×
South Asian Languages:
অর্থনৈতিক সঙ্কট, জানুয়ারী 2012
আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞার হুমকি স্বত্ত্বেও ইসলামাবাদ ইরান- পাকিস্তান গ্যাস পাইপ লাইন প্রকল্প থেকে হঠে যাবে না, এই ঘোষণা পাকিস্তানের পররাষ্ট্র দপ্তরের সরকারি মুখপাত্র আবদুল্লা বশিট করেছেন. বিষয় নিয়ে বিশদ করে লিখেছেন আমাদের সমীক্ষক গিওর্গি  ভানেত্সভ. ইরানের থেকে পাকিস্তান গ্যাস পাইপ লাইন বসানো প্রকল্পের ভাগ্য খুব একটা সহজ নয়. গত শতকের নব্বইয়ের দশকেই এই নিয়ে কথা শুরু হয়েছিল.
প্রতিযোগিতায় সফল শিল্প সমূহের, যা নতুন প্রযুক্তির ভিত্তিতে কাজ করে সেই রকমের নতুন অর্থনীতি রাশিয়ার প্রয়োজন. এই বিষয়ে সোমবার ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতি পদ প্রার্থী ভ্লাদিমির পুতিন ভেদোমস্তি সংবাদ পত্রের পাতায়. সামনে রাখা লক্ষ্য সাধনে প্রধানমন্ত্রী বেশ কয়েকটি সমাধানও প্রস্তাব করেছেন. প্রথম বিষয়, যা নিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলছেন, তা হল দেশের প্রযুক্তিগত ভাবে পেছিয়ে থাকাকে অতিক্রমের প্রয়োজনীয়তা নিয়ে.
দক্ষিণ সুদানের সরকার দেশে সম্পূর্ণ ভাবে খনিজ তেল উত্তোলন বন্ধ করে দিয়েছে. সরকার জানিয়েছে যে, এই তেল নিষ্কাশণ ততক্ষণ পর্যন্ত বন্ধ থাকবে, যতদিন না সুদানের সঙ্গে বিরোধ মিটবে, এই খবর রবিবারে জানিয়েছে ব্রিটেনের টেলিভিশন ও রেডিও কোম্পানী বিবিসি.
রবিবারে ইরানের মন্ত্রী আহমেদ কালেখবানি এই রকমের ভবিষ্যদ্বাণী করেছেন. ইউরোপীয় সঙ্ঘ ২৩ শে জানুযারী এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে ও ইরানের খনিজ তেলের উপরে নিযেধাজ্ঞা বহাল করেছে, তারা ইরানকে নিজেদের জাতীয় পারমানবিক পরিকল্পনা সম্বন্ধে বেশ কিছু প্রশ্নের উত্তর স্পষ্ট করে না দেওয়া ও বিশেষত তাদের এই ক্ষেত্রে সামরিক উদ্দেশ্য না জানানোর দোষে অভিযুক্ত করেছে.
আজকের দিনে সুইজারল্যান্ডের দাভোস শহরে বিশ্ব অর্থনৈতিক সম্মেলনের প্রধান বিষয় হয়েছে ইউরো এলাকার ভবিষ্যত.     জার্মানীর চ্যান্সেলার অ্যাঞ্জেলা মেরকেল – এই বছরের অধিবেশনের প্রধান প্রবন্ধ পাঠিকা – তিনি গত বুধবারে আলোচনার মূল সুর ধরিয়ে দিয়েছেন, নিজের ভাষণে নতুন করে ধেয়ে আসা অর্থনৈতিক সঙ্কটের মোকাবিলা করতে ইউরোপীয় সমাকলন প্রক্রিয়াকে আরও এক জোট করতে হবে বলে.
প্রধান ইউরোপীয় ব্যাঙ্কগুলি ইরানকে দানাশষ্য সরবরাহের জন্য সমস্ত রকমের আর্থিক লেনদেন বন্ধ করেছে, এই বিষয়ে ঘোষণা করেছেন ইউরোপীয় সঙ্ঘের বাণিজ্য সংক্রান্ত পরিষদের প্রতিনিধিরা. জানিয়েছে ইন্টারফ্যাক্স সংস্থা. এর ফলে ইরানের সঙ্গে ব্যাঙ্ক ব্যবস্থার মাধ্যমে বাণিজ্য করা কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে. ইরানের ক্রেতারা চেষ্টা করছেন সরাসরি দাম দিতে, কিন্তু বড় মাপের দাম দেওয়ার ক্ষেত্রে এটা করা যাচ্ছে না.
তেহরানে আইন গ্রহণ করা হচ্ছে, যাতে অবিলম্বে ইরানের খনিজ তেল ইউরোপীয় সঙ্ঘকে রপ্তানী করা বন্ধ হয়, এমনকি ইউরোপীয় সঙ্ঘের পক্ষ থেকে ১লা জুলাই থেকে নিষেধাজ্ঞা কার্যকরী হওয়া শুরুর আগেই. এই বিষয়ে মন্তব্য করেছেন ভ্লাদিমির সাঝিন.
