×
South Asian Languages:
সামরিক

উত্তর কোরিয়ার সরকার নিজেদের সীমান্ত আরও মজবুত করছে ও চিনে নিজেদের গুপ্তচর সংস্থার লোকদের পাঠিয়েছে, যাতে দেশ থেকে উত্তর কোরিয়ার জনগনের পালানো বন্ধ হয়, খবর দিয়েছে রেনখাপ সংবাদ সংস্থা, মন্ত্রীসভার উত্স থেকে পাওয়া খবর হিসাবে.

জাপানের প্রধানমন্ত্রী সিঞ্জো আবে বৃহস্পতিবারে সকালে টোকিও শহরের ইয়াসুকুনি মন্দির পরিদর্শনে গিয়েছিলেন, যেখানে কাহিনী অনুযায়ী সমস্ত যুদ্ধে অংশ নেওয়া জাপানের সৈন্যদের আত্মা সমাহিত রয়েছে.

সিরিয়া সঙ্কট সমাধানের জন্য “জেনেভা – ২” আন্তর্জাতিক সম্মেলনের শুরু হতে আর এক মাসের কম সময় রয়েছে. কিন্তু এখনও কারা অংশগ্রহণ করবে তা ঠিক হয় নি. বিরোধী পক্ষ ঠিক করে উঠতে পারছে না সুইজারল্যান্ডে কি নিজেদের প্রতিনিধি দল পাঠানো হবে, আর তা যদি হয়, তবে ঠিক কাকে. আর ইরানের যোগদান নিয়ে রাশিয়া ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এখনও সমঝোতায় পৌঁছতে পারছে না.

রাশিয়া ও কাজাখস্তান দু দেশের রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন এবং নুরসুলতান নজরবায়েভের আলাপ-আলোচনার ফলাফলের ভিত্তিতে সামরিক-প্রযুক্তিগত সহযোগিতা সম্পর্কে চুক্তি স্বাক্ষর করেছে.

২০১০ সালের ২৪শে ডিসেম্বর টিউনিশিয়ার সিদি-বুজিদে প্রথম বেন আলির প্রশাসনের বিরুদ্ধে গণ অভ্যুত্থান ঘটেছিল, যা “আরব বসন্তের” শুরু করেছিল. হাতে গোনা কয়েক সপ্তাহের মধ্যে উত্তর আফ্রিকায় দুটি প্রশাসনকে জনতার ঝড় ধুয়ে দিয়েছিল, যে দুটিই বহুদিন ধরে পশ্চিমের খুবই ভরসার জোটসঙ্গী হয়ে ছিল.

তারপরে ঘটনাচক্র দিক পরিবর্তন করেছে, আর ছড়িয়ে পড়েছে সেই সমস্ত দেশের উপরে, যাদের বেন আলির টিউনিশিয়া বা হোসনি মুবারকের ইজিপ্টের সঙ্গে খুব কমই অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক দিক থেকে মিল ছিল. “আরব বসন্ত” তারপরে ১৮০ ডিগ্রী দিক পরিবর্তন করেছে.

আলেপ্পো শহরে এবং তার উপকণ্ঠে সিরিয়ার বিমানবাহিনীর বোমা বর্ষণ সিরিয়া সম্পর্কে আন্তর্জাতিক সম্মেলন বানচাল করতে পারে.

২০১৪ সালে বহু আন্তর্জাতিক প্রশ্নে ঘটনা বিকাশ নির্ভর করবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার মাঝে সহযোগিতার উপর, মঙ্গলবার “ইতার-তাস” সংবাদ এজেন্সিকে প্রদত্ত একান্ত সাক্ষাত্কারে বলেছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের উপ-পরিচালক বেন রডস.

আজ জীবনের পঁচানব্বইতম বছরে পরলোকে গিয়েছেন গুলি করার অস্ত্র নির্মাণের এক বিশ্ববিখ্যাত ব্যক্তিত্ব মিখাইল তিমোফিয়েভিচ কালাশনিকভ, বিশ্বের সবচেয়ে অধিক প্রচলিত স্বয়ংক্রিয় বন্দুকের স্রষ্টা. বিশ্বের একশটিরও বেশী দেশের সামরিক বাহিনীতে তাঁর নির্মিত “একে-৪৭” মডেলের কালাশনিকভ অস্ত্র আজ ব্যবহার করা হচ্ছে.

