×
South Asian Languages:
লিবিয়া ও আরব বিশ্ব, জুলাই 2013

ইরান ও লেবাননের “হেজবোল্লা” সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্যালেস্টাইনের “হামাস” গোষ্ঠীর সঙ্গে সম্পর্ক পুনরুদ্ধার করার, আর তারই সঙ্গে তাদের অর্থনৈতিক সহায়তা দেওয়া. এর কারণ কি? কি বদল হয়েছে – অথবা কি বদলে যাওয়া উচিত্? ভ্লাদিমির সাঝিনের মন্তব্য দেওয়া হল. নিকটপ্রাচ্যে সমস্ত কিছুই ঘুলিয়ে গিয়েছে. প্রত্যেক দিনই পরিস্থিতি বদল হচ্ছে.

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাজধানীতে শুরু হয়েছে ইজরায়েল-প্যালেস্টাইন পরামর্শ- যার লক্ষ্য হল প্যালেস্টাইন রাষ্ট্র সৃষ্টির পক্ষে একটি সমঝোতায় পৌঁছনো. প্যালেস্টাইন ও ইজরায়েল প্রায় তিন বছর ধরে সরাসরি কথাবার্তা এড়িয়ে গিয়েছে. বর্তমানের এই রাউণ্ড থেকে দ্রুত ফলাফল হওয়ার আশা করে লাভ নেই – আলোচনার জন্য সময় নির্ধারণ করা হয়েছে নয় মাস, ইতিবাচক ফলাফল যে হবেই তারও কোন নিশ্চয়তা নেই.

ইজিপ্টের ঘটনা ও প্যালেস্টাইন- ইজরায়েল গতিপথে কিছু অগ্রগতির পরিপ্রেক্ষিতে সিরিয়ার সঙ্কট দ্বিতীয় সারিতে সরে গিয়ে থাকলেও এবারে তা আবার করেই সংবাদ মাধ্যমের মনোযোগের কেন্দ্রে উঠে এসেছে. এবারে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে সামরিক কর্তৃপক্ষের দপ্তর গুলির সংযুক্ত পরিষদের প্রধান জেনারেল মার্টিন ডেম্পসির ঘোষণা উপলক্ষে, যাতে তিনি মার্কিন সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে সিরিয়াতে সম্ভাব্য পাঁচ রকমের কাজকর্মের উপায় নিয়ে বলেছেন.
আমেরিকার সামরিক বাহিনীর লোকরা সিরিয়াতে সামরিক অনুপ্রবেশের বেশ কয়েকটি রকমফের একসাথেই করে ফেলেছে. তার কথা রয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক বাহিনীর কর্তৃপক্ষদের দপ্তরের সংযুক্ত কমিটির প্রধান জেনারেল মার্টিন ডেম্পসির চিঠিতে, যা তিনি আমেরিকার পার্লামেন্টের উচ্চ কক্ষে পাঠিয়েছেন. ডেম্পসি ঘোষণা করেছেন যে, সমস্ত সামরিক উপায় গুলিই এর মধ্যেই দেশের রাষ্ট্রপতির কাছে পেশ করা হয়েছে.
আগামী সপ্তাহে রাষ্ট্রসঙ্ঘ থেকে বিশেষ পরিষদ সিরিয়াতে রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহারের প্রমাণ নিয়ে তদন্ত করতে পৌঁছবে. এর আগে রাশিয়া রাষ্ট্রসঙ্ঘের কাছে সিরিয়ার জঙ্গীদের পক্ষ থেকে রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহারের অকাট্য প্রমাণ হাজির করেছে এক বিশদ রিপোর্ট দিয়ে. রাষ্ট্রসঙ্ঘের বিশেষজ্ঞরা দামাস্কাসের কাছ থেকে দাবী করেছিলেন সমস্ত জায়গায় যেতে দেওয়ার জন্য যেখানে এই বিরোধের পক্ষরা একে অপরের প্রতি নিষিদ্ধ অস্ত্র ব্যবহার করতে পারে.
আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদী নেটওয়ার্ক “আল-কায়দা” পরিকল্পনা করেছে সিরিয়ার উত্তরের এলাকা থেকে বিরোধী মুক্তি বাহিনীকে কোনঠাসা করার আর সেখানে ঐস্লামিক রাষ্ট্র সৃষ্টির ঘোষণা করার. এই বিষয়ে সিরিয়ার জঙ্গীদের প্রতিনিধি আরব “আশ-শার্ক আল-আউসাত” সংবাদপত্রকে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে বলেছেন. সিরিয়ার মুক্তি বাহিনী নিজেদের অবস্থান ঐস্লামিকদের ছেড়ে দিতে রাজী নয়. কিন্তু একই সঙ্গে দুটি ভিন্ন ফ্রন্টে যুদ্ধ চালানোর ক্ষমতাও তাদের নেই.
সিরিয়ার জঙ্গীরা যে রাসায়নিক অস্ত্রের ব্যবহার করেছে, তা নিয়ে একেবারে অকাট্য প্রমাণ রাশিয়া তুলে দিয়েছে রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্য দেশ গুলির হাতে. এই নিয়ে রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রী সের্গেই লাভরভ ও রাষ্ট্রসঙ্ঘে রাশিয়ার স্থায়ী প্রতিনিধি ভিতালি চুরকিন সকলকে বলেছেন.
রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রী সের্গেই লাভরভ মনে করেন না যে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেসের পক্ষ থেকে সিরিয়ার বিরোধীদের সামরিক সহায়তা নিয়ে রাষ্ট্রপতি ওবামার সিদ্ধান্তকে আটকে দেওয়াতে সেই দেশের পরিস্থিতিতে কোন প্রভাব ফেলবে না. তিনি এই বিষয়ে ঘোষণা করেছেন বেলোরাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে প্রধান ভ্লাদিমির মাকের সঙ্গে মস্কো শহরে হওয়া এক বৈঠকের পরে সাংবাদিক সম্মেলনে.
রাশিয়া ৯ই জুলাই রাষ্ট্রসঙ্ঘের মহাসচিব বান কী মুনকে এক প্রামাণ্য দলিল হস্তান্তর করেছে, যাতে সিরিয়াতে জঙ্গীরা যে রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহার করেছে, তার সমর্থনে তথ্য দেওয়া হয়েছে. এতে বলা হয়েছে যে, সরকারি ফৌজ এই অস্ত্র ব্যবহার করে নি.
ব্রুনেই রাষ্ট্রে আঞ্চলিক আসিয়ান সংস্থার নিরাপত্তা সংক্রান্ত ফোরামে রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রী সের্গেই লাভরভ ও মার্কিন পররাষ্ট্র সচিব জন কেরির সাক্ষাত্কার ও আলোচনা হয়েছে. ব্রুনেই যাওয়ার আগেই সের্গেই লাভরভ ঘোষণা করেছিলেন যে, তাঁদের আলোচনার মুখ্য বিষয় হবে সিরিয়ার সঙ্কট নিরসনে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থান নিয়ে.
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30 31
জুলাই 2013
ঘটনার সূচী
জুলাই 2013
1
3
4
5
6
7
8
9
12
14
15
16
18
20
21
22
25
26
27
28
29
31