×
South Asian Languages:
ন্যাটো জোট, আগষ্ট 2012
বহু মাস ধরেই নিয়মিত ভাবে বিদেশ থেকে আগ্রাসনের হুমকি স্বত্ত্বেও, প্রায় ১২০টি দেশের শীর্ষ নেতৃত্বের উপস্থিতিতে ঐস্লামিক প্রজাতন্ত্র ইরানে জোট নিরপেক্ষ আন্দোলনের শীর্ষ সম্মেলনের আয়োজন নামক বাস্তব ঘটনাটি এমনিতেই সংজ্ঞাবহ.
রাষ্ট্রসঙ্ঘ সিরিয়াতে মানবাধিকার অপারেশনের জন্য ১৮ কোটি ডলার চেয়েছে. আপাততঃ এই খাতে দেওয়া হয়েছে এর অর্ধেক অর্থ. রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের সিরিয়া সংক্রান্ত এক জরুরী অধিবেশনে রাষ্ট্রসঙ্ঘের মহাসচিবের প্রথম সহকারী সচিব ইয়ান এলিয়াস্সন এই বিষয়ে ঘোষণা করেছেন. জরুরী সাহায্যের প্রয়োজন বোধ করেছেন প্রায় ২৫ লক্ষ সিরিয়ার নাগরিক. কূটনীতিবিদ রাষ্ট্রগুলিকে সিরিয়ার জন্য বিভিন্ন প্রকল্পে বেশী করে অর্থ দিতে আহ্বান জানিয়েছেন.
পেন্টাগনের পক্ষ থেকে প্রকাশিত বিশ্বের “এক নম্বর সন্ত্রাসবাদী” ওসামা বেন লাদেনের হত্যার যে ঘটনা পরম্পরা ছিল, তা সম্ভবতঃ তথ্যে গরমিল আছে বলে স্বীকৃত হতে চলেছে. বহু বিশেষজ্ঞই, এই ঘটনা পরম্পরার মধ্যে বহু গোঁজামিলের দিকে অঙ্গুলি নির্দেশ করে, মনে করেছেন যে, তা প্রথম থেকে শেষ অবধিই ভেবে বার করা.
ন্যাটো জোট বর্তমানে সিরিয়ায় আভ্যন্তরীন সশস্ত্র সঙ্ঘর্ষে কোনো রকমের সামরিক হস্তক্ষেপের পরিকল্পনা করছে না. এ সম্বন্ধে বুধবার সাংবাদিকদের সাথে সাক্ষাতে বলেছেন জোটের সহকারী প্রধান সচিব আলেক্সান্দর ভের্শবৌ. তিনি ব্যাখ্যা করে বলেন যে, ন্যাটো নিকট প্রাচ্যের এ দেশের আকাশ সীমায় তথাকথিত “উড্ডয়ন-নিষিদ্ধ এলাকা” গঠনের, অথবা তার ভূভাগে কোনো “বাফার-জোন” গঠনের কোনো পরিকল্পনা করছে না.
রাশিয়া ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের প্রধানরা রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের সিরিয়া সংক্রান্ত জরুরী অধিবেশনে যোগ দিতে অস্বীকার করেছেন. এই অধিবেশন ফ্রান্স ৩০শে আগষ্ট ডেকেছিল. তারা এই মাসে নিরাপত্তা পরিষদে সভাপতিত্ব করছে.
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র চেষ্টা করছে পাকিস্তানের পররাষ্ট্র নীতিতে সেই দেশের প্রজাতিগত বিরোধকে কাজে লাগিয়ে প্রভাব বিস্তার করতে আর এই কারণে বেলুচিস্তানে বিচ্ছিন্নতাবাদীদের মদত দিচ্ছে.
রাষ্ট্রসঙ্ঘের ও আরব লীগের সিরিয়া সংক্রান্ত সঙ্কট নিয়ন্ত্রণের জন্য নির্বাচিত নতুন বিশেষ প্রতিনিধি লাখদার ব্রাহিমি নিজের কাজের ক্ষেত্রে কোফি আন্নানের পরিকল্পনাকেই অনুসরণ করবেন ও তাঁর সৃষ্ট ভিত্তির উপরেই নির্ভর করবেন. এর আগে ব্রাহিমি রাষ্ট্রসঙ্ঘের মহাসচিব বান কী মুনের সঙ্গে দেখা করেছেন. এই বিষয়ে রেডিও রাশিয়াকে এক বিশেষ সাক্ষাত্কারে খবর দিয়েছেন রাষ্ট্রসঙ্ঘের মহাসচিবের সরকারি মুখপাত্র মার্টিন নেসিরকি.
