×
South Asian Languages:
পাকিস্তান, ডিসেম্বর 2013

২০১৩ সালের শেষ বঙ্গোপসাগরে ভারতের একসারি সামরিক কাজকর্ম দিয়ে চিহ্নিত করা হয়েছে. “অগ্নি-৩” রকেটের উড়ান আর জাপান – ভারত সম্মিলিত সামুদ্রিক মহড়া – শুধু এই সবেরই কয়েকটা উদাহরণ হতে পারে. এটা কোন দ্ব্যর্থ না রেখেই বলা যেতে পারে যে, ভারত শুধু এখন সমুদ্র তীরে কোন রকমের আক্রমণ প্রতিহত করতেই সক্ষম নয়, বরং অনেক উচ্চাকাঙ্ক্ষাও পোষণ করেছে, যা তাদের সমুদ্র সীমা থেকে অনেক দূরের এলাকায় বর্তমানে তৈরী হয়েছে. বাস্তবে ভারতের সামরিক –সামুদ্রিক ক্ষমতা বৃদ্ধি করা বহু রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের সেই তত্ত্বকেই প্রমাণ করে দেয় যে, ভারত ও প্রশান্ত মহাসাগর ইতিমধ্যেই একটি সম্পূর্ণ মহাসাগরে পরিণত হতে চলেছে – যাকে বলা যেতে পারে ভারত- প্রশান্ত মহাসাগরীয় এলাকা.

পাকিস্তানের আদালতে প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি পারভেজ মুশরফের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগে মামলা শুরু হয়েছে.

প্রথম থেকে শেষ অবধিই অসম্ভব ঠেকেছে নিউইয়র্ক শহরে ভারতের ডেপুটি কনসাল জেনারেল দেবযানী খোবরাগাদে আচমকা গ্রেপ্তার হওয়া আর তারপরে জেলবন্দী থাকার ঘটনা. উচ্চপদস্থ এই কূটনীতিবিদকে অপমানজনক ভাবে খানাতল্লাশী করা হয়েছে ও তারপরে নানারকমের অপরাধী ও মাদকাসক্তদের সাথে একত্রে কারাবাসে বাধ্য করা হয়েছে. এই কাজ দিয়েই খুব নোংরা ভাবে বিদেশে রাষ্ট্রের প্রতিনিধি সংক্রান্ত ১৯৬৩ সালের ভিয়েনা কনভেনশন ভঙ্গ করা হয়েছে, যে দলিলে স্পষ্ট করেই লেখা রয়েছে কূটনীতিবিদদের অনাক্রম্যতা নিয়ে.

পাকিস্তানের সিন্ধ প্রদেশে সাংস্কৃতিক উত্সবের প্রস্তুতি শুরু হয়েছে, যা করা হতে চলেছে আগামী বছরের ফেব্রুয়ারী মাসে. এই উত্সবের প্রচারের কাজে সবচেয়ে সক্রিয় ও প্রধান উদ্যোক্তা হয়েছে দেশের সবচেয়ে প্রভাবশালী রাজনৈতিক পরিবারের বংশধর বিলাবল ভুট্টো- জারদারি. সব দেখে শুনে মনে হয়েছে যে, সে তাদের দলের এই বছরের মে মাসের নির্বাচনে ভরাডুবি দেখে শিক্ষা নেওয়ার চেষ্টা করছে ও দেশের জনগনের সামনে এক নতুন প্রজন্মের নেতা হিসাবে উপস্থিত হতে চাইছে. কিন্তু প্রতিবেশী ভারতে তার সহকর্মী রাহুল গান্ধীর খুবই দুঃখজনক অভিজ্ঞতা দেখিয়ে দিয়েছে যে, এমনকি সবচেয়ে প্রভাবশালী বংশের লোকদেরও আগে হোক বা পরেই হোক মঞ্চ থেকে নেমে দাঁড়াতে হয়.

পাকিস্তানের উত্তরাঞ্চলের রাওয়ালপিন্ডি শহরে এক আত্মঘাতী শিয়া মসজিদের কাছে নিজেকে বিস্ফোরিত করেছে, অন্ততপক্ষে তিনজন নিহত এবং ১৪ জন আহত হয়েছে, জানিয়েছে পাকিস্তানের “ডন” পত্রিকা.

