×
South Asian Languages:
লিবিয়া, সেপ্টেম্বর 2012
লিবিয়ার সাবেক স্বৈরশাসক মুয়াম্মার গাদ্দাফিকে আটক করতে সাহায্যকারী ২২ বছর বয়সী ওমর শাবানের শেষকৃত্য অনুষ্ঠানের আয়োজন করে লিবিয়ার সরকার. ওই যোদ্ধাই প্রথম বলেছিলেন যে, তিনিই নিজের পিস্তল দিয়ে গাদ্দাফিকে গুলি করেন. লিবিয়ার জাতিয় কংগ্রেস শাবানের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছে এবং তাঁর হত্যাকারীদের বিচারের জন্য সব ধরণের ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দিয়েছে.
সিরিয়ার শহর গুলিতে সন্ত্রাসবাদী হানার আয়োজন বেশীর ভাগ ক্ষেত্রেই সশস্ত্র জঙ্গীরা করছে, যারা বিদেশ থেকে এই দেশে ঢুকে পড়েছে. সিরিয়ার আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা মন্ত্রক থেকে এই খবর দেওয়া হয়েছে. সিরিয়ার সেনা বাহিনীও নিজেদের পক্ষ থেকে সমর্থন জানিয়ে বলেছে যে, আলেপ্পো শহরে বেশীর ভাগ যুদ্ধে নিহত ও বন্দী লোকেরা এসেছে বিদেশ থেকেই.
মুহম্মর গাদ্দাফি একজন ধর্ষকামী ও লম্পট প্রকৃতির লোক ছিলেন. এই রকম লিবিয়ার জামাহিরির নেতাকে এক ফরাসী মহিলা সাংবাদিক অ্যানিক কোঝানের বইতে বর্ণনা করা হয়েছে. তার তথ্য অনুযায়ী গাদ্দাফি নিজের জন্য এক গুপ্ত হারেম তৈরী করেছিলেন, যেখানে স্কুল পড়ুয়া ছাত্রীরা আটকে পড়েছিল.
বারাক ওবামা মনে করেন যে, মুসলমানরা নির্দোষ সিনেমা শুধু ঐস্লামিক রাষ্ট্র গুলির জন্যই নয়, বরং আমেরিকার জন্য অপমানজনক. তা স্বত্ত্বেও রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারন সভার সামনে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতি ঘোষণা করেছেন: আমেরিকার লোকদের জন্য সংবিধানে ঘোষিত বাক্ স্বাধীনতা বেশী গুরুত্বপূর্ণ, এই ট্রেলার দেখানোর সম্ভাব্য পরিণতির চেয়ে. সুতরাং আমেরিকার ইন্টারনেট নেটওয়ার্ক থেকে এই ট্রেলার আমেরিকার নেট প্রভাইডার কোম্পানী গুলি করবে না.
সিরিয়ার সঙ্কটের নিরসনে ফ্রান্স ও কাতারের তরফ থেকে যে অনুপ্রবেশের আহ্বান করা হয়েছে তা আরব লীগের পক্ষ থেকে সামরিক অনুপ্রবেশের আহ্বান বলে দেখা হচ্ছে না, এই কথা বলেছেন এই আরব লীগের সাধারন সম্পাদক নাবিল আল- আরবি, রাষ্ট্রসঙ্ঘে দেওয়া এক সাংবাদিক সম্মেলনে. তাঁর কথামতো, কথা হচ্ছে এক বাফার জোন মানবিক করিডর তৈরী করার.
ফ্রান্সে এই রকমের একজনের হাসপাতালে মৃত্যু হয়েছে, বলে খবর দিয়েছে আল- জাজিরা সংবাদ সংস্থা. ওমরান শাবান নামের এই ব্যক্তিকে ২০১২ সালের জুলাই মাসে গাদ্দাফির পক্ষের লোকরা ধরে নিয়ে গিয়ে অত্যাচার করেছিল. শাবান ও আরও দুই জন বন্দী আটকে ছিল ৫০ দিন, পরে এক কথাবার্তার ফলে লিবিয়ার কংগ্রেসের নেতা তাদের ছাড়িয়ে এনেছিলেন.
দামাস্কাসে বিরোধী পক্ষ “সিরিয়ার ত্রাণের জন্য” এক সম্মেলনের আয়োজন করেছিল. এর আয়োজক ছিল ন্যাশনাল কোঅর্ডিনেশন কমিটি, যেখানে অনেক গুলি মধ্যপন্থী বিরোধী সংস্থাও যোগ দিয়েছিল. এই বৈঠকের অংশগ্রহণকারীরা নিজেদের লক্ষ্য পূরণের জন্য কোন রকম হিংসার প্রয়োগ না করার সমর্থনে ঘোষণা করেছে. তাদের লক্ষ্য হল বর্তমানের প্রশাসনের বদলে গণতান্ত্রিক ও সংবিধান সম্মত রাষ্ট্র গঠন.
