×
South Asian Languages:
স্বাধীন রাষ্ট্র সমূহ, ডিসেম্বর 2010
ঐতিহ্য মেনে প্রতি বারের মত এবারেও ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে সাক্ষাত্কারের সময়ে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর পারস্পরিক সম্পর্ক, রুশ মার্কিন সম্পর্ক, রাশিয়ার বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থায় যোগদানের সম্ভাবনা ও জাতীয় মুদ্রা রুবলের আন্তর্জাতিক অবস্থান – এই সমস্ত প্রশ্নই প্রাথমিক ভাবে সরকারি তালিকাভুক্ত সাংবাদিকদের জন্য আগ্রহের বিষয় হয়েছিল.     এই ধরনের সাক্ষাত্কার সাধারণতঃ চায়ের কাপ বা শ্যাম্পেনের গ্লাস নিয়ে হয়ে থাকে.
একবিংশ শতাব্দীর বাস্তব নিরাপত্তার ক্ষেত্রে রুশ রাষ্ট্রের কাজকর্মের দিককেই পরিবর্তিত করে দিয়েছে. এটাই নতুন আইনে খেয়াল করা হয়েছে, যা রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি দিমিত্রি মেদভেদেভ স্বাক্ষর করেছেন.     ১৯৯২ সাল থেকে চলে আসা আইন বর্তমানের পরিস্থিতির সঙ্গে খাপ খাচ্ছিল না.
খারাপ নয়. শেষ হতে চলা বছরে রাশিয়ার অর্থনৈতিক উন্নতি সম্বন্ধে যে রকম মূল্যায়ণ করেছেন রাষ্ট্রপতি     দিমিত্রি মেদভেদেভ, তাকে এক কথায় এই রকমই বলা যেতে পারে. মূল বিষয় হল যে, সঙ্কটের পরিণতি অতিক্রম করা সম্ভব হয়েছে ও ভাল সম্ভাবনার দিকে বের হওয়া গিয়েছে, ২০১০ সালের অর্থনৈতিক উন্নতির বিষয় নিয়ে আয়োজিত অধিবেশনে রাষ্ট্রপতি এই ঘোষণা করেছেন.
রাশিয়ার ত্রাণ কর্মীদের জন্য ২০১০ সাল ছিল বিশেষ বছর. ২৭ শে ডিসেম্বর সবচেয়ে পুরুষত্ব প্রমাণ যোগ্য ও ঝুঁকি জড়িত পেশার লোকেরা বিপর্যয় নিরসন মন্ত্রণালয় গঠনের ২০ বছর পালন করছেন. কুড়ি বছরের ত্রাণ ও উদ্ধারের কাজে এই মন্ত্রণালয়ের কর্মীরা মনে করেন দশ লক্ষেরও বেশী প্রাণ, যা তাঁরা বাঁচাতে পেরেছেন, সেটাই প্রধান সাফল্য.
যদি রাশিয়া ও ন্যাটো জোট রকেট প্রতিরোধ ব্যবস্থা বিষয়ে প্রত্যেক পক্ষের উপযুক্ত ভূমিকার বিষয়ে সহমতে আসতে না পারে তবে কয়েক বছর পরেই রাশিয়া ও আমেরিকার রাজনীতিবিদেরা কঠিন সমস্যার সামনে পড়বেন বলে মনে করেছেন দিমিত্রি মেদভেদেভ. ভারতে সরকারি সফরের দ্বিতীয় দিনে রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি মুম্বাই শহরে ভারতের প্রযুক্তি ইনস্টিটিউটের ছাত্রছাত্রী ও শিক্ষকদের সঙ্গে দেখা করেছেন ও বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ রাজনৈতিক ঘোষণা করেছেন.
দেশের রাষ্ট্রপতি নির্বাচন আজ বেলোরাশিয়াতে শুরু হয়েছে. দেশের রাষ্ট্রপতি পদে ১০ জন প্রার্থী মনোনীত হয়েছেন ও তাঁদের মধ্যে বিগত ১৬ বছর ধরে শাসন করে আসা রাষ্ট্রপতি আলেকজান্ডার লুকাশেঙ্কো রয়েছেন. ১৮ই ডিসেম্বর দেশে আগাম নির্বাচন পর্ব সমাধা হয়েছে ও নির্বাচন কমিশনের তথ্য অনুযায়ী প্রায় ১৭ শতাংশ লোক ভোট দিয়েছেন.
ভ্লাদিমির পুতিনের উদ্দেশ্য কুড়ি লক্ষেরও বেশী প্রশ্ন পৌঁছেছিল. এই বৃহস্পতিবারে প্রধানমন্ত্রী নবম বার সরাসরি সম্প্রচারের সময়ে রুশ লোকেদের সঙ্গে কথা বলেছেন. চার ঘন্টা ২৫ মিনিট সময়ে প্রধানমন্ত্রী জনগনের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ৮৮ টি প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন. ভ্লাদিমির পুতিন মনে করেন যে, রাশিয়ার অর্থনীতি সঙ্কট পূর্ব অবস্থায় পৌঁছবে ২০১২ সালের প্রথম অর্ধের আগেই.
