×
South Asian Languages:
আগ্রহের বিষয়, নভেম্বর 2013

প্যারাঅলিম্পিকের খেলোয়াড়রা এবারে তাদের প্রতিযোগিতা শুরু জন্য উল্টোদিকে দিন গুনতে শুরু করেছেন. তাদের প্রতিযোগিতা শুরু হতে এখন একশ দিনেরও কম সময় রয়েছে, কিন্তু সোচী তৈরী হয়ে গিয়েছে শারীরিক ভাবে প্রতিবন্ধী খেলোয়াড় ও ফ্যানদের আজই স্বাগত জানানোর জন্য. এখানের ষ্টেডিয়ামগুলোর সুযোগ সুবিধা ও স্কি করার জায়গার সবচেয়ে ভাল অবস্থা প্রমাণ হয়ে গিয়েছে সাতটি পরীক্ষামূলক প্রতিযোগিতা দিয়ে. এখানে খেলোয়াড়রা মূল্যায়ণ করতে সক্ষম হয়েছেন শুধু প্যারাঅলিম্পিকের জন্য তৈরী জায়গাগুলোর তৈরী নিয়ে নয়, বরং সারা শহরেরই, আর নিজেরাই প্রমাণ পেয়েছেন যে, সোচী শুধু তাঁদের জন্যই আরামদায়ক হবে না, এমনকি ফ্যানদের জন্যও হবে.

রাষ্ট্রসঙ্ঘ আয়োজিত আবহাওয়া সংক্রান্ত সম্মেলন, যা ওয়ারশ শহরে ১১ থেকে ২৩শে নভেম্বর পর্যন্ত হয়েছে, তাতে কোন নতুন উন্নতি দেখতে পাওয়া যায় নি. এই আলোচনার লক্ষ্য ছিল আবহাওয়া নিয়ে নতুন করে চুক্তির বয়ান তৈরী করা, যা ২০২০ সালে কিয়োটো প্রোটোকলের জায়গা নেবে. কিন্তু এই প্রশ্ন নিয়ে প্রতিনিধি দলেরা এমনকি আলোচনার সূত্রপাত পর্যন্ত করেন নি.

এই সম্মেলনে যাঁরা অংশ নিয়েছেন, তাঁরা সহমতে এসেছেন যে, আগামী বছরে এই বিষয়ে আলোচনা চালিয়ে যাবেন. আর এটাই প্রায় দুই সপ্তাহ ধরে ১৯০টি দেশ থেকে আসা প্রতিনিধি দলের কাজের মূল পরিণাম. তাও একেবারে শেষ মুহূর্তে সর্বসম্মতি ক্রমে সিদ্ধান্ত করা সম্ভব হয়েছে মাত্র কয়েকটি দলিল নিয়েই, এই কথা উল্লেখ করে রাশিয়ার প্রতিনিধি দলের প্রধান আলেকজান্ডার বেদরিত্শকি বলেছেন:

ইন্টারনেট ক্ষেত্রের উপরে নিয়ন্ত্রণ, উচ্চ গুণমান সম্পন্ন ডিজিট্যাল টেলিভিশন. মূল্যের বিনিময়ে বৈদ্যুতিন সংবাদ মাধ্যম, প্ল্যানশেট কম্পিউটারে টেলিভিশনের সিরিয়াল – একই রকমই হতে চলেছে নতুন মিডিয়া বাস্তব. এই রকমের একটা সিদ্ধান্তে পৌঁছেছেন জাতীয় টেলিভিশন ও রেডিও সম্প্রচারের সপ্তদশ সম্মেলনে রাশিয়ার নেতৃস্থানীয় সংবাদ মাধ্যমগুলির প্রধানরা.

রাশিয়ার প্রাচ্য অনুসন্ধান বিষয়ের বৈজ্ঞানিক কেন্দ্রগুলি সারা বিশ্বেই উচ্চ পর্যায়ের মর্যাদা পেয়ে এসেছে – তার মধ্যে প্রাচ্যের দেশগুলিতেও. এই মর্যাদার ভিত্তি স্থাপিত হয়েছে রাশিয়ার বিজ্ঞানীদেরই বহু শতকের শ্রমসাধ্য কাজের ফলে.