আজ কালাশনিকভের নাম বিশ্বের সর্বত্র পরিচিত. তিনি এক কিংবদন্তী পুরুষ, রাশিয়া, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও চিনের মতো বহু রাষ্ট্রের বিজ্ঞান একাডেমী ও বিশ্ববিদ্যালয়ে তাঁকে সম্মানিত সদস্য পদ দেওয়া হয়েছিল. বিংশ শতকের সবচেয়ে বিখ্যাত আবিষ্কারের মধ্যে তাঁর সৃষ্ট স্বয়ংক্রিয় বন্দুক রয়েছে.

 

রাশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শোইগু রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিনকে জানিয়েছেন যে রাসায়নিক অস্ত্র অপসারণ ও তা অন্য প্রয়োজনীয় বস্তুতে পরিণত করার সরঞ্জাম ও যন্ত্রপাতি সিরিয়াকে দেওয়া সম্পর্কে তাঁর নির্দেশ পালন করা হয়েছে.

তাজিকিস্তানের সত্তর ভাগের বেশী নাগরিক প্রজাতন্ত্রের পক্ষ থেকে প্রথমে শুল্ক সঙ্ঘে ও পরে ইউরো-এশিয়া সঙ্ঘে যোগ দিতে চেয়েছেন. এই ধরনের তথ্য প্রকাশ করেছেন সমাজতত্ত্ববিদরা. কিন্তু দুশানবের প্রাক্তন সোভিয়েত দেশের পুরনো সহকর্মীদের সঙ্গে সংযুক্ত হওয়ার প্রক্রিয়া এখন বহু বছরের জন্যই পিছিয়ে যেতে পারে. এই ধরনের একটা সিদ্ধান্তে পৌঁছেছেন সমস্ত বিশেষজ্ঞরাই, যারা যোগ দিয়েছিলেন “রাশিয়া ও মধ্য এশিয়ার রাষ্ট্রগুলি: ইউরো-এশিয়া সমাকলনের অর্থনৈতিক ও মানবিক বিষয় সমূহ” নামের এক আলোচনা চক্রে.

পশ্চিমে বর্তমানে একটা ধারণা তৈরী হয়েছে যে, বাশার আসাদের শক্তি জয়ী হওয়া – সিরিয়াতে সম্ভাব্য সমস্ত ঘটনা পরম্পরার মধ্যে সবচেয়ে ভাল. ইউরোপীয় ও আমেরিকার সরকারি নেতারা আপাততঃ সরাসরি এই বিষয়ে কথা বলছেন না, কিন্তু সিরিয়ার বিদ্রোহীদের দিকে সহায়তা ক্রমশ কমিয়ে দিচ্ছে. তারই মধ্যে দামাস্কাস পরিকল্পিত ভাবেই নিজেদের রাসায়নিক অস্ত্রের ভাণ্ডার ধ্বংস করার কাজ করে চলেছে. এই প্রক্রিয়া নিরাপদে করার কাজে সাহায্যের আশ্বাস তাদের দিয়েছে রাশিয়া.

“ফার্স” সংবাদসংস্থা জানিয়েছে যে, শনিবারে ইরানের দক্ষিণে প্রশিক্ষণ চলার সময়ে সেই দেশের বিমানবাহিনী সফলভাবে ২০০ কিলোমিটার পর্যন্ত লক্ষ্যভেদ করতে সক্ষম “কাদের” নামক জাহাজ বিধ্বংসী রকেটের পরীক্ষা করে দেখেছে. দুদিন ধরে চলা সামরিক প্রশিক্ষণ শুরু হয়েছে শুক্রবারে. শনিবারে “কাদের” রকেট সফলভাবে পরীক্ষা করা হয়েছে. তাছাড়া বিমান থেকে নিক্ষেপ করার উপযুক্ত “নাসর্” ডানাওয়ালা রকেট পরীক্ষা করে দেখা হয়েছে.

বৃটিশ কর্তৃপক্ষ সিরিয়ার রাসায়নিক অস্ত্র ভাণ্ডারের একাংশ প্রয়োজনীয় অন্য বস্তুতে পরিণত করতে সম্মত হয়েছে. 

