×
South Asian Languages:
রাশিয়া – পাকিস্তানের সম্পর্ক

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী চাক হেগেলের সফর ইসলামাবাদে গত চার বছরের মধ্যে এই প্রথম পেন্টাগনের প্রধানের সফর, যে দেশকে ওয়াশিংটনের স্ট্র্যাটেজি তৈরী করা লোকরা বহুদিন হল নিজেদের জন্য এশিয়ার “সমস্যা জনক জোটসঙ্গী” বলেই নির্দিষ্ট করেছে. গত কয়েক বছরে দুই দেশের সম্পর্ক একাধিক সঙ্কট পার হয়েছে. তার ওপরে পাকিস্তানে লোকসভা নির্বাচনের পরে এই বছরে “যুগের পরিবর্তন” হয়েছে. শাসন ক্ষমতা হস্তান্তর হয়েছে নওয়াজ শরীফের হাতে, যিনি নির্বাচকদের আশ্বাস দিয়েছিলেন যে, দেশের ভিতরে শান্তি আলোচনার ব্যবস্থা করবেন ও ইসলামাবাদের প্রধান ঋণদাতা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আরও কড়া ভাবে নিজেদের অবস্থান রক্ষা করে চলবেন, এই কথা উল্লেখ করে আমাদের সমীক্ষক সের্গেই তোমিন বলেছেন:

অনেক মাস ধরে চলে আসা জল্পনা কল্পনা যে কে পাকিস্তানের নতুন সামরিক প্রধান হতে চলেছেন, তা এবারে হঠাত্ করেই মিটেছে. গত নভেম্বরে দায়িত্বভার শেষ করে ফেলা আশফাক পারভেজ কায়ানির উত্তরাধিকারী হয়েছেন লেফটেন্যান্ট জেনারেল রাহীল শরীফ – যাঁর নামের মধ্যে বাবার নামের অংশ পাকিস্তানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফের সঙ্গে মেলে ও যাঁর দাদাকে ১৯৭১ সালে ভারত পাকিস্তানের যুদ্ধের সময়ে শহীদ হওয়ার জন্য পাকিস্তানের সর্ব্বোচ্চ সামরিক সম্মান দেওয়া হয়েছিল.

পাকিস্তানের ধর্মীয় গোষ্ঠীদের সম্পর্কের উপরে নতুন করে পরীক্ষা করা হয়েছে. পেশোয়ার শহরের এক সবচেয়ে বিখ্যাত গির্জার কাছে পরপর দুটো সন্ত্রাসবাদী বোমা বিস্ফোরণ পাকিস্তানের ইতিহাসে খ্রীষ্টানদের উপরে আক্রমণের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় ঘটনায় পরিণত হয়েছে. আত্মঘাতী ঐস্লামিকদের আক্রমণের সুদূর প্রসারিত পরিণাম হতে পারে পাকিস্তানের সমগ্র রাজনৈতিক নিয়ন্ত্রণের প্রক্রিয়ার উপরেই, এই রকম মনে করে সমীক্ষক সের্গেই তোমিন বলেছেন:

ওয়াশিংটন ও ইসলামাবাদের মধ্যে সম্পর্ক নতুন করে গুরুতর পরীক্ষার সামনে পড়েছে, যখন আমেরিকার ওয়াশিংটন পোস্ট সংবাদপত্রে প্রকাশিত হয়েছে স্ক্যান্ডাল হওয়া কিছু তথ্য প্রকাশ করেছে যে, আমেরিকার গুপ্তচর বাহিনীর পক্ষ থেকে সেই সমস্ত প্রশাসনের উপরে নজরদারি করা হয়েছে, যারা আমেরিকার জাতীয় নিরাপত্তার হুমকি হয়ে দাঁড়াতে পারে, সেই বিষয়ে.

পাকিস্তান ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্কে আরও একটা নতুন মোড় লক্ষ্য করা গিয়েছে. পাকিস্তানের সরকার ডাক্তার শাকিল আফ্রিদির রায় বাতিল করেছে, যাকে রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগে ও গুপ্তচর বৃত্তির জন্য গত বছরের মে মাসে ৩৩ বছরের জন্য কারাদণ্ডের শাস্তি দেওয়া হয়েছিল. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, যারা মনে করে যে, আফ্রিদি এক বীর, তারা বিগত মাসগুলো ধরে তাকে ছাড়ানোর জন্য খুবই মরিয়া হয়ে উঠেছিল. আবার অন্যদিক থেকে পাকিস্তানের জন্য সিআইএ সংস্থার হয়ে গুপ্তচর বৃত্তি করা ও যার দেওয়া পাস থেকে বিশ্বের এক নম্বর সন্ত্রাসবাদী ওসামা বেন লাদেনকে খতম করা সম্ভব হয়েছিল, সে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে দরাদরির জন্যই একটা ট্রাম্প কার্ড হয়েছিল. সব দেখে শুনে মনে হয়েছে যে, পাকিস্তানের নতুন প্রশাসন এবারে এই কার্ড খেলতে চাইছে: আফ্রিদিকে ছেড়ে দেওয়া দিয়ে ইসলামাবাদ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে সঙ্কেত দিয়েছিল যে এবারে দুই দেশের সম্পর্ক স্বাভাবিক করার সময় এসেছে, এই রকমই মনে করে আমাদের সমীক্ষক সের্গেই তোমিন বলেছেন:

