×
South Asian Languages:
ন্যাটো জোট, নভেম্বর 2013

রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরোভ ৪ঠা ডিসেম্বর ব্রাসেলসে পররাষ্ট্র মন্ত্রীদের পর্যায়ে রাশিয়া-ন্যাটো পরিষদের পরবর্তী বৈঠকে অংশগ্রহণ করবেন, শুক্রবার জানানো হয়েছে রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে. 

সাংহাই সহযোগিতা সংস্থার তাশকেন্ত শহরের শীর্ষ সম্মেলনে অর্থনৈতিক ও মানবিক সহযোগিতার প্রশ্নে উন্নয়ন সংক্রান্ত আলোচনাতে জোর দেওয়া হতে চলেছে. এবারের আলোচনায় সংস্থার সদস্য বৃদ্ধি নিয়ে কোন রকমের আলোচনার কথা বলা হয় নি. এরই মধ্যে সাংহাই সহযোগিতা সংস্থার ইউরো-এশিয়া এলাকায় প্রভাব বৃদ্ধিকে বহু বিশেষজ্ঞই সদস্য বৃদ্ধির সম্ভাবনার সঙ্গে যুক্ত করেছেন.

এই সমস্যায় নতুন মাত্রা যোগ হয়েছে কয়েকদিন আগে তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী রেঝেপ এরদোগানের করা ঘোষণাতে, যেখানে তিনি তাঁর প্রজাতন্ত্রের পক্ষ থেকে এই সংস্থায় যোগদানের ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন. তুরস্কের পক্ষ থেকে সম্ভাব্য উদ্দেশ্য নিয়ে পর্যালোচনা করেছেন রুশ বিজ্ঞান একাডেমীর সুদূর প্রাচ্য ইনস্টিটিউটের ডেপুটি ডিরেক্টর সের্গেই লুজিয়ানিন.

যখন হোয়াইট হাউসের থেকে পাঠানো দূতেরা ও আফগানিস্তানের রাষ্ট্রপতি খুবই কড়া ভাষায় একে অপরের সঙ্গে আফগানিস্তানের প্রতিরক্ষা নিয়ে চুক্তির বিষয়ে সময় ও শর্ত নিয়ে আলোচনায় মত্ত, তখনই বিশেষজ্ঞরা অনুমান করতে বসেছেন যে, কি করে এই দরাদরি আফগানিস্তানের অন্যান্য জীবন যাপনের ক্ষেত্রে প্রভাব ফেলবে.

কাবুলে কিছু বিশেষজ্ঞ ইতিমধ্যেই ঘোষণা করেছেন যে, আফগানিস্তানের লোকদের এই চুক্তির একেবারেই কোন দরকার নেই, কারণ দেখাই যাচ্ছে যে, আমেরিকার লোকরা আফগানিস্তানকে কিছুই দেয় নি, শুধুমাত্র সেই দেশে মাদক দ্রব্য উত্পাদনের বিষয়ে তুমুল পরিমাণে অগ্রগতি ছাড়া. আরও একদল মনে করেছেন যে, এই চুক্তির আবার কিছু ইতিবাচক দিকও রয়েছে, যা ব্যবহার করা দরকার.

পাকিস্তানের উত্তর-পশ্চিমে খাইবার-পাখতুনিয়া প্রদেশের সরকার বুধবার থেকে নিজের ভূভাগ হয়ে আফগানিস্তানে ন্যাটো জোটের রসদের ট্রানজিট সরকারীভাবে অবরোধ করছে.

লিবিয়াতে মুহম্মর গাদ্দাফি প্রশাসনের পতনের পরে সেই দেশ এখন খণ্ডিত হয়ে যাওয়ার মুখে. পশ্চিমের থেকে সক্রিয়ভাবে সহায়তা দেওয়া “আরব বসন্তের” এখানে এখন এটাই বাস্তব পরিণাম. বিভিন্ন ধরনের গোষ্ঠী ও প্রজাতি এখানে নৃশংস ভাবে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে, ঐতিহাসিক ভাবে সব থেকে নীচু হয়েছে খনিজ তেল উত্পাদনের মাত্রা, দেশের জনগনের জন্য অপেক্ষা করে রয়েছে দুর্ভিক্ষ: এখনই এখানে খাবার জিনিষ কম পড়েছে. লিবিয়াকে খণ্ডিত হয়ে যাওয়া থেকে বাঁচানোর কোন প্রেসক্রিপশন পশ্চিম সেই লিবিয়াকে আর দিল না.