লিবিয়ার সরকার সে দেশের সব অবৈধ অস্ত্রধারী গ্রুপদের নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে. অস্ত্রধারীদের পুরোপুরো উত্খাত করার কাজ পরিচালনা করার জন্য বেনগাজীতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রনালয় ও প্রতিরক্ষামন্ত্রনালয়ের প্রতিনিধিদের সমন্বয় একটি অপারেশন সেন্টার চালু করা হবে. উল্লেখ্য, দেরা শহরে প্রভাবশালী ২টি অস্ত্রধারী গ্রুপ স্বেচ্ছায় ভেঙ্গে ফেলা হয়েছে. এদিকে শনিবার রাতে বেনগাজিতে কয়েক হাজার বিক্ষোভকারীরা ইসলামবিরোধী চলচিত্রের জন্য বিক্ষোভ করেছে.
পাকিস্তানের মন্ত্রীসভা ২১শে সেপ্টেম্বর শুক্রবারকে হজরত মহম্মদের প্রতি আনুগত্যের দিবস পালন করা হবে বলে ঘোষণা করেছে. এই জন্য আবার মন্ত্রীসভার তরফ থেকে বিশেষ অধিবেশন ডাকা হয়েছিল, যেখানে আলোচনার কথা ছিল ১৪টি প্রশ্নে, কিন্তু সব গুলিকেই মুলতুবি রেখে দেওয়া হয়েছিল শুধু একটিরই জন্য – এতটাই তীক্ষ্ণ হয়ে দাঁড়িয়েছে পশ্চিমের সঙ্গে ঐস্লামিক বিশ্বের সম্পর্কের সমস্যা.
পাকিস্তানে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সমস্ত কনস্যুল দপ্তর বন্ধ, দূতাবাস ভিসা দেওয়া বন্ধ করেছে ক্রমাগত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বিরোধী আন্দোলনের জন্য. এ সম্বন্ধে জানিয়েছেন পররাষ্ট্র বিভাগের সরকারী প্রতিনিধি ভিক্টোরিয়া ন্যুল্যান্ড. সেই সঙ্গে তিনি সঠিক করে বলেন যে, কূটনৈতিক মিশনের সমস্ত কর্মী নিরাপদে রয়েছে. হজরত মুহম্মদের অবমাননা করা “মুসলমানদের নির্দোষিতা” চলচ্চিত্রের বিরুদ্ধে আরব জগতে প্রতিবাদ আন্দোলন ক্রমাগত চলছে.
বাংলাদেশের কর্তৃপক্ষ ইউ টিউব” ভিডিও-পোর্টালে প্রবেশ বন্ধ করেছে, যাতে দেশবাসীরা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে নির্মিত কেলেঙ্কারীজনক “মুসলমানদের নির্দোষিতা” চলচ্চিত্রটি দেখার সুযোগ না পায়. এ সম্বন্ধে মঙ্গলবার জানিয়েছে অ্যাসোশিয়েটেড প্রেস সংবাদ এজেন্সি. বাংলাদেশের টেলি-রেডিও সম্প্রচার কর্পোরেশনের প্রতিনিধি মীর মোহাম্মেদ মোর্শেদের কথায়, এ সাইটে প্রবেশ অবরোধ করা হয়েছে গত রাতে.
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে নির্মিত মুসলমানদের দোষ নেই নামের সিনেমা, যাতে হজরত মহম্মদকে খুবই ন্যক্কার জনক অবস্থায় দেখানো হয়েছে, তার বিরুদ্ধে প্রবল প্রতিবাদ প্রথমে নিকটপ্রাচ্যের ও আফ্রিকার দেশ গুলিকে নাড়া দিয়ে, তার পরে সম্পূর্ণ শক্তিতে ছড়িয়ে পড়েছে হিন্দুস্থানের দেশ গুলির মুসলমান সমাজেও.
বিশ্ব সংস্কৃতির স্মৃতি সৌধ গুলি সিরিয়াতে লুঠ হয়ে যাচ্ছে, যদিও দেশের প্রশাসন চেষ্টা করে চলেছে লুঠতরাজ বন্ধ করার ও ঐতিহাসিক জিনিষের চোরাচালান ঠেকানোর, যা জঙ্গী বাহিনী বর্তমানে অস্ত্রের বিনিময়ে দিয়ে দিচ্ছে. এই প্রসঙ্গে রেডিও রাশিয়াকে বলেছেন সিরিয়ার সাংস্কৃতিক উত্তরাধিকার সংরক্ষণ সংস্থার ডিরেক্টর মামুন আবদুল করিম. ঐতিহাসিক জিনিসপত্রের বাজারে নতুন জোয়ার এনেছে গৃহযুদ্ধ.
তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী রেজেপ তাইইপ এর্দোগান সিরিয়ায় ক্ষমতাসীন ব্যবস্থার উপর রাজনৈতিক চাপ বাড়ানোর প্রস্তাব করছেন. ইয়াল্টায় “ইয়াল্টার ইউরোপীয় স্ট্র্যাটেজি
রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন লিবিয়ায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূতের হত্যার নিন্দে করেছেন এবং কূটনীতিজ্ঞদের নিরাপত্তা সম্পর্কে আরব দেশগুলির নতুন নেতৃবৃন্দের দায়িত্বের কথা মনে করিয়ে দিয়েছেন. বেনগাজি শহরে এবং কায়রো-তে মার্কিনী কূটনৈতিক মিশনে আক্রমণ হয়েছে ১১ই সেপ্টেম্বরের সন্ত্রাসের বার্ষিকীতে, এবং এ রকম একটি আক্রমণে নিহত হন লিবিয়ায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত এবং কনস্যুল দপ্তরের আরও তিন জন কর্মী.
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রশাসন মিশরের প্রতি সাহায্য থামাবে না, কায়রো-তে মার্কিনী দূতাবাসে আক্রমণের পরেও, বলেছেন হোয়াইট হাউজের প্রতিনিধি জে কারনি. তাঁর কথায়, মিশরের রাষ্ট্রপতি হিংসাত্মক ক্রিয়াকলাপের নিন্দে করেছেন এবং মার্কিনী দূতাবাসের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন.মিশরের সাথে শরিকানা ক্রমবিকশিত হচ্ছে, জোর দিয়ে বলেন কারনি.
“আল- কায়দা” মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে ইসলামের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করার বিষয়ে অভিযুক্ত করেছে. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে “আল- কায়দার” প্রতিনিধি অ্যাডাম গাডান আমেরিকার মুসলমানদের সাবধান করে দিয়ে বলেছে যে, “হলোকস্টের জন্য তৈরী হোন”. গত বছরে সে বিশ্বের সবচেয়ে বেশী খোঁজ করা হচ্ছে এমন ১০ জন সন্ত্রাসবাদীদের একজন ছিল.
টিউনিশিয়ার পুলিশ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাসের কাছে মিছিলকারীদের ছত্রভঙ্গ করেছে কাঁদুনে গ্যাস ব্যবহার করে, যারা প্রতিবাদ করছিল “মুসলমানদের নির্দোষিতা” নামে চলচ্চিত্রের বিরুদ্ধে, যাতে মুসলমান ধর্মবিশ্বাসীদের অনুভূতির অবমাননা করা হয়েছে. এ চলচ্চিত্রটি মিশরের রাজধানী কায়রো-তে এবং লিবিয়ার বেনগাজি শহরে মার্কিনী কূটনৈতিক প্রতিনিধি দপ্তরে আক্রমণ প্ররোচিত করেছে.
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতি বারাক ওবামা চার দিনের শোক ঘোষণা করেছেন লিবিয়ায় ৪ জন মার্কিনীর হত্যা উপলক্ষ্যে, যাঁদের মধ্যে রাষ্ট্রদূত ক্রিস স্টিভেন্সও ছিলেন. মার্কিনী পতাকা হোয়াইট হাউজে, সমস্ত রাষ্ট্রীয় ও সামাজিক সংস্থায়, সামরিক প্রকল্পে অবনমিত রয়েছে. বুধবার লিবিয়ায় ইস্লামিস্টরা বেনগাজি শহরে মার্কিনী কনস্যুল ভবনে গ্রেনেড বর্ষণ করে এবং অগ্নি সংযোগ করে.
লিবিয়াতে আমেরিকার কনস্যুলেটে হামলার নিন্দা করা হয়েছে রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদে, যার ফলে রাষ্ট্রদূত ক্রিস্টোফার স্টিভেন্স ও আরও তিনজন দূতাবাসের কূটনীতিবিদ নিহত হয়েছেন. এই বিষয়ে ঘোষণা করেছেন রাষ্ট্রসঙ্ঘের মহাসচিবের সহকারী জেফরি ফেল্টম্যান, লিবিয়া নিয়ে নিরাপত্তা পরিষদের অধিবেশনে বক্তৃতা দিতে গিয়ে. তাঁর কথামতো, এই ঘটনা লিবিয়াতে দেশের সরকারের নিয়ন্ত্রণের বাইরে থাকা অস্ত্র কারবারের পরিণতি.
আগের
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30
সেপ্টেম্বর 2012
ঘটনার সূচী
সেপ্টেম্বর 2012
1
2
4
5
6
7
8
9
10
15
16
21
22
25
26
30