×
South Asian Languages:
সিরিয়া, সেপ্টেম্বর 2012
এ সপ্তাহে নিউইয়র্কে অনুষ্ঠিত হওয়া জাতিসংঘের ৬৭তম সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে সিরিয়া প্রসঙ্গে ব্যাপক আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়েছে. আগামী দিনে দেশটির ভবিষ্যত কেমন হবে তা নিয় ত্রিমুখী মতামত পাওয়া গেছে. সিরিয়ার সরকার ও বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে বিদেশী শক্তির হস্তক্ষেপের পক্ষে মত দিয়েছে কাতার. আর তার সমর্থন করেছে ফ্রান্স ও তিউনেশিয়া. অন্যদিকে মস্কো, তেহরান ও কায়রো এ সংকটের শান্তিপূর্ণ সমাধান চেয়েছে.
সিরিয়ার অভ্যন্তরে বিদেশী শক্তির হস্তক্ষেপের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে রাশিয়া ও ইরাক. জাতিসংঘের ৬৭তম সাধারণ অধিবেশনে অংশ নেওয়া রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সেরগেই ল্যাভরোভ ও ইরাকের পররাষ্ট্রমন্ত্রী খাশিইয়ার জিবারির মধ্যে অনুষ্ঠিত আলোচনায় এ বক্তব্য বেরিয়ে আসে. দুই পররাষ্ট্রমন্ত্রী উল্লেখ করেন যে, তাদের উভয়েরই সিরিয়া নিয়ে অনেকটা একই দৃষ্টিভঙ্গী.
রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সেরগেই ল্যাভরোভ সিরিয়ার সরকার ও বিরোধী দলের মধ্যে চলমান সহিংসতা নিরসনে একসারি প্রস্তাব উল্লেখ করেছেন. সিরিয়ার সংকট নিরসনে কার্যকরী পথে অগ্রসর হতে হলে শুরুতেই দেশটিতে সব ধরণের হতাহতের ঘটনা বন্ধ করতে হবে এবং সেই সাথে বন্দীদের মুক্তি দেওয়া ও সেখানে অতিরিক্ত মানবিক সাহায্য পাঠাতো হবে. সেরগেই ল্যাভরোভ জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে নিজের দেওয়া ভাষণে এসব কথা বলেন.
সিরিয়ার শহর গুলিতে সন্ত্রাসবাদী হানার আয়োজন বেশীর ভাগ ক্ষেত্রেই সশস্ত্র জঙ্গীরা করছে, যারা বিদেশ থেকে এই দেশে ঢুকে পড়েছে. সিরিয়ার আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা মন্ত্রক থেকে এই খবর দেওয়া হয়েছে. সিরিয়ার সেনা বাহিনীও নিজেদের পক্ষ থেকে সমর্থন জানিয়ে বলেছে যে, আলেপ্পো শহরে বেশীর ভাগ যুদ্ধে নিহত ও বন্দী লোকেরা এসেছে বিদেশ থেকেই.
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষামন্ত্রী লেওন পানেট্টা মনে করেন, সিরিয়ার উপরে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের একতরফা আঘাত হানা “গুরুতর ভুল হবে”. একই সঙ্গে, আন্তর্জাতিক জনসমাজ যদি সিরিয়ায় হস্তক্ষেপের সিদ্ধান্ত নেয়, তাহলে ওয়াশিংটন অবশ্যই তাতে অংশগ্রহণ করবে, বলেন তিনি.
সিরিয়ার ভূভাগে সামরিক ক্রিয়াকলাপে বুধবার ৩২০ জন নিহত হয়েছে, বৃহস্পতিবার জানিয়েছে আন্তঃআরব টেলি-চ্যানেল “আল-জাজিরা”. এইভাবে, এ বুধবার ছিল সিরিয়ায় আন্দোলন শুরু হওয়ার সময় থেকে সবচেয়ে রক্তক্ষয়ী দিন. টেলি-চ্যানেল বিরোধীপক্ষের উদ্ধৃতি দিয়ে নিশ্চয়োক্তি করছে যে, নিহতদের বড় একটা অংশ দামাস্কাসের উপকণ্ঠে সরকারী বাহিনীর ট্যাঙ্ক ও আর্টিলারীর গোলাবর্ষণের শিকার হয়েছে.
ব্রিক্স দেশগুলি – ব্রাজিল, রাশিয়া, ভারত, চীন ও দক্ষিণ আফ্রিকা প্রজাতন্ত্র – সিরিয়ায় একই সঙ্গে অগ্নি সংবরণের আহ্বান জানিয়েছে. এ সম্বন্ধে বলা হয়েছে নিউ-ইয়র্কে রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ অ্যাসেম্বলির ৬৭তম অধিবেশনের নেপথ্যে এ গ্রুপের মন্ত্রীদের বুধবারের সাক্ষাতে গৃহীত ঘোষণাপত্রে.