মধ্য ও দক্ষিণ এশিয়াতে ঐক্যবদ্ধ বিদ্যুতশক্তি সরবরাহ ব্যবস্থায় আরও একজন বিনিয়োগকারী উদয় হয়েছে. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ঘোষণা করেছে CASA-1000 প্রকল্পে এক কোটি পঞ্চাশ লক্ষ ডলার বিনিয়োগ করার বিষয়ে আগ্রহের কথা. রাশিয়া এই প্রকল্পের জন্য প্রায় ৫০ কোটি ডলার পর্যন্ত দিতে তৈরী আছে.

২০০৭ সালেই প্রথম CASA-1000 প্রকল্প নিয়ে বলা হয়েছিল. এই ধারণার মূল কথা হল যে, আফগানিস্তান ও পাকিস্তানকে উন্নয়নে সহায়তা করা. দুই দেশেই খুব বেশী করে বিদ্যুত শক্তির অভাব টের পাওয়া যায়. তাদের দিকে প্রাক্তন সোভিয়েত মধ্য এশিয়ার দেশগুলো থেকে কিছু বাড়তি বিদ্যুত সরবরাহ করার কথা হয়েছে, যে সমস্ত দেশে অনেক বেশী পরিমানে বিদ্যুত শক্তি উত্পাদনের সুযোগ রয়েছে.

বুধবারে সংবিধান সম্মত সময় অতিক্রম করার পরে পদত্যাগ করেছেন পাকিস্তানের সুপ্রীম কোর্টের প্রধান বিচারপতি ইফতিকার মহম্মদ চৌধুরী. তাঁর এই পদে থাকার সময়ে বহু চমকপ্রদ রকমের পরিবর্তনের সাক্ষী হয়েছে: পদচ্যুত হওয়া, পুনর্বহাল হওয়া, রাষ্ট্রপতি পারভেজ মুশারফের পদত্যাগের বিষয়ে সক্রিয় অংশগ্রহণ, ও তাঁর পরবর্তী রাষ্ট্রপতি আসিফ আলি জারদারির বিরুদ্ধে নতুন করে মামলা শুরু করার প্রচেষ্টা ইত্যাদি অনেক কিছুই. প্রসঙ্গতঃ অনেক বেশী গুরুত্বপূর্ণ এখন পাকিস্তানের প্রাক্তন প্রধান বিচারপতির ব্যক্তিগত ভাগ্যের উত্থান-পতনের চেয়ে দেশের জন্য হয়েছে রাজনৈতিক জীবনে আদালতের ভূমিকা পরিবর্তন: বাস্তবে এখন, যখন দেশের সামরিক বাহিনী বিশেষ করে উল্লেখ করে দেশের রাজনীতিতে সরাসরি ভাবে হস্তক্ষেপ করছে না, রাজনৈতিক ভাগ্যে নির্ণায়কের জায়গা নিয়েছে সেই বিচার বিভাগের ক্ষমতাসীনরাই.

পাকিস্তান ও ইরানের সরকার ইরানের দক্ষিণ পার্স খনি থেকে পাকিস্তানে গ্যাসের পাইপলাইন পাতার প্রকল্পের বাস্তবায়ন তাড়াতাড়ি করার ব্যাপারে সমঝোতায় এসেছে.

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী চাক হেগেলের সফর ইসলামাবাদে গত চার বছরের মধ্যে এই প্রথম পেন্টাগনের প্রধানের সফর, যে দেশকে ওয়াশিংটনের স্ট্র্যাটেজি তৈরী করা লোকরা বহুদিন হল নিজেদের জন্য এশিয়ার “সমস্যা জনক জোটসঙ্গী” বলেই নির্দিষ্ট করেছে. গত কয়েক বছরে দুই দেশের সম্পর্ক একাধিক সঙ্কট পার হয়েছে. তার ওপরে পাকিস্তানে লোকসভা নির্বাচনের পরে এই বছরে “যুগের পরিবর্তন” হয়েছে. শাসন ক্ষমতা হস্তান্তর হয়েছে নওয়াজ শরীফের হাতে, যিনি নির্বাচকদের আশ্বাস দিয়েছিলেন যে, দেশের ভিতরে শান্তি আলোচনার ব্যবস্থা করবেন ও ইসলামাবাদের প্রধান ঋণদাতা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আরও কড়া ভাবে নিজেদের অবস্থান রক্ষা করে চলবেন, এই কথা উল্লেখ করে আমাদের সমীক্ষক সের্গেই তোমিন বলেছেন:

