×
South Asian Languages:
জার্মানী, এপ্রিল 2012
     রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের সিরিয়াতে সামরিক অপারেশনের সম্ভাবনা খতিয়ে দেখা উচিত হবে যদি রাষ্ট্রসঙ্ঘ ও আরব লীগের বিশেষ প্রতিনিধি কোফি আন্নানের শান্তি পরিকল্পনা কার্যকরী না হয় তাহলে. এই বিষয়ে ফরাসী কূটনৈতিক দপ্তরের প্রধান অ্যালেন জ্যুপে ঘোষণা করেছেন.
     ট্রান্স ন্যাশনাল বা বহু দেশের সীমানা পার হওয়া অপরাধ প্রতি বছরে দুই লক্ষ দশ হাজার কোটি ডলার রোজগার করে, আর এই পরিস্থিতি আরও খারাপ হতে পারে বলে ঘোষণা করেছেন রাষ্ট্রসঙ্ঘের মাদক ও অপরাধ বিষয়ক দপ্তরের প্রধান ইউরি ফিদোতভ. এটা দেশ গুলির নিরাপত্তা ও অর্থনৈতিক বিকাশের পথে অন্তরায় বলে তিনি উল্লেখ করেছেন.
আজ ২৩শে এপ্রিল রাশিয়াতে শুরু হতে চলেছে সেন্ট জর্জ ফিতার উত্সব, যা ফ্যাসিজমের বিরুদ্ধে মহান পিতৃভূমি রক্ষার যুদ্ধকে উত্সর্গ করে করা হয়েছিল. ৯ই মে পর্যন্ত রাশিয়ার রাজধানী ও অন্যান্য জায়গায়, রাশিয়ার কাছের ও অনেক দূরের বিদেশে দেওয়া হতে থাকবে বহু লক্ষ এই ধরনের কমলা- কালো রঙের পট্টি.
চীনের প্রধানমন্ত্রী ভ্যান জিয়াবাও জার্মানিকে প্রস্তাব করেছেন সক্রিয়ভাবে চীনের অর্থনীতিতে বিনিয়োগ করার, বিশেষ করে তার কেন্দ্রীয় ও পশ্চিম অঞ্চলে, সোমবার জানিয়েছে চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়. চীনের অর্থনীতি অপেক্ষাকৃত উচ্চ গতিতে বিকশিত হচ্ছে, এবং জার্মানির জন্য তা বিস্তৃত বাজার হয়ে উঠতে পারে, রবিবার বলেছেন চীনের প্রধানমন্ত্রী জার্মানির চ্যান্সেলার আঙ্গেলা মের্কেলের সাথে সাক্ষাতে. ভ্যান জিয়াবাও ইউরোপ সফরের কাঠামোতে জার্মানিতে রয়েছেন.
১৬-১৯শে এপ্রিল মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুর শহরে আয়োজিত ডি এস এ – ২০১২ আন্তর্জাতিক এশিয়া সামরিক অস্ত্র ও প্রযুক্তি প্রদর্শনীতে রাশিয়ার কোম্পানী গুলি ৪০০টিরও বেশী আধুনিক উত্পাদিত বস্তু দর্শকদের সামনে উপস্থিত করতে চলেছে. এই প্রদর্শনী করা হয়ে থাকে প্রতি দুই বছরে একবার করে মালয়েশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় ও জাতীয় পুলিশ দপ্তরের উদ্যোগে.
তেহরান তৈরী রয়েছে পারমানবিক পরিকল্পনা নিয়ে সমস্ত বিরোধের অবসান করতে, যদি তাদের উপর থেকে আরোপিত সমস্ত নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া হয়, এই প্রসঙ্গে ঘোষণা করেছেন ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রী আলি আকবর সালেখি. যদি পশ্চিমের দেশ গুলি চায় পারস্পরিক ভরসার উপরে নির্ভর করে কোন ব্যবস্থা নিতে, তবে তাদের শুরু করতে হবে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার দিয়ে – উল্লেখ করেছেন মন্ত্রী.
      তালিবরা শুরু করেছে “বসন্তের আক্রমণ”. রবিবারে তারা কাবুল শহরে একসাথে আক্রমণ করেছিল রাষ্ট্রপতি ভবন, পার্লামেন্ট হাউস, রাষ্ট্রসঙ্ঘের মিশন, আন্তর্জাতিক নিরাপত্তা সহযোগিতা শক্তির সদর দপ্তর, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস, গ্রেট ব্রিটেন ও জার্মানীর দূতাবাস গুলি. ন্যাটো জোটের সঙ্গে তালিব শক্তির বিরোধের সমস্ত সময়ের মধ্যে এটা একটা সবচেয়ে বড় হঠকারী কাজ.
