×
South Asian Languages:
গণ অভ্যুত্থান, মে 2011
ইয়েমেনের রাষ্ট্রপতির বিমান বাহিনী জিঞ্জিবার শহরে বোমা ফেলছে. দেশের মধ্যে তৃতীয় বড় শহর ঐস্লামিক জঙ্গীরা নিয়ন্ত্রণ করছে, যারা "আল- কায়দার" সাথে জড়িত.     জিঞ্জিবার – ইয়েমেনের দক্ষিণে সমুদ্র তীরবর্তী শহর – শুক্রবারে ঐস্লামিক জঙ্গীদের দখলে এসেছে. এক উত্স থেকে বলা হচ্ছে যে, তারা শহরে ঢুকেছে, কোন রকমের সক্রিয় প্রতিরোধ ছাড়াই.
বিদ্রোহী যোদ্ধা ও গাদ্দাফি প্রশাসনের মধ্যে মিটমাট করানোর পথ খোঁজা চলছে. এই ঘটনার প্রামাণ্য স্বরূপ খুবই আচমকা ভাবে দক্ষিণ আফ্রিকার রাষ্ট্রপতি জ্যাকব জুমা পৌছে গিয়েছেন ত্রিপোলিতে. তিনি আফ্রিকা সংঘের উচ্চ পর্যায়ের নেতৃত্বে রয়েছেন, আর এই বছরের এপ্রিল মাসে প্রচেষ্টা করেছিলেন লিবিয়ার ভিতরে এক আলোচনার ব্যবস্থা করতে.
রাশিয়া চায় যে, লিবিয়া এক স্বাধীন, স্বতন্ত্র, সার্বভৌম একক রাষ্ট্র হিসাবেই থাকুক. এই বিষয়ে ঘোষণা করেছেন দোভিলে "বড় আট" দেশের শীর্ষ বৈঠকের পরে এক সাংবাদিক সম্মেলনে রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি দিমিত্রি মেদভেদেভ. রাশিয়ার নেতা বলেছেন যে, এই আট দেশের নেতাদের সঙ্গে আলোচনার সময়ে লিবিয়ার সমস্যা সম্বন্ধে তিনি রাশিয়ার তরফ থেকে "মধ্যস্থতা" করার প্রস্তাব করেছেন.
লিবিয়ার নেতা মুহম্মর গাদ্দাফি নিজের আইন সঙ্গত থাকা নিজেই নষ্ট করেছেন, আর প্রয়োজন হচ্ছে, তাঁকে চলে যেতে সাহায্য করা, মস্কো এই বিষয়ে মধ্যস্থতা করতেই পারে. এই বিষয়ে আজ দোভিলে রাশিয়ার উপ পররাষ্ট্র মন্ত্রী সের্গেই রিয়াবকভ এক সাংবাদিক সম্মেলনে জানিয়েছেন.
আফগানিস্তানের এক ব্যক্তিগত টেলিভিশন সংস্থার খবর উদ্ধৃত করে "সিনহুয়া" এজেন্সী জানিয়েছে যে, পাকিস্তানে চরমপন্থী তালিবান আন্দোলনের নেতা মোল্লা ওমার ধ্বংস হয়েছে. কিন্তু এই চাঞ্চল্যকর সংবাদের কোনও সমর্থন এখনও পাওয়া যায় নি. বিষয় নিয়ে বিশদ হয়েছেন আমাদের সমীক্ষক গিওর্গি ভানেত্সভ.     "সিনহুয়া" সংস্থার খবরের অতি বাস্তব প্রমাণের প্রয়োজন রয়েছে.
ন্যাটো জোট তাদের অস্ত্রের ভাণ্ডারের বৃদ্ধি করছে, তারা আশা করেছে অস্ত্র দিয়ে আভ্যন্তরীণ বিরোধের সমাধান সম্ভব. জানা গিয়েছে যে, কানাডার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় ১৩০০ লেসার রশ্মি দিয়ে লক্ষ্য নির্দেশ প্রযুক্তি সমেত বিমান থেকে ফেলার উপযুক্ত বোমা বায়না দিয়েছে.
লিবিয়াতে হিংসার অবসান ঘটিয়ে আলোচনার মাধ্যমে জাতীয় শান্তি আনয়নের প্রয়োজন – মস্কোর এই অবস্থান উত্তর আফ্রিকার আভ্যন্তরীণ রাজনীতিতে তীক্ষ্ণ সঙ্কট গ্রস্ত দেশের সমস্যা সমাধানের জন্য. আর তা শুনেছে যেমন গাদ্দাফির শিবিরে, তেমনই বিদ্রোহীদের ঘাঁটিতে.     রাশিয়া এই প্রথম বলে নি যে, রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের লিবিয়া সংক্রান্ত ১৯৭৩ নম্বর সিদ্ধান্তের ন্যাটো জোটের বাস্তবায়নের পদ্ধতিকে সমর্থন করতে পারছে না.
