×
South Asian Languages:
সিরিয়া, মে 2012
সিরিয়া সংক্রান্ত রাষ্ট্রসঙ্ঘের বিশেষ প্রতিনিধি কোফি আননের নেতৃত্বে মধ্যস্থ দল সিরিয়ার সরকারের কাছ থেকে সুনির্দিষ্ট ক্রিয়াকলাপের অপেক্ষা করছে. রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদে রুদ্ধদ্বার বৈঠকের ফলাফলের ভিত্তিতে সাংবাদিকদের এ সম্বন্ধে জানিয়েছেন আননের ডেপুটি জাঁ-মারি গেয়েনো. তাঁর কথায়, সিরিয়ার সরকারের সুনির্দিষ্ট পদক্ষেপ গ্রহণ করা প্রয়োজন, যাতে নতুন রাজনৈতিক ধারার জন্য নিজের প্রস্তুতি সম্পর্কে আন্তর্জাতিক জনসমাজ এবং সিরিয়ার জনগণকে বিশ্বস্ত করা যায়.
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র মনে করছে যে, সিরিয়ার সমস্যার সবচেয়ে সম্ভাব্য সমাধান হবে সিরিয়ায় জাতিসংঘের বিশেষ প্রতিনিধি কোফি আন্নানের পরিকল্পনার বাইরে. এই বিষয়ে নিউ-ইয়র্কে জানিয়েছেন জাতিসংঘে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের স্থায়ী প্রতিনিধি সিউজান রাইস. তাঁর ভাষায়, সিরিয়ায় আন্নানের পরিকল্পনা আর ডামাস্কাসের উপর বাধা-নিষেধ কোনো ফল পাওয়া না গেলেই, সবচেয়ে খারাপ বিকল্প ব্যবহার করা হবে.
 বুধবারে রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদ সিরিয়া নিয়ে রুদ্ধদ্বার বৈঠক করেছে. গত সপ্তাহে হোমস শহরের কাছে এল- হুলা গ্রামের শতাধিক সিরিয়ার নাগরিকের মারণযজ্ঞ নিয়ে রিপোর্ট শোনা হয়েছে রাষ্ট্রসঙ্ঘের বিশেষজ্ঞদের কাছে. তার সঙ্ঘে এই তথ্যে জানানো হয়েছে যে, দৈর-এজ-জোর রাজ্যে ১৩ জন সিরিয়ার নাগরিকের মৃতদেহ পাওয়া গিয়েছে হাত বাঁধা অবস্থায়.  এই বৈঠকের খুঁটিনাটি ও সিদ্ধান্ত নিয়ে কিছু জানানো হয় নি.
সিরিয়ার বিদ্রোহীরা রাষ্ট্রপতি বাশার আসদের কাছে চরম দাবি পেশ করেছে, দেশে পরিস্থিতি মীমাংসা সংক্রান্ত পরিকল্পনা পালনের জন্য ৪৮ ঘন্টা সময় দিয়ে. এ সম্বন্ধে শুক্রবার জানিয়েছে আন্তঃআরব টেলি-চ্যানেল “আল-আরাবিয়া” তথাকথিত “স্বাধীন সিরিয়ার বাহিনীর” বিবৃতি উদ্ধৃত করে, যা সিরিয়ার রাষ্ট্রপতি বাশার আসদের চরম বিরোধী.
সিরিয়ার সীমানার বাইরে অবস্থিত শক্তি বিরোধী পক্ষের উপর চাপ দিচ্ছে, যাতে তারা দামাস্কাসের সরকারের সাথে সংলাপ না চালায়, সাংবাদিকদের বলেছেন রাষ্ট্রসঙ্ঘে সিরিয়ার স্থায়ী প্রতিনিধি বাশার জাফারি. তিনি আরও বলেন যে, হুলায় শান্তিপূর্ণ অধিবাসীদের ব্যাপক হত্যাকাণ্ডের তদন্ত সংক্রান্ত সরকারী কমিশন বৃহস্পতিবার অথবা শুক্রবার কাজ শেষ করবে. জাফারি তাছাড়া বিশ্ব জনসমাজকে আহ্বান জানান দেশে সঙ্কট মীমাংসায় সহায়তা করার, দেশে হিংসা বৃদ্ধিতে নয়.
মস্কো আগের মতোই সিরিয়ার প্রতি বাধা-নিষেধ প্রবর্তনের বিরুদ্ধে মত প্রকাশ করছে. এ সম্বন্ধে বুধবার নিউ-ইয়র্কে বলেছেন রাষ্ট্রসঙ্ঘে রাশিয়ার স্থায়ী প্রতিনিধি ভিতালি চুরকিন, নিরাপত্তা পরিষদে রুদ্ধদ্বার পরামর্শ-বৈঠকের পরে. কূটনীতিজ্ঞের কথায়, রাশিয়া সিরিয়ায় পর্যবেক্ষক মিশন প্রসারের ধারণা বিবেচনা করতে প্রস্তুত. চুরকিন উল্লেখ করেন যে, অগ্নি সংবরণ সম্বন্ধে কোফি আননের পরিকল্পনা আপাতত কোনো পক্ষই পালন করছে না.
অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী বব কার বুধবার বলেছেন যে, অস্ট্রেলিয়ার কর্তৃপক্ষ সিরিয়ায় সশস্ত্র বিদেশী অনুপ্রবেশের ধরণ বিবেচনা করতে প্রস্তুত, জানিয়েছে স্থানীয় প্রচার মাধ্যম. সেই সঙ্গে সিরিয়ায় সামরিক হস্তক্ষেপের জন্য, যেমন ২০১১ সালে লিবিয়ায় করা হয়েছিল, প্রয়োজন রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের একক সিদ্ধান্ত, সেই সঙ্গে রাশিয়া ও চীনের সম্মতিও. একই সঙ্গে কার জোর দিয়ে বলেন যে, ক্যানবেরা সিরিয়া সঙ্কটের রাজনৈতিক মীমাংসাকেই প্রাধান্য দিচ্ছে.
ইউরোসঙ্ঘে রাশিয়ার কূটনৈতিক মিশনের প্রধান ভ্লাদিমির চিঝোভ সিরিয়ার হুলা গ্রামে বিপর্যয়ের প্রতিক্রিয়া হিসেবে ইউরোসঙ্ঘের সদস্য রাষ্ট্রগুলির দ্বারা সিরিয়ার রাষ্ট্রদূতদের ফেরত পাঠানোর ফলপ্রসূতা সম্বন্ধে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন.
 বুধবারে রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদ সিরিয়াতে সঙ্ঘের তরফ থেকে পাঠানো মিশনের কাজকর্মের রিপোর্ট শুনবে. এই ক্ষেত্রে বাদ দেওয়া যেতে পারে না যে, বেশ কিছু দেশ সিরিয়াতে সামরিক অনুপ্রবেশের প্রশ্ন উত্থাপন করবে. আগামী রুদ্ধদ্বার বৈঠকের আগে পশ্চিমের দেশ গুলি এক যোগে দামাস্কাসের বিরুদ্ধে কূটনৈতিক ব্যবস্থা নিয়েছে.
সিরিয়ায় মীমাংসার আন্তর্জাতিক মধ্যস্থ কোফি আনন দামাস্কাসে বলেন যে, হুলায় বিপর্যয়ের পরে সিরিয়ার সঙ্কট একেবারে “তুঙ্গে” উঠেছে.সিরিয়ার হুলা গ্রামে ব্যাপক হত্যাকাণ্ডের পরে পাশ্চাত্যের একসারি দেশে সিরিয়ার উচ্চপদস্থ কূটনীতিজ্ঞদের দেশে ফেরত্ পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে. দামাস্কাস ঘোষণা করছে যে, এ বিপর্যয় – সন্ত্রাসবাদীদের কাজ, কিন্তু পাশ্চাত্যে এ অপরাধের জন্য সন্দেহ করা হচ্ছে রাষ্ট্রপতি আসদের পক্ষসমর্থকদের.
রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরোভ জানিয়েছেন যে, মঙ্গলবার রাষ্ট্রসঙ্ঘ ও আরব রাষ্ট্র লীগের বিশেষ প্রতিনিধি কোফি আননের সাথে টেলিফোন আলাপে দামাস্কাসে তাঁর আলাপ-আলোচনার ফলাফল সম্বন্ধে জানতে চান. এ সম্বন্ধে লাভরোভ মস্কোয় এক সাংবাদিক সম্মেলনে বলেছেন. কোফি আনন সোমবার থেকে দামাস্কাসে রয়েছেন. তিনি ইতিমধ্যে সিরিয়ার রাষ্ট্রপতি বাশার আসদ এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়ালিদ মুয়ল্লমের সাথে সাক্ষাত্ করেছেন.
সিরিয়ার কর্তৃপক্ষ সোমবার রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের কাছে চিঠি পাঠিয়েছে, যাতে হুলা গ্রামে আক্রমণের জন্য দায়িত্ব আরোপ করেছে রাডিক্যাল ইস্লামিক দলগুলির উপর. এ সম্বন্ধে সোমবার জানিয়েছে রয়টার সংবাদ এজেন্সি.
 সিরিয়া সঙ্কট সমাধানের জন্য রাষ্ট্রসঙ্ঘের বিশেষ প্রতিনিধি কোফি আন্নান বলেছেন যে, তিনি হুলা শহরের মারণযজ্ঞ দেখে নির্বাক হয়ে গিয়েছেন. সোমবারে তিনি দামাস্কাস শহরে আলোচনা করতে এসে ঘোষণা করেছেন যে, সিরিয়ার সরকার কে সক্রিয় ভাবে কাজ করতে হবে, যাতে তাদের সিরিয়ার সঙ্কটের শান্তিপূর্ণ সমাধানের ইচ্ছা প্রকট হয়.
