×
South Asian Languages:
সম্মেলন, ফেব্রুয়ারী 2011
ভারতের সঙ্গে পুনরায় শান্তি আলোচনা শুরু করার খবরে পাকিস্তান আনন্দিত. এই সম্বন্ধে ১৩ই ফেব্রুয়ারী এক সাংবাদিক সম্মেলনে পাকিস্তানের উপ পররাষ্ট্র মন্ত্রী সালমান বশির ঘোষণা করেছেন. তিনি বলেছেন – আমরা চাই যে, আমাদের দুই দেশের সম্পর্কের মধ্যে উষ্ণতা ফিরে আসুক.
ভারতীয় বিজ্ঞানীরা রুশ সহকর্মীদের উচ্চ প্রযুক্তি বিষয়ে একসাথে কাজ করতে প্রস্তাব করেছেন. বাঙ্গালোর শহরে জওহরলাল নেহরু নামাঙ্কিত আধুনিক বৈজ্ঞানিক অনুসন্ধান কেন্দ্রে রাশিয়ার রসন্যানো কর্পোরেশনের প্রতিনিধি দলের এক সফরের সময়ে এই সম্বন্ধে কথা হয়েছে. রাশিয়ার প্রতিনিধি দল ভারতীয় সহকর্মীদের কাজ দেখেছেন ও এই কেন্দ্রের বৈজ্ঞানিক যন্ত্রপাতি পরিদর্শন করেছেন.
পাকিস্তানের পররাষ্ট্র দপ্তর থেকে প্রকাশিত এক ইস্তাহারে বলা হয়েছে যে, পাকিস্তান ভারতের সঙ্গে সমস্ত রকমের বিবাদের বিষয় নিয়ে শান্তিপূর্ণ ও ন্যায় সঙ্গত আলোচনায় বসতে আগ্রহী ও সেই বিষয়গুলিতে ইতিবাচক মীমাংসায় পৌঁছতে চায়. রবিবারে ভুটানের রাজধানী থিম্পু শহরে দুই দেশের পররাষ্ট্র দপ্তরের প্রতিনিধি পর্যায়ে এক বৈঠক হয়েছে.
রাশিয়ার ন্যানো প্রযুক্তি সংক্রান্ত সরকারি কর্পোরেশন রসন্যানো সংস্থার প্রধান আনাতোলি চুবাইস ভারতের মুম্বাই শহরে ভারতীয় শিল্প সম্মেলনের অধিবেশনে যোগ দিতে গিয়ে এই ঘোষণা করেছেন. তিনি বলেছেন – বিগত কিছু বছরে ভারতের শিল্প বহু ক্ষেত্রে বড় মাপের সাফল্য লাভ করেছে, তার মধ্যে ন্যানো প্রযুক্তি, ফার্মাসিউটিক্যাল ও তথ্য প্রযুক্তি রয়েছে.
২রা ফেব্রুয়ারী মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতি বারাক ওবামা এই আইনে স্বাক্ষর করেছেন. মার্কিন কংগ্রেসের সেনেট ২২শে ডিসেম্বর চুক্তিটি গ্রহণ করেছিল. প্রাগ শহরে ২০১০ সালের ৮ই এপ্রিল দুই দেশের রাষ্ট্রপতিরা এই দলিলে স্বাক্ষর করেছিলেন. এই চুক্তির ফলে দুই দেশের কাছে সক্রিয় অবস্থায় থাকবে ১৫৫০ টি পারমানবিক যুদ্ধাস্ত্র. এছাড়া দুই পক্ষই স্থির করেছে ৭০০টি পারমানবিক অস্ত্র বাহী স্ট্র্যাটেজিক রকেট থাকবে.
সম্ভাব্য পরিস্থিতির পরিবর্তন সম্বন্ধে চিন্তা করে ইউরোপীয় সংঘ স্থির করেছে ইজিপ্টকে সাহায্য করার. ব্রাসেলস শহরে ইউরোপীয় সংঘের পররাষ্ট্র মন্ত্রী পরিষদের এক বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে. মন্ত্রী পরিষদ ঘোষণা করেছে - ইউরোপীয় সংঘ ইজিপ্টের জনগনের ন্যায় সঙ্গত গণতান্ত্রিক ইচ্ছাকে ও তাদের অসন্তোষকে সমর্থন করে. এই দাবীর প্রতি মনোযোগ দেওয়া দরকার ও দ্রুত, নির্দিষ্ট সমাধানের সূত্র খোঁজ করার প্রয়োজন.
এই বিষয়ে আজ দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়েছে. এই বৈঠকে ঠিক করা হবে সর্ব্বোচ্চ সামরিক পর্যায়ে কবে, কি বিষয়ে ও কোথায় আগামী বৈঠক বসবে. কিন্তু সিওল এই বৈঠকের শর্ত হিসাবে আগাম জানান দিয়েছে যে, উত্তর কোরিয়াকে গত বছরে দুটি বোমা বর্ষণে দক্ষিণ কোরিয়ার নাগরিকদের মৃত্যুর দায়ভার নিতে হবে.
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28
ফেব্রুয়ারী 2011
ঘটনার সূচী
ফেব্রুয়ারী 2011
2
4
5
6
7
10
11
12
19
20
22
24
26
27
28