×
South Asian Languages:
দুর্ভিক্ষ, 2012
কুয়েতের শাসক কর্তৃপক্ষ সিরিয়ায় ত্রাণসাহায্য পাঠানোর প্রশ্নে আন্তর্জাতিক সম্মেলনের আয়োজন করার অভিপ্রায় ব্যক্ত করেছে. এর আগে জাতিসংঘের সাধারন সম্পাদক বান কি মুন এরকম সম্মেলনের আয়োজন করার অপরিহার্যতার কথা বলেছিলেন. জাতিসংঘ সংগৃহীত তথ্য অনুযায়ী, সিরিয়ায় আজকের দিনে ২৫ লাখ মানুষের প্রয়োজন ত্রাণসাহায্য. পাঁচ লাখেরও বেশি মানুষ বাধ্য হয়েছে নিজেদের ঘরবাড়ি ছেড়ে প্রতিবেশী দেশগুলিতে পালাতে.
যবে থেকে আবহাওয়া পর্যবেক্ষন করা শুরু হয়েছে, সেই ১৬০ বছরের মধ্যে উষ্ণতম হবে ২০১৩ সাল. বৃটেনের আবহাওয়া দপ্তরের পূর্বাভাস অনুযায়ী দিনের গড় তাপমাত্রা আধডিগ্রি সেন্টিগ্রেডেরও বেশি বাড়বে. যদি এভাবেই চলতে থাকে, তাহলে চলতি বছর শেষ হওয়ার আগেই আমাদের গ্রহে শুরু হবে বিপর্যয়কর পরিবর্তন. অন্যদিকে, কিছু গবেষণাবিদ উল্টো ভয় দেখাচ্ছে.
দক্ষিণ কোরিয়া ঠিক করেছে, যে পিয়ং-ইয়ং দূরপাল্লার রকেট নিক্ষেপ করার পরে অন্তঃকোরিয় আদানপ্রদানের ক্ষেত্রে তারা সংযমী হবে. দেশের উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়ার মধ্যে মিলন বিষয়ক মন্ত্রীসভার এক প্রতিনিধি এই কথা ঘোষনা করেছেন. তিনি আরও বলেছেন, যে রকেট নিক্ষেপ বড়সড় সমস্যার সৃষ্টি করেছে, যাকে এড়িয়ে চলা সম্ভব নয়.
কৃষিবিজ্ঞানীরা ক্ষুধার সাথে সংগ্রাম করার স্কিম তৈরি করছেন. মুল আলোচ্যবিষয় হচ্ছে অমীমাংসিত প্রশ্নঃ পৃথিবীর ক্রমবর্ধমান জনগোষ্ঠীর ক্ষুধা নিবৃত্ত করার জন্য কি শুধুমাত্র জেনেটিক্যালি পরিবর্তিত খাদ্যের উত্পাদন করতে হবে, নাকি শুদ্ধ প্রাকৃতিক খাদ্য দিয়েই চাহিদা পূরন করা যাবে? ৩০ বছর পরে আমাদের গ্রহের জনসংখ্যা আরও ২০০ কোটি বাড়বে. ইত্যবসরে বিশ্ব খাদ্য সংস্থার পূর্বাভাস অনুযায়ী খাদ্যদ্রব্যের সংস্থান ৭০ শতাংশ বাড়ানো অপরিহার্য.
দুই সন্তানের জননী এক নারী ফ্রান্সের দক্ষিণের এক শহরে স্থানীয় মেয়রের দপ্তরে নিজের গায়ে আগুন লাগিয়ে একই সাথে মেয়রকে নিয়ে আত্মঘাতী হতে গিয়েছিলেন. জানানো হয়েছে যে, তিনি এর আগেও মেয়রের ভবনের সাথে নিজেকে শৃঙ্খল দিয়ে বেঁধে রেখে প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণের চেষ্টা করেছিলেন. এই নারীর সংসার চলে সামাজিক অনুদানের উপরে নির্ভর করে.
জর্ডনের উত্তরে কিছু অসন্তুষ্ট সিরিয়া থেকে আসা উদ্বাস্তু এই কাজ করেছে. মঙ্গলবারে ফ্রান্স প্রেস সংবাদ সংস্থা থেকে এই খবর দেওয়া হয়েছে জর্ডনের দাতব্য প্রতিষ্ঠান কেতাব ই সুন্না থেকে পাওয়া খবর বলে, যারা জর্ডনে সিরিয়া উদ্বাস্তুদের ত্রাণের কার্যে ব্যবস্থা রয়েছে. জাতারি নামের উদ্বাস্তু ত্রাণ শিবিরে কিছু সিরিয়া থেকে আসা উদ্বাস্তু কুড়িটি তাঁবু জ্বালিয়ে দিয়েছে.
