×
South Asian Languages:
রাশিয়া – পাকিস্তানের সম্পর্ক, জানুয়ারী 2012
পাকিস্তানের সেনেট সদস্যরা দেশের সামরিক বাহিনীকে আমেরিকার ড্রোন ধ্বংস করতে আহ্বান করেছেন, যা তাঁদের দেশের বায়ু সীমান্ত লঙ্ঘণ করে ঢুকবে. তাঁরা একই সঙ্গে দাবী করেছেন পাকিস্তানে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সমস্ত বিমান ঘাঁটি বন্ধ করে দেওয়ার. সেনেট সদস্যদের আহ্বানে বিশেষ করে উল্লেখ করা হয়েছে যে, এই ধরনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে দেশের পার্লামেন্ট ও জনগনের সিদ্ধান্ত হিসাবে, আর তা পূর্ণ করতেই হবে.
পাকিস্তান মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিশেষ প্রতিনিধি মার্ক গ্রসম্যানকে দেশে সফরে আসতে বারণ করেছে, যতদিন পর্যন্ত দেশের সুপ্রীম কোর্টে তথাকথিত মেমোগেট স্ক্যাণ্ডাল নিয়ে শুনানী চলছে. এই বিষয় নিয়ে বিশদ করে লিখেছেন আমাদের সমীক্ষক গিওর্গি ভানেত্সভ.     সফর বাতিল করা নিয়ে কোন সরকারি ভাবে ব্যাখ্যা দেওয়া হয় নি.
পাকিস্তানে রাজনৈতিক সঙ্কট উত্তরোতর বেড়েই চলেছে. পাকিস্তানের সংবাদ মাধ্যমে খোলাখুলি ভাবেই দেশে সরকার বদলের সম্ভাবনা নিয়ে আলোচনা হচ্ছে. বিষয় নিয়ে বিশদ করে লিখেছেন আমাদের সমীক্ষক গিওর্গি ভানেত্সভ.     বিগত সোমবারে ইসলামাবাদে দুটি বড় অনুষ্ঠান হয়েছে. দেশের জাতীয় সভা (পাকিস্তানের পার্লামেন্টের নিম্ন কক্ষ) অধিবেশনে বসেছিল আর পাকিস্তানের সুপ্রীম কোর্ট ২২০৭ সালে রাজনৈতিক ক্ষমা দান বিষয়ে অভিযোগের শুনানী শুরু করেছে.
গত শুক্রবারে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্র দপ্তর পাকিস্তানের পরিস্থিতি নিয়ে খুবই আচমকা ঘোষণা করেছে. টুইটার সাইটে প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে রাষ্ট্র দপ্তরের সরকারি প্রতিনিধি ভিক্টোরিয়া ন্যুল্যান্ড উল্লেখ করেছেন যে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বেলুচিস্থানে বর্তমানের হিংসা, বিশেষত খুন, অপহরণ ও অন্যান্য মানবাধিকার ক্ষুণ্ণ হওয়ার বিষয়ে খুবই উদ্বিগ্ন.
পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইউসুফ রেজা গিলানি দেশের প্রতিরক্ষা সচিব ও অবসর প্রাপ্ত জেনেরাল – লেফটেন্যান্ট নাঈম খালিদ লোধী কে দেশের সর্ব্বোচ্চ আদালতে তাঁর মন্তব্যের কারণে বরখাস্ত করেছেন. উচ্চপদস্থ কর্মচারী দেশের সামরিক বাহিনীর সমর্থন পেয়েছিলেন, তাই এই বরখাস্ত করা দিয়ে গিলানি দেশের সামরিক নেতৃত্বের সঙ্গে শেষ অবধি বিরোধ শুরু করেছেন. বিষয় নিয়ে বিশদ করে লিখেছেন আমাদের সমীক্ষক গিওর্গি ভানেত্সভ.
পাকিস্তান থেকে প্রত্যেক দিনই নতুন সব খবর পাওয়া যাচ্ছে, যার সম্মিলিত অর্থ করলে দাঁড়ায় যে, এই দেশে ক্ষমতার হাতবদল হতে আর বেশী দেরী নেই.
পাকিস্তানের রাজনৈতিক জীবনে বড় পরিবর্তন হতে পারে আগামী সপ্তাহ কয়েকের মধ্যে. প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি ও বর্তমানে দেশ থেকে পালিয়ে থাকা পারভেজ মুশারফ ঘোষণা করেছেন যে, তিনি শীঘ্রই দেশে ফিরে আসছেন. দেশের কর্তৃপক্ষ অবশ্য হুমকি দিয়েছে যে, দেশে ফেরা মাত্র তাঁকে জেলে পাঠানো হবে, কারণ তাঁর নামে গ্রেপ্তারী পরোয়ানা রয়েছে.
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30 31
জানুয়ারী 2012
ঘটনার সূচী
জানুয়ারী 2012
1
2
3
4
5
6
7
8
9
13
14
15
18
20
21
22
23
24
25
26
28
29
30
31