সুইজারল্যান্ডের ডাভোসে বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরামের উদ্বোধন করে জার্মানীর চ্যান্সেলর এ্যানজেলা মার্কেল বলেছেন, যে ইউরোপের দরকার বাজেট প্রনয়ণের ক্ষেত্রে আরো বেশি কড়া শৃঙ্খলা এবং অর্থনৈতিক সমস্যা সমাধানের উদ্দেশ্যে পেলব রাজনৈতিক নীতি. ফোরাম অনুষ্ঠিত হচ্ছে ‘বিশাল পরিবর্তন’ শিরোনামে. অংশগ্রহণকারীদের মনোযোগের কেন্দ্রে – ইউরোপীয় অঞ্চলের আর্থিক সংকট. এই বছরে রুশী প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন উপ-প্রধানমন্ত্রী ইগর শুভালভ.
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতি বারাক ওবামা কংগ্রেসের উদ্দেশ্য বাত্সরিক ভাষণ দিয়েছেন- নভেম্বর মাসের নির্বাচনের আগে এটাই তাঁর শেষ কংগ্রেস সদস্যদের উদ্দেশ্য করে বক্তৃতা. পররাষ্ট্র নীতি সম্বন্ধে তাঁর ভাষণে সময় দেওয়া হয়েছিল সংক্ষেপে, কিন্তু ইরানের জায়গা আলাদা করে রাষ্ট্রপতির ভাষণে মিলেছে. ওবামা ঘোষণা করেছেন যে, আমেরিকা খুবই জোর দিয়েছে, যাতে ইরানের পক্ষে পারমানবিক অস্ত্র পাওয়া সম্ভব না হয়.
চিন, ভারত ও মালয়েশিয়ার জ্বালানী নিরাপত্তা ও ব্যবসায়িক স্বার্থের উপরে নতুন বিপদ ঘনিয়েছে. দক্ষিণ সুদান খনিজ তেল আহরণ বন্ধ করেছে সুদানের রপ্তানী বন্দরগুলির সাথে ট্রানজিটের প্রশ্নে সমাধান হয় নি বলে. চিনের জাতীয় খনিজ তেল কর্পোরেশন (চায়না ন্যাশনাল অফশোর অয়েল কর্পোরেশন), মালয়েশিয়ার পেত্রোনাস কোম্পানী ও ভারতের অয়েল অ্যান্ড ন্যাচরাল গ্যাস কর্পোরেশন গত বছরের হেমন্ত কাল থেকেই ক্ষতিগ্রস্ত হতে শুরু করেছিল.
গতকাল বিশ্বের সর্বত্র পেট্রোলের দাম বেড়েছে. ইউরোপীয় সংঘ ইরান থেকে খনিজতেল আমদানীর উপর নিষেধাজ্ঞা জারী করার পরিপ্রেক্ষিতেই এটা ঘটেছে. নিউ-ইয়র্কের স্টক এক্সচেঞ্জে আমেরিকার ডব্লু.টি.আই মার্কা পেট্রোলের ফিউচার্সের দাম বেড়ে ব্যারেল প্রতি ৯৯,৫৮ ডলারে গিয়ে পৌঁছেছে.
মস্কোয় আক্ষেপ ও আশংকার সঙ্গে ইরানের বিরূদ্ধে ইউরোপীয় সংঘের নতুন করে একপাক্ষিক নিষেধাজ্ঞা জারীকে গ্রহণ করা হয়েছে. সোমবার সন্ধ্যায় রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রক থেকে এই মন্তব্য করা হয়েছে. ইউরোপীয় সংঘ কতৃক আরোপিত নতুন নিষেধাজ্ঞা ইরানের অর্থনীতির বহু দিকের দমবন্ধ করে দেবার প্রয়াস বলে মন্ত্রণালয় উল্লেখ করেছে.
খনিজ তেল রপ্তানীকারক দেশ গুলির সংস্থা ওপেক নিজেদের সদস্য দেশ গুলির স্বার্থ রক্ষাকেই মুখ্য মনে করে বলে রবিবারে ইরানের রাজধানীতে বর্তমানের সভাপতি ও ইরাকের খনিজ তেল মন্ত্রী আবদেল করিম আল- লুয়ৈবি ঘোষণা করেছেন. বর্তমান বছরে ইরাক এই সংস্থায় সভাপতিত্ব করছে. “ইরাক চেষ্টা করবে ওপেক সংস্থাকে কোন রাজনৈতিক খেলা থেকে নিরস্ত করতে চেষ্টা করবে.
