×
South Asian Languages:
মহাকাশ, এপ্রিল 2011
ভারতীয় স্কুল শিক্ষর্থী সিদহার্ত কালরা বিশ্ব মহাকাশ সংস্থা গঠনের প্রস্তাব দিয়েছে।তার দেওয়া প্রস্তাবে বলা হয় যে,এই ধরনের একটি
১২ই এপ্রিল সারা বিশ্বের রেডিও তরঙ্গের শ্রোতারা মহাকাশ থেকে ইউরি গাগারীনের কন্ঠস্বর নিজেদের যন্ত্রে শুনতে পাচ্ছেন. ঐতিহাসিক ধ্বণির রেকর্ডিং ও তার মধ্য গাগারীনের বিশ্ব বিখ্যাত "চলো যাই!" পৃথিবীর কক্ষপথ থেকে ছোট উপগ্রহ "কেদর" সম্প্রচার করছে. এই উপগ্রহের নাম দেওয়া হয়েছে বিশ্বের প্রথম মহাকাশচারীর পৃথিবীর সঙ্গে যোগাযোগের সাঙ্কেতিক নাম থেকে.
১২ ই এপ্রিল ১৯৬১ সাল – আজ থেকে পঞ্চাশ বছর আগে – সোভিয়েত মহাকাশচারী ইউরি গাগারীন ইতিহাসের নতুন পাতা উল্টেছেন, তিনিই বিশ্বে প্রথম মহাকাশে পাইলট চালিত উড়ান করেছিলেন. এই যুগান্তরের ঘটনা মানবেতিহাসে মহাকাশ যুগের শুরু ঘোষণা করেছিল, মহাকাশ ও মানুষ এই গবেষণার সম্পূর্ণ একটি দিকের উন্নয়ন করেছিল, নতুন প্রযুক্তি ও বৈজ্ঞানিক গবেষণার উদ্ভব হয়েছিল.
১. বিশ্বের প্রথম মহাকাশচারী ইউরি গাগারীনের ৫০ বছর আগের ঐতিহাসিক মহাকাশ ভ্রমণ, পৃথিবীর মানুষের কাছে অমর হয়ে রয়েছে বহু নিত্য ব্যবহার্য জিনিসের মধ্য দিয়ে. সেই রকমের বহু স্যুভেনিরে – পেয়ালা, টি শার্ট, টুপি ও ডাকটিকিটে আর ফোটো পোষ্টকার্ড ও অন্যান্য বহু ছাপা জিনিসে – পোস্টার ও ক্যালেণ্ডারে.
ইউরি গাগারীনের মহাকাশ ভ্রমণ বিংশ শতাব্দীর এক উজ্জ্বল ও ভাগ্য নির্দেশক ঘটনা হতে পেরেছিল ও তা মানবেতিহাসের এক নূতন অধ্যায়ের সূচনা করেছে. রাশিয়ার লোকেরা এই বিষয়ে গর্ব অনুভব করেন যে, প্রথম ও নির্দিষ্ট পদক্ষেপ মহাকাশ অভিযানের ক্ষেত্রে তাঁদের দেশের লোকই করেছিলেন.
এবার থেকে ১২ই এপ্রিল সারা বিশ্বে আন্তর্জাতিক প্রথম মহাকাশচারী দিবস পালিত হবে. আজ আনুষ্ঠানিক ভাবে রাষ্ট্রসংঘের সাধারন সভায় এই সম্বন্ধে ঘোষণা করা হবে. নিউইয়র্কের রাষ্ট্রসংঘের প্রধান দপ্তরে ইউরি গাগারীনের মহাকাশচারনার সুবর্ণ জয়ন্তী উত্সবের প্রাক্কালে এই অনুষ্ঠান হতে চলেছে.     এখন অবধি ১২ই এপ্রিল – শুধু রাশিয়াতেই মহাকাশ গবেষণা দিবস পালিত হত.
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30
এপ্রিল 2011
ঘটনার সূচী
এপ্রিল 2011
1
2
3
4
5
6
8
9
10
13
14
15
16
17
18
19
20
21
22
24
25
26
27
28
29
30