×
South Asian Languages:
রাশিয়ার পরিস্থিতি, 2012
২০১২ সালে রাশিয়া এক রাজনৈতিক সংশোধনের প্রতীকী বছর পার হয়েছে, যা শুরু হয়েছিল দিমিত্রি মেদভেদেভের উদ্যোগে তাঁর রাষ্ট্রপতিত্বের মেয়াদের শেষ দিকে. বাস্তবে পরিবর্তনের সত্যিকারের বিস্তার ও তার রূপায়নের আকৃতি দিয়েছেন দেশে মার্চ মাসে রাষ্ট্রপতি হিসাবে নির্বাচিত ভ্লাদিমির পুতিন.
রাশিয়া রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের কাঠামো বদল করে সেখানে নতুন স্থায়ী সদস্য দেশ যোগ করার বিষয়ে আহ্বান করেছে. এই বিষয়ে আজ রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্হেই লাভরভ ঘোষণা করেছেন. তাঁর কথামতো, নতুন সদস্য দেশ হতে পারে যেমন ভারত ও ব্রাজিল. রাশিয়ার মন্ত্রী বিশেষ করে উল্লেখ করেছেন যে, নিরাপত্তা পরিষদের কাঠামো পরিবর্তন খুবই সূক্ষ্ম বিষয়. তার জন্য প্রয়োজন রয়েছে সকলের সহমতে পৌঁছনো.
পররাষ্ট্র নীতির ক্ষেত্রে একটি অন্যতম প্রাথমিক কাজ রাশিয়ার জন্য সাংহাই সহযোগিতা সংস্থায় অংশগ্রহণের মাধ্যমে মিলিত ভাবে কাজ করা. এই বিষয়ে একটি প্রবন্ধ বিশেষ করে “রেডিও রাশিয়ার” জন্য লিখেছেন রুশ রাষ্ট্রপতির এই সংস্থায় বিশেষ প্রতিনিধি কিরিল বারস্কি.
বিগত এক বছরে মস্কো শহরে পঞ্চাশ লক্ষ পর্যটক এসেছেন. এটা রাজধানীর জন্য রেকর্ড. প্রসঙ্গতঃ সবচেয়ে বেশী আসছেন এশিয়ার দেশ গুলি থেকে, আর খরচা করছেন বেশী ইউরোপের পর্যটকরা, এই ব্যাপারটাই বিশেষজ্ঞরা উল্লেখ করেছেন. ২০১১ সালের তুলনায় এবারে শতকরা ১৫ ভাগ বেশী পর্যটক এসেছেন. সবচেয়ে বেশী এশিয়া থেকেই: চিন, কোরিয়া, ভিয়েতনাম, জাপান ও সিঙ্গাপুর থেকে.
মস্কো শহরে বড় রুশ ব্যবসায়ী ইভগেনি কাস্পেরস্কির ছেলেকে কিডন্যাপ করা নিয়ে শোরগোল হওয়া মামলার শুনানী শুরু হয়েছে. গত বছরের এপ্রিল মাসে বহু দেশে বিখ্যাত কাস্পেরস্কি ল্যাবরেটরীর মালিকের উত্তরাধিকারীকে অপহরণ করা হয়েছিল. যারা অপহরণ করেছিল, তারা বন্দীর জন্য মুক্তি পণ দাবী করেছিল তিরিশ লক্ষ ডলার.
রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন সোমবারে তাঁর অছিমণ্ডলীর সদস্যদের সঙ্গে দেখা করেছেন. ক্রেমলিনের তথ্য সম্প্রচার দপ্তর থেকে জানানো হয়েছে যে, এই ব্যক্তিরা সকলেই তাঁকে সক্রিয়ভাবে গত রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের সময়ে সমর্থন করেছেন. এই আস্থাভাজন ব্যক্তিদের তালিকায় প্রায় ৫৫০ জন ব্যক্তি দেশের নানা এলাকা থেকে রয়েছেন.
তেসরা ডিসেম্বর আন্তর্জাতিক প্রতিবন্ধী দিবস . রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারন সভা বিশ বছর আগে এই দিনটিকে আলাদা করে চিহ্নিত করেছিল. সারা বিশ্বেই প্রতিবন্ধী দিবস পালিত হয়ে থাকে. রাশিয়াতে এই দিবস উপলক্ষে সহজ পরিবেশ নামের আধুনিকীকরণ করা পরিকল্পনা উত্সর্গ করা হয়েছে. তার প্রধান লক্ষ্য হল শহরের রাস্তা গুলিকে প্রতিবন্ধীদের জন্য বিশেষ করে অনুকূল করা.