২০১২ ও ২০১৩ সালের অর্থনৈতিক মন্দা মোকাবেলার জন্য বিশ্বকে প্রস্তুত থাকতে হবে।গতকাল শক্রবার জাতিসংঘ থেকে প্রকাশিত ‘বিশ্ব অর্থনৈতিক
বাংলাদেশে সামরিক ক্যুদেতার প্রচেষ্টা আটকানো হয়েছে. হাসিনা ওয়াজেদের নেতৃত্বাধীন সরকারকে ক্ষমতা চ্যুত করতে একদল সামরিক অফিসার তৈরী হচ্ছিল. এই বিষয়ে খবর দিয়েছেন বাংলাদেশের সামরিক বাহিনীর প্রতিনিধি ব্রিগেডিয়ার জেনেরাল মুহামেদ মাসুদ রাজ্জাক. তিনি এই ষড়যন্ত্র কারীদের ধর্মোন্মাদ বলেছেন. জেনারেলের কথামতো, পরিকল্পনা ভেস্তে গিয়েছে অন্যান্য সামরিক কর্মীদের জন্যই, যারা সরকারের প্রতি নিষ্ঠ থেকে ষড়যন্ত্রের গোপন খবর দিয়েছে.
মস্কো শহরের ১৮ থেক ২১ শে জানুয়ারী "রাশিয়া ও বিশ্ব: ২০১২ – ২০২০" ফোরামে রাজনীতিবিদ, সরকারি কর্মচারী ও বিশেষজ্ঞ সমাজ বর্তমানের দশকে রাশিয়ার উন্নতির মডেল নিয়ে আলোচনা করছেন. এই সম্মেলনের এক আয়োজক, অর্থনীতি বিজ্ঞানে ডক্টরেট সের্গেই দ্রোবীশেভস্কি "রেডিও রাশিয়াকে" দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে এই দেশের বিশ্ব অর্থনীতির পরিপ্রেক্ষিতে ভবিষ্যত ও সামনে উপস্থিত বিষয় গুলি সম্পর্কে নিজের ধারণা ভাগ করে নিয়েছেন.
      আসন্ন রাষ্ট্রপতির নিবাচন, কর্তৃপক্ষ এবং বিরোধীপক্ষের সম্পর্ক, সামাজিক অসাম্য এবং বিশ্ব সঙ্কট অতিক্রমের পথ – এগুলি হল সমস্যার অসম্পূর্ণ তালিকা, যা ভ্লাদিমির পুতিন আলোচনা করেছেন প্রচার মাধ্যমের সাথে, সঠিকভাবে বললে, রাশিয়ার বৃহত্তম প্রচার মাধ্যমগুলির মুখ্য সম্পাদকদের সাথে সাক্ষাতে. বিতর্ক ছিল স্বচ্ছন্দ ও উত্তেজনাপূর্ণ, সমালোচনা হয়েছে উভয় দিক থেকেই, যেমন প্রচার মাধ্যমের প্রতি, তেমনই ব্যক্তিগতভাবে প্রধানমন্ত্রীর প্রতি.
ইউরোপীয় সঙ্ঘের পররাষ্ট্র মন্ত্রী পর্যায়ে সিরিয়ার বিরুদ্ধে আরও এক সারি নিষেধাজ্ঞা নিতে যাওয়া হচ্ছে, এই খবর দিয়েছে "ফ্রান্স প্রেস" সংস্থা. ইউরোপীয় সংস্থা "কালো তালিকায়" আরও ৮টি সিরিয়ার সংস্থা ও ২২ জন উচ্চ পদস্থ কর্মচারীর নাম অন্তর্ভুক্ত করতে চলেছে. তাঁদের ব্যক্তিগত ব্যাঙ্ক একাউন্ট বন্ধ করে দেওয়া হবে ও তাঁদের ইউরোপীয় সঙ্ঘের ভিতরে ঢুকতে দেওয়া হবে না.
চিনের পরে ভারত এশিয়ার দ্বিতীয় বৃহত্তম দেশ, যারা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ইরানের খনিজ তেলের বিষয়ে নিষেধাজ্ঞা মানতে অস্বীকার করেছে. এই দেশের পররাষ্ট্র দপ্তর থেকে প্রতিনিধিরা ঘোষণা করেছেন যে, ইরানের কাছ থেকে খনিজ তেল কেনা অব্যাহত থাকবে. নিউ দিল্লী তাদের মত সমর্থন করেছে এই যুক্তিতে যে, "রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের ইরান সংক্রান্ত নিষেধাজ্ঞা ভারতবর্ষ মানবে.
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র চিনকে অর্থনৈতিক ভাবে বেঁধে রাখার জন্য রাজনীতি কঠোর করছে. রাষ্ট্রপতি ওবামার নির্দেশ অনুযায়ী প্রশাসনের ভিতরে কার্যকরী পরিষদ তৈরী করা হবে চিনের পক্ষ থেকে বাণিজ্য ও অন্য যো কোন ধরনের নিয়ম ভঙ্গের বিষয়ে নিয়ন্ত্রণ ও রোধ করার জন্য, যা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ব্যবসায়িক স্বার্থহাণী করতে সক্ষম.
আগের
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30 31
জানুয়ারী 2012
ঘটনার সূচী
জানুয়ারী 2012
1
3
4
6
8
9
15
17
22
28
29
31