তথাকথিত “সমস্যামালা – ২০১৪” – অর্থাত্ আফগানিস্তান থেকে আন্তর্জাতিক জোটের সেনা প্রত্যাহারের অপেক্ষায় থেকে বিশেষজ্ঞরা আপাততঃ সবচেয়ে মূল প্রশ্নের বিষয়ে এখনও একমত হতে পারেন নি. আর সেটা হল: যদি আফগানিস্তানে শাসন ব্যবস্থাই অস্থিতিশীল হয়ে দাঁড়ায়, তবে কতখানি সম্ভাবনা রয়েছে যে, “তালিবান” ও অন্যান্য চরমপন্থী গোষ্ঠীরা উত্তরের দিকে রওয়ানা দেবে? কিন্তু যদি এটা ঘটে, তবে সেই প্রসারের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে পারে একমাত্র যৌথ প্রতিরক্ষা চুক্তি সংস্থা.

ন্যাটো জোট সিরিয়ার সাথে সীমানায় তুরস্কের ভূভাগে নিজের “প্যাট্রিয়ট” মার্কা আকাশ-প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা মোতায়েনের মেয়াদ প্রলম্বিত করতে চায়, জোটের প্রতিনিধির উদ্ধৃতি দিয়ে জানিয়েছে পশ্চিমী সংবাদ এজেন্সিগুলি.

বিগত সাত বছরের মধ্যে ন্যাটোর সবচেয়ে বড় সামরিক মহড়া শনিবার শেষ হয়েছে পূর্ব ইউরোপে।

গত ২ থেকে ৯ নভেম্বর পর্যন্ত ‘স্টিডফাস্ট জাজ’ নামে ওই সামরিক মহড়া লাটভিয়া ও পোল্যান্ডে অনুষ্ঠিত হয়।

“জেনেভা-২” সম্মেলনের প্রস্তুতির পথে নতুন সমস্যা উদ্ভব হয়েছে. সিরিয়ার ছড়িয়ে থাকা বিরোধী পক্ষের নেতারা কোন ভাবেই একটা সর্বজন সম্মত অবস্থান নিতে পারছে না, যা এই সম্মেলনে অংশ নেওয়ার জন্য দরকার. আর ওয়াশিংটন থেকে ঘোষণা করা হয়েছে যে, তারা এদের উপরে প্রভাব ফেলতে অশক্ত – যদিও আশা করছে যে, বিরোধী পক্ষের লোকরা বুঝবে: রাজনৈতিক আলোচনার কোন বিকল্পই নেই.

কিন্তু মনে রাখতে হবে যে, বিরোধীরা তাও সঠিক সিদ্ধান্তই নেবে. হোয়াইট হাউস থেকে ইতিমধ্যেই স্পষ্ট করে বুঝতে দেওয়া হয়েছে যে, বাশার আসাদের প্রশাসনকে উল্টে দেওয়া নিয়ে তারা এবারে মত পাল্টে ফেলেছে. আর আমেরিকার সমর্থন ছাড়া তুরস্ক ও আরব রাজতন্ত্রগুলো সামরিক অনুপ্রবেশের পথে কোন দিনও যাবে না.

ইস্লামপন্থী পার্টি “জামাআত-ই-ইসলামি” শুক্রবার পাকিস্তানের উত্তর-পশ্চিমে খাইবার-পাখতুনখ্ভ প্রদেশে আফগানিস্তানে ন্যাটো বাহিনীকে রসদ পাঠানোর পথ অবরোধ করতে চায়, বুধবার জানিয়েছে “ডন” পত্রিকা.

1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30
নভেম্বর 2013
ঘটনার সূচী
নভেম্বর 2013
1
2
3
4
5
7
8
10
11
12
13
15
17
18
19
20
21
22
23
24
25
26
30