পাকিস্তান মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাথে সমস্ত ক্ষেত্রে সম্পর্ক বিকাশ নিয়ে কাজ করতে চায়. এ সম্বন্ধে বুধবার বলেছেন দেশের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ মার্কিনী প্রতিরক্ষামন্ত্রী চাক হেগেলের সাথে সাক্ষাতের ফলাফলের ভিত্তিতে.

মার্কিন প্রতিরক্ষা দফতর পেন্টাগন চালকবিহীন বিমান বা ড্রোন হামলা নিয়ন্ত্রণকারীদের ওপর পূর্বে বহাল থাকা শর্তাবলী কিছুটা শিথিল করেছে। দূরবর্তী যুদ্ধ পরিচালনা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের ভবিষ্যত পরিকল্পনার অংশ হিসেবে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে বিশেষজ্ঞরা ধরণা করছেন। আর এর ফলে বেসামরিক মানুষদের ড্রোনের আঘাতে নিহত হওয়ার সংখ্যাও হ্রাস করবে বলে মনে করা হচ্ছে

বিগত দিনগুলোতে ভারতের জম্মু ও কাশ্মীর রাজ্য আবার করে ভারতীয় ও বিশ্বের সংবাদ মাধ্যমের মনোযোগের কেন্দ্রে এসেছে. সংবাদ মাধ্যমে শোনা যাচ্ছে যেমন ভারতের তেমনই পাকিস্তানের তরফে করা নানা রকমের ঘোষণা. এর মধ্যে দুই পুরনো প্রতিদ্বন্দ্বীর মধ্যে কোন অংশ করা হয়েছে নির্বাচনের আগে জনপ্রিয় হওয়ার জন্য ও কোন অংশ দীর্ঘকালীণ রাজনীতির লক্ষ্য হবে, তা খুব একটা স্পষ্ট নয়. কিন্তু একটা ব্যাপারই স্পষ্ট দেখতে পাওয়া যাচ্ছে: দুটি পারমাণবিক রাষ্ট্রের যুদ্ধে কোন বিজয়ী অথবা বিজিত থাকার সম্ভাবনা নেই, শুধু দু পক্ষেরই বহু কোটি ক্ষয় ক্ষতি আর সম্পূর্ণভাবে যেমন পাকিস্তানে তেমনই ভারতেও অর্থনীতির বিপর্যয় ও রাষ্ট্র কাঠামো ধ্বংসের অনিবার্য সম্ভাবনা রয়েছে.

পাকিস্তানের বন্দরনগর করাচির বিভিন্ন এলাকায় অজ্ঞাত পরিচয় বন্দুকধারীদের গুলিতে অন্তত ১৩ জন নিহত হয়েছে। স্থানীয় পুলিশের বরাত দিয়ে ভারতীয় টেলিভিশন চ্যানেল এনডিটিভি এ খবর জানিয়েছে।

পাকিস্তানের সীমানার কাছে ভারতের জম্মু ও কাশ্মীর রাজ্যে গত রাতে পুলিশ জঙ্গীদের বিরুদ্ধে লড়াই করেছিল.

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ বলেছেন, তালেবান গোষ্ঠীর সাথে আফগানিস্তানের আলোচনা শুরু করার জন্য পাকিস্তান সহযোগিতা চালিয়ে যাবে। শীর্ষ তালেবান নেতাদের সাথে সংলাপ আয়োজনের পরিবেশ তৈরী করার চেষ্টা পাকিস্তান চালিয়ে যাবে।

1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30 31
ডিসেম্বর 2013
ঘটনার সূচী
ডিসেম্বর 2013
2
6
8
12
13
15
16
17
20
21
22
26
27
28
29
30
31