×
South Asian Languages:
বিতর্কিত অঞ্চল

পাকিস্তানের সীমানার কাছে ভারতের জম্মু ও কাশ্মীর রাজ্যে গত রাতে পুলিশ জঙ্গীদের বিরুদ্ধে লড়াই করেছিল.

ভারতের প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংহের চিন সফরের সময়ে যখন তার চিনের নেতৃত্বের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক আর্থ-বাণিজ্য উন্নতির বিষয়ে ও সীমান্ত সংক্রান্ত প্রশ্নের বিষয়ে স্বাভাবিক করার কথা হয়েছে, তখনই প্রায় একই সময়ে ফিলিপাইনসে গিয়েছিলেন ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রী সলমন খুরশিদ. দক্ষিণ চিন সাগরের পরিস্থিতি ও বিতর্কিত দ্বীপ গুলি নিয়ে মন্ত্রীর বক্তব্য থেকে ধারণা করা যেতে পারে যে, নয়া দিল্লী বর্তমানে এক জটিল খেলায় নেমেছে. নিজেদের বেজিংয়ের সঙ্গে একেবারেই অসহজ পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে এই খেলা শুরু হয়েছে বলেই মনে করেছেন রুশ বিজ্ঞান একাডেমীর সুদূর প্রাচ্য ইনস্টিটিউটের ডেপুটি ডিরেক্টর সের্গেই লুজিয়ানিন.

আগামী সপ্তাহে ভারতের প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং বেজিং সফর করবেন.

ভারত সরকার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে আরও ছয়টি “সি-১৩০জে” “সুপার হার্কিউলিস” মার্কা সামরিক-পরিবহণ বিমান কেনার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে,

জাপান ও রাশিয়া সাঙ্কত-পিতারবুর্গে “জি-২০” শীর্ষ সাক্ষাতের সময় ৫ই সেপ্টেম্বর কুরিল দ্বীপপুঞ্জের প্রশ্নে বিশেষ সাক্ষাত্ আয়োজন করবে,

শান্তি চুক্তি সম্পাদনের প্রশ্ন, আর তাছাড়া দ্বিপাক্ষিক ও আন্তর্জাতিক আলোচ্য-সূচির অন্যান্য বিষয়

প্যালেস্টাইনী জাতীয় প্রশাসন এবং ইস্রাইলের প্রতিনিধিরা আলাপ-আলোচনার দ্বিতীয় রাউন্ডে একসঙ্গে চূড়ান্ত মীমাংসার সমস্ত প্রশ্ন স্পর্শ করেছে.

আসিয়ান দেশ গুলির পররাষ্ট্র দপ্তরের প্রধানরা গণ প্রজাতান্ত্রিক চিনের সঙ্গে দক্ষিণ চিন সাগর নিয়ে সর্বসম্মতি ক্রমে অবস্থান নির্ণয় করতে পেরেছেন

দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার রাষ্ট্রগুলির অ্যাশোসিয়েশন আসিয়ান সংস্থার দেশগুলোর পররাষ্ট্র মন্ত্রীরা থাইল্যান্ডে এক অনানুষ্ঠানিক সাক্ষাত্কারের সময়ে চিনের সঙ্গে দক্ষিণ চিন সাগরে এলাকা সংক্রান্ত বিবাদের মীমাংসার উপায়গুলোর জন্য সর্বসম্মতি ক্রমে অবস্থান তৈরী করতে পেরেছেন. এই বিষয়ে বুধবারে ঘোষণা করেছেন ইন্দোনেশিয়ার পররাষ্ট্র দপ্তরের প্রধান মার্টি নাতালেগাওয়া.

এই বছর শেষ হওয়ার আগেই ভারতবর্ষ ও গণ প্রজাতান্ত্রিক চিন স্থির করেছে বাস্তব নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর চলতে থাকা “স্নায়ু যুদ্ধের” অবসান করার জন্য. এই বিষয়ে জানিয়েছে দেশের সামরিক বিভাগকে উত্স হিসাবে উল্লেখ করে ভারতের অগ্রণী সংবাদ সংস্থাগুলো.

জেরুসেলামের কর্তৃপক্ষ পূর্বাঞ্চলে, শহরের আরব অংশে গিলো অঞ্চলে ৯৪২টি বাড়ি নির্মাণের পরিকল্পনা অনুমোদন করেছে,

ইজরায়েল সরকার স্থির করেছে ২৬জন প্যালেস্টাইনের নাগরিককে জেল থেকে ছেড়ে দেওয়ার জন্য. তাদের ছেড়ে দেওয়া সিদ্ধান্ত প্যালেস্টাইনের নেতৃত্বের সঙ্গে আলোচনায় বসার আগে নেওয়া হয়েছে. কিন্তু একই সঙ্গে ঘোষণা করা হয়েছে যে, জর্ডন নদীর পশ্চিম তীরে বসতি নির্মাণের কাজ অব্যাহত থাকবে.

রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ সম্পাদক বান কি মুন বলেছেন যে, ভারত ও পাকিস্তানের মাঝে ভূভাগীয় বিতর্ক মীমাংসায় অংশগ্রহণ করতে প্রস্তুত, যদি তারা রাষ্ট্রসঙ্ঘের মধ্যস্থতায় সম্মত হয়.

জাতিসংঘের মহাসচিব বান কি মুন দুই দিনের সফরে পাকিস্তানারে রাজধানী ইসলামাবাদে অবস্থান করছেন।

টোকিওতে মনে করা হয় যে, চিন ও জাপানের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের ক্ষেত্রে আলাদা কিছু সমস্যার জন্য অন্য সমস্ত ক্ষেত্রে সহযোগিতা বন্ধ করে রাখা যেতে পারে না. এই বিষয়ে সেই দেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি ঘোষণা করেছেন.

ভারত ও চীন সীমানায় নিরাপত্তার ক্ষেত্রে সহযোগিতা সংক্রান্ত নতুন চুক্তি নিয়ে কাজ করছে,

ইরান ও লেবাননের “হেজবোল্লা” সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্যালেস্টাইনের “হামাস” গোষ্ঠীর সঙ্গে সম্পর্ক পুনরুদ্ধার করার, আর তারই সঙ্গে তাদের অর্থনৈতিক সহায়তা দেওয়া. এর কারণ কি? কি বদল হয়েছে – অথবা কি বদলে যাওয়া উচিত্? ভ্লাদিমির সাঝিনের মন্তব্য দেওয়া হল. নিকটপ্রাচ্যে সমস্ত কিছুই ঘুলিয়ে গিয়েছে. প্রত্যেক দিনই পরিস্থিতি বদল হচ্ছে.

দিল্লী ও বেজিংয়ের সম্পর্কের মধ্যে আবার একটি নতুন সীমান্ত সংক্রান্ত ঘটনা ঘটে গেল: চিনের সামরিক বাহিনীর লোকরা ইতিহাসে এই প্রথম ভারতে উত্তরাখণ্ড রাজ্যে প্রবেশ করেছিল. এর আগে চিনের সামরিক বাহিনীর লোকদের অনুপ্রবেশ ঘটেছিল ভারতের অন্যান্য রাজ্যে. ভারতের সীমান্ত লঙ্ঘনের বিষয়টি আবার একই সঙ্গে চিনের জাপান ও অন্যান্য দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার দেশের সঙ্গে একই ধরনের ঘটনার সময়ে মিলেছে.
চীনে সম্প্রতি গঠিত উপকূল রক্ষী বাহিনীর জাহাজের সারি এই প্রথম পূর্ব চীনা সাগরে সেনকাকু দ্বীপপুঞ্জের জল-এলাকায় প্রবেশ করেছে. বেজিং এ দ্বীপপুঞ্জের উপর জাপানের সত্ত্বাধিকার সম্বন্ধে প্রশ্ন তুলছে এবং মনে করে যে এ দ্বীপপুঞ্জ চীনের অবিচ্ছেদ্য অংশ. জাপানের পক্ষ চীনা জাহাজগুলির কাছে দাবি করে অবিলম্বে দ্বীপপুঞ্জের জল-এলাকা ছেড়ে যেতে, কিন্তু আপাতত এ সম্পর্কে কোনো সক্রিয় ক্রিয়াকলাপ গ্রহণ করছে না.
ভারত সিদ্ধান্ত নিয়েছে এক নতুন আঘাত হানার উপযুক্ত পার্বত্য বাহিনী তৈরী করার, যাতে ৫০ হাজার সৈন্য থাকবে. এই বাহিনীকে রাখা হতে চলেছে চিনের সঙ্গে বিরোধ হওয়া সীমান্ত এলাকাতেই. সেখানেই সামরিক পরিবহনের উপযুক্ত সি-১৩০জে সুপার হারকিউলিস বিমান গুলির ঘাঁটি গড়া হতে চলেছে. এই ধরনের সিদ্ধান্ত বুধবারে ভারতের মন্ত্রীসভার নিরাপত্তা পরিষদ নিয়েছে.
আগের
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30 31
অক্টোবর 2017
ঘটনার সূচী
অক্টোবর 2017
1
2
3
4
5
6
7
8
9
10
11
12
13
14
15
16
17
18
19
20
21
22
23
24
25
26
27
28
29
30
31