×
South Asian Languages:
উদ্ভাবনী, মে 2011
রাশিয়াতে স্ট্র্যাটেজিক উদ্যোগ এজেন্সী তৈরী হওয়ার সময়ে প্রধান কাজ যা সামনে রাখা হয়েছে – তা হল দেশের মাঝারি মাপের ব্যবসার রক্ষা. এই বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী ভ্লাদিমির পুতিন ঘোষণা করেছেন তাঁর ব্যক্তিগত উদ্যোগে তৈরী এই প্রকল্পের উদ্বোধন উপলক্ষে এক সাংবাদিক সম্মেলনে.
পারমানবিক নিরাপত্তা, নিকট প্রাচ্য এবং উত্তর আফ্রিকার পরিস্থিতি, বিশ্ব অর্থনীতির উন্নতি ও বহুপাক্ষিক বাণিজ্য, পরিবেশ সংরক্ষণ এবং উদ্ভাবনী প্রযুক্তি. এই রকমের অসম্পূর্ণ তালিকা হল সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নগুলির, যা বড় আট দেশের নেতারা তাঁদের ঐতিহ্য অনুযায়ী চলে আসা বৈঠকে করতে চলেছেন. এবারে তা হচ্ছে ফ্রান্সের দোভিল শহরে.
রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি মেদভেদেভ টুইটার সাইটে স্কুল শেষ করার জন্য দেশের পড়ুয়াদের অভিনন্দন জানিয়েছেন. সকলকেই অভিনন্দন জানাই, যাদের জন্য আজ স্কুলের শেষ ঘন্টা পড়ল! – তিনি তাঁর টুইটারের ব্লগে এ কথা লিখেছেন. দেশের নেতা তাঁদের স্কুল শেষ করার পরীক্ষা ও উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রবেশের পরীক্ষায় সাফল্যের আশা কামনা করেছেন.
সোমবার ইথিওপিয়ার রাজধানী আদ্দিস- আবাবা শহরে ইতিহাসে দ্বিতীয় ভারত- আফ্রিকা শীর্ষবৈঠক শুরু হয়েছে. ভারতের পক্ষ থেকে এক বিশাল প্রতিনিধি দল, যার মধ্যে দেশের নামী ব্যবসাযীরা রয়েছেন, তাঁদের সঙ্গে নিয়ে এখানে দলের নেতা হিসাবে এসেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী ডঃ মনমোহন সিংহ নিজে.
রাশিয়ার ইন্টারনেট অর্থনীতি ২০১৫ সালে দ্বিগুণ হতে চলেছে – এই রকমের এক ভবিষ্যদ্বাণী করেছেন বস্টন কনসাল্টিং গ্রুপ নামের আন্তর্জাতিক কোম্পানীর বিশ্লেষকেরা. ইন্টারনেটের রাশিয়ার অর্থনীতিতে ভাগ ২০০৯ সালের সম্পূর্ণ ফলাফলের ভিত্তিতে দেখা গিয়েছে খুবই বেশী – প্রায় ২০ বিলিয়ন ডলার. এটা দেশের সার্বিক জাতীয় উত্পাদনের শতকরা ১, ৬ ভাগ.
মে মাসের কয়েকটি দিনে মস্কো বিশ্বের হেলিকপ্টার নির্মাণের কেন্দ্র হতে চলেছে. "হেলিরাশিয়া ২০১১" প্রদর্শনীতে (১৯ থেকে ২১ শে মে) ইউরোপের একটি বৃহত্তম প্রদর্শনী কমপ্লেক্স "ক্রোকুস এক্সপো" চত্বরে প্রথম সারির হেলিকপ্টার কোম্পানীরা তাদের নিয়মিত উত্পাদিত ও ভবিষ্যতের মডেলের ঘুরন্ত ডানা ওয়ালা যন্ত্র দেখাতে নিয়ে আসছেন.     এই বছরে রেকর্ড সংখ্যক কোম্পানী অংশ নিতে চলেছেন, ১৬টি দেশের ১৬১ টি কোম্পানী.
বিশ্বে প্রথম নক্ষত্র উদ্যান খোলা হতে চলেছে ২০১৩ সালে ইউনিভার্সিয়াডের সময়ে রাশিয়ার কাজান শহরের উপকণ্ঠে. এই উদ্যান এখানের মহাকাশ নক্ষত্র অবস্থান নিরুপণ কেন্দ্রের অংশ হিসাবে তৈরী হতে চলেছে. এই কেন্দ্রের নাম ভি. পি. এঙ্গেলগার্ডট মহাকাশ পর্যবেক্ষণ কেন্দ্র.     তাতারস্থান রাজধানীর কাছেই বহুমুখী কেন্দ্র স্থাপিত হচ্ছে.