খাবার জিনিষের অভাব ও খাদ্য দ্রব্যের সঙ্কট বিশ্বের বহু কোটি মানুষের জন্য আজ বাস্তবে পরিণত হয়েছে. ১৬ই অক্টোবর বিশ্ব খাদ্য দিবস পালন করা হয়ে থাকে. এটা সেই সমস্যাকেই মনে করিয়ে দেওয়া: রাষ্ট্রসঙ্ঘের বিশ্ব খাদ্য কৃষি সংস্থার মূল্যায়ণ অনুযায়ী প্রত্যেক অষ্টম বিশ্ব বাসীই নিয়মিত অনাহারী রয়েছেন.
দানাশষ্য উত্পাদক মূল দেশ গুলিতেই এই বছরের খরার ফলে বিশ্বের বাজারে গমের দাম বাড়ছে. সবচেয়ে কঠিন পরিস্থিতি হয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে, যেখানে বিরল রকমের গ্রীষ্মের দাবদাহে অধিকাংশ ফসলই জ্বলে গিয়েছে. রাশিয়াও এই বছরে খরার ফলে কম শষ্য উত্পাদন করতে পেরেছে. তা স্বত্ত্বেও সরকার বিদেশে রপ্তানীর বিষয়ে কোন রকমের বাধা নিষেধ আরোপ করে নি.
রাশিয়ার বিপর্যয় নিরসন মন্ত্রণালয়ের বিমান সিরিয়াতে মানবিক সাহায্য নিয়ে পৌঁছেছে. এই ফ্লাইটের পরেও আরও অনেক এই ধরনের ফ্লাইট হবে. এই বিষয়ে “রেডিও রাশিয়াকে” বলেছেন অপারেশন পরিচালনা দলের সিনিয়র প্রতিনিধি ও বিপর্যয় নিরসন মন্ত্রণালয়ের অগ্নিকাণ্ড ত্রাণ বাহিনীর দপ্তরের ডেপুটি ডিরেক্টর আলেকজান্ডার বগদানভ, সিরিয়ার রাজধানী দামাস্কাসে বিমান অবতরণের পরে.
রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন আজ এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় সহযোগিতা সংস্থার ব্যবসায়িক শীর্ষ সম্মেলনে অংশ নিয়েছেন, যা ভ্লাদিভস্তক শহরে হচ্ছে. ভ্লাদিমির পুতিন শুধু এই এলাকার দেশ গুলির নেতৃত্বের আলোচ্য বিষয় গুলি নিয়ে নিজের দৃষ্টিকোণের কথাই বলেন নি, বরং ব্যবসায়িক সমাজের প্রতিনিধিদের প্রশ্নের উত্তরও দিয়েছেন.
রাষ্ট্রসঙ্ঘ সিরিয়াতে মানবাধিকার অপারেশনের জন্য ১৮ কোটি ডলার চেয়েছে. আপাততঃ এই খাতে দেওয়া হয়েছে এর অর্ধেক অর্থ. রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের সিরিয়া সংক্রান্ত এক জরুরী অধিবেশনে রাষ্ট্রসঙ্ঘের মহাসচিবের প্রথম সহকারী সচিব ইয়ান এলিয়াস্সন এই বিষয়ে ঘোষণা করেছেন. জরুরী সাহায্যের প্রয়োজন বোধ করেছেন প্রায় ২৫ লক্ষ সিরিয়ার নাগরিক. কূটনীতিবিদ রাষ্ট্রগুলিকে সিরিয়ার জন্য বিভিন্ন প্রকল্পে বেশী করে অর্থ দিতে আহ্বান জানিয়েছেন.
তাতারস্থানে (ভোলগা নদীর তীরবর্তী) ঐস্লামিক ধর্মীয় নেতৃত্বকে রাষ্ট্রীয় পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন যে দেশ সব কিছুই করবে যাতে আন্তর্প্রজাতি সহমত ও শান্তি বজায় থাকে.
বিশ্বের খাদ্য বস্তুর বাজারে গত কয়েক সপ্তাহ ধরে জিনিষের দাম খুব বেড়েছে ব্রাজিলে প্রবল বর্ষণ, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের খরা ও ইন্দোনেশিয়া ও অস্ট্রেলিয়াতেও খরার জন্য. রাষ্ট্রসঙ্ঘের খাদ্য সম্ভার পরিষদের বিশেষজ্ঞরা খুবই উদ্বিগ্ন হয়েছেন বর্তমানের পরিস্থিতি নিয়ে আর তার আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন যে, জিনিষের দাম ২০০৭- ২০০৮ সালের খাবার জিনিষের সঙ্কটের পুনরাবৃত্তি করতে পারে.
