×
South Asian Languages:
উদ্ভাবনী, এপ্রিল 2011
মানবেতিহাসে সবচেয়ে বড় প্রযুক্তিগত বিপর্যয়ের প্রতীক হয়েছে ২৫ বছর আগে ইউক্রেনের পারমানবিক বিদ্যুত কেন্দ্রের প্রথম নিদর্শন – চেরনোবিল পারমানবিক বিদ্যুত কেন্দ্র. চতুর্থ রিয়্যাক্টর ব্লকের বিস্ফোরণ ও ৫০০টি হিরোশিমা বোমার সমান তেজস্ক্রিয় বিকীরণ বহু লক্ষ লোকের জীবনে পরিবর্তন এনে দিয়েছে.
মস্কো শহরের দক্ষিণ পূর্বে মারিনো অঞ্চলে একটি ইকো অফিস তৈরী হবে. এই বাড়িটিকে তাপ ও বিদ্যুত সরবরাহ হবে নিজের থেকেই. ভবিষ্যতে এই অফিসকে স্থপতিরা বানাতে চাইছেন একেবারে শূণ্য পর্যায়ে, অর্থাত্ বাইরের কোন রকমের রিসোর্স এখানে ব্যবহার করা হবে না.     এই ইকো অফিস তৈরী করতে যাচ্ছেন সেন্ট পিটার্সবার্গের "টেট্রা ইলেকট্রিক" নামে কোম্পানী.
রাশিয়াতে এক সারি পুরানো পারমানবিক শক্তি কেন্দ্র ও রিয়্যাক্টর থামিয়ে দেওয়া হবে. রসঅ্যাটম ও রসটেখনাদজোর সংস্থা ঠিক করেছে পুরনো পারমানবিক রিয়্যাক্টর গুলিকে পরীক্ষা করে দেখা হবে. যদি এই পরীক্ষার ফলে প্রমাণ হয় যে, এই গুলি চালু রাখতে গেলে খুবই জটিল বাড়তি নিরাপত্তার ব্যবস্থা নেওয়ার দরকার আছে, তবে সেগুলি বন্ধ করা হবে.
রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ সমস্ত দেশকে একত্রে পারমানবিক সন্ত্রাসের মোকাবিলা করার আহ্বান জানানোর সিদ্ধান্ত বহাল করেছে. এই দলিল তৈরী করার কাজে সাতটি দেশ অংশ নিয়েছে, তার মধ্যে রাশিয়া ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রও রয়েছে. এই দলিলে বিশেষ কমিটিকে আরও দশ বছর কাজ করার মেয়াদ বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে, যা কালো বাজার কে লক্ষ্যে রাখে ও সেখানে গণহত্যার অস্ত্র আসাকে নিরোধ করে.
২০২০ সালের মধ্যে বার্ষিক জাতীয় আয়ের সূচকে রাশিয়া বিশ্বের পাঁচটি উন্নততম দেশের মধ্যে থাকবে, ফ্রান্স ও ইতালির মত দেশ গুলিকে পার হয়ে. রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী ভ্লাদিমির পুতিন এই ঘোষণা করেছেন. তিনি রাশিয়ার লোকসভায় প্রশাসনের বার্ষিক কাজকর্মের ফলাফল নিয়ে বক্তৃতা দিতে গিয়ে এই কথা বলেছেন. লোকসভার সামনে মন্ত্রীসভার কাজের বিবরণ দেওয়ার ঐতিহ্য বর্তমানে – বেশী দিনের নয়.
"ফুকুসিমা -১" দূর্ঘটনার পরে রাশিয়ার পারমানবিক বিদ্যুত কেন্দ্র গুলিতে আপত্কালীণ পরীক্ষা প্রমাণ করে দিয়েছে যে, রাশিয়ার কেন্দ্র গুলি নিরাপদ. এই বিষয়ে রাশিয়ার "রসঅ্যাটম" কোম্পানীর প্রধান সের্গেই কিরিয়েঙ্কো কিয়েভে চেরনোবিল পারমানবিক কেন্দ্রের দূর্ঘটনার ২৫ বছর উপলক্ষে আয়োজিত এক সম্মেলনে ঘোষণা করেছেন.
পারমানবিক শক্তি ব্রিকস সংগঠনের দেশগুলির ভবিষ্যতের জ্বালানী শক্তি বিষয়ক উত্সের মধ্যে একটি গুরুত্বপূর্ণ তম অঙ্গ থাকবেই. এই বিষয়ে ব্রাজিল, রাশিয়া, ভারত, চিন ও দক্ষিণ আফ্রিকার বৈঠক শেষে গৃহীত সম্মিলিত ঘোষণা পত্রে উল্লেখ করা হয়েছে.
