×
South Asian Languages:
লিবিয়া ও আরব বিশ্ব, নভেম্বর 2013

দামাস্কাসে রাশিয়ার দূতাবাসে গোলাবর্ষণ – এটা সন্ত্রাসবাদ, ঘোষণা করা হয়েছে রাষ্ট্রসঙ্ঘে. রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের সদস্য দেশগুলি মনে করিয়ে দিয়েছে কূটনৈতিক মিশনের অস্পৃষ্টতার বিষয়ে ও সমস্ত দোষীদের বিচারের আহ্বান করেছে. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের পক্ষ থেকে করা সরকারি ঘোষণাতেও বলা হয়েছে যে “কোন রকমের আন্তর্জাতিক আইন সঙ্গত ব্যক্তি ও জায়গার উপরে আক্রমণ অপরাধ” ও তার সমালোচনা করা হয়েছে.

সিরিয়াতে বিরোধের সময়ে এগারো হাজারের বেশী শিশুর অকাল মৃত্যু হয়েছে. এই ধরনের তথ্য প্রকাশ করেছে বেসরকারি সংস্থা অক্সফোর্ড রিসার্চ গ্রুপ. বেশীর ভাগ শিশুর মৃত্যু হয়েছে গোলা ও বোমা বিস্ফোরণে. প্রায় হাজার খানের বাচ্চাকে গুলি করে মেরেছে স্নাইপার জঙ্গীরা, আর প্রায় একশ জন অল্প বয়সী অত্যাচার সহ্য করে উঠতে পারে নি. আপাততঃ সিরিয়াতে চলছে এক সশস্ত্র যুদ্ধ, সেখানে বাচ্চাদের ও নিরীহ মানুষদের নিহত হওয়া থেকে রক্ষা করা সম্ভব হয়ে উঠছে না.

সিরিয়ার রাসায়নিক অস্ত্র ভূমিতে নষ্ট করা নিয়ে সহমতে আসা সম্ভব হচ্ছে না. রাসায়নিক অস্ত্র নিষিদ্ধকরণ সংস্থার বিশেষজ্ঞরা এবারে তা সমুদ্রে নষ্ট করার সম্ভাবনা খতিয়ে দেখছেন. নিরপেক্ষ জলসীমা কতখানি বিষাক্ত দ্রব্য নষ্ট করার জন্য উপযুক্ত জায়গা, তা নিয়ে আলোচনা করেছেন “রেডিও রাশিয়ার” বিশেষজ্ঞরা.

রাশিয়াতে ইতিবাচক মনে করা হয়েছে যে, সিরিয়ার বিরোধী পক্ষদের জাতীয় জোটের তরফ থেকে মস্কো শহরে পরামর্শের জন্য আসা. এই বিষয়ে ঘোষণা করেছেন রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রী সের্গেই লাভরভ. তিনি এর আগে এই জোটের কাছে যোগ্য আমন্ত্রণ পাঠিয়েছিলেন.

লাভরভ উল্লেখ করেছেন যে, “আমরা এই আমন্ত্রণের প্রতিক্রিয়া জানতে পেরেছি, যার অর্থ এই যে, জোট আমাদের আমন্ত্রণ গ্রহণ করেছে”.

লিবিয়াতে মুহম্মর গাদ্দাফি প্রশাসনের পতনের পরে সেই দেশ এখন খণ্ডিত হয়ে যাওয়ার মুখে. পশ্চিমের থেকে সক্রিয়ভাবে সহায়তা দেওয়া “আরব বসন্তের” এখানে এখন এটাই বাস্তব পরিণাম. বিভিন্ন ধরনের গোষ্ঠী ও প্রজাতি এখানে নৃশংস ভাবে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে, ঐতিহাসিক ভাবে সব থেকে নীচু হয়েছে খনিজ তেল উত্পাদনের মাত্রা, দেশের জনগনের জন্য অপেক্ষা করে রয়েছে দুর্ভিক্ষ: এখনই এখানে খাবার জিনিষ কম পড়েছে. লিবিয়াকে খণ্ডিত হয়ে যাওয়া থেকে বাঁচানোর কোন প্রেসক্রিপশন পশ্চিম সেই লিবিয়াকে আর দিল না.