তুর্কমেনিস্তান – আফগানিস্তান – পাকিস্তান – ভারত গ্যাস সরবরাহ পাইপ লাইন, যা নিয়ে আজ আশখাবাদ শহরে চুক্তি স্বাক্ষর হতে চলেছে, তা তাত্ত্বিক দিক থেকে এই চারটি দেশের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ. বিশেষ করে আফগানিস্তানের জন্য, যার এলাকার মধ্য দিয়ে এই পাইপ লাইন বসবে. যদি তা এখানে করা সম্ভব হয়, তবে নতুন কর্মক্ষেত্র তৈরী হবে, দেশের শক্তি সংক্রান্ত ব্যবসাতে উন্নতির সম্ভাবনা হবে.
মস্কো শহরে আফগানিস্তান, পাকিস্তান, তাজিকিস্থান ও রাশিয়ার মাদক নিয়ন্ত্রণ সংস্থা গুলির মধ্যে এক বৈঠকের পরে “চার দেশের সম্মিলিত মাদক প্রসার বিরোধ সংঘ” তৈরী করার বিষয়ে সমঝোতায় পৌঁছনো সম্ভব হয়েছে. নূতন এই দলকে এখনও “একসাথে কাজ করার” অভিজ্ঞতা অর্জন করতে হবে, কিন্তু সেই বিষয়ে সহমত রয়েছে.
২০১০ সালের নোবেল শান্তি পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে ১০ই ডিসেম্বর নরওয়ে দেশের রাজধানী অসলো শহরে ১৯টি দেশের প্রতিনিধিরা আসছেন না, কারণ পুরস্কার দেওয়া হচ্ছে চিনের দেশদ্রোহী লিউ সিয়াব ওকে, যিনি ১৯৮৯ সালে তিয়েন আন মেন স্কোয়ারে বিদ্রোহ মিছিলে অংশ নিয়েছিলেন, দেশের প্রশাসনকে উল্টে দিতে. বেইজিং মনে করেছে যে, লিউ কে নোবেল পুরস্কার দেওয়া এই পুরস্কারের প্রধান নীতির বিরুদ্ধে.
মঙ্গলবার ব্রাসেলস শহরে রাশিয়ার বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থায় প্রবেশ সংক্রান্ত আলোচনার ইতি হিসাবে এই দলিল স্বাক্ষরিত হবে বলে আশা করা হয়েছে. রাশিয়ার তরফে অর্থনৈতিক উন্নয়ন মন্ত্রী এলভিরা নাবিউল্লিনা এবং ইউরোপীয় সংঘের তরফে  - বাণিজ্য সংক্রান্ত বিষয়ে কমিসার কার্ল ডে গ্যুখ্ত সই করবেন.
রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী ভ্লাদিমির পুতিন বিখ্যাত মার্কিন সাংবাদিক ল্যারি কিং কে এক সাক্ষাত্কার দিয়েছেন. এই সব প্রশ্ন বর্তমানের প্রধান সমস্যা গুলিকে ঘিরেই ছিল: ইরানের পারমানবিক পরিকল্পনা, উত্তর কোরিয়া ও আফগানিস্থানের পরিস্থিতি, স্ট্র্যাটেজিক আক্রমণাত্মক অস্ত্রসজ্জা সংক্রান্ত চুক্তি, উইকিলিক্স সাইটে প্রকাশিত তথ্য নিয়ে ইতিহাস, আর তার সঙ্গে আগামী নির্বাচন এবং গুপ্তচর বাহিনীদের কাজ.
রাশিয়া ও পশ্চিমের দেশ গুলি বর্তমানে এক সঙ্কটের সামনে উপস্থিত: হয় রকেট প্রতিরোধ ব্যবস্থা নিয়ে সম্মিলিত ভাবে তৈরী করার চুক্তি করতে হবে, অথবা নূতন অস্ত্র প্রতিযোগিতা শুরু হবে. এই সাবধান বাণী শুনতে পাওয়া গিয়েছে জাতীয় সভার উদ্দেশ্যে দেওয়া রাষ্ট্রপতি দিমিত্রি মেদভেদেভের ভাষণে. কিন্তু এই সঙ্কেত প্রাথমিক ভাবে দেওয়া হয়েছে রাশিয়ার সীমান্ত পার করেই.
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30 31
ডিসেম্বর 2010
ঘটনার সূচী
ডিসেম্বর 2010
3
4
5
6
8
11
12
13
14
15
16
18
20
21
22
24
25
26
28
31