জুলাইয়ে বিশ্বে খাদ্যদ্রব্যের মুল্য ৬% বেড়েছে, যদিও এর আগের তিনমাসে – এপ্রিল থেকে জুন মাসে দাম কমছিল. জাতিসংঘের অন্তর্গত খাদ্যদ্রব্য ও কৃষিসামগ্রী বিভাগ এই তথ্য জানিয়েছে. ঐ সংস্থার বিশেষজ্ঞদের মতে, গত কয়েক সপ্তাহ ধরে কৃষিপণ্যের, বিশেষতঃ দানাশস্যের ও রেপসীডের দাম খুব বাড়ছে. আমেরিকায় খরার কারণে ভুট্টার দাম ২৩% বেড়েছে আর রাশিয়ায় স্বল্প গমের ফসলের পরিপ্রেক্ষিতে তার দাম বিশ্বে বেড়েছে ১৯
বিশ্বের জনগনকে প্রকৃতি আবহাওয়া দিয়ে তাদের সহ্য শক্তির পরীক্ষা করছে – প্রচণ্ড গরম আর দাবানল ইউরোপে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে, অস্ট্রেলিয়াতে বহু লোক সরাসরি টের পেয়েছেন. আর এশিয়ার বহু দেশেই প্রবল বর্ষণ থেকে বন্যা ও ধ্বস নেমে লোকে কষ্ট পাচ্ছেন. সাধারন লোকের মাথায় একটাই শুধু ব্যাখ্যা আসছে: এই তো দেখতে পাওয়া যাচ্ছে বিশ্বের উষ্ণায়নের পরিনাম. আর আবহাওয়ার সঙ্গে আসলে কি ঘটছে?
‘শিশুদের রক্ষা করো’ নামক আন্তর্জাতিক মানবতাবাদী সংস্থা এই বলে সতর্ক করে দিচ্ছে, যে আফ্রিকান দেশ নাইজেরে খাদ্যদ্রব্যের অভাবের সমস্যায় অবিলম্বে হস্তক্ষেপ করা দরকার. মানবতাবাদী সংস্থাগুলি খরা ও দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির দরুন দুর্ভিক্ষের সম্ভাবনার বিষয়ে একাধিকবার সতর্ক করেছে. নাইজেরের ৬০ লক্ষেরও বেশি বাসিন্দার সাহায্য প্রয়োজন. বি.বি.সি. জানাচ্ছে, যে আফ্রিকার অন্যান্য দেশেও দুর্ভিক্ষ ক্রমশ্ঃ ছড়িয়ে পড়ছে.
দক্ষিণ কোরিয়ার রাষ্ট্রপতি লি মেন বাক মনে করেন যে, উত্তর কোরিয়ার উচিত্ রকেট-পারমাণবিক অস্ত্র তৈরীর নীতি ত্যাগ করা এবং বাকি জগতের জন্য দেশকে উন্মুক্ত করা. এ সম্বন্ধে দক্ষিণ কোরিয়ার নেতা বলেন  সোমবার জাতির প্রতি সম্বোধনে.
রাশিয়া বিশ্বের বাজারে একটি নেতৃস্থানীয় খাদ্য সামগ্রীর রপ্তানী কারক দেশ হতে পারে, এর জন্য তার সমস্ত রকমের অবস্থাই আছে. রাষ্ট্রসঙ্ঘের পূর্বাভাস অনুযায়ী পৃথিবীতে ২০৫০ সালে মানুষের সংখ্যা বেড়ে হবে সাত শো থেকে ন শো কোটি, প্রয়োজন হবে খাবার জিনিসের অনেকখানি উত্পাদন বৃদ্ধি. নীতিগত ভাবে ২০৫০ সালের অনেক আগেই বিশ্বের খাদ্য সামগ্রীর বাজারে রাশিয়া এক প্রধান খেলোয়াড় হতেই পারে.
কয়েকদিন আগে লন্ডনের অর্থনীতির স্কুল এক বড় গবেষণা পত্র প্রকাশ করেছে, যার নাম দিয়েছে: “ভারত পরবর্তী বৃহত্ শক্তি কি?”. এই প্রশ্ন উত্থাপন করে লেখকেরা ভারতের জন্য খুব একটা সন্তোষজনক উত্তর দেন নি: না, ভারত শুধু আজকেই কোন বৃহত্ শক্তি নয়, বরং, সম্ভবতঃ আসন্ন ভবিষ্যতে সে রকম হবেও না.
আরও একবার রাশিয়ার পক্ষ থেকে এই প্রস্তাব করা হয়েছে. নিরাপত্তা পরিষদের রুদ্ধ দ্বার বৈঠকে মস্কো থেকে রাষ্ট্রসঙ্ঘের মহা সচিবকে প্রস্তাব করা হয়েছে, যাতে তিনি সিরিয়াতে নিজের প্রতিনিধি প্রেরণ করেন, পরিস্থিতি পর্যালোচনা করে দেখার জন্য. এই প্রতিনিধির আরও উচিত্ হবে দেশে মানবিক ত্রাণ সামগ্রী পাঠানোর বিষয়ে নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা.
আগের
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30 31
জানুয়ারী 2012
ঘটনার সূচী
জানুয়ারী 2012
1
2
3
4
5
6
7
8
9
10
11
12
13
14
15
16
17
18
19
21
22
23
24
25
26
27
28
29
30
31