×
South Asian Languages:
স্বাধীন রাষ্ট্র সমূহ, সেপ্টেম্বর 2012
২০১৪ সালের পরে আফগানিস্তানে ন্যাটো জোটের সামরিক বাহিনীর ভবিষ্যত নিয়ে স্পষ্ট করে জানতে মস্কো থেকে স্থির করা হয়েছে. এই জোটের নেতৃত্ব একাধিকবার ঘোষণা করেছে যে, এই সময়ের মধ্যেই এই দেশ থেকে সৈন্য প্রত্যাহার করার কাজ শেষ হয়ে যাবে. কিন্তু বর্তমানে পাওয়া খবর থেকে দেখা যাচ্ছে যে, আফগানিস্তানে বিদেশী ঘাঁটি তাও থেকেই যাবে.
নিরাপত্তার প্রশ্নে বিশ্বের দুই বৃহত্ ক্রীড়নক হল রাশিয়া ও ন্যাটো জোট, এই ঘোষণা করেছেন রাশিয়ার উপ পররাষ্ট্র মন্ত্রী আলেকজান্ডার গ্রুশকো. মতামতে সমস্ত রকমের অমিল হলেও, তারা একে অপরের জন্য সহকর্মী ও ভারসাম্য বজায় রাখার উপযুক্ত শক্তি হিসাবেই প্রয়োজনীয়.
“পশ্চিমের সহকর্মী দেশ গুলি সন্ত্রাসবাদী কর্মকান্ডকে নিজেদের রাজনৈতিক লক্ষ্যের পরিপ্রেক্ষিতে বিচার করতে শুরু করেছে”, - এই রকমের ঘোষণা করেছেন রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রধান এশিয়াতে পারস্পরিক সহযোগিতা ও ভরসা যোগ্যতা বৃদ্ধির ব্যবস্থা সংক্রান্ত সংগঠনের মন্ত্রী পর্যায়ের সাক্ষাত্কার সভার নেপথ্যে.
সমাকলন – এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় এলাকার অর্থনৈতিক বিকাশের জন্য বন্ধক রাখার মতো বিষয়, - এই ভাবেই ভ্লাদিভস্তকে শীর্ষ সম্মেলনের প্রধান ধারণাকে বর্ণনা করেছেন ভ্লাদিমির পুতিন. এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় অর্থনৈতিক সহযোগিতা সংস্থার শীর্ষ সম্মেলনের প্রাক্কালে রাশিয়ার রাষ্ট্র প্রধানের এক প্রবন্ধ আমেরিকার নেতৃস্থানীয় সংবাদপত্র “দ্য ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের” এশিয় সংস্করণে প্রকাশ করা হয়েছে.
সংস্কৃতির মধ্যে আলোচনার থেকে আলোচনার সংস্কৃতিতে পৌঁছনো! এই রকমেরই এক স্লোগান সামনে রাখা হয়েছে আগামী ৫ই সেপ্টেম্বর রাশিয়া প্রজাতন্ত্রের তাতারস্থান রাজ্যের রাজধানী কাজান শহরে উদ্বোধন হতে যাওয়া মুসলিম চলচ্চিত্র উত্সবের. এই শহরের ইতিহাস হাজার বছরেরও বেশী পুরনো. এক রুশ চিন্তাবিদ এই শহরকে নাম দিয়েছেন ইউরোপীয় ধারণার এশিয়াতে যাওয়ার পথে ও এশিয়ার চরিত্রের শক্তি ইউরোপে আসার পথে এক যাত্রাপথের সরাইখানা বলে.
বিশ্বের কাছে বর্তমানের রাশিয়া সম্বন্ধে সঠিক তথ্য পৌঁছে দেওয়া, রুশ হৃদয়ের ঐতিহ্যময় আত্মিক ও বৌদ্ধিক শক্তির পরিচয় দেওয়া, সভ্যতার বিকাশে এই দেশের বিশাল অবদানকে জানতে দেওয়া – এটাই করা উচিত্. কি করে এই কাজ করা হবে, তাই নিয়ে মস্কো শহরে স্বাধীন রাষ্ট্র সমূহের কার্যকরী পরিষদের প্রতিনিধিরা ও বিদেশে রুশ অনাবাসীদের সঙ্গে রাষ্ট্রীয় সহযোগিতা সংস্থার প্রতিনিধিরা আলোচনা করছেন.
পাকিস্তানের পদাতিক বাহিনীর সদর দপ্তরের প্রধান জেনারেল আশফাক পারভেজ কিয়ানি এই প্রথমবার সরকারি সফরে মস্কো আসছেন. সেপ্টেম্বর মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে এই সফর হতে চলেছে. এই বিষয়ে জানিয়েছে পাকিস্তানের “এক্সপ্রেস ট্রিবিউন” সংবাদপত্র. মস্কো শহরে আশফাক কিয়ানির আশা রয়েছে রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে ও দেশের অন্যান্য সামরিক বাহিনীর প্রধানদের সঙ্গে দেখা করার.
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30
সেপ্টেম্বর 2012
ঘটনার সূচী
সেপ্টেম্বর 2012
1
2
6
7
8
9
10
11
13
14
15
16
17
18
19
20
21
22
23
24
25
27
28
29
30