রুশ পরিবেশ বিজ্ঞানী ওলগা স্পেরানস্কায়া রাষ্ট্রসংঘ প্রদত্ত পরিবেশ সংরক্ষণ বিষয়ে "বিশ্বের রক্ষাকর্ত্রী" পুরস্কার পেয়েছেন.     ২০০৫ সাল থেকে রাষ্ট্রসংঘের উদ্যোগে এই পুরস্কার দেওয়া শুরু হয়েছে. এই পুরস্কার দেওয়ার সময় থেকে ৪৬ জন পুরস্কৃত হয়েছেন, তাঁদের মধ্যে রয়েছেন – রাজনীতিবিদ, সংস্কৃতি জগতের উল্লেখযোগ্য ব্যক্তিত্ব এবং অবশ্যই পরিবেশ বিশেষজ্ঞরা.
চীনের মতো রাশিয়ায় ইন্টারনেটের নিয়ন্ত্রণ কঠোর করার পরিকল্পনা নেই. তবুও অবাঞ্ছিত চিঠি দিয়ে বিজ্ঞাপনের ব্যবহারকে ফৌজদারী আইন দিয়ে বিচার করা হতেও পারে, কারণ বর্তমানে এর থেকে ক্ষতি হচ্ছে প্রায় একশো এক চল্লিশ হাজার কোটি রুবল. এ সম্বন্ধে বলেছেন যোগাযোগ ও প্রচার মাধ্যম সংক্রান্ত মন্ত্রী ইগর শেগোলেভ.
রাশিয়া এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় দেশ গুলিতে হেলিকপ্টার সরবরাহ বাড়াচ্ছে. বর্তমানে এই অঞ্চলে প্রায় দেড় হাজার রুশ নির্মিত হেলিকপ্টার ব্যবহার করা হচ্ছে, তার কারণ হয়েছে ভরসা যোগ্যতা, বহু দূর একটানা ওড়ার ক্ষমতা, বেশী মাল পরিবহনের ক্ষমতা. প্রধান ক্রেতা দেশ গুলি চিন, ভারত, ভিয়েতনাম, মালয়েশিয়া ও ইন্দোনেশিয়া.
আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল বর্তমানের প্রধান ডোমিনিক স্ত্রস কানের নেতৃত্বে পশ্চিমের সংবাদ মাধ্যমের ভাষায় একেবারেই নতুন নীতির জন্মের পথে মোড় ফিরিয়েছে, কারণ বর্তমানের অর্থনৈতিক বাস্তব বুঝতে বাধ্য করেছে যে, একেবারে বল্গা হীণ বিনিয়োগ নীতি, যা সঙ্কট পূর্ব সময়ে সারা বিশ্বে মনে করা হয়েছিল গণতন্ত্র প্রসারের অন্যতম অস্ত্র তা একেবারেই অসফল.
প্রধানমন্ত্রী রাশিয়ার যন্ত্র উত্পাদকদের ভোলগা নদীর পাড়ে তোলিয়াট্টি শহরে আয়োজিত সম্মেলনে বক্তৃতা দিতে গিয়ে এই কথা বলেছেন. তিনি বলেছেন যে, সরকার হিসাব করে দেখছে যে, নির্দিষ্ট ক্ষেত্রে সামরিক শিল্প উত্পাদকদের শতকরা ১০০ ভাগ অর্থ আগাম দেওয়ার বিষয়টিকে.
২০০৯ সালে বিশ্বের অন্যান্য সব দেশের মধ্যে রাশিয়া প্রতিরক্ষা বিষয়ে তিন হাজার আটশো কোটি ডলারের সমান ব্যয় করেছিল. এই তথ্য দিয়েছে বিশ্ব অস্ত্র বিক্রয় বিশ্লেষণ কেন্দ্র. এটা বিশ্বে সপ্তম বড় ব্যয় ও তার অর্থ হল যে, বিগত কয়েক বছরের তুলনায় সামরিক খাতে খরচের পরিমান যথেষ্ট বেশী মনোযোগ দিয়ে বৃদ্ধি করা হয়েছে, কারণ আগে রাশিয়া ছিল একাদশ স্থানে.
গণতন্ত্রের ভিত্তি সুদৃঢ় করা ও সমাজের সার্বিক উন্নতির জন্য মুক্ত সংবাদ মাধ্যম এক অনন্য ভূমিকা পালন করে থাকে. এই বাক্য ১৯৯৩ সালে রাষ্ট্রসংঘের সাধারন সভায় গৃহীত সিদ্ধান্তের ভিত্তি হয়েছে ও ৩রা মে দিনটিকে স্বাধীন সংবাদ মাধ্যম দিবস বলে ঘোষণা করা হয়েছে.     এই দিনটি পালন করার উদ্যোগ আফ্রিকার দেশগুলির প্রতিনিধিরা নিয়েছিলেন.
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30 31
মে 2011
ঘটনার সূচী
মে 2011
1
2
4
5
6
7
8
9
10
14
15
18
20
21
22
25
27
28
29
30
31