×
South Asian Languages:
ব্রিকস, 2012
নয়াদিল্লী শহরে সরকারি সফরের সময়ে রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন যে, ভারত ও রাশিয়ার সম্পর্ক বিশেষ সুবিধা প্রাপ্ত সহকর্মী হওয়ার চরিত্র বহন করে. এই বছর দুই দেশের সম্পর্কের ক্ষেত্রে এক বিশেষ বছর: কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনের পঁয়ষট্টিতম জয়ন্তী বর্ষ. আর বর্তমানের শীর্ষবৈঠক পারস্পরিক ভাবে লাভজনক সহযোগিতার আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায় হয়েছে. আলোচনার সময়ে প্রধান বিষয় হয়েছে দ্বিপাক্ষিক আর্থ-বাণিজ্যিক সহযোগিতার প্রসার.
রাশিয়া ও ভারতঃ একবিংশ শতকে কৌশলগত অংশীদারিত্ব সম্পর্কে নতুন দিগন্ত ভারতের অন্যতম প্রভাবশালী দৈনিক ' দ্যা হিন্দু ' পত্রিকার পাঠকদের দৃষ্টি আকর্ষন করার সুযোগ পেয়ে আমি আনন্দিত. নয়া দিল্লিতে আসন্ন সরকারি সফরের পূর্বে আমি আগামীর রুশ-ভারত কৌশলগত দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক নিয়ে বলতে চেয়েছিলাম. এবছর আমাদের দুটি দেশের মধ্যে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনের ৬৫ বছর পূর্ণ হয়েছে.
ভ্লাদিমির পুতিনের বড় প্রেস কনফারেনস শুধু রাশিয়াতেই নয়, তার সীমানার বাইরেও বহু অনুরণন তুলেছে. সারা বিশ্বের বিশেষজ্ঞরাই খুব মনোযোগ দিয়ে রাশিয়ার নেতার বক্তব্য শুনেছেন. নিজেদের মনোভাব তাঁরা “রেডিও রাশিয়ার” সঙ্গে ভাগ করে নিয়েছেন. ভ্লাদিমির পুতিনের বড় সাংবাদিক সম্মেলন – একটা বিশ্ব রাজনীতির বিরল ঘটনা.
রাশিয়া, জনপ্রিয় বিষয়, আমাদের সহযোগিতা, আফগানিস্থান, সের্গেই লাভরভ, নৌবাহিনী, পুতিন, আরব, রাশিয়া-সন্ত্রাস, আদমসুমারি- রাশিয়া, ইন্টারনেট, রাশিয়া- সংস্কৃতি, অর্থনৈতিক উন্নয়ন, বিমান, মেদভেদেভ, সন্ত্রাস, রুশ- মার্কিন, পারমানবিক, কোরিয়া, মহাকাশ, ককেশাস, মাদক, ইউরোপীয় সংঘ, ধর্ম, রাষ্ট্রসংঘ, যৌথ নিরাপত্তা, ইরাক, আধুনিকীকরণ, বিজ্ঞান, সম্মেলন, তুরস্ক, স্বাধীন রাষ্ট্র সমূহ, দুর্নীতি, বিতর্কিত অঞ্চল, ন্যাটো জোট, আফ্রিকা, জাপান, দক্ষিণ পূর্ব এশিয়া, নিকট প্রাচ্য, চিন, ব্রিকস, সামরিক, লিবিয়া, সিরিয়া, ইজরায়েল, রাশিয়ার নির্বাচন, ফ্রান্স, জার্মানী, বড় কুড়ি, নিষেধাজ্ঞা, উত্সব, রকেটবিরোধী প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা, সৌদি আরব, সাংহাই সহযোগিতা সংস্থা, গাজা অঞ্চল, রাশিয়া, কুরিল দ্বীপপুঞ্জ, ইসলাম, ইউরো-অঞ্চল, জর্জিয়া
রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন ২৪শে ডিসেম্বর সরকারি সফরে ভারত যাচ্ছেন. এই বিষয়ে ক্রেমলিনের তথ্য সম্প্রচার মন্ত্রণালয় থেকে খবর দেওয়া হয়েছে. বিষয় নিয়ে কিছু বিশদ মন্তব্য করেছেন আমাদের সমীক্ষক গিওর্গি ভানেত্সভ.
রাশিয়ার সংবাদ মাধ্যমের এক্তিয়ারে “রাশিয়ার বৈদেশিক নীতি সংক্রান্ত ধারণা” নামে একটি প্রকল্প এসেছে, যা প্রস্তুত করা হয়েছে রাষ্ট্রপতি পুতিনের নির্দেশে. বাস্তবে এই দলিল – দেশের বৈদেশিক রাজনীতির একটি সোপান, যার উপরে নির্ভর করে ২০১৮ সালের আগামী রাষ্ট্রপতি নির্বাচন পর্যন্ত দেশে কাজকর্ম করা হবে.