তাঁদের অনেকেরই উত্তরাধিকার এখনও বৈজ্ঞানিক মহলে সমাদৃত হয়ে রয়েছে. উদাহরণ হতে পারে আন্তর্জাতিক সম্মেলন, যা কাজানে আয়োজন করা হয়েছে, যেখানে ইউরোপ, এশিয়া ও উত্তর আমেরিকা থেকে ঐতিহাসিকদের জড় করতে পেরেছে. তাঁরা এসেছেন এক বিজ্ঞানীর স্মৃতি রক্ষার্থে আয়োজিত সম্মেলনে যোগ দিতে, যাঁকে বলা হয়ে থাকে রুশ প্রাচ্য বিদ্যার স্থপতি বলেই.

শীত অলিম্পিকের ইতিহাসে সোচীর সমুদ্রতীরের খেলোয়াড়দের বসতি – সবচেয়ে সুবিধাজনক জায়গা. এই বিষয়ে আয়োজকরা জোর গলায় বলতে পারছেন, এই ঘোষণা আবার বিভিন্ন জাতীয় দলের প্রতিনিধিরাও সমর্থন করছেন. অলিম্পিকের পার্ক থেকে এই গ্রাম মাত্র কয়েক মিনিট পায়ে হাঁটা পথের দূরত্বে. সুতরাং খেলোয়াড়দের এখানে দ্রুত ট্রেনিং অথবা কোন প্রতিযোগিতায় পৌঁছবার জন্য কোন রকমের সমস্যাই হবে না, আর তার পরেই নিজের ঘরে গিয়ে বিশ্রাম নেওয়ার জন্য.

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতি জন কেনেডির ২২শে নভেম্বর ১৯৬৩ সালে টেক্সাস শহরে হত্যার সঙ্গে লি হার্ভি অসওয়াল্ডের কোন রকমের সম্পর্কই ছিল না. এই বিষয়ে "রেডিও রাশিয়াকে" দেওয়া এক অনন্য সাক্ষাত্কারে ঘোষণা করেছেন রাষ্ট্রপতি কেনেডি হত্যা নিয়ে টেক্সাসের তদন্ত কমিশনের প্রাক্তন সদস্য উকিল জ্যাক ডাফ্ফি. নিজের নতুন বই ২০৬৩ সালের ব্যক্তিটি (The Man from 2063) ডাফ্ফি প্রকাশ করার সময়ে সেই সময়ের ঘটনাগুলোর অংশগ্রহণকারীদের সাক্ষাত্কার ও নতুন সূত্রগুলো নিয়ে লিখেছেন ও তারই সঙ্গে পর্যালোচনা করেছেন যে, আমেরিকা যদি কেনেডি জীবিত থাকতেন, তবে এখন কি রকমের হতে পারত.

পাকিস্তানে মহেঞ্জোদরো এলাকার ভাগ্য নিয়ে এবারে উদ্বেগ দেখানো শুরু হয়েছে. বিশ্ব সমাজের জন্য অর্থবহ এই ঐতিহাসিক স্মৃতি বিজড়িত এলাকা এবারে ধ্বংস হতে চলেছে খুবই দ্রুত গতিতে. প্রবল গ্রীষ্ম, মরসুমী বৃষ্টিপাত আর বাতাসের আর্দ্রতা – বছর কুড়ির মধ্যেই এই ঐতিহাসিক জায়গাকে নষ্ট করে দিতে চলেছে. এখানে সমস্ত কিছুকে অক্ষত রাখার কাজ প্রথম করা হয়েছে সেই ১৯২৪ সালে. বিশেষজ্ঞরা মনে করেন যে, এখানের জনবসতি, যা ১৯৮০ সালে বিশ্বের ঐতিহ্যের তালিকায় যুক্ত করা হয়েছে, তা অনতিবিলম্বে খুব দ্রুত ও আরও একবার সংরক্ষণের প্রয়োজন বোধ করেছে. আর পাকিস্তানের বিখ্যাত রাজনৈতিক নেতা জারদারি পুত্র বিলাবল ভুট্টো আহ্বান করেছে মহেঞ্জোদরো ত্রাণের জন্য নতুন বিশেষ তহবিল তৈরী করার.

১. সোচীর ইতিহাস থেকে

যেখানে পর্যটন ও স্বাস্থ্যোদ্ধার কেন্দ্র সোচী শহর এখন রয়েছে, সেখানে মানুষের বসবাস শুরু হয়েছে প্রায় চার লক্ষ বছর আগে, আর সেই প্রাচীন যুগের মানুষদের এখানে রয়ে যাওয়ার কিছু চিহ্ন এখনও দেখতে পাওয়া যায়, যেমন আখ্শতীর গুহা কন্দরে.

রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ সভা রাশিয়াতে প্রস্তুত অলিম্পিক চলাকালীণ শান্তি প্রস্তাব বিচার করে দেখবে. ঐতিহ্য অনুযায়ী এই দলিল সেই দেশ তৈরী করে, যারা সেই বছরের অলিম্পিক নিজেদের দেশে করে. খ্রীষ্টপূর্ব অষ্টম শতকে “অলিম্পিক চলাকালীণ শান্তি” প্রস্তাব করা হয়েছিল প্রথমে গ্রীসে আর প্রাচীন সময়ে এটা পালিত হত একেবারেই কোন রকমের লঙ্ঘণ না করে: যারা তা লঙ্ঘণ করার স্পর্ধা দেখাত, তাদের জন্য খুবই ভয়ঙ্কর শাস্তি অপেক্ষা করে থাকত. কেন আমদের সময়ে আর অলিম্পিকের সময়ে শান্তি কাজ করে না?

ভারত মঙ্গলগ্রহ পরীক্ষা করার জন্য প্রথম মহাকাশ যান “মঙ্গলযান” পাঠাতে সক্ষম হয়েছে. দেশের দক্ষিণের সমুদ্রতীরের এক দ্বীপের মহাকাশ উড়ান কেন্দ্র থেকে মঙ্গলবারে এই যাত্রা শুরু হয়েছে. ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বর মাসে এই যান রক্তিম বর্ণের এই গ্রহের কক্ষপথে প্রবেশ করবে ও তার আবহাওয়া পরীক্ষা করতে শুরু করবে. সাফল্য এলে ভারত রাশিয়া, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় সঙ্ঘের সঙ্গে যোগদান করবে, যাদের পক্ষে মঙ্গল অভিযান করা সম্ভবপর হয়েছে.

তেহরানে আমেরিকা বিরোধী গণ মিছিল হয়েছে আরও একবার সেই ঐস্লামিক বিপ্লবের পরে চরমপন্থী ইরানের যুবকদের হাতে আমেরিকার রাষ্ট্রদূতাবাস দখল করা নিয়ে ঘটনাকে স্মরণ করে. ৩৪ বছর আগে বন্দী করে রাখা হয়েছিল মার্কিন দূতাবাসের ৫২জন কর্মীকে, যাদের আটকে রাখা হয়েছিল ৪৪৪ দিন. এই কাজের ফলে ১৯৭৯ সালে ইরানের সঙ্গে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন হয়েছিল, যা আজও নতুন করে তৈরী হতে পারে নি.

রাশিয়াতে পরিবহন করের জায়গায় পরিবেশ সংরক্ষণ কর বসানো হতে পারে. গাড়ীর বয়স যত পুরনো হবে, ততই সেটা বেশী করে পরিবেশে দূষিত বস্তু ছড়াবে, তাই চালকের জন্যও সেই গাড়ী পোষার খরচ বাড়বে. এই ধারণা ইতিমধ্যেই দেশের শিল্প ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয় আর অর্থ মন্ত্রণালয়ের মধ্যে সহমতে আনা হয়েছে. এই ভাবেই সরকার আশা করছে গাড়ীর চালকদের আরও আধুনিক গাড়ীতে বসানোর, আর তা দিয়েই মানুষের তরফ থেকে পরিবেশের উপরে খারাপ প্রভাব কমানোর.

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতি পদে পুনর্নির্বাচিত হওয়ার পরে ৬ই নভেম্বর বারাক ওবামার আরও একটি শাসনের বছর শেষ হতে চলেছে. এই সময় মার্কিন রাষ্ট্রপতির পক্ষে মোটেও মেঘমুক্ত ছিল না. একসারি বিফল হওয়া ও নিজের দেশের ভিতরে ও দেশের বাইরে নানা রাজনৈতিক স্ক্যান্ডালে জড়িয়ে পড়ে বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী রাষ্ট্রের রাষ্ট্রপ্রধান তাঁর প্রভাব ও আন্তর্জাতিক ভাবে মর্যাদার অনেকটাই খুইয়েছেন.

রাশিয়ার কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্ক (রিজার্ভ ব্যাঙ্ক) ১০০ রুবল দামের এক নতুন ব্যাঙ্ক নোট বাজারে ছেড়েছে. আসন্ন দিনগুলোতে দেশের সমস্ত এলাকাতেই এই নতুন রুবল দেখতে পাওয়া যাবে.

1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30
নভেম্বর 2013
ঘটনার সূচী
নভেম্বর 2013
1
2
4
7
9
10
12
13
16
17
18
19
20
23
24
26
27
29
30