রাশিয়ার সামরিক বাহিনীতে বিশেষ ব্রিগেড যোগ করা হতে পারে. বহু দেশে এই ধরনের ব্রিগেড “কম্যাণ্ডো” নামে উল্লেখ করা হয়ে থাকে. এই ধরনের গোষ্ঠী তৈরী করার জন্য কেন্দ্রীয় দপ্তরের একদল নেতৃত্ব ও রাশিয়ার প্রধান গুপ্তচর বিভাগের তরফ থেকে প্রতিরক্ষা মন্ত্রী সের্গেই শইগুর কাছে আবেদন করা হয়েছে.
গাজা সেক্টর ও সিরিয়া – সবচেয়ে টাটকা উদাহরণ, যেখানে নিয়মিত বাহিনীকে প্রতিরোধ করছে কালো বাজারে অস্ত্র যোগাড় করতে পারা গোষ্ঠীরা, এই ধরনের আঞ্চলিক যুদ্ধ বন্ধ করা অথবা অন্তত তা উদ্ভব হওয়া কিছুটা কম করতে পারা অংশতঃ বোধহয় সম্ভব হত, যদি আন্তর্জাতিক ভাবে অস্ত্র ব্যবসায় সংক্রান্ত একটা চুক্তি করতে পারা যেত.
রাশিয়া খনিজ শেল তেল উত্তোলনের কাজ শুরু করতে চলছে. প্রায় ৪৫ কোটি বছর আগে সমুদ্রের নীচে উদ্ভিদ ও প্রাণীর জীবাশ্ম থেকে তা মূলতঃ এই শেল তেলে পরিণত হয়েছে. বর্তমানে এই ক্ষেত্রে নেতৃস্থানীয় জায়গায় রয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র. কিন্তু রাশিয়ার মাটির নীচে (জ্বালানী হিসাবে ব্যবহার যোগ্য শেল তেলের হিসাবে) একই রকমের বহু সম্ভাবনাময় বলেই মনে হয়েছে.
বর্তমানে রাশিয়াতে একই সঙ্গে বেশ কয়েকটি সাড়া জাগানো দুর্নীতির ঘটনার তদন্ত করা হচ্ছে. তার মধ্যে একটি হল সেপ্টেম্বর মাসে হয়ে যাওয়া ভ্লাদিভস্তক শহরের এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় সহযোগিতা সংস্থার শীর্ষ সম্মেলনের প্রস্তুতির জন্য দেওয়া অর্থের আংশিক ভাবে বেপাত্তা হয়ে যাওয়া. অন্য একটি স্ক্যান্ডাল প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়কে জড়িয়ে হয়েছে, আর তা থেকেই মন্ত্রী ও সদর দপ্তরের প্রধানের বহিঃস্কার.
রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় নিজেদের প্রধানকে হারিয়েছে. ভ্লাদিমির পুতিন এই দপ্তরের প্রধান আনাতোলি সেরদ্যুকভকে পদ থেকে বরখাস্ত করে দিয়েছেন. নতুন মন্ত্রী নিয়োজিত হয়েছেন সের্গেই শইগু, যিনি এবারে হলেন মস্কো অঞ্চলের প্রাক্তন রাজ্যপাল ও এর আগে পর্যন্ত বিপর্যয় নিরসন মন্ত্রণালয়ের প্রধান ছিলেন.
বছরে ১০ থেকে ১৫ কোটি ডলার অর্থমূল্যের অস্ত্র সামগ্রী রাশিয়া আমদানী করে থাকে বলে রসআবারোনএক্সপোর্ট কোম্পানীর জেনারেল ডিরেক্টর আনাতোলি ইসাইকিন ঘোষণা করেছেন. এই সংখ্যা বিশেষজ্ঞদের নজরে পড়েছে, কারণ খুবই অভ্যাস হয়ে গিয়েছে এই কথা বলার যে, রাশিয়া – বিশ্বের এক বৃহত্তম অস্ত্র রপ্তানীকারক দেশ. রাশিয়া আবার কি ধরনের অস্ত্র আমদানী করবে ও তা কিসের জন্য?
তেল উত্তোলনের ক্ষেত্রে বিশ্বে শীর্ষস্থান অধিকার করা থেকে মাত্র কয়েক ধাপ পিছনে রয়েছে রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় কোম্পানী রসনেফত. এই কোম্পানী রাশিয়া-যুক্তরাজ্যের টিএনকে-বিপি কোম্পানীর পুরোটাই কিনি নিচ্ছে. ইতিমধ্যেই ব্রিটেনের বিপি ও রাশিয়ার এএআর কনসার্নের কাছ থেকে তাদের শেয়ার কিনে নেওয়ার বিষয়ে শর্ত সম্বন্ধে ঐক্যমতে এসেছে.
