×
South Asian Languages:
নির্বাচন, নভেম্বর 2013

অনেক মাস ধরে চলে আসা জল্পনা কল্পনা যে কে পাকিস্তানের নতুন সামরিক প্রধান হতে চলেছেন, তা এবারে হঠাত্ করেই মিটেছে. গত নভেম্বরে দায়িত্বভার শেষ করে ফেলা আশফাক পারভেজ কায়ানির উত্তরাধিকারী হয়েছেন লেফটেন্যান্ট জেনারেল রাহীল শরীফ – যাঁর নামের মধ্যে বাবার নামের অংশ পাকিস্তানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফের সঙ্গে মেলে ও যাঁর দাদাকে ১৯৭১ সালে ভারত পাকিস্তানের যুদ্ধের সময়ে শহীদ হওয়ার জন্য পাকিস্তানের সর্ব্বোচ্চ সামরিক সম্মান দেওয়া হয়েছিল.

আগামী বছরের ৫ই জানুয়ারী বাংলাদেশের লোকসভা নির্বাচনের তারিখ যেই নির্বাচন কমিশনের তরফ থেকে ঘোষণা করা হয়েছে, তখনই সারা দেশ জুড়ে এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে প্রতিবাদের ঢেউ উঠেছে. এই সমস্ত মিছিল–হরতাল-সমাবেশ যেমন বদমাশ লোকদের তরফ থেকে হিংসার স্ফুলিঙ্গ দিয়ে জ্বালানো হয়েছে, তেমনই পুলিশের তরফ থেকে আত্মরক্ষা দিয়েও, যার ফলে কম করে হলেও সাতজন নিহত হয়েছে. এই পরিস্থিতির প্যারাডক্স হল যে, নির্বাচনের বিরুদ্ধে সরব হয়েছে সেই বিরোধী পক্ষই, যারা নাকি দেশের জনমত গ্রহণের ফলাফল অনুযায়ী জয়ী হওয়ার সম্ভাবনা রাখে, যদি এই নির্বাচন গণতান্ত্রিক উপায়ে করা হয়. এই বিষয়ে রাশিয়ার স্ট্র্যাটেজিক গবেষণা ইনস্টিটিউটের বিশেষজ্ঞ বরিস ভলখোনস্কি মন্তব্য করে বলেছেন:

বাংলাদেশের প্রধান বিরোধীদল বিএনপির নেতৃত্বাধীন ১৮ দলের দেশজুড়ে বিক্ষোভ আন্দোলনের মুখে দেশটির নির্বাচন কমিশন (ইসি) দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন পেছাতে পারে। তবে ইতিমধ্যে ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি ভোট গ্রহণের দিন ধার্য করে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী রকিব উদ্দীন আহমেদ।

আফগানিস্তানের পার্লামেন্ট জির্গা অধিবেশনে অংশ নেওয়া সদস্যরা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সামরিক চুক্তি স্বাক্ষর করার স্বপক্ষে মত দিয়েছেন ও তাঁরা আহ্বান করেছেন রাষ্ট্রপতি হামিদ কারজাইকে ২০১৩ সাল শেষ হওয়ার আগেই এই চুক্তিতে স্বাক্ষর করার জন্য. কারজাই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জন্য নিজের পক্ষ থেকে শর্ত দিয়েছেন. তার মধ্যে রয়েছে ২০১৪ সালের এপ্রিল মাসে দেশে উন্মুক্ত নির্বাচন বাস্তবায়নে সহায়তা করা ও আফগানিস্তানের ঘর বাড়ীতে হানা দেওয়া বন্ধ রেখে, তালিবদের সঙ্গে আলোচনায় অগ্রগতি করা.

বাংলাদেশের বিরোধী শক্তিগুলি যানবাহন যোগাযোগের ৪৮ ঘন্টার সর্বজাতীয় অবরোধ ঘোষণা করেছে.

২০১৪ সালের ৫ই জানুয়ারী বাংলাদেশে লোকসভা নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করেছেন দেশের কেন্দ্রীয় নির্বাচন কমিশনের প্রধান কাজি রাকীবুদ্দীন আহমেদ. পরিষদের প্রধান উল্লেখ করেছেন যে, নির্বাচনের সময়ে ভোট গ্রহণ কেন্দ্র গুলির নিরাপত্তা রক্ষা করবে দেশের সামরিক বাহিনীর জোয়ানরা.

