র তীরের কালিনিনগ্রাদ শহরের “ইয়ানতার” জাহাজ নির্মাণ কারখানায়. “তারকাশ” – এই ধরনের তিনটি ফ্রিগেটের দ্বিতীয়, যা এই “ইয়ানতার” কারখানা ভারতের জন্য তৈরী করেছে. প্রথম ফ্রিগেট “তেগ” ভারতের নৌবাহিনীতে যোগ দিয়েছে এপ্রিল মাসে.
রাশিয়া ও ভারতের প্রকৌশলীরা নতুন ধরনের শব্দাতীত “ব্রামোস” রকেট তৈরী করতে চলেছে. যার গতিবেগ হবে শব্দের গতির সাত গুণ. এই বিষয়ে “ইন্টারফ্যাক্স” সংস্থাকে ভারত- রাশিয়া যৌথ উদ্যোগের কোম্পানী “ব্রামোস এয়ারো স্পেসের” প্রধান শিবথানু পিল্লাই লে বুর্জ শহরে অনুষ্ঠিত “ইউরো ন্যাভাল – ২০১২” প্রদর্শনীতে খবর দিয়েছেন.
রাশিয়া ও ভারত সামরিক প্রযুক্তি সহযোগিতার ক্ষেত্রে সমস্যা সঙ্কুল প্রশ্ন গুলির বিষয়ে সমাধান খুঁজে পেয়েছে. এই ঘোষণা করেছেন রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রী আনাতোলি সেরদ্যুকোভ, ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী এ. কে. অ্যান্টনির সঙ্গে বৈঠকের অব্যবহিত পরেই. রাশিয়ার মন্ত্রী আবারও বিশেষ করে উল্লেখ করেছেন যে, ভারত রাশিয়ার স্ট্র্যাটেজিক সহকর্মী দেশ ও রাশিয়ার সামরিক পণ্যের ক্রেতাদের মধ্যে প্রথম স্থানে রয়েছে.
আজকের দিনে রাশিয়া সামরিক প্রযুক্তি সহযোগিতার বিষয়ে ভারতের জন্য সবচেয়ে পরম্পরা মেনে চলা সহকর্মী দেশ. বিগত বছর গুলিতে ভারতের সঙ্গে সামরিক চুক্তির পরিমান রাশিয়ার সমস্ত অস্ত্র রপ্তানী ব্যবসার শতকরা ৩০ ভাগ ছাড়িয়েছে. এই বিষয়ে ভারতে নভেম্বর মাসে রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিনের পরিকল্পিত সফরের আগে টাইমস অফ ইন্ডিয়া পত্রিকায় এক সাক্ষাত্কারে বলেছেন রাশিয়ার উপ প্রধানমন্ত্রী দিমিত্রি রগোজিন.
আগের
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30 31
জানুয়ারী 2012
ঘটনার সূচী
জানুয়ারী 2012
1
2
3
4
5
6
7
8
9
10
11
12
13
14
15
16
17
18
19
20
21
22
23
24
25
26
27
28
29
30
31