আগামী বছর গুলি রাশিয়া ও সারা বিশ্বের জন্যই আমূল পরিবর্তনের সময় হতে চলেছে – ভ্লাদিমির পুতিন ঘোষণা করেছেন, তিনি জাতীয় সভার উদ্দেশ্যে নিজের বক্তৃতা দিয়েছেন. রাশিয়ার রাষ্ট্রপতির কথামতো, বিশ্ব এখন এমন একটা দ্রুত পরিবর্তনের যুগের সামনে উপস্থিত হতে চলেছে, যখন এমনকি অভিঘাত হওয়াও সম্ভব. এই প্রসঙ্গে রাষ্ট্র গুলির মধ্যেও প্রতিযোগিতা অনিবার্য.
২০৩০ সালের মধ্যে এশিয়া পশ্চিমকে পিছনে ফেলে এগিয়ে যাবে বার্ষিক আভ্যন্তরীণ উত্পাদনে, সামরিক ক্ষেত্রে ব্যয় বরাদ্দে, বিনিয়োগের ক্ষেত্রে ও নতুন প্রযুক্তির বিষয়ে. এই বিষয়ে বলা হয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের গুপ্তচর বিভাগের রিপোর্টে. বিশ্বের শক্তি কেন্দ্র সরে যাওয়া নিয়ে লিখেছেন আমাদের সমীক্ষক গিওর্গি ভানেত্সভ.
রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন পশ্চিমের রাজনীতিবিদদের সেই মন্তব্য যে, রাশিয়া শুল্ক সঙ্ঘ তৈরী করে কাজাখস্থান, বেলোরাশিয়া ও রাশিয়া মিলে আবার করে সোভিয়েত দেশ তৈরীর মতলব করছে, তাকে বলেছেন একেবারেই ফালতু কথা. আমার খুবই অদ্ভুত লেগেছে শুনতে যে, শুল্ক সঙ্ঘ – এটা নাকি সোভিয়েত দেশ আবার করে তৈরী করার বিষয়ে উচ্চাকাঙ্ক্ষা, - বলেছেন রাষ্ট্রপতি.
রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন সোমবারে তাঁর অছিমণ্ডলীর সদস্যদের সঙ্গে দেখা করেছেন. ক্রেমলিনের তথ্য সম্প্রচার দপ্তর থেকে জানানো হয়েছে যে, এই ব্যক্তিরা সকলেই তাঁকে সক্রিয়ভাবে গত রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের সময়ে সমর্থন করেছেন. এই আস্থাভাজন ব্যক্তিদের তালিকায় প্রায় ৫৫০ জন ব্যক্তি দেশের নানা এলাকা থেকে রয়েছেন.
ব্রিকস সংস্থার ও সাংহাই সংস্থার ব্যাঙ্ক তৈরীর জন্য আর্থ বিনিয়োগ সংক্রান্ত ভিত্তি ২০১৩ সালের প্রথম ত্রৈমাসিকেই তৈরী হয়ে যাবে, এই বিষয়ে চিনের অর্থ মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে আলোচনার পরে ঘোষণা করেছেন রাশিয়ার অর্থ মন্ত্রী আন্তন সিলুয়ানভ.
আফগানিস্তানের রাষ্ট্রপতি হামিদ কারজাই গত সপ্তাহে তাঁর পাঁচ দিন ব্যাপী ভারত সফরে বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ সাক্ষাত্কার করেছেন ও বেশ কিছু সহযোগিতা নিয়ে চুক্তিতে স্বাক্ষর করেছেন.
 রাষ্ট্রসঙ্ঘ দিবস. এই আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানের সদস্য ১৯৩টি দেশের সব কটিতেই এই দিবস পালন করা হচ্ছে. এই দিনটি রাষ্ট্রসঙ্ঘের সনদ পত্র গ্রহণের দিন উপলক্ষেই উত্সর্গ করা হয়েছিল, যেটি ছিল ১৯৪৫ সালের ২৪শে অক্টোবর. রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারন সভা ক্যালেণ্ডারকে কম কিছু বিশ্ব দিবস দিয়ে পাল্টে দেয় নি.
বিশ্ব অর্থনীতির গতিময় আরোগ্য আশা করা হচ্ছে না. আনন্দের সম্ভাবনা অনির্দিষ্টতা দিয়ে চাপা দেওয়া রয়েছে. এটা, বাস্তবে, সেই মুখ্য বিষয়, যা আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের কার্যকরী ডিরেক্টর ক্রিস্টিন লাগার্ড টোকিও শহরে আসন্ন আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল ও বিশ্ব ব্যাঙ্কের বাত্সরিক সম্মেলনের আগে বলেছেন.
আজ টোকিওয় শুরু হচ্ছে বিশ্ব ব্যাঙ্ক ও আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের শীর্ষ নেতৃবৃন্দের সাক্ষাত্কার, যেখানে মুখ্য আলোচ্য বিষয় – বিশ্ব অর্থনীতির উন্নয়নের মাত্রা হ্রাস হয়ে যাওয়ার সমস্যা. ২ দিন ব্যাপী বৈঠকে ১৮৮ টি দেশ ও অঞ্চলের প্রতিনিধিরা অংশ নেবে. আশা করা হচ্ছে, যে বৈঠকে আবার নতুন করে মুদ্রা তহবিলের সংস্কারসাধনের প্রশ্ন তোলা হবে.