২০০৮ সালে নির্বাচনের সময়ে সাফল্যের পরে নেপালের মাওবাদী দল এবারে এমন এক পরিস্থিতিতে পড়েছে যে, তারা এবারে দেখাতে বাধ্য হবে যে, তারা শুধু জিততেই নয়, বরং সভ্য ভাবে হারতেও পারে. এই দেশে এ’সপ্তাহের পার্লামেন্ট নির্বাচন নেপালের মাওবাদী সংযুক্ত কমিউনিস্ট পার্টির জন্য খারাপ খবরই নিয়ে এসেছে. পুষ্প কুমার দহল, যাঁকে জনগন প্রচণ্ড নামে চেনেন, তাঁর অনুগামীরা একই সঙ্গে দেশের দুটি বামপন্থী দলের কাছেই হেরে গিয়েছে – একটা সমাজবাদী পার্টি “নেপালের কংগ্রেস” আর অন্যটা নেপালের কমিউনিস্ট পার্টি (সংযুক্ত মার্কসবাদী – লেনিনবাদী পার্টি). আর যদিও দেশের সাংবিধানিক সভার ৬০১টি আসন কিভাবে এবারে ভাগ হতে চলেছে, তা নিয়ে শেষ অবধি উত্তর পাওয়া যায় নি, তার উত্তর পাওয়া যেতে পারে স্রেফ সপ্তাহ দুয়েক বাদে, তবুও আজ সম্পূর্ণ রকমের আস্থা নিয়েই বলা যেতে পারে যে, নেপালের মাওবাদীদের আশায় ছাই পড়েছে. পরিস্থিতি নিয়ে মন্তব্য করেছেন আমাদের সমীক্ষক সের্গেই তোমিন. তিনি বলেছেন:

ভারত সঙ্কটের দোড়গোড়ায়. আপাততঃ অর্থনীতিবিদরা বিদেশী মূলধন আকর্ষণ করা নিয়ে যখন ব্যস্ত ও রাজনীতিবিদরা এগিয়ে দিচ্ছেন দেশের জন্য খুবই দামী খাদ্য নিরাপত্তা বিল, তখন ভারতের জাতীয় মুদ্রা রুপিয়ার দাম কমে যাওয়ার কারণে খুবই দ্রুত বেড়ে গিয়েছে যেমন জ্বালানী ও শিল্পজাত দ্রব্যের দাম, তেমনই মূল খাদ্যোপোযোগী জিনিষের দামও: আলু, পিঁয়াজ ও নুনের দাম. পরিস্থিতি একেবারে চরমে পৌঁছেছে যখন বিহারে নুনের দাম এক দিনে পনেরো টাকা থেকে দশগুণ বেড়ে দেড়শো টাকা হয়েছিল প্রতি কিলোগ্রামে.

ভারতে নির্বাচনী প্রচারের জোরদার সময়ে আমেরিকার রাজনীতিবিদরা এবারে বিরোধী পক্ষ ভারতীয় জনতা দলের নেতা ও প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে যোগাযোগের রাস্তা খুঁজছে. তাঁকে নিমন্ত্রণ করা হয়েছিল “ক্যাপিটাল হিলসে ভারত দিবসে” আমেরিকার কংগ্রেস সদস্যদের সামনে বক্তৃতা দিতে. তবে এটাও ঠিক যে, ব্যক্তিগত ভাবে নয়, স্রেফ ভিডিও যোগাযোগের মাধ্যমে.

মিশরে পার্লামেন্টের নির্বাচন হওয়া উচিত্ আগামী বছরের ফেব্রুয়ারী থেকে মার্চের মধ্যে, শুক্রবার জানিয়েছে লেবাননের “ডেইলি স্টার” পত্রিকা মিশরের পররাষ্ট্রমন্ত্রী নাবিল ফাহমি-র উদ্ধৃতি দিয়ে. 

1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30
নভেম্বর 2013
ঘটনার সূচী
নভেম্বর 2013
1
2
3
4
5
6
7
9
10
11
12
14
15
16
17
18
19
20
23
24
25
29
30