ইজরায়েল প্যালেস্তিনীয়দের ঘেরাওয়ের মধ্যে পড়েছে. গত কয়েক দিনে হাজারে প্যালেস্তানীয় উদ্বাস্তু সিরিয়া, লেবানন ও গাজা সেক্টর থেকে ইজরায়েলের সীমান্ত পার হয়ে ইজরায়েলের মধ্যে নিজেদের ফেলে যাওয়া বাড়ী ঘরের দিকে যেতে চেয়েছিলেন. টিউনিশিয়া, ইজিপ্ট, লিবিয়া, ইয়েমেন ও সিরিয়ার প্রচণ্ড সামাজিক ঝঞ্ঝাটের থেকে আলাদা হয়ে এবারে "রক্তাক্ত রবিবারের" ঘটনা একটি দেশের সীমান্তের মধ্যেই ঘটল.
রাষ্ট্রসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থা এক রিপোর্ট পেশ করেছে, যাতে বলা হয়েছে যে, প্রতি বছরে বিশ্বে একশো কোটি টনের উপরে খাবার ফেলে দেওয়া হচ্ছে. এতটা খাবারে বিশ্বে সেই সমস্ত লোকেদের খেতে দেওয়া যেতো, যারা না খেতে পেয়ে আছেন. রাষ্ট্রসংঘের বিশেষজ্ঞরা সাবধান করে দিয়েছেন যে, এই রকমের দায়িত্ব জ্ঞান শূণ্য ভাবে খাবার জিনিস নিয়ে কাজ করলে নতুন সঙ্কট শুরু হতে পারে.
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এখনও জানে না, লিবিয়ার বিরোধী পক্ষের মধ্যে কারা রয়েছে. পেন্টাগনের প্রধান রবার্ট গেইটস এই কথা স্বীকার করেছেন. তাঁর কথামতো, এটি অন্যতম কারণ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের লিবিয়ার বিরোধী পক্ষকে কোন রকমের অস্ত্র রপ্তানী করছে না. গেইটস আরও জানিয়েছেন যে, লিবিয়াতে বিভিন্ন শহরে বিরোধী পক্ষের যোদ্ধাদের সম্বন্ধে তথ্যও খুব কম. আরও স্পষ্ট নয়, সত্যি কি তারা গাদ্দাফির বিরুদ্ধ মানসিকতার.
সিরিয়ার ঘটনা সম্বন্ধে পশ্চিমের রাজনৈতিক ক্ষমতা শালীদের মধ্যে নানা রকমের মত রয়ে গিয়েছে. এই কথা ইউরোপীয় সংঘের পররাষ্ট্র বিষয়ে প্রধান ক্যাথরিন অ্যাস্টন বাস্তবে স্বীকার করেছেন ও তিনি সংঘের পক্ষ থেকে সিরিয়ার প্রশাসনের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা বিষয়ে যে আরও কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হতে পারে বলে মনে করেছেন, তেমনই বলেছেন যে, ইউরোপের থেকে এই দিকে কোন দ্রুত পদক্ষেপ আশা করা যেতে পারে না.
লিবিয়াতে বর্তমানে যা ঘটছে, তা রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী কাজের কাঠামোর থেকে অনেক দূর বেরিয়ে গিয়েছে. মুহম্মর গাদ্দাফি ও তাঁর পরিবারের নিকট জনদের বর্তমানে আইন সঙ্গত ভাবে লক্ষ্য বানানোর প্রচেষ্টা – "এটা একেবারেই বাড়াবাড়ি", ঘোষণা করেছেন রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রী সের্গেই লাভরভ. "জোট স্পষ্ট ভাবেই খোলাখুলি ভাবে বলছে যে, তাদের কাজ হল প্রশাসন পাল্টানো.
রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের সিদ্ধান্তের অতিরিক্ত ভাবেই আন্তর্জাতিক সামরিক জোট লিবিয়াতে শক্তি প্রয়োগ করাতে রাশিয়াও বিশ্ব সমাজের সঙ্গে সমানভাবে উদ্বিগ্ন হয়েছে. রাষ্ট্রসংঘে রাশিয়ার স্থায়ী প্রতিনিধি ভিতালি চুরকিন নিরাপত্তা পরিষদের অধিবেশনে এই কথা বলেছেন.