সিরিয়া সংক্রান্ত বিষয়ে জেনেভা সম্মেলনের চুক্তি না মানা রাষ্ট্রসঙ্ঘের ভিত্তিমূলক নীতিকেই প্রশ্নের সম্মুখীণ করেছে. এই ধরনের দৃষ্টিকোণ নিউইয়র্কে রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারন সভায় যোগ দিতে এসে রাশিয়ার পররাষ্ট্র দপ্তরের প্রধান প্রকাশ করেছেন. সের্গেই লাভরভ এখানে রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের নিকট প্রাচ্য নিয়ে মন্ত্রী পর্যায়ের অধিবেশনে যোগ দিয়েছেন. এই বৈঠকে সিরিয়ার পরিস্থিতি নিয়ে আবারও নানা ধরনের মত প্রকাশ করা হয়েছে.
বিশ্ব নতুন বিনিময় যোগ্য মুদ্রা নিয়ে যুদ্ধের সামনে উপনীত হয়েছে. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রীয় রিজার্ভ ব্যাঙ্ক স্থির করেছে কোন রকমের মূল্যবান সঞ্চয়ের বিনিময় ব্যতিরেকেই আরও বেশী করে ডলার ছাপার বন্দোবস্ত করার. এই “ছোঁয়াচে রোগ” ধরেছে ইউরোপের কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্ক ও জাপানের ব্যাঙ্কেরও. “মূল্যহীণ” ব্যাঙ্ক নোট ছাপার বিষয়ে নিয়ন্ত্রণকারীদের দলে যোগ দিয়েছে ব্যাঙ্ক অফ ইংল্যান্ডও.
একশ দিন কেটে গিয়েছে সেই মুহূর্ত থেকে, যখন ভ্লাদিমির পুতিন রাশিয়ার রাষ্ট্রপতির পদ গ্রহণ করেছেন. নিজের রাষ্ট্রপতিত্বের শুরুতেই পুতিন অনেক মনোযোগ দিয়েছেন পররাষ্ট্র নীতি নিয়ে. রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি পদে থাকার প্রথম একশ দিনের মধ্যে তিনি সরকারি ভাবে বিশ্বের এগারোটি দেশে গিয়েছেন, তার মধ্যে চিন, জার্মানী, ফ্রান্স, গ্রেট ব্রিটেন, মেক্সিকো, ইজরায়েল, জর্ডন ও প্যালেস্টাইনের এলাকা রয়েছে.
ভারতের মত বিশ্বের আর কোনও দেশের সঙ্গেই রাশিয়ার এত বহুল প্রসারিত পারমানবিক শক্তি বিষয়ে সহযোগিতা নেই, - এই রকমই মন্তব্য করেছেন ভারতে রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত আলেকজান্ডার কাদাকিন. - ভারতের স্বাধীনতা দিবসের প্রাক্কালে “রেডিও রাশিয়াকে” দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে রাষ্ট্রদূত বর্তমানের ভারত- রাশিয়া সম্পর্ক নিয়ে বলেছেন ও তিনি এর ভবিষ্যত সম্বন্ধেও পূর্বাভাস দিয়েছেন.
৪ঠা জুন লন্ডনের গ্রীষ্ম অলিম্পিকের আগেই রাশিয়ার পূর্ব সাইবেরিয়াতে ইয়াকুতিয়া রাজ্যে শুরু হতে চলেছে এশিয়ার শিশু কিশোরদের ক্রীড়া প্রতিযোগিতা. বিষয় বস্তুর দিক থেকে এটা সেই অলিম্পিক গেমসই. তবে তা আকারে অনেক কম ও আরও অল্প বয়সীদের জন্য করা হয়ে থাকে. আন্তর্জাতিক শিশু কিশোর ক্রীড়া প্রতিযোগিতা বর্তমানের অলিম্পিক গেমসের থেকে একশ বছরের ছোট.
ভারতের বিমান বাহিনী রাশিয়া- ভারতের যৌথ উদ্যোগে নির্মিত শব্দাতীত রকেট ব্রামোস ২০১৪ সালে নিজেদের অস্ত্র সম্ভারে যোগ করবে. এই বিষয়ে জানিয়েছেন মস্কো উপকণ্ঠের ঝুকোভস্কি শহরে আয়োজিত “যন্ত্র নির্মাণে প্রযুক্তি – ২০১২” ফোরামে ব্রামোস কোম্পানীর জেনারেল ডিরেক্টর শিবথানু পিল্লাই.
আগের
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30 31
জানুয়ারী 2012
ঘটনার সূচী
জানুয়ারী 2012
1
2
3
4
5
6
8
9
11
12
13
14
15
19
21
22
23
24
25
26
27
28
29
30
31