রসনেফ্ত টিএনকে-বিপি কোম্পানীর শতকরা একশ ভাগ মালিক হতে চলেছে. রাষ্ট্রীয় এই কোম্পানী ইতিমধ্যেই ব্রিটেনের বিপি ও রাশিয়ার এএআর কনসার্নের কাছ থেকে তাদের শতকরা ৫০ ভাগ শেয়ার কিনে নেওয়ার বিষয়ে শর্ত সম্বন্ধে সহমতে এসেছে. রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন এই কেনা বেচাকে সমস্ত দেশের অর্থনীতির জন্যই ভাল সঙ্কেত বলে উল্লেখ করেছেন.
   রাশিয়া অস্ত্রশস্ত্র ও সামরিক প্রযুক্তি সরবরাহের চুক্তি স্বাক্ষর করে সার্বভৌম দেশের আইনসঙ্গত শাসন ব্যবস্থার সাথে এবং শুধু দেশের প্রতিরক্ষা ক্ষমতা সুনিশ্চিত করার জন্য. এ সম্বন্ধে বলেছেন রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন বিদেশের সাথে সামরিক-প্রযুক্তিগত সহযোগিতা কমিশনের বৈঠকে.    রাশিয়ার নেতা ২০১২ সালে শরিক দেশগুলির সাথে রাশিয়ার সামরিক-প্রযুক্তিগত সহযোগিতার প্রাথমিক ফলাফলের খতিয়ান টানেন.
ককেশাসে গত কয়েক মাসে ৩০০ জন সন্ত্রাসবাদীকে দেশের আইন রক্ষী বাহিনীর কর্মীরা ধ্বংস করেছে, যাদের মধ্যে ৪৩ জন ছিল পাণ্ডা. এই বিষয়ে সন্ত্রাসবাদী মোকাবিলা নিয়ে আয়োজিত এক বৈঠকে রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন জানিয়েছেন.
ন্যাটো জোট নিজেদের অস্ত্র সম্ভারের মধ্যে রাশিয়ার আগ্নেয়াস্ত্র অন্তর্ভুক্ত করতে পারে. “ভেপর” নামের স্বয়ংক্রিয় অস্ত্র জার্মান বাহিনীর প্রশিক্ষণের সময়ে খুবই সাফল্যের সঙ্গে পরীক্ষিত হয়েছে. ন্যাটো জোটের অস্ত্র সম্ভারের মধ্যে এই অস্ত্রকে অন্তর্ভুক্ত করার জন্য স্বীকৃতী মিলেছে. এখন জোটের ১৭টি দেশের সামরিক বাহিনী ও পুলিশ বাহিনীকে এই ধরনের অস্ত্র সরবরাহ করার কথা হচ্ছে বলে উত্পাদকরা জানিয়েছেন.
ক্ষমতাসীন দল “ঐক্যবদ্ধ রাশিয়া” নিজেদের নির্বাচন সংক্রান্ত অবস্থান আবারও মজবুত বলে প্রমাণ করতে পেরেছে. রাশিয়ার পাঁচটি অঞ্চলে, যেখানে রাজ্যপালদের নির্বাচন করা হয়েছে, সেখানে মূল প্রতিদ্বন্দ্বী দল রুশ কমিউনিস্ট পার্টি, লিবারেল ডেমোক্র্যাটিক পার্টি ও “ন্যায় বাদী রাশিয়া” দলের প্রার্থীদের হারিয়ে ঐক্যবদ্ধ রাশিয়া দলের সমর্থিত প্রার্থীরা জয়ী হয়েছেন.
“উত্তরের প্রবাহ” সম্পূর্ণ শক্তিতে কাজ করতে শুরু করছে. এবারে দ্বিতীয় পাইপ লাইন কাজ করতে শুরু করেছে. বিশেষজ্ঞরা ইতিমধ্যেই এই প্রকল্পকে ইউরোপের একটি সবচেয়ে সফল প্রকল্প বলে অভিহিত করেছেন ও আরও বলেছেন যে, তার নির্মাণ কাজ আরও চলা উচিত্. “উত্তর প্রবাহ” প্রকল্প তৈরী করা হয়েছে রেকর্ড কম সময়ে.
আগের
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30 31
জানুয়ারী 2012
ঘটনার সূচী
জানুয়ারী 2012
1
2
3
4
5
6
7
8
9
10
11
12
13
15
17
20
22
23
27
28
29
30