সিরিয়া সংক্রান্ত বিষয়ে জেনেভা সম্মেলনের চুক্তি না মানা রাষ্ট্রসঙ্ঘের ভিত্তিমূলক নীতিকেই প্রশ্নের সম্মুখীণ করেছে. এই ধরনের দৃষ্টিকোণ নিউইয়র্কে রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারন সভায় যোগ দিতে এসে রাশিয়ার পররাষ্ট্র দপ্তরের প্রধান প্রকাশ করেছেন. সের্গেই লাভরভ এখানে রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের নিকট প্রাচ্য নিয়ে মন্ত্রী পর্যায়ের অধিবেশনে যোগ দিয়েছেন. এই বৈঠকে সিরিয়ার পরিস্থিতি নিয়ে আবারও নানা ধরনের মত প্রকাশ করা হয়েছে.
সিরিয়ার সঙ্কটের নিরসনে ফ্রান্স ও কাতারের তরফ থেকে যে অনুপ্রবেশের আহ্বান করা হয়েছে তা আরব লীগের পক্ষ থেকে সামরিক অনুপ্রবেশের আহ্বান বলে দেখা হচ্ছে না, এই কথা বলেছেন এই আরব লীগের সাধারন সম্পাদক নাবিল আল- আরবি, রাষ্ট্রসঙ্ঘে দেওয়া এক সাংবাদিক সম্মেলনে. তাঁর কথামতো, কথা হচ্ছে এক বাফার জোন মানবিক করিডর তৈরী করার.
মস্কোর সাথে যোগাযোগ রাখায় আগ্রহ প্রকাশ করেছেন সিরিয়া সম্পর্কে রাষ্ট্রসঙ্ঘ ও আরব রাষ্ট্র লীগের বিশেষ প্রতিনিধি লাখদার ব্রাহিমি. এ সম্বন্ধে তিনি মঙ্গলবার বলেছেন নিউ-ইয়র্কে রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ অ্যাসেম্বলির “নেপথ্যে” রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরোভের সাথে সাক্ষাতে. লাভরোভ এ কথা সমর্থন করেন যে, মস্কো যেকোনো সময়ে বিশেষ প্রতিনিধিকে গ্রহণ করতে প্রস্তুত.
সরকারবিরোধী সিরিয়ার স্বাধীন বাহিনী বুধবার সিরিয়ার সেনাবাহিনীর সদর দপ্তরের ভবনের কাছে দুটি বিস্ফোরণের জন্য দায়িত্ব গ্রহণ করেছে. এ সম্বন্ধে বলা হয়েছে বিদ্রোহীদের বিবৃতিতে. আগে সিরিয়ার তথ্য মন্ত্রী উমরান আজ-জোয়াবি বলেন যে, বিস্ফোরণে কেউ নিহত হয় নি. টেলি-সম্প্রচারের সময়ে টেলিফোনে আসা প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, “সন্ত্রাসবাদীদের এ বিস্ফোরণে শুধু বৈষয়িক ক্ষতি হয়েছে”. বিস্ফোরণের জায়গার পাশেই স্থানীয় বেতার-কেন্দ্র অবস্থিত.
সিরিয়ার রাজধানীর কেন্দ্রস্থলে সিরিয়ার সশস্ত্র বাহিনীর সদর দপ্তরের কাছে বুধবার দুটি শক্তিশালী বিস্ফোরণ ঘটেছে. দেশের তথ্য মন্ত্রণালয়ের বিবৃতি অনুযায়ী, বিস্ফোরণের ফলে কেউ ক্ষতিগ্রস্ত হয় নি, শুধু বৈষয়িক ক্ষতি হয়েছে. প্রসঙ্গত, সিরিয়ার রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন জানিয়েছে যে, দেশের নিরাপত্তা বাহিনী বিস্ফোরণের জায়গায় বিশেষ অভিযান চালাচ্ছে সন্ত্রাসবাদীদের পশ্চাদ্ধাবন করে. ইরানের আল-আল্যাম টেলি-চ্যানেলের তথ্য অনুযায়ী, রাতে জঙ্গীরা সেনাবাহিনীর সদর দপ্তরের ভবনে ঢোকার চেষ্টা করেছিল.
রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ অ্যাসেম্বলির ৬৭তম অধিবেশনের “নেপথ্যে” রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরোভের দ্বিপাক্ষিক যোগাযোগের সময় একটি মুখ্য আলোচ্য বিষয় হল সিরিয়ার সমস্যা. রাশিয়ার কূটনৈতিক বিভাগে জানানো হয়েছে যে, লাভরোভ সাক্ষাত্ করেছেন জর্ডানের রাজা দ্বিতীয় আব্দাল্লা-র সাথে.
