×
South Asian Languages:
সামরিক, 30 নভেম্বর 2012
গ্রেট ব্রিটেনের প্রশাসন লিবিয়ার কাছ থেকে মুহম্মর গাদ্দাফির প্রশাসনকে ধ্বংস করার জন্য ব্রিটিশ বোমারু বিমান ও অস্ত্র দিয়ে আঘাত করার জন্য ক্ষতিপূরণ দাবী করবে না. এই বিষয়ে ঘোষণা করেছেন দেশের উপ প্রতিরক্ষা মন্ত্রী অ্যান্ড্রু ম্যারিসন দেশের লোক সভার এক সদস্যের এই ধরনের এক প্রস্তাবের প্রত্যুত্তর হিসাবে.
জলদস্যূ মোকাবিলা ভারত ও রাশিয়ার নৌবাহিনীর মধ্যে “ইন্দ্র – ২০১২” মহড়ার এক অন্যতম অঙ্গ হতে চলেছে. এই বিষয়ে জানিয়েছেন বিশাল ডুবোজাহাজ বিধ্বংসী জাহাজ মার্শাল শাপোশনিকভের ক্যাপ্টেন আন্দ্রেই কুজনেত্সভ. ভারতের মুম্বাই বন্দরে বুধবারে মৈত্রী সফরে এসে ভিড়েছে রাশিয়ার প্রশান্ত মহাসাগরীয় নৌবাহিনীর এক জাহাজ দল. আমাদের সমীক্ষক গিওর্গি ভানেত্সভ এই বিষয়ে বিশদ করে লিখেছেন.
ইরান আফগানিস্তানে বিদেশী সামরিক উপস্থিতির অবসান চেয়েছে. রাষ্ট্রসঙ্ঘে ইরানের স্থায়ী প্রতিনিধির ডেপুটি এশাক আল- হাবিব নিজের দেশের অবস্থান সম্বন্ধে ব্যাখ্যা করতে গিয়ে বলেছেন যে, আফগানিস্তানে বিদেশী শক্তির উপস্থিতি শুধু এই দেশে পরিস্থিতিকেই অস্থিতিশীল করছে. প্রতিবেশীদের মতামত অবশ্যই গুরুত্বপূর্ণ, কিন্তু বর্তমানের ক্ষেত্রে চোখে পড়ার মতো হয়েছে যে, প্রতিবেশীরা একেবারেই উল্টো অবস্থানে রয়েছেন. এই প্রসঙ্গে পিওতর গনচারভ মন্তব্য করেছেন.
রাষ্ট্রসঙ্ঘ ও আরব রাষ্ট্র লীগের বিশেষ প্রতিনিধি লাখদার ব্রাহিমি বলেছেন যে, তাঁর কাছে সিরিয়ায় মীমাংসার পরিকল্পনার উপাদান আছে, তবে তা প্রণয়নের জন্য রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের ঐক্য প্রয়োজন. তাকে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে হবে, যা রাজনৈতিক প্রক্রিয়ার জন্য ভিত্তি হবে, বলেছেন কূটনীতিজ্ঞ. তাঁর মতে, দলিলে এ বছরের গ্রীষ্মকালে জেনেভায় “অ্যাকশন গ্রুপের” সাক্ষাতে নিরূপিত প্রক্রিয়া প্রতিফলিত হওয়া উচিত.
সন্ত্রাসবাদী দলগুলির বিরুদ্ধে সংগ্রাম, বিশেষ করে আল-কাইদার বিরুদ্ধে, আফগানিস্তানে অবস্থিত মার্কিনী বাহিনীর দীর্ঘকালের জন্য মুখ্য কর্তব্য থাকবে, বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের বলেছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষামন্ত্রী লেওন পানেট্টা. তাঁর কথায়, গোয়েন্দা তথ্য প্রমাণ দেয় যে, আল-কাইদা “আফগানিস্তানে আবার ঘাঁটি গেড়ে বসার জন্য সুযোগ-সম্ভাবনা খুঁজছে”. বেসরকারী তথ্য অনুযায়ী, বর্তমানে আফগানিস্তানে আল-কাইদার প্রতিনিধিদের সংখ্যা ১০০ জনের উপর.
দুবাই ও কায়রো থেকে যাত্রীবাহী বিমান চলাচল বন্ধ করেছে সংযুক্ত আরব আমীরশাহী ও মিশরের বিমান কোম্পানী গুলি, কোন রকমের কারণ না দেখিয়ে. যাত্রীদের অসুবিধার জন্য বলা হয়েছে কোম্পানী গুলি অনুতপ্ত. আরও বলা হয়েছে যে, দামাস্কাসের বিমান বন্দরের কাছের এলাকায় বিমান ওঠা নামার সময়ে যাত্রী ও বিমানের চালক সহ কর্মীদের নিরাপত্তা রক্ষা কঠিন হয়ে পড়ছে.
এই জাহাজে পরীক্ষার পরে বের হওয়া সমস্ত খামতি পূরণ করে ভারতকে জাহাজটি হস্তান্তর করা হবে ২০১৩ সালের শেষেই – এই কথা জানিয়েছেন রসআবারোনএক্সপোর্ট সংস্থার মুখপাত্র ভিয়াচেস্লাভ দাভীদেঙ্কো. তাঁর কথামতো, রাশিয়াও ভারতের পক্ষ এই বিষয়ে সমস্ত কাজের সময়ের বিষয়ে শেষ অবধি সময় সূচী নির্ধারণ করে ফেলেছে ও চুক্তি করেছে.
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30
নভেম্বর 2012
ঘটনার সূচী
নভেম্বর 2012
3
4