রাশিয়ার গণমৈত্রী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সর্বসাকুল্যে ১৫০ জনেরও মতো পাকিস্তানি নাগরিক উচ্চতর ডিগ্রী পেয়েছেন। এখন কেমন আছেন তারা সবাই? আর তাই জানা যাবে এবার ডকুমন্টারি ছবি থেকে। ছবির এডিটিংয়ের কাজ চলছে মস্কোতে। আর এ ছবির পরিচালক ও চিত্রগ্রাহক হচ্ছেন জামিল খান।

বিভিন্ন সময়ে আটক৩৩৭ জন ভারতীয় বন্দিকে শুক্রবার মুক্তি দিয়েছে পাকিস্তান কর্তৃপক্ষ। ডন নিউজ টেলিভিশন চ্যানেল আজ এ খবর জানিয়েছে।

পাকিস্তানের প্রাক্তন “শক্ত হস্ত” – জেনারেল ও প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি পারভেজ মুশারফকে নিয়ে মামলা বোধহয় এই দেশের ইতিহাস বইতে জায়গা পেতে চলেছে, আর সেটা আদালতের রায় যাই হোক না কেন. কারণ পাকিস্তান রাষ্ট্রের স্বাধীন ইতিহাসে এর আগে কখনও আসামীর কাঠগড়াতে উচ্চপদস্থ সামরিক নেতা, আর তার ওপরে আবার – দেশের প্রাক্তন সামরিক প্রশাসককে দাঁড়াতে হয় নি.

ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে ভাগ হয়ে থাকা কাশ্মীরে হঠাত্ করেই অনেক বেড়ে ওঠা উত্তেজনা স্পষ্টই দিল্লী ও ইসলামাবাদের মধ্যে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার প্রক্রিয়াকে নষ্ট করে দেওয়ার জন্যেই করা হচ্ছে. আর এই সবের পেছনে রয়েছে পাকিস্তানের সামরিক বাহিনীর লোকরা. এই বিষয়ে ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী এ. কে. অ্যান্টনি দেশের পার্লামেন্টে ঘোষণা করেছেন, যখন তিনি বিরোধী পক্ষের সদস্যের কাছ থেকে পাওয়া প্রশ্ন যে, কেন তথাকথিত নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর নিয়মিত ভাবেই এই সব গোলাগুলির ঘটনা ঘটছে, তার উত্তর দিচ্ছিলেন. ভারতের সামরিক দপ্তরের প্রধান মনে করিয়ে দিয়েছেন যে, পাকিস্তানের পক্ষ থেকে সীমান্তে কোন কিছুই সেই দেশের সামরিক বাহিনীর অজ্ঞাতসারে হতে পারে না.

কাশ্মীরে তথাকথিত নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর বিগত দশকের মধ্যে একটি সবচেয়ে গুরুতর ঘটনা ঘটে গিয়েছে, পাঁচজন ভারতীয় জওয়ান প্রাণ হারিয়েছেন আর এই ঘটনা ছিল খুবই ভালো করে ভেবে করা একটা প্ররোচনার মতই, যা অনেক প্রশ্ন রেখে গিয়েছে.