 রাষ্ট্রসঙ্ঘের সামরিক পর্যবেক্ষকদের সংখ্যা সিরিয়াতে বর্তমানে ২৮০ জনেরও বেশী হয়েছে বলে মিশনের প্রচার দপ্তর থেকে জানানো হয়েছে. সিরিয়াতে সব মিলিয়ে ৩০০ সামরিক পর্যবেক্ষক থাকার কথা. আশা করা হয়েছে যে, রাষ্ট্রসঙ্ঘের মিশন সিরিয়াতে সম্পূর্ণ ভাবে জুন মাসের আগে তৈরী হয়ে যাবে. নিজেদের প্রতিনিধিদের এই দলে পাঠানো হয়েছে প্রায় ৪০টি দেশ থেকে.
 রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদ একটি জরুরী বৈঠকে সিরিয়ার পরিস্থিতি আবার তীক্ষ্ণ হওয়া নিয়ে আলোচনা করেছে. প্রধান প্রশ্ন ছিল হুলা শহরে মারণযজ্ঞ, যেখানে শেষ অবধি পাওয়া তথ্য অনুযায়ী নিহত হয়েছে প্রায় ১২০ জন মানুষ ও আহত হয়েছেন কয়েকশো মানুষ.  কিছু দিনের জন্য সামান্য স্তিমিত হয়ে আসার পরে সিরিয়া থেকে পাওয়া খবর যেন যুদ্ধক্ষেত্র থেকে পাওয়া খবরের মতো মনে হয়েছে.
গ্রেট-বৃটেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী উইলিয়াম হেগ সিরিয়ায় সঙ্কট মীমাংসায় যথাসম্ভব সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করার জন্য রাশিয়াকে আহ্বান জানিয়েছেন. মস্কোয় রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরোভের সাথে ফরেন অফিসের প্রধানের সাক্ষাতের প্রাক্কালে লিখেছে লন্ডনের “ডেইলি টেলিগ্রাফ” পত্রিকা. মস্কোয় আলাপ-আলোচনার আগে, যা অনুষ্ঠিত হবে সোমবার, হেগ উল্লেখ করেন যে, রাশিয়া কোফি আননের পরিকল্পনা সমর্থন করে.
সিরিয়ায় কর্মরত পর্যবেক্ষক মিশনের কাজ বিভিন্ন পক্ষের তরফ থেকে চাপ এবং সমালোচনার বিষয় হয়ে দাঁড়াচ্ছে, বলেছেন রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ সম্পাদক বান কি মুন. সিরিয়ার হুলা গ্রামে ব্যাপক হত্যার পরে, যেখানে ১০০ জনের উপর এবং প্রায় ৩০০ জন আহত হয়েছে, সিরিয়ায় রাষ্ট্রসঙ্ঘের পর্যবেক্ষকরা ক্রমবর্ধমান সমালোচনার শিকার হচ্ছে.
রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদ নিউ-ইয়র্কে রবিবার জরুরী বৈঠকে সিরিয়ার হোমস প্রদেশের হুলা গ্রামে ব্যাপক হত্যাকাণ্ডের কঠোর নিন্দে করেছে. গত শুক্রবার সেখানে নিহত হয়েছে ১০৮ জন, তাদের মধ্যে ৪৯ জন শিশু এবং ৩৪ জন নারী. রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের জরুর বৈঠকে গৃহীত ঘোষণাপত্রে বলা হয়েছে যে, গ্রামের বাসিন্দাদের একাংশ নিহত হয়েছে সরকারী বাহিনীর তরফ থেকে আর্টিলারীর গোলাবর্ষণে.
সিরিয়ার হোমস প্রদেশের হুলা শহরে গোলাবর্ষণের ফলে বহু লোক নিহত হওয়ার ঘটনায় আরব লিগের সদস্য রাষ্ট্রবর্গ খুব শীঘ্রই জুরুরি বৈঠক মিলিত হবে. কুয়েতের পররাষ্ট্রমন্ত্রনালয় এ খবর জানিয়েছে. কুয়েতের পক্ষ থেকে সংস্থাটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠক আয়োজনের জন্য এখন চেষ্টা করা হচ্ছে. প্রসঙ্গত, কুয়েত বর্তমানে আরব লিগের প্রতিনিধিত্বের দায়িত্বে রয়েছে.
জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি মুন ও সিরিয়া বিষয়ক বিশেষ প্রতিনিধি কফি আনান সিরিয়ার হোমস প্রদেশের হুলা শহরে গোলাবর্ষনে নিহতের ঘটনাকে গুরুতর অপরাধ বলে অভিহিত করেছেন. তাদের ভাষায়, অপরাধীদের অবশ্যই শাস্তি হওয়া উচিত. মানবাধিকার কর্মীদের মতে, গোলাগুলির এ ঘটনায় শিশুসহ অসংখ্য বেসামরিক মানুষ নিহত হয়েছে. এর আগে যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স ও জার্মানির পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা এ ঘটনার নিন্দা জানিয়েছেন.
আগের
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30 31
মে 2012
ঘটনার সূচী
মে 2012
6
8
9
13