উজবেকিস্তানের রাষ্ট্রপতি ইসলাম কারিমভের মনে হয়েছে যে, আরব দেশ গুলিতে গণ অভ্যুত্থান বাইরের দেশের প্রভাবে হয়েছে. তিনি এই ঘটনা গুলিকে এই সব দেশের খনিজ তেল ও গ্যাসের ভাণ্ডারের সঙ্গে যুক্ত করেছেন.
মস্কো থেকে লিবিয়াতে মানবাধিকার রক্ষা করার আহ্বান জানানো হয়েছে. এই বিষয়ে রাষ্ট্রসংঘে রাশিয়ার পক্ষ থেকে স্থায়ী প্রতিনিধি ভিতালি চুরকিন নিরাপত্তা পরিষদের এক বিশেষ অধিবেশনে ঘোষণা করেছেন. ন্যাটো জোটের সামরিক অপারেশনের সময়ে যে রকমের তুলনাহীণ শক্তি প্রয়োগ চালু রয়েছে, তাতে লিবিয়ার স্থানীয় জনসাধারন ও সামাজিক পরিকাঠামো ধ্বংস হয়েছে প্রভূত পরিমানে.
রাষ্ট্রসংঘের মহাসচিব বান গী মুন সিরিয়ার রাষ্ট্রপতি বাশার আসাদের কাছে অবিলম্বে সরকার বিরোধী বিক্ষোভ কারীদের উপরে শক্তি প্রয়োগ করতে নিষেধ করেছেন, আর একই সঙ্গে প্রতিশ্রুত সংশোধনের কাজ শুরু করতে বলেছেন. এই বিষয়ে তাঁদের টেলিফোনে কথা হয়েছে. বান গী মুন দাবী করেছেন যেন মানবিক সাহায্যের যাঁরা প্রয়োজন বোধ করছেন, তাঁদের কাছে রাষ্ট্রসংঘের সাহায্য পৌঁছতে দেওয়া হয়.
ত্রিপোলি শহরের গাদ্দাফির বাসস্থানের উপরে শনিবার থেকে রবিবারের ভোর রাতে ন্যাটো জোটের বিমান থেকে বোমা ফেলে আক্রমণ করা হয়েছে. বোমার গায়ে মুহম্মর গাদ্দাফির ছোট ছেলে ২৯ বছর বয়সী সৈফ আল- আরব ও তিন নাতির মৃত্যু হয়েছে.    লিবিয়ার নেতা ও তাঁর কাছে থাকা স্ত্রীর কোন ক্ষতি হয় নি.
১লা মে উত্সব পালনের ঐতিহ্যের ইতিহাসের শিকড় বহু গভীরে প্রোথিত. প্রথম থেকেই এই দিনটিতে ভূমি ও নবজন্মের দেবদেবীদের প্রার্থনার দিন হিসাবে পালিত হত. মধ্য যুগে এই উত্সবের মূল অর্থের পরিবর্তন হয়েছিল. নতুন যুগের ইতিহাসে এই দিনটিকে শ্রমিক শ্রেনীর সংহতি ও সংগ্রামের দিবস উপলক্ষেই পালন করা হয়েছে.
“সেভাসিয়া” নামের মানবাধিকার রক্ষা সংস্থার রিপোর্ট অনুযায়ী দেড় লক্ষ মানুষ বসবাসকারী সিরিয়ার দেরা শহরে বর্তমানে খাদ্য, ওষুধ পত্র ও শিশুখাদ্যের অভাবে বিপর্যয়ের পরিস্থিতি তৈরী হয়েছে. মানবাধিকার রক্ষা কর্মীদের তথ্য অনুযায়ী দামাস্ক শহরে ৩০ শে এপ্রিল এক মহিলা মিছিল বের হয়েছিল, যেখানে সরকারের মিছিলের উপরে গুলি চালনার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানানো হয়েছিল.
পয়লা মে ভোর রাত্রে ন্যাটো জোটের বিমান হানার পরে লিবিয়ার নেতা মুহম্মর গাদ্দাফি বেঁচে গিয়েছেন. লিবিয়ার বিপ্লবের নেতার ছোট ছেলে সৈফ আল-আরব গাদ্দাফি নিহত. এই বিমান হানার ফলে লিবিয়ার নেতার তিনজন নাতিও মারা পড়েছে. ন্যাটো জোটের প্রতিনিধি ত্রিপোলি শহরে বোমা বর্ষণের কথা সমর্থন করেছে. একই সঙ্গে জোটের প্রতিনিধি এই ধারণাকে অস্বীকার করেছেন যে, বোমা বর্ষণের উদ্দেশ্য ছিল গাদ্দাফির পরিবার.
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30 31
মে 2011
ঘটনার সূচী
মে 2011
2
3
4
6
7
8
9
14
15
17
18
21
22
24
25
26
28
29
30