×
South Asian Languages:
সামরিক, 17 সেপ্টেম্বর 2013

আন্তর্মহাদেশীয় ব্যালিস্টিক রকেট “অগ্নি-৫” নিয়ে বিগত সপ্তাহের শেষ দিনগুলোতে ভারতে যে পরীক্ষা করা হয়েছে, তা কোন রকমের সন্দেহের অবকাশই আর রাখে নি যে, কার দিকে লক্ষ্য করে এই পরীক্ষা করা হয়েছে. বোঝাই যাচ্ছে যে, পাকিস্তানের দিকে নয়, যাদের সঙ্গে পরস্পর বিরোধে দাঁড়ানোর জন্য ভারতের কাছে আরও পুরনো ধরনের রকেট রয়েছে, বরং এটা করা হয়েছে এশিয়াতে নেতৃত্ব দেওয়ার বিষয়ে সবচেয়ে মুখ্য প্রতিদ্বন্দ্বীকে লক্ষ্য করেই – সেটা চিনকে.

ভারত সরকার নিজের সেনাবাহিনীর জন্য রাশিয়ার লাইসেন্স অনুযায়ী অতিরিক্ত ২৩৫টি “টি-৯০” মার্কা ট্যাঙ্ক উত্পাদনের ফরমাশ অনুমোদন করেছে, মঙ্গলবার জানিয়েছে স্থানীয় প্রচার মাধ্যম.

ইরানের বিরুদ্ধে ওয়াশিংটনের বল প্রয়োগের হুমকি পারমাণবিক শক্তি ব্যবহারে নিজের অধিকার রক্ষায় তেহেরানের দৃঢ়প্রতিজ্ঞাকে প্রভাবিত করতে পারবে না, মঙ্গলবার বলেছেন ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সরকারী প্রতিনিধি মার্জিইয়ে আফহাম.

২১শে আগষ্ট দামাস্কাস উপকণ্ঠে স্নায়ু-বৈকল্যের গ্যাস জারিন ব্যবহারের প্রমাণ সমর্থিত হয়েছে রাষ্ট্রসঙ্ঘের বিশেষজ্ঞদের রিপোর্টে. নীতিগত ভাবে এটা সেই রিপোর্ট বের হওয়ার আগেও স্পষ্টই জানা ছিল. তার ওপরে আবার এই রিপোর্টে সেই প্রশ্নের কোন উত্তর নেই যে, ঠিক কে এই রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহার করেছে. কিন্তু তা স্বত্ত্বেও এখানে মনে করিয়ে দেওয়া হয়েছে সেই সমস্ত বাস্তব ঘটনা, যা এর জন্য সশস্ত্র বিরোধী পক্ষকেই সন্দেহ করতে বাধ্য করে. তবুও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, গ্রেট ব্রিটেন ও ফ্রান্স ইতিমধ্যেই নিজেদের পছন্দসই ভাবে এই রিপোর্টকে ব্যাখ্যা করে বসেছে, তারা ঘোষণা করেছে যে, এই তথ্য নাকি সিরিয়ার সামরিক বাহিনী যে রাসায়নিক অস্ত্র প্রয়োগ করেছে, তাই প্রমাণ করে.

রাষ্ট্রসঙ্ঘ সোমবার ঘোষণা করেছে যে, “সুনির্দিষ্ট ও বিশ্বস্ত প্রমাণ” পেয়েছে যে, আগস্টের শেষ দিকে দামাস্কাসের উপকণ্ঠে বিষাক্ত বস্তু জারিন সম্বলিত রিয়াক্টিভ গোলা ব্যবহার করা হয়েছিল. 

সেপ্টেম্বর 2013
ঘটনার সূচী
সেপ্টেম্বর 2013