সিরিয়া সঙ্কটের নিয়ন্ত্রণের সময় সীমা, ইরানের পারমানবিক পরিকল্পনা ও কোরিয়া উপদ্বীপ অঞ্চলে উত্তেজনা উদ্রেক কারী পরিস্থিতি – ওয়াশিংটনে জি ৮ গোষ্ঠীর দেশ গুলির পররাষ্ট্র মন্ত্রীরা আন্তর্জাতিক রাজনীতির মুখ্য সমস্যা গুলি নিয়ে নিজেদের অবস্থান সময়োপোযোগী কি না তা আলোচনা করে দেখেছেন. এই বৈঠক ছিল “জি ৮” শীর্ষ সম্মেলনের প্রস্তুতির জন্য সবচেয়ে বড় অধ্যায়.
সিরিয়া সম্পর্কে রাষ্ট্রসঙ্ঘ ও আরব রাষ্ট্র লীগের বিশেষ প্রতিনিধি কোফি আননের শান্তিপূর্ণ মীমাংসার পরিকল্পনা অনুযায়ী সিরিয়ায় বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় সকাল ৬টা ( গ্রীনউইচ সময় অনুযায়ী রাত ৩টায়) অগ্নি সংবরণের ব্যবস্থা বলবত্ হয়েছে. এর প্রাক্কালে সিরিয়ার সরকার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে যে, দেশে তথাকথিত “সশস্ত্র বিরোধীপক্ষের” বিরুদ্ধে সমস্ত সামরিক অভিযান বন্ধ করা হবে.
    “টাইমস” সংবাদপত্রে প্রকাশ করা হয়েছে যে, শনিবারে ইস্তাম্বুলে “ছয় পক্ষের” মধ্যস্থতাকারী প্রতিনিধি দলের সামনে (রাশিয়া, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, চিন, গ্রেট ব্রিটেন, ফ্রান্স ও জার্মানী) এই পথের কথা বলবেন ইউরোপীয় সঙ্ঘের পররাষ্ট্র বিষয়ক হাই কমিশনার ক্যাথরিন অ্যাস্টন.
“টাইম” জার্নাল নিজেদের পাঠকদের মধ্যে এক ইন্টারনেট মত গ্রহণের ব্যবস্থা করেছে, যেখানে চেষ্টা করা হচ্ছে বিশ্বের সবচেয়ে প্রভাবশালী ১০০ জন ব্যক্তি নির্ণয় করার. যদিও এই সব প্রভাবশালী ব্যক্তিদের তালিকা জার্নালের সম্পাদক বর্গ ঠিক করবেন ও প্রকাশ করা হবে ১৭ই এপ্রিল, তাও প্রাথমিক ভাবে ভোট দেওয়ার ফলাফল খুবই অবাক করার মতো হয়েছে.
নয় বছর আগে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও গ্রেট ব্রিটেনের সেনা বাহিনী ইরাকের রাজধানীতে অনুপ্রবেশ করেছিল. প্রথম কাজ যা তারা করেছিল – ভীড়ের সহর্ষ উল্লাসের মধ্যে (যদিও তা বিশাল কোন জন সমাবেশে নয়) সাদ্দাম হুসেইনের মূর্তি ভেঙে মাটিতে ফেলে দিয়েছিল.
মার্কিনী বিদেশ দপ্তর থেকে জানানো হয়েছে, যে ‘শীর্ষ-৮’ দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা ২০১২ সালের ১১ই এপ্রিল ওয়াশিংটনে সাক্ষাত করবেন. পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা পারস্পরিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিভিন্ন প্রশ্ন নিয়ে, আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক নিরাপত্তার প্রশ্নাবলী নিয়ে আলোচনা করবেন. পর্যবেক্ষকরা মনে করছেন, যে মনোযোগের কেন্দ্রে থাকবে সিরিয়া ও ইরানের প্রশ্নে কূটনৈতিক নিষ্পত্তির পথ সন্ধান.
ইরানের সরকার জাতীয় পারমানবিক পরিকল্পনা নিয়ে কাজ চালিয়ে যাবে, যতই তার জন্য দেশের বিরুদ্ধে বাইরে পশ্চিম থেকে নিষেধাজ্ঞা নেওয়া হোক না কেন, এই কথা সাংবাদিকদের কাছে ঘোষণা করেছেন ঐস্লামিক প্রজাতন্ত্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের প্রধান আলি আকবর সালেখি. তাঁর কথামতো, ইরানের সরকার তৈরী রয়েছে নিজেদের দেশকে রক্ষা করার জন্য.
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30
এপ্রিল 2012
ঘটনার সূচী
এপ্রিল 2012
1
2
4
6
7
8
11
13
14
15
18
19
20
21
22
24
27
28
29
30