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র আরও একটি পদক্ষেপ নিয়েছে বিশ্ব জোড়া রকেট প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা বানানোর. এবারে কথা হয়েছে জোর করে এশিয়াতে ও সুদূর প্রাচ্যে রকেট বিরোধী ব্যবস্থা বসানোর.
বিগত সময়ে ন্যাটো জোটের বেশ কিছু দেশ সিরিয়া ঘিরে সামরিক অনুসন্ধানের কাজ সক্রিয় করে তুলেছে সামুদ্রিক ও আকাশ পথে ব্যবহৃত যন্ত্রপাতি দিয়ে. এই ধরনের খবর দিয়েছে ইন্টারফ্যাক্স সংস্থা, এক আরব রাষ্ট্রের রাজধানীর সামরিক- কূটনৈতিক উত্স থেকে পাওয়া খবর হিসাবে.
লেবাননের উত্তরে ত্রিপোলি শহরে চরমপন্থী সুন্নী গোষ্ঠী, যারা সিরিয়ার বিদ্রোহীদের সমর্থন করছে ও আলাভিত গোষ্ঠী, যারা সিরিয়ার বর্তমান রাষ্ট্রপতি বাশার আসাদকে সমর্থন করে, তাদের মধ্যে সংঘর্ষ চলছে. এর ফলে কম করে হলেও ৮ জন নিহত হয়েছে, আহতদের সংখ্যা ইতিমধ্যেই কয়েক দশক ছাড়িয়েছে. দুই পক্ষের মধ্যে শান্তি স্থাপনের উদ্দেশ্য নেওয়া সমস্ত প্রয়াস এখনও কোনও ফল দিতে পারে নি.
রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রধান সের্গেই লাভরভ সিরিয়ার আভ্যন্তরীণ ও সবচেয়ে বড় জাতীয় কোঅর্ডিনেশন কমিটি নামের বিরোধী পক্ষের উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন. এই উদ্যোগ সমস্ত পক্ষের তরফ থেকেই অবিলম্বে অগ্নি সম্বরণ করা, রাজনৈতিক বন্দীদের মুক্তি ও জোর করে ধরে রাখা লোকদের মুক্তি, আর তারই সঙ্গে খুবই দ্রুত ক্ষমতাসীন সরকার ও বিরোধী সমস্ত পক্ষের মধ্যেই আলোচনার সূত্রপাত করতে পারে.
ইরানের পারমানবিক পরিকল্পনা নিয়ে সমস্যা সংক্রান্ত বিষয়ে আলোচনার নতুন এক পর্যায় আগষ্ট মাসের শেষেই হওয়ার কথা. দেখাই যাচ্ছে যে, এই আলোচনায় ব্যর্থতা, সেই সব লোকদের জন্য একটা যুক্তি হতে পারে, যারা এই সমস্যার সমাধান যুদ্ধ করেই করতে চায়.
রাষ্ট্রসঙ্ঘকে এড়িয়ে সিরিয়াকে তাদের কাজ দিয়ে আবারও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র হুমকি দিয়েছে. এই ধরনের সম্ভাবনা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র ভিক্টোরিয়া ন্যুল্যান্ড বাদ দেন নি. সোমবারে এক সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি বুঝিয়ে দিয়েছেন যে, ওয়াশিংটন এই সম্বন্ধে রাষ্ট্রসঙ্ঘ ও আরব লীগের সিরিয়া সংক্রান্ত বিশেষ প্রতিনিধি লাখদার ব্রাহিমি কে জানাতে তৈরী হচ্ছে.
মার্কিনী রাষ্ট্রপতি বারাক এবামা সোমবার হোয়াইট হাউসে সাংবাদিক সম্মেলনে ঘোষণা করেছেন, যে আফগানী পুলিশ বা সেনার ছদ্মবেশে ন্যাটো জোটের সেনাদের ওপরে ঘন ঘন আক্রমণে তিনি উদ্বিগ্ন. ইদানীং আফগানী পুলিশ বা সৈন্যের বেশে সাজা সন্ত্রাসবাদীরা প্রায়ই ন্যাটো জোটের সেনাদের উপর গুলি চালাচ্ছে.