১২ই এপ্রিল সারা বিশ্বের রেডিও তরঙ্গের শ্রোতারা মহাকাশ থেকে ইউরি গাগারীনের কন্ঠস্বর নিজেদের যন্ত্রে শুনতে পাচ্ছেন. ঐতিহাসিক ধ্বণির রেকর্ডিং ও তার মধ্য গাগারীনের বিশ্ব বিখ্যাত "চলো যাই!" পৃথিবীর কক্ষপথ থেকে ছোট উপগ্রহ "কেদর" সম্প্রচার করছে. এই উপগ্রহের নাম দেওয়া হয়েছে বিশ্বের প্রথম মহাকাশচারীর পৃথিবীর সঙ্গে যোগাযোগের সাঙ্কেতিক নাম থেকে.
ইউরি গাগারীনের মহাকাশ ভ্রমণ বিংশ শতাব্দীর এক উজ্জ্বল ও ভাগ্য নির্দেশক ঘটনা হতে পেরেছিল ও তা মানবেতিহাসের এক নূতন অধ্যায়ের সূচনা করেছে. রাশিয়ার লোকেরা এই বিষয়ে গর্ব অনুভব করেন যে, প্রথম ও নির্দিষ্ট পদক্ষেপ মহাকাশ অভিযানের ক্ষেত্রে তাঁদের দেশের লোকই করেছিলেন.
রাশিয়ার কোম্পানী গাজপ্রম দক্ষিণ এশিয়ার ১৫ কোটি লোক অধ্যুষিত বাংলাদেশে কাজ করতে তৈরী. বিশাল গাজপ্রম কোম্পানীর প্রধান আলেক্সেই মিলার ও এই দেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রী দীপু মনি বাংলাদেশে সম্ভাব্য গ্যাস পরিবহন পরিকাঠামো ও খনিজ তেল ও গ্যাস উত্পাদন ক্ষেত্র অনুসন্ধান নিয়ে আলোচনা করেছেন.
এবার থেকে ১২ই এপ্রিল সারা বিশ্বে আন্তর্জাতিক প্রথম মহাকাশচারী দিবস পালিত হবে. আজ আনুষ্ঠানিক ভাবে রাষ্ট্রসংঘের সাধারন সভায় এই সম্বন্ধে ঘোষণা করা হবে. নিউইয়র্কের রাষ্ট্রসংঘের প্রধান দপ্তরে ইউরি গাগারীনের মহাকাশচারনার সুবর্ণ জয়ন্তী উত্সবের প্রাক্কালে এই অনুষ্ঠান হতে চলেছে.     এখন অবধি ১২ই এপ্রিল – শুধু রাশিয়াতেই মহাকাশ গবেষণা দিবস পালিত হত.
জেনেভায় আন্তর্জাতিক নবায়নী প্রদর্শনীতে রাশিয়া বেশ কিছু নতুন উদ্ভাবনী দেখাবে. রাশিয়ার প্রতিনিধিদলে জানানো হয়েছে যে, এ সব উদ্ভাবনী বিদ্যুত্শক্তি, প্রতিবেশ সংরক্ষণ, চিকিত্সাবিজ্ঞান, বায়ো-টেকনোলজি ও কম্পিউটার প্রযুক্তির ক্ষেত্রে. এর মধ্যে আছে – ভাসমান মিনি বিদ্যুত্ কেন্দ্র, সার্জিক্যাল অপারেশনের জন্য অনুপম টেলিমেট্রিক সরঞ্জাম, অতি দ্রুতগতি কম্পিউটার. এ প্রদর্শনীতে মোট ৪৫টি দেশ নিজেদের উদ্ভাবনী প্রদর্শন করবে.
১২ই এপ্রিল ইউরি গাগারীনের ঐতিহাসিক প্রথম মহাকাশচারনার ৫০ বছরের জয়ন্তী উত্সবে যোগ দিতে নাসার প্রধান চার্লস বোল্ডেন মস্কো আসছেন. এই বিষয়ে ওয়াশিংটনে বর্তমানে সফররত রুশ উপ প্রধানমন্ত্রী সের্গেই ইভানভ জানিয়েছেন. তাঁর কথামতো মস্কোতে বিশ্বের সমস্ত মহাকাশ গবেষণা সংস্থার প্রধানকেই আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে.
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30
এপ্রিল 2011
ঘটনার সূচী
এপ্রিল 2011
1
2
3
4
5
8
9
10
13
15
16
17
18
20
22
23
24
27
28
29
30