পাকিস্তানের নির্বাচনী মণ্ডল ৩০শে জুলাই নতুন রাষ্ট্রপতি নির্বাচন করতে চলেছে, যা বর্তমানের রাষ্ট্র অধিনায়ক আসিফ আলি জারদারির জায়গায় নতুন ব্যক্তি বসাবে. এই পদের জন্য কুড়ি জনেরও বেশী ব্যক্তি প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন, তবে কেউই সন্দেহ প্রকাশ করছেন না যে, মুসলিম লীগ (ন) থেকে প্রার্থী মামনুন হুসেইন এবারে জিতে যাবেন.
পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ দুর্নীতির বিরুদ্ধে সার্বিক সংগ্রাম ঘোষণা করেছেন. দেশের সরকারি কর্মচারীদের বিশাল বাহিনীর প্রতি নতুন মন্ত্রীসভার প্রধান খুব গম্ভীর ও কঠোর সুরে বলেছেন: ঘুষখোর ও সরকারি অর্থ যারা নয়ছয় করে, তাদের সবাইকে সমস্ত পদ থেকে তাড়িয়ে দেওয়া হবে ও তাদের জায়গায় নেওয়া হবে শুধু উপযুক্ত কর্মচারীদেরই, যাদের মর্যাদায় কোন দাগ লাগে নি.
বিগত সপ্তাহের শেষে ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন এশিয়া দেশ গুলিতে সফরের মধ্যে পাকিস্তানে গিয়েছিলেন. যতক্ষণ তিনি ও তাঁর সহকর্মী নওয়াজ শরীফ সম্মিলিত ভাবে সন্ত্রাসের মোকাবিলার প্রয়োজন নিয়ে কথা বলছিলেন, জঙ্গীরা ততক্ষণ এই বিষয়ে নিজেদের মতো করেই উত্তর দিয়েছে: দেশের বিভিন্ন শহরে একসারি সন্ত্রাসের ফলে পঞ্চাশ জনের বেশী নিহত হয়েছেন, অনেক লোক আহতও হয়েছেন.
      ইসলামাবাদে রাশিয়ার দূতাবাস থেকে জানানো হয়েছে, যে গিলগিট-বাল্টিস্তান এলাকায় বিদেশী পর্বতারোহী দলের উপর জঙ্গী আক্রমণ সম্পর্কে সরকারি ইসলামাবাদ এখনো মুখ খোলেনি.       জঙ্গী হামলায় নিহতদের মধ্যে রাশিয়ার কোনো নাগরিক ছিল কিনা, এই প্রশ্নের উত্তরে রাষ্ট্র দূতাবাসের এক মুখপাত্র ফোনে জানিয়েছেন, যে "সেরকম কোনো প্রামাণ্য নেই.
কট্টরপন্থী জঙ্গী ঐস্লামিক লোকরা, যারা পাকিস্তানের সরকারের বিরুদ্ধে লড়াই করেছে, তারা এক অভূতপূর্ব ঘটনা ঘটিয়েছে, এক দল বিদেশী পর্যটক ও তাদের গাইডকে গুলি করে মেরেছে. এই ট্র্যাজেডি ঘটেছে নাঙ্গা পর্বতের কাছে উপত্যকায়, যে পর্ব্বত চূড়াকে মনে করা হয় বিশ্বের একটি সবচেয়ে কঠিন ভাবে পৌঁছনোর উপযুক্ত চূড়া বলে.
এশিয়াতে সন্ত্রাসের মোকাবিলায় স্ট্র্যাটেজিক সহযোগিতার মর্যাদা এবারে হারাতে বসেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও পাকিস্তানের সম্পর্ক. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র সচিব জন কেরির ইসলামাবাদ সফর জুলাই মাস পর্যন্ত পিছিয়ে দেওয়া এর একটা নতুন সমর্থন বলেই মনে হয়েছে.
পাকিস্তানের স্রষ্টার মৃত্যুর ৬৫ বছর পরে এই দেশ আজ কি ইমেজ তৈরী করেছে, তা নিয়ে বিতর্ক নতুন করে জ্বলে উঠেছে. এক অভূতপূর্ব দুষ্কর্মের ঘটনা, “বেলুচিস্তান মুক্তি বাহিনী” নামের চরমপন্থী গোষ্ঠী ঘটিয়েছে. বিচ্ছিন্নতাবাদীরা “পরিচ্ছন্ন ঐস্লামিক রাষ্ট্রের” স্থপতি মহম্মদ আলি জিন্নার বাস ভবন জ্বালিয়ে দিয়েছে.
বৃহস্পতিবারে শেষ হওয়া চিনের প্রধানমন্ত্রী লি কেকিয়াংয়ের পাকিস্তান সফর যেমন প্রতিবেশী ভারতে, তেমনই পাকিস্তানেও একই সংজ্ঞাবহ প্রতিক্রিয়া উদ্ভব করে নি. ভারতে পাকিস্তানের গোয়াদার বন্দর ও চিনের সিনঝিয়ান উইগুর স্বয়ংশাসিত এলাকার মধ্যে পরিবহন করিডর তৈরীর পরিকল্পনায় দেখতে পাওয়া গিয়েছে চিনের উপস্থিতি বৃদ্ধির বিপদ আর তার ফলে, বর্তমানের কাশ্মীরের সঙ্গে বিভক্ত স্ট্যাটাস মজবুত হওয়া.
চিন ও পাকিস্তান ঘোষণা করেছে যে, তারা চিনের দক্ষিণ পশ্চিমের সীমান্ত এলাকা থেকে পাকিস্তানের উত্তর পূর্ব এলাকা পর্যন্ত এক পরিবহন ও অর্থনৈতিক করিডর তৈরী করবে. বেজিং ও ইসলামাবাদে আশা করা হয়েছে যে, এই ধরনের করিডর এক বিশাল এলাকার চেহারাই পাল্টে দেবে, সেই এলাকাকে এশিয়াতে বহু পাক্ষিক সহযোগিতার ও নিরাপত্তার এলাকায় পরিণত করবে.
শনিবারে তেহরিক–এ-ইনসাফ দলের নেত্রী জোহারই শহীদ হুসেইন হত্যা আবারও সমস্ত তীক্ষ্ণতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে পাকিস্তানে গণতন্ত্রের ভিত্তি নিয়েই. নির্বাচনের পরে ক্ষমতা বাটোয়ারা এখনও হয় নি.
আগের
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30
নভেম্বর 2017
ঘটনার সূচী
নভেম্বর 2017
1
2
3
4
5
6
7
8
9
10
11
12
13
14
15
16
17
18
19
20
21
22
23
24
25
26
27
28
29
30