“গোপনীয় সব খবর ফাঁস করে দেওয়ায় বিশ্বের সেরা” জুলিয়ান আসাঞ্জ বিগত সপ্তাহে আবার এক কেলেঙ্কারির কেন্দ্রে উপনীত হয়েছেন. গ্রেট ব্রিটেনের সরকার হুমকি দিয়েছে জুলিয়ান আসাঞ্জকে গ্রেপ্তার করার, এমনকি যদি তার জন্য দেশের পুলিশ বাহিনীকে লন্ডনে ইকোয়েডরের দূতাবাসের এলাকায় জোর করে ঢুকতে হয় তা হলেও.
সিরিয়া সংক্রান্ত “কাজের গোষ্ঠীতে” রাশিয়ার পশ্চিমের সহকর্মী দেশ গুলি সেই দেশে শান্তি স্থাপনের বিষয়ে কোনও আগ্রহ দেখায় নি. শুক্রবারে এই মর্মে রাশিয়ার উদ্যোগে রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের পাঁচ স্থায়ী সদস্য দেশের প্রতিনিধি, তুরস্ক, ইরাক, কুয়েইত, কাতার ও ইউরোপীয় সঙ্ঘের মধ্যে বৈঠককে অনির্দিষ্ট কালের জন্য পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে.
বাশার আসাদকে মার্কিন যুক্তরাষ্টর ও ইউরোপীয় সঙ্ঘ পদত্যাগের যে দাবী জানিয়েছে, তা রাশিয়া সমর্থন করছে না, এই খবর শুক্রবারে রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের সরকারি মুখপাত্র আলেকজান্ডার লুকাশেভিচ ইন্টারফ্যাক্স সংবাদ সংস্থাকে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে ঘোষণা করেছেন. কূটনীতিবিদ বিশেষ করে উল্লেখ করেছেন যে, রাশিয়া এর পরেও সিরিয়া সম্পর্কে নিজেদের নীতি একই রাখবে.
রাষ্ট্রপতি বারাক ওবামা ঘোষণা করেছেন যে সিরিয়া থেকে খনিজ তেল ও খনিজ তেল থেকেউত্পন্ন দ্রব্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে আমদানী করা বন্ধ হল. হোযাইট হাউস থেকে করা এই ঘোষণাতে বিশেষ করে উল্লেখ করা হয়েছে যে, আমেরিকার সরকার একই সঙ্গে সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে, মার্কিনযুক্তরাষ্ট এলাকায় সিরিয়ার সমস্ত রকমের ধন সম্পত্তি ক্রোক করার.
সিরিয়াতে অগ্নি সম্বরণের জন্য খুবই কম সময় বরাদ্দ করা ও দামাস্কাস এবং বিরোধী পক্ষের মধ্যে সঙ্কট সমাধানের জন্য আলোচনার উদ্দেশ্য দুই পক্ষের নির্দিষ্ট প্রতিনিধি গোষ্ঠী তৈরী করা দরকার. মস্কোর এই প্রস্তাব রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদে খসড়া করা হয়েছে এক সিদ্ধান্তের বয়ান হিসাবে. এই দলিল শুক্রবারে রাষ্ট্রসঙ্ঘের সদর দপ্তরে সিরিয়া সংক্রান্ত “কাজের গোষ্ঠীর” বৈঠকে আলোচনা করা হবে.
ঐস্লামিক সহযোগিতা সংস্থা নিজেদের মধ্য সিরিয়াকে আর সদস্য দেশ হিসাবে দেখতে চায় না. এই ধরনের সিদ্ধান্ত এই সংস্থার মক্কা শহরের জরুরী অধিবেশনে নেওয়া হয়েছে. এখানে ৫৬টি দেশের রাষ্ট্র নেতৃত্ব যোগ দিয়েছেন, যাতে সিরিয়াতে বিরোধের অবসান করা সম্ভব হয়. এই শীর্ষ বৈঠকে যোগ দেন নি সংস্থার সদস্য ও সেই সমস্ত প্রভাবশালী দেশের নেতারা, যেমন, ইরাক, সংযুক্ত আরব আমীরশাহী ও ইন্দোনেশিয়া.
আগের
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30 31
আগষ্ট 2012
ঘটনার সূচী
আগষ্ট 2012
1
2
3
5
11
12
14
18
20
25
26
27