সিরিয়াতে শান্তিপূর্ণ নিয়ন্ত্রণের জন্য “জেনেভা-২” সম্মেলনের তারিখ আবারও পিছিয়ে দেওয়া হল. এবারের দেরী করা জড়িত সেই কারণের সঙ্গে যে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বিরোধী পক্ষকে একজোট করতে সক্ষম হয় নি ও তাদের আলোচনায় প্রবৃত্ত করতে পারে নি. তার ওপরে আবার সিরিয়ার বিরোধী পক্ষ ও আমেরিকা নিজেই চাইছে না যে, ইরান “জেনেভা-২” সম্মেলনে যোগ দিক.

“জেনেভা-২” সম্মেলনের প্রস্তুতির পথে নতুন সমস্যা উদ্ভব হয়েছে. সিরিয়ার ছড়িয়ে থাকা বিরোধী পক্ষের নেতারা কোন ভাবেই একটা সর্বজন সম্মত অবস্থান নিতে পারছে না, যা এই সম্মেলনে অংশ নেওয়ার জন্য দরকার. আর ওয়াশিংটন থেকে ঘোষণা করা হয়েছে যে, তারা এদের উপরে প্রভাব ফেলতে অশক্ত – যদিও আশা করছে যে, বিরোধী পক্ষের লোকরা বুঝবে: রাজনৈতিক আলোচনার কোন বিকল্পই নেই.

কিন্তু মনে রাখতে হবে যে, বিরোধীরা তাও সঠিক সিদ্ধান্তই নেবে. হোয়াইট হাউস থেকে ইতিমধ্যেই স্পষ্ট করে বুঝতে দেওয়া হয়েছে যে, বাশার আসাদের প্রশাসনকে উল্টে দেওয়া নিয়ে তারা এবারে মত পাল্টে ফেলেছে. আর আমেরিকার সমর্থন ছাড়া তুরস্ক ও আরব রাজতন্ত্রগুলো সামরিক অনুপ্রবেশের পথে কোন দিনও যাবে না.

এই গত সেপ্টেম্বর মাসের মাঝামাঝি অবধিও পশ্চিমের সংবাদ মাধ্যমে মৃগী রোগীর মত চেহারা ওয়ালা খবর, যা সিরিয়া নিয়ে দেওয়া হচ্ছিল, তা এখন আর দেখতে পাওয়া যাচ্ছে না. সিরিয়ার রাসায়নিক অস্ত্র ত্যাগ ও বাস্তবে আন্তর্জাতিক “জেনেভা-২” সম্মেলনের জন্য প্রস্তুতি হাওয়া বদলের ভূমিকা নিয়েছে, অপপ্রচারের ধোঁয়াশা তাতে কিছুটা কমেছে বৈকী. আর এবারে একেবারে শেষ অবধি স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে যে, সিরিয়ার ঘটনাগুলোকে আর এক রক্তপিপাসু প্রশাসক, যে কিনা তার নিজের দেশের লোকদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করছে আর এই সময়ে আবার প্রতিবেশীদের ভয় দেখাচ্ছে বলে সেই রূপকথার মোড়কে আর রাখা যাচ্ছে না.

সিরিয়াতে রাসায়নিক অস্ত্র ধ্বংস করে দেওয়ার জন্য মিশনের দ্বিতীয় পর্যায়ের কাজ শেষ হয়েছে. তৃতীয় অধ্যায় হতে চলেছে সবচেয়ে বেশী জটিল ও দীর্ঘ সময়ের.

রাসায়নিক অস্ত্র ধ্বংস করে দেওয়া নিয়ে যে পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে, তা অনুযায়ী ১লা নভেম্বরের মধ্যে সিরিয়ার প্রশাসনের প্রয়োজন ছিল রাসায়নিক অস্ত্র উত্পাদনের জন্য সমস্ত রকমের কল কারখানা ও তা পৌঁছনোর জন্য সমস্ত রকমের ব্যবস্থা নষ্ট করে ফেলা. ঠিক সেটাই করা সম্ভব হয়েছে.

1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30
নভেম্বর 2013
ঘটনার সূচী
নভেম্বর 2013
2
4
5
8
9
10
11
12
13
14
15
17
18
19
20
23
24
25
26
28
30