সিরিয়াতে বিশেষ ভাবে রাসায়নিক অস্ত্র বহনের উপযুক্ত রুশ মালবাহী গাড়ীর প্রথম দফায় পাঠানো দল পৌঁছে গিয়েছে. এই দেশের এলাকায় থাকা বিষাক্ত পদার্থের ভাণ্ডার থেকে এবারে লাতাকিয়া বন্দরে পাঠানোর কাজ শুরু হতে চলেছে, সেখানে এই বিষাক্ত পদার্থ জাহাজে চড়ানো হবে.

প্রথমে ধরে নেওয়া হয়েছিল যে, সবচেয়ে বিপজ্জনক রাসায়নিক অস্ত্র সিরিয়া থেকে ৩১শে ডিসেম্বরের আগেই নিয়ে যাওয়া হবে. এই প্রসঙ্গে সেগুলো বন্দরে নিয়ে যাওয়ার দায়িত্ব থাকবে সিরিয়ার সামরিক বাহিনীর. কিন্তু দামাস্কাসের কাছে এই ধরনের দায়িত্বপূর্ণ কাজ করার মতো প্রয়োজনীয় গাড়ী নেই. কারণ বিষাক্ত বস্তু বিপজ্জনক ও তা সাধারণ মালবাহী গাড়ীতে চড়ানোর উপায় নেই. তার ওপরে এই ধরনের পদার্থের পরিমাণ প্রায় ১৩০০ টন. এই ধরনের কাজের অভিজ্ঞতা না থাকলে ও বিশেষ রকমের যন্ত্রপাতি না থাকলে তা করা অসম্ভব, এই রকম মনে করেই রিসি নামক প্রতিরক্ষা গবেষণা সংক্রান্ত কেন্দ্রের প্রধান গিওর্গি তিশ্যেঙ্কো বলেছেন:

রাশিয়া রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদে সিরিয়ার বিমানবাহিনীর দ্বারা আলেপ্পো শহরে বিমান আঘাত হানার নিন্দা সহ বিবৃতি গ্রহণ অবরোধ করে নি, “রিয়া নোভস্তি” সংবাদ এজেন্সিকে জানিয়েছে এ বিশ্ব সংস্থার এক উত্স.

জঙ্গীদের একাংশ বৃহস্পতিবারে দক্ষিণ সুদানের আকোবো শহরে রাষ্ট্রসঙ্ঘের শান্তিরক্ষা বাহিনীর ঘাঁটি আক্রমণ করেছিল. ফলে শান্তিরক্ষী বাহিনীর সৈন্যরা সুদান স্বাধীন করার জাতীয় বাহিনীর অবস্থানের দিকে পিছিয়ে গিয়েছে বলে রাষ্ট্রসঙ্ঘের মহাসচিবের প্রতিনিধি খবর দিয়েছেন.

২০১১ সালের গোড়ায় সিরিয়ায় সঙ্কট দেখা দেওয়ার সময় থেকে পৃথিবীর প্রায় ৭০টি দেশ থেকে ১১ হাজারেরও বেশি জঙ্গী সিরিয়ায় পৌঁছেছে সরকারী বাহিনীর বিরুদ্ধে সামরিক ক্রিয়াকলাপে অংশগ্রহণের জন্য.

সিরিয়া থেকে সবচেয়ে বিপজ্জনক রাসায়নিক বস্তুগুলি, সম্ভবত, এ বছরের শেষ অবধি অপসারণ করা যাবে না, বুধবার জানিয়েছে “বি.বি.সি” রাসায়নিক অস্ত্র নিষেধ সংস্থার তথ্যের উদ্ধৃতি দিয়ে. 

মার্কিনী বিমানবাহিনী আন্তর্মহাদেশীয় ব্যালিস্টিক রকেটমিনিটম্যান-৩” সফলভাবে পরীক্ষা করেছে, সাংবাদিকদের জানিয়েছেন মার্কিনী বিমানবাহিনীর ২০ নম্বর আর্মির অধিনায়ক জেনারেল জ্যাক ওয়াইনশ্টেন.

রাশিয়া সিরিয়ার সাথে সম্পাদিত সমস্ত চুক্তি পালন করছে, সেই সঙ্গে সামরিক-প্রযুক্তিগত সহযোগিতার ক্ষেত্রেও, বলেছেন রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরোভ ফেডারেশন পরিষদে বক্তৃতা দিয়ে. 

আগের
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30
জুন 2017
ঘটনার সূচী
জুন 2017
1
2
3
4
5
6
7
8
9
10
11
12
13
14
15
16
17
18
19
20
21
22
23
24
25
26
27
28
29
30