মিশর সিরিয়ার সঙ্ঘর্ষে বিদেশী সামরিক হস্তক্ষেপের বিরুদ্ধে মত প্রকাশ করছে, বলেছেন মিশরের রাষ্ট্রপতি মুহম্মেদ মুর্সি মার্কিনী “পি,বি.এস” টেলি-সার্ভিসকে প্রদত্ত ইন্টারভিউতে. তবুও, মুর্সি যোগ করে বলেন যে, আরব দেশগুলির “উচিত্ স্বাধীনতার জন্য সিরিয়ার জনগণের আকাঙ্ক্ষা সমর্থন করা”. তাঁর কথায়, সিরিয়ার রাষ্ট্রপতি বাশার আসদের শাসন ক্ষমতা ছেড়ে দেওয়া উচিত্.
আরব লীগ ও রাষ্ট্রসঙ্ঘের বিশেষ সিরিয়া সঙ্কট সংক্রান্ত প্রতিনিধি লাখদার ব্রাহিমি মস্কো ও বেজিং সফরে আসছেন. এই প্রসঙ্গে তিনি রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকের পরে সদর দপ্তরে জানিয়েছেন. এই প্রসঙ্গে তিনি স্বীকার করেছেন যে, সিরিয়াতে পরিস্থিতি আরও ঘোরালো হয়ে উঠেছে ও এই সঙ্কট নিয়ন্ত্রণের জন্য আন্তর্জাতিক শক্তি প্রয়োগ এখন কানা গলিতে গিয়ে আটকেছে. সমর্থনের জন্যই লাখদার ব্রাহিমি মস্কো ও বেজিং আসছেন.
সিরিয়ায় হিংসাত্মক ক্রিয়াকলাপ অবিলম্বে বন্ধ হওয়া উচিত্, তবে এ সমস্যা মীমাংসা করা উচিত্ শুধু সংলাপের মাধ্যমে, বলেছেন ইরানের রাষ্ট্রপতি মাহমুদ আহমাদিনেজাদ. এ সম্বন্ধে তিনি বলেন সোমবার সন্ধ্যায় নিউ-ইয়র্কে রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ অ্যাসেম্বলিতে বক্তৃতা দানের পরে “সি.এন.এন” সংবাদ মাধ্যমকে প্রদত্ত ইন্টারভিউতে.
রাষ্ট্রসঙ্ঘ ও আরব রাষ্ট্র লীগের বিশেষ প্রতিনিধি লাখদার ব্রাহিমি সিরিয়ার পরিস্থিতি আলোচনার জন্য রাশিয়া ও চীন সফর করতে চান. এ সম্বন্ধে তিনি সাংবাদিকদের জানান রাষ্ট্রসঙ্ঘের সদর দপ্তরে নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকের পরে, যাতে তিনি সিরিয়া ও প্রতিবেশী দেশগুলিতে নিজের সাম্প্রতিক সফরের কথা বর্ণনা করেন.
সিরিয়া সম্পর্কে রাষ্ট্রসঙ্ঘ ও আরব রাষ্ট্র লীগের বিশেষ প্রতিনিধি লাখদার ব্রাহিমি রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের রুদ্ধদ্বার বৈঠকে বলেন যে, এ দেশে সঙ্ঘর্ষ ক্রমেই বেশি রক্তক্ষয়ী হয়ে উঠছে. তিনি আরও উল্লেখ করেন যে, সিরিয়ায় ক্রমেই বেশি জরুরী হয়ে উঠছে খাদ্যদ্রব্য সংক্রান্ত সমস্যা, দেশের অধিবাসীদের জন্য যা পাওয়া ক্রমেই মুস্কিল হয়ে উঠছে.
দামাস্কাসে বিরোধী পক্ষ “সিরিয়ার ত্রাণের জন্য” এক সম্মেলনের আয়োজন করেছিল. এর আয়োজক ছিল ন্যাশনাল কোঅর্ডিনেশন কমিটি, যেখানে অনেক গুলি মধ্যপন্থী বিরোধী সংস্থাও যোগ দিয়েছিল. এই বৈঠকের অংশগ্রহণকারীরা নিজেদের লক্ষ্য পূরণের জন্য কোন রকম হিংসার প্রয়োগ না করার সমর্থনে ঘোষণা করেছে. তাদের লক্ষ্য হল বর্তমানের প্রশাসনের বদলে গণতান্ত্রিক ও সংবিধান সম্মত রাষ্ট্র গঠন.
তুরস্কের সৈন্যবাহিনী গত ছুটির দিনগুলিতে সিরিয়ার সাথে সীমানায় আর্টিলারী সরঞ্জাম এবং আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা মোতায়েন করেছে, লিখেছে লেবাননের “ডেইলি স্টার” পত্রিকা. এ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে সিরিয়া-তুরস্ক সীমানায় সিরিয়ার সেনাবাহিনী ও সিরিয়ার সশস্ত্র বিরোধীদের মাঝে প্রখর সঙ্ঘর্ষের প্রত্যুত্তরে.
আগের
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30
সেপ্টেম্বর 2012
ঘটনার সূচী
সেপ্